শ্রীমঙ্গলে মুখোশধারীদের হামলায় হোটেল ভাঙচুর আহত-১

    0
    42

    সাদিক আহমদ,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল শহরের মৌলভীবাজার রোডস্থ জিলানী সুইটমিট এন্ড রেস্টুরেন্টে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্ত কর্তৃক হামলা,ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে, এতে একজন আহত হয়েছেন।সঙ্গবদ্ধ একটি মুখোশধারী দল দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে  বলে জিলানী হোটেলের মালিক মীর এম এ সালাম অভিযোগ করেন।

    তিনি বলেন, শনিবার দিবাগত রাত প্রায় সাড়ে ১১টার দিকে মানকি টুপী পরিহিত ৭/৮ জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্রসস্র নিয়ে আমার হোটেলে হামলা চালায়।ওই সময় মুহুর্তেই কোন কিছু না বোঝার আগেই তারা হামলা করে এলোপাতারি ভাঙচুর করতে থাকে।উপায়ান্তর না দেখে আমি স্টাফদের নিয়ে দ্রুত জান বাঁচাতে কিচেন রুমে গিয়ে দরজা আটকে দেয় এ সময় তাদের এলোপাতারি ভাঙচুরের সময় চায়ের কেটলির ফুটন্ত পানি আমার  দু’পায়ে পরে  এতে আমি আহত হয়।এক পর্যায়ে শ্রীমঙ্গল থানার ওসিকে ফোন করি তিনি আমার ফোন পেয়ে তাৎক্ষনিক আসেন ততক্ষণে অপরাধিরা পালিয়ে যায় পরে তিনি আমাদেরকে কিচেন থেকে উদ্ধার করেন।

    উল্লেখ্য,মীর এম এ সালাম জিলানী সুইটমিট এন্ড রেস্টুরেন্টের মালিক,তিনি শ্রীমঙ্গল পৌরসভার কাউন্সিলর। বর্তমানে তিনি প্যানেল মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

    কাউন্সিলর সালাম আরও জানান “সন্ত্রাসীরা প্রায় ৭০ থেকে ৮০ হাজার নগদ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে এবং প্রচুর মালামাল ক্ষতি করেছে যার পরিমাণ দু লক্ষাধিক ছাড়িয়ে যেতে পারে।”  হামলার কারণ তিনি নিজেও জানেন না বলে জানান। কে বা কারা হামলা চালিয়েছে তা তিনি নিশ্চিত নয় এবং আহত থাকার কারনে এখনো মামলা কারেননি।জানা গেছে শ্রীমঙ্গল ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ হামলাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

    স্থানীয় পুলিশের কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল ইসলামসহ পুলিশের একটি টীমসহ হোটেলটি পরিদর্শন করেছেন এবং অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন। 

    হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ মালামাল।