যখন কেকে ছুরি চালায় মনে হয় আমার বুকে:প্রধানমন্ত্রী

    0
    36

    আমার সিলেট  24 ডটকম,২৩অক্টোবরবিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ১৫ আগস্ট মিথ্যা জন্মদিন পালন করেন বলে অভিযোগ করে তা বন্ধের অনুরোধ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। এসময় আবেগজড়িত কন্ঠে প্রধানমন্ত্রী বলেন, উনি (খালেদা জিয়া) সেদিন যখন কেকে ছুরি চালায়, তখন মনে হয় আমার বুকে ছুরি চালাচ্ছেন। আমার প্রিয় রাসেল আমার বুকে বসে আছে। মনে হয় আমার রাসেলের বুকে ছুরি চালাচ্ছেন। এরপর খালেদা জিয়ার স্কুল রেজিস্ট্রেশনে যে জন্মদিন আছে, সেটি পালন করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

    আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব বলেন। আয়োজক সংগঠনের মহাসচিব মাহমুদ-উস-সামাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান আবুল বারাকত, সংগঠনের উপদেষ্টা সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, সংগঠনের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি কে এম শহিদুল্লাহ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মুজাহিদুর রহমান, সংগঠনের ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক শেখ মুজিবুর রহমান হাওলাদার প্রমুখ।
    অনুষ্ঠানে ছোটভাই শেখ রাসেলের কথা বলতে গিয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে শেখ হাসিনা বলেন, যে ফুলটা ফোটার আগেই ঝরে গেছে। বাংলাদেশে এই ঘটনা যেনো আর না ঘটে। রাসেল ছোটবেলা থেকেই অত্যন্ত মেধাবী ছিল। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে মায়ের সঙ্গে বন্দি হয়েছিল সে। রাসেলের স্বপ্ন ছিল সেনা কর্মকর্তা হবে। তার সে স্বপ্ন পূরণ হবে না। তিনি বলেন, পারিবারিকভাবে আমরা দুই বোন যে যে সম্পদ পেয়েছিলাম তা দিয়ে একটি ট্রাস্ট গঠন করেছি। এই ট্রাস্ট থেকে অসহায় শিশু কিশোরদের সাহায্য করা হয়। এই ট্রাস্ট শিশুদের সহযোগিতা করছে।
    প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ দেশের শতভাগ শিশু পড়াশোনা করছে। শিশুরা বই পাচ্ছে বছরের শুরুতেই। আমি আশা করি তোমার পড়াশোনা করবে, মানুষের মতো মানুষ হবে। জাতির পিতা সোনার বাংলা গড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন তোমরা হবে সোনার মানুষ। একদিন তোমরা বড় হবে, বড় বড় জায়গায় যাবে, আমার মতো মন্ত্রী হবে।
    এরপর অনুষ্ঠানে দাবা, চিত্রাঙ্কন, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী এবং এসএসসি পরীক্ষায় কৃতি ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here