হবিগঞ্জের আজমিরিগঞ্জে সরকারি গাছ কেটে নিলেন কাউন্সিলর পুত্র!

0
146

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে কাউন্সিলর পুত্রের বিরুদ্ধে লক্ষাধিক টাকা মূল্যের সরকারি গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। পৌরসভার গরুর বাজার সংলগ্ন বিআইডব্লিউটিএ এর পরিত্যাক্ত ভবনের পিছন থেকে লক্ষাধিক টাকা মুল্যের গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও পৌর কাউন্সিলর আব্দুল মজিদের পুত্র স্বপন মিয়ার বিরুদ্ধে।

স্থানীয়রা জানান, ১৯ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) দুপুরে স্বপন মিয়া গরুর বাজার সংলগ্ন বিআইডব্লিউটিএ এর ভবনের পিছন থেকে তিনটি গাছ কেটে নিয়ে যান।
জানা গেছে, বিআইডব্লিউটিএ এর ভবনটি কয়েক বছর পুর্বে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের কয়েকজন সদস্য মুক্তিযোদ্ধা কাজল চৌধুরীর নামে একসনা বন্দোবস্ত নেন। এরপর থেকেই উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক এবায়দুর রহমান রাসেল, সদস্য সোহান মিয়া ও আব্দুর রহমান ভবনটি দেখাশুনা করে আসছেন । গত ১৯ জানুয়ারি দুপুরে ভবনটিতে কেউ না থাকার সুযোগে স্বপন মিয়া ভবনটির পিছন থেকে তিনটি সরকারি গাছ কেটে নিয়ে যান।
মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক এবায়দুর রহমান রাসেল জানান, বুধবার বিকালে আমি পারিবারিক কাজে সিলেটে যাই । পরদিন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফেরার পর আমি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হই । শনিবার দুপুরে আমি স্বপন মিয়াকে গাছ কাটার বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি জায়গা সাব লিজ নিয়ে গাছ কেটেছেন বলে জানান। বিষয়টি আমি এসিল্যান্ড মহোদয়কে অবগত করেছি।

অভিযুক্ত স্বপন মিয়া বলেন, গাছ কাটার এখতিয়ার আছে কিনা জানি না । যার নামে ভবনটি লীজ তিনি আমাকে পরিস্কার করতে বলেছেন। পরিস্কার করতে গিয়ে গাছ কাটা হয়েছে।
জেলা সহকারী বন সংরক্ষক মোহাম্মদ মারুফ হোসেন বলেন, যে কোনো উন্নয়নমুলক কাজের জন্য গাছ কাটতে হলেও অনুমতির প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তবে আজমিরীগঞ্জে গাছ কাটার বিষয়ে কেউ আমাদের অনুমতি নেননি।
আজমিরীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শফিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে উপ-সহকারী ভুমি কর্মকর্তা (তহসীলদার) কে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গাছ কাটার সত্যতা পেলে আমরা গাছ কর্তনকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবো।

রবিবার (২২ জানুয়ারি-২০২৩) সকালে সরেজমিনে তদন্ত করে গাছ কাটার সত্যতা পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন উপ-সহকারী ভুমি র্কমকর্তা সুজিত চন্দ্র দাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here