প্রহসনের নাটক নির্বাচন কমিশন মঞ্চস্থ করেছেঃমির্জা ফখরুল

    0
    7

    আমারসিলেট24ডটকম,১ডিসেম্বরঃ গতকাল রোববার রাতে এক বিবৃতিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, সরকারের পোষ্য নির্বাচন কমিশন তড়িঘড়ি করে নির্বাচনের আগেই আওয়ামী ঘরানার কর্মকর্তাদের দিয়ে সাজানো প্রশাসনের সহযোগিতায় ১৫৪ জন ব্যক্তিকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করে প্রহসনের নাটক নির্বাচন কমিশন মঞ্চস্থ করেছে, তা নজিরবিহীন এক লজ্জাজনক ঘটনা।

    তিনি আরও বলেন,আমরা স্পষ্টভাষায় বলে দিতে চাই, সাজানো প্রশাসনের নির্বাচনের প্রহসন ও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথিত ফলাফল বাতিলসহ নির্বাচনী কার্যক্রম অনতিবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।

    বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এত প্রার্থী বিজয়ী হওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার বলেছিলেন, “সমঝোতার” মাধ্যমে প্রার্থী দেয়ায় এই সংখ্যা কম হয়েছে। বিএনপি নির্বাচনে এলেও একই প্রক্রিয়া নেয়া হত।

    প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির মুখপাত্র মির্জা ফখরুল বলেন, এতে থলের বিড়াল বেরিয়ে এসেছে। এটা প্রমাণ করে, প্রধানমন্ত্রী  জনগণকে সকল ক্ষমতার উৎস কখনোই মনে করেন না এবং জনগণের ভোটের প্রতিও তার কোনো আস্থা নেই।

    ফখরুল বলেন,জনগণের রায়কে প্রধানমন্ত্রী ভয় পান বলেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভূমিধস পরাজয়কে এড়ানো ও গণরোষ থেকে বাঁচার জন্য ভোটারদের অর্ধেকেরও বেশি সংসদীয় আসনে ভোট দেয়ার সুযোগ না দিয়ে তথাকথিত প্রতিদ্বন্দ্বিতাবিহীন নির্বাচনে সংসদ সদস্য হওয়ার কলঙ্ককে বরণ করে নিতে কুণ্ঠিত হননি।

    নির্দলীয় সরকারের দাবিতে হরতালের পর টানা অবরোধ চালিয়ে যাচ্ছে ১৮দল, যাতে দমন-পীড়ন চালানোর অভিযোগও সরকারের বিরুদ্ধে রয়েছে। বিজয় দিবসের পর নতুন করে অবরোধের কর্মসূচি ঘোষণার আলোচনাও রয়েছে।অন্যদিকে সরকারের পক্ষ থেকে ও  যে কোন নাশকতার বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

    উল্লেখ্য,বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের অবরোধের মধ্যেই দশম সংসদ নির্বাচনের কাজ এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে অর্ধেকের বেশি আসনে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলছেন।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here