বন বিভাগের গাছ চুরি হলেও সারী বিট কর্মকর্তারা কিছুই জানেন না!

0
60
বন বিভাগের গাছ চুরি হলেও সারী বিট কর্মকর্তারা কিছুই জানেন না!

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি: সিলেট তামাবিল মহাসড়কের হরিপুর বাজার সংলগ্ন এলাকার ছাত্রনেতা সায়েম আহমদের বাড়ীর সম্মুখস্থ এলাকা হতে বন বিভাগের মূল্যবান গাছ চুরি। এলাকাবাসী গাছ আটক করলেও নিরবতা পালন করছে সারী রেঞ্জ ও সারী বিট।

২৪ অক্টোবর রোববার সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ২৪ হরিপুর-গাছবাড়ী রাস্তা সংলগ্ন আব্দুল হামিদের মালিকানাধীন সো-মিলে মিলটি ভাড়া নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন আনোয়ার হোসেন। বন বিভাগের চুরি হওয়া গাছের টুকরো পাওয়া যায় আনোয়ার হোসেনের মিলে।

স্থানীয় বাসিন্ধা সাহেদ আহমদ বলেন, রাতে কোন এক সময় গাছ গুলো কেটে নিয়ে আনোয়ারের মিলে রাখা হয়েছে। এলাকাবাসী আরও বলেন বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকা হতে চুরি হওয়া গাছ আসে এমনটাই অভিযোগ উঠেছে। এদিকে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে স্থানীয় প্রভাবশালী চক্র চেষ্টা চালাচ্ছে।

উপজেলা আওয়ামীলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক জাকারিয়া মাহমুদ বলেন, হরিপুর এলাকায় সড়ক ও জন পথের রাস্তার বিভিন্ন কিলোমিটারে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে বন বিভাগের আওতায় বিভিন্ন উপকারভোগী সমিতির সদস্যদের মাধ্যমে বৃক্ষ রোপন করা হয়। গাছ গুলো বিভিন্ন সময় চুরি হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে বন বিভাগ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান।

বর্তমান মিল মালিক আনোয়ার হোসেন বলেন, আমার মিলটি ভাড়া নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। কয়েকদিন হতে মিলটির বিদ্যুতের ট্রান্সমিটার নষ্ট হওয়ায় তা বন্দ রয়েছে। তাই মিলে মানুষ না থাকায় কে বা কাহারা গাছ টুকরো গুলো রেখে গেছে আমি কিছুই জানি না।

জৈন্তাপুরস্থ সারী বিট ও সারী রেঞ্জের রেঞ্জার সাদ উদ্দিন আহমদ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই এমনকি কেউ গাছ চুরি ও উদ্ধার হওয়ার বিষয়টি আমাদের জানায়নি। আমি লোক পাঠিয়ে খরব নিচ্ছি। যদি বন বিভাগের হয় তাহলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here