৭ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাইকারীর মূলহোতাসহ গ্রেফতার-৩

    0
    37

    এম ওসমান, বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  যশোরের শার্শায় ডাচ-বাংলা এজেন্ট ব্যাংকের এক কর্মচারীর কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া ৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। সুজন, নোমান ও সাকিন নামে ৩ ছিন্তাইকারীকে আটক করা হয়েছে। এসময় ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত একটি মটরসাইকেল ও একটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে।

    শার্শা উপজেলার নাভারন বাজার ডাচ-বাংলা এজেন্ট ব্যাংকের সত্বাধিকারী শরিফ জানান, শার্শার নাভারন সাতক্ষীরা মোড়ে তার ডাচ-বাংলা এজেন্ট ব্যাংকের শাখা রয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে কর্মচারী শিমুল একটি প্যাকেটে ৭লাখ ৮০ টাকা নিয়ে বেনাপোল থেকে নাভারনের দিকে আসছিলেন। এসময় যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের শার্শা বলফিল্ডের সামনে দুটি মোটরসাইকেলে ৩ ব্যক্তি মাস্ক পরিহিত অবস্থায় শিমুলের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। এরপর তাকে মারপিট করে মারত্বক আহত করে তার কাছে থাকা টাকা ভর্তী ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি শার্শা থানা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থাকে অবহিত করা হয়।

    এ বিষয়ে শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম খান বলেন, ঘটনার পর থেকে পুলিশ সুপার মহোদয়ের দিক নির্দেশনায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) সালাহ উদ্দীন শিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাম্মদ তৌহিদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক) সার্কেল গোলাম রব্বানী শেখ’র সার্বিক তত্ত্বাবধানে ওসি ডিবি সোমেন দাশের নেতৃত্বে এসআই শামীম হোসেন সঙ্গীয় ডিবি পুলিশের একটি চৌকশ টিম ও শার্শা থানা পুলিশ বুধবার গভীর রাতে বেনাপোল পোর্ট থানাধীন ভবেড়বেড় ও বড়আঁচড়া এলাকায় যৌথ অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাইকারী ৩ জনকে গ্রেফতার করেন। সে সময় তাদের হেফাজত হইতে ছিনতাই হওয়া ৭লাখ ৮০ টাকার মধ্যে ৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকা আসামী সুজনের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ভিকটিমের মোবাইল ফোনটি নোমানের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয়। ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত একটি পালসার মটরসাইকেল (রেজিঃ বিহীন) জব্দ হয়।

    তাদেরকে ব্যাপক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তাদের নিকট অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র আছে মর্মে স্বীকার করলে পুনরায় বৃহষ্পতিবার বেলা সাড়ে ১২ টাার সময় ডিবি পুলিশ ও শার্শা থানা পুলিশ বেনাপোল পোর্ট থানাধীন ভবেরবেড় গ্রামে আসামী নোমানোর বসত বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করে আসামী সুজনের দেখানো ও নিজ হাতে বাহির করে দেওয়া মতে ১টি ওয়ান স্যুটার গান জব্দ করা হয়।
    বৃহষ্পতিবার বিকালে আসামীদেরকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করলে তারা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জনাব শম্পা বসুর আদালতে কাঃবিঃ ১৬৪ ধারা মোতাবেক স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী প্রদান করেন। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অস্ত্র মামলায় রিমান্ডের আবেদন করা হইয়াছে বলে জানা গেছে।