সরকারের সঙ্গে সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন খালেদা জিয়া

    0
    11

    বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সরকারের সঙ্গে সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘এই সরকারের পতন ছাড়া কোনো সমস্যার সমাধান হবে না। এ জন্য আন্দোলন করতে হবে।
    গতকাল শনিবার বিকেলে মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার পশ্চিম গোবিন্দল রেজিস্টার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত সমাবেশে বিরোধীদলীয় নেত্রী আরও বলেন, ‘আন্দোলন করতে গেলে হয়তো আরও কিছু প্রাণহানি হবে। জানমালের ক্ষতি হবে।।’
    খালেদা জিয়া এমন সময় সরকারের সঙ্গে আলোচনার কথা নাকচ করলেন, যখন দেশ-বিদেশের বিভিন্ন মহল থেকে দুই নেত্রীকে সংলাপে বসার আহ্বান জানানো হচ্ছে।
    খালেদা জিয়া নিহত ব্যক্তিদের পরিবারকে সমবেদনা জানাতে সিঙ্গাইরে আসেন। সমাবেশের আগে ওই দিনের ঘটনায় নিহত নাসির হোসেনের বাড়িতে সহিংসতার ঘটনায় নিহত চারজন ও আহত ১৬ জনের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপির চেয়ারপারসন। নিহত ব্যক্তিদের পরিবার ও আহত ব্যক্তিদের আর্থিক সহায়তাও দেন তিনি।
    পদ্মা সেতু নির্মাণে মালয়েশিয়ার বিনিয়োগ প্রস্তাবকে ‘ভাঁওতা’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন।
    পরে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে খালেদা জিয়া চারিগ্রাম শাহাদাৎ আলী খান দ্বিমুখী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে জনসভায় ভাষণ দেন। বিএনপির চেয়ারপারসন বলেন, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। তিনি সরকার পতন আন্দোলনে ১৮ ও ১৯ মার্চের হরতাল সফল করতে নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দেন। ভবিষ্যতে আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় হরতাল, অবরোধ ও ঘেরাও কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেন তিনি।
    বেলা আড়াইটার দিকে খালেদা জিয়া ঢাকা থেকে সিঙ্গাইরের উদ্দেশে রওনা হন। পথে পথে বিএনপির নেতা-কর্মীরা তাঁকে স্বাগত জানায়।
    দুটি সমাবেশে খালেদা জিয়ার সঙ্গে ছিলেন বিএনপির নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সাদেক হোসেন খোকা, আবদুল্লাহ আল নোমান ও মির্জা আব্বাস, খেলাফত মজলিসের সভাপতি মাওলানা মো. ইসহাক, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আবদুল লতিফ নেজামী প্রমুখ। 

    Khaleda

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here