শ্রীমঙ্গলে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২১ উপলক্ষ্যে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

0
81
শ্রীমঙ্গলে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২১ উপলক্ষ্যে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

নূর মোহাম্মদ সাগর,শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: বেশি বেশি মাছ চাষ করি, বেকারত্ব দূর করি” এ স্লোগানকে উপলক্ষ্য করে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের সভা কক্ষে আজ ২৮ আগস্ট শনিবারে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মত বিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন,শ্রীমঙ্গল উপজেলার মৎস্যজীবীর মানা উন্নয়ন পুকুর, খাল, বিল ও ঐতিহ্যবাহী শ্রীমঙ্গলের বাইক্কা বিল’ নিয়ে বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. ফারাজুল কবির। তিনি বলেন,জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ’র প্রথম দিনে উপজেলায় মাইকিং, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার সাজিয়ে মৎস্য সপ্তাহ’র ব্যাপক প্রচারণা করেছে। তিনি জানান শ্রীমঙ্গল উপজেলা মৎস্য অফিস, সাংবাদিকদের মাধ্যমে উপজেলার সকল মৎস্য চাষি, মৎস্যজীবী, আড়ৎদার, মৎস্য সেক্টরের সাথে জড়িত সকলকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ স্বাধীন হবার দুই বছর পরে কুমিল্লায় এক জনসভায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান “মাছ হবে দ্বিতীয় বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী সম্পদ” এ মর্মে ঘোষনা দেন। আজ বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের পরই মৎস্য ও মৎস্যজাত দ্রব্য সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে শুধু তাই নয় গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর প্রাণীজ আমিষের ৬০ শতাংশ যোগান দেয় মাছ।

তিনি আরো বলেন আপনারা জেনে অত্যন্ত খুশি হবেন যে, বাংলাদেশ এখন মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। মৎস্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে মাছ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৩.৪১ লক্ষ মেট্রিক টন। মাছ উৎপাদন হয়েছে ৪৩.৮৪ লক্ষ মেট্রিক টন।

বাংলাদেশের আপামর জনগােষ্ঠীর খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি চাহিদা পূরণ,দারিদ্র্য বিমােচন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে মৎস্য সেক্টরে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। বর্তমান মৎস্যবান্ধব সরকারের দূরদর্শী নেতৃত্ব, জনবান্ধব ও সমন্বিত উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ, সফল বাস্তবায়ন, চাষি পর্যায়ে চাহিদা মাফিক সম্প্রসারণ সেবা প্রদান ও মৎস্যচাষি-উদ্যোক্তাদের নিরন্তর পরিশ্রমের ফলে বাংলাদেশ মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার ২০২০ প্রতিবেদন অনুযায়ী অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ে মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশ ৩য় স্থান ধরে রেখে বিগত ১০ বছরে স্বাদুপানির মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির হারে দ্বিতীয় স্থানে উন্নীত হয়েছে এবং বদ্ধ জলাশয়ে চাষকৃত মাছ উৎপাদনে ৫ম স্থান গত ছয় বছরের মতোই ধরে রেখেছে। পাশাপাশি বিশ্বে সামুদ্রিক ও উপকূলীয় ক্রাস্টাশিয়া ও ফিনফিস উৎপাদনে যথাক্রমে ৮ম ও ১২ তম স্থান অধিকার করেছে। বিশ্বের ১১ টি দেশে ইলিশ উৎপাদন হয় আর ইলিশ উৎপাদনে বিশ্বে ১ম; তেলাপিয়া উৎপাদনে বাংলাদেশ বিশ্বে ৪র্থ এবং এশিয়ার মধ্যে ৩য় স্থান অধিকার করেছে। শ্রীমঙ্গল উপজেলায় মোট মাছের চাহিদা-৭৫৪৫ মেট্রিক টন,উৎপাদন-৯২৯৬ মেট্রিক টন, শ্রীমঙ্গলে সবচেয়ে বেশি উৎপাদন হয়েছে রুই মাছ-১০২৩.৫ মেট্রিক টন উদ্ধৃত-১৭৫১ মেট্রিক টন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here