বাড়ছে শীতের দাপট হাকালুকিতে আসছে অতিথি পাখি

    0
    20

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৮নভেম্বর,হাবিবুর রহমান খানঃ দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকিতে ইতিমধ্যে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে আসতে শুরু করেছে অতিথি পাখি।হাকালুকি হাওর কেবল দেশের সবচেয়ে বড় হাওর নয়, এটি এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ মিঠাপানির জলাশয় হিসেবেও পরিচিত।

    আমাদের এইদেশ ছয় ঋতুর বাংলাদেশ।একেক সময়ে ধারণ করে একেক রূপ। আর প্রতিটি রূপেরই রয়েছে কিছু বিশেষত্ব।এগুলোর একটি হচ্ছে শীতকালে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা পরিযায়ী পাখি।প্রতিবারের মতো এবারও শীত শুরু হতে না হতেই শীতের অতিথিরা হাজার হাজার মাইল দূর থেকে উড়ে আসতে শুরু করেছে আমাদের এই হাকালুকিতে।

    মৌলভীবাজার জেলার হাওর হাকালুকিতে এরই মধ্যে দেখা মিলছে তাদের। সারারাত খাবার সংগ্রহ করার পর ভোরবেলা নিজের তৈরি করা অস্থায়ী বাসস্থানে ফিরে ক্লান্তি দূর করছে অতিথি পাখির দল। শীতের শুরুতেই মৌলভীবাজার জেলার, কুলাউড়া, জুড়ী, বড়লেখা উপজেলার একাধিক জায়গায় ঝাঁকে ঝাঁকে বিভিন্ন প্রজাতির অতিথি পাখি আসতে শুরু করেছে। ভিনদেশি এসব অতিথি পাখি হয়ে উঠেছে এসব এলাকার মানুষের বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম।আট বছর আগে হঠাৎ এক শীতে আসতে শুরু করে পরিযায়ী পাখি।এরপর থেকে প্রতি বছর শীত এলেই আসে পাখি।আমরাও অতিথিদের অপেক্ষায় থাকি প্রতি বছর।সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি খাবার সংগ্রহের জন্য বেড়িয়ে পড়ে। আবার ভোর হতে না হতেই চলে আসে নিজের বাসস্থানে। অতিথি পাখির কলতানে এখন মুখরিত এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকির আকাশ-বাতাস। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত নানা প্রজাতির শীতের পাখি প্রতিদিনই খেলা করছে ২৩৮ টি বিলবেষ্টিত হাওরে। সারাদিন পাখির কলকাকলিতে ভরে থাকে আমাদের চারপাশ।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here