শ্রীমঙ্গল উপ-নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোটকেন্দ্র দখলের আগাম অভিযোগ

0
72
শ্রীমঙ্গল উপ-নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোটকেন্দ্র দখলের আগাম অভিযোগ

আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজাপ্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ভানু লাল রায় এর বিরুদ্ধে প্রভাব বিস্তার, হামলা, ও ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে ভোটকেন্দ্র দখলের আগাম অভিযোগ করেছেন দলের বিদ্রোহী দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া প্রতীকের আফজল হক ও আনারস প্রতীকের প্রার্থী প্রেমসাগর হাজরা।

সোমবার ৪ অক্টোবর ২০২১ ইং তারিখ দুপুরে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তারা এসব অভিযোগ করেন।

ঘোড়া ও আনারস প্রতীকের পক্ষে প্রচার প্রচারনায় বাধা প্রদানসহ নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আফজল হক বলেন, এলাকার মানুষ তাকে খুব ভালোবাসেন। এলাকার মানুষের ইচ্ছায় তিনি ভোটে দাঁড়িয়েছেন। এখন নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী তার কর্মীসমর্থকদের মাঠে নামতে দিচ্ছেন না। যেকোন মূল্যে কেন্দ্র দখল করে নির্বাচনে ভোট কারচুপি করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিজয়ী হবেন,ভোটের আগের রাতে শ্রীমঙ্গল পৌরসভা ও শ্রীমঙ্গল সদর ইউনিয়নের সকল ভোট সেন্টার দখল করার পরিকল্পনা করছেন বলে বিশস্ত সূএে জানতে পেরেছেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আফজল হক এবং উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রেম সাগর হাজরা নির্বাচন কমিশন ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার সহযোগিতা কামনা করে, নির্বাচন কমিশনের কাছে দাবী জানান ভোটের দিন সকালে প্রত্যেকটি ভোট কেন্দ্রে ব্যালট পেপার পৌছানো জন্য। তারা বলেন নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের জন্য চাইলেই নির্বাচন কমিশন এমনটি করতে পাড়েন কেননা শ্রীমঙ্গল উপজেলায় কোন দূর্গম এলাকা নেই।

সংবাদ সম্মেলনে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়ে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান সকল ভোট কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষনা করে ভোট কেন্দ্রে বিজিবি মোতায়েন করার এবং প্রতিটি সেন্টারের জন্য আলাদাভাবে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের। তারা বলেন আমরাও চাই নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হোক, এই নির্বাচনে যদি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করেন তাহলে একটি সংঘাতময় পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে, যা কখনই কাম্য নয়। জনগণ ভোট দিয়ে যাকে বিজয়ী করবেন, তিনিই হবেন চেয়ারম্যান। নির্বাচনের দিন মানুষ ভোট দিতে পারলে বিজয়ী হওয়ার আশাবাদব্যাক্ত করেন এ দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী।

এই উপ-নির্বাচনে আরও দুজন চেয়ারম্যান প্রার্থী আছেন। তারা হলেন-নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ ভানু লাল রায় ও লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী জাতীয় পার্টির সদস্য মিজানুর রব।

এ ব্যাপারে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রতীক নৌকার প্রার্থী ভানু লাল রায় আমার সিলেটকে বলেন,তাদের অভিযোগ মিথ্যা ও সাজানো,জনগণ উন্নয়নের মার্কা নৌকা প্রতীকে ভোট দিবে তাতে কোন সন্দেহ নেই।বিদ্রোহী প্রার্থীদের এই রকম অভিযোগের কোন ভিত্তি নেই।   

প্রসঙ্গত শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রনধীর কুমার দে ২১ মে মৃত্যুবরণ করেন,তাঁর মৃত্যুতে এই পদটি শূন্য ঘোষণা করে গত ২ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করে ৭ অক্টোবর ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে। এ উপজেলার ৮০ টি কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ লক্ষ ৩৩ হাজার ৯১৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ১ লক্ষ ১৮ হাজার ১৯৬ ও মহিলা ভোটার ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৭২১ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here