প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে কাজ শুরু করেছেন নরেন্দ্র মোদি

    0
    16

    আমারসিলেট24ডটকম,২৭মেঃ ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবেআনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব বুঝে নিয়ে কাজ শুরু করেছেন নরেন্দ্র দামুদরাস মোদি। এ সময়ভারতের জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধীর ছবির সামনে গোলাপের পাপড়ি রেখে ও অবনতমস্ককে শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি তার কাজ শুরু করেন। আজ মঙ্গলবার সকালেপ্রধানমন্ত্রীর আসনে বসেই কয়েকটি নথিপত্রে তিনি সই করেছেন। এর আগে সকালেদিল্লির গুজরাট ভবন থেকে দক্ষিণ ব্লকে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের যান ভারতেরনতুন প্রধানমন্ত্রী। এদিকে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মোদি তার ৪৫ সদস্যেরমন্ত্রিসভার সদস্যদের প্রথম বৈঠকে বসবেন। সকালেই সব মন্ত্রীর দায়িত্বভারবুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। মোদির শীর্ষ ৪ মন্ত্রীর মধ্যে প্রথমে আছেন রাজনাথ সিং।তাকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, তিনি বিজেপি সরকারের ২ নম্বরব্যক্তি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। এরপর আছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমাস্বরাজ ও অর্থমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রী অরুণ জেটলি।
    আজ সকাল ঠিক ৮টা ৫০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে যান নরেন্দ্র মোদি। দেশের প্রধানমন্ত্রীহিসাবে শপথ গ্রহণের প্রায় ১৫ ঘণ্টা পর প্রধানমন্ত্রীর দফতরের দায়িত্বগ্রহণ করেন তিনি। গুজরাট ভবন থেকে প্রধানমন্ত্রীর দফতর সাউথ ব্লকের দূরত্ব ৫মিনিটের পথ। ৮ টা ৪৪ মিনিটে গুজরাট ভবন থেকে মোদির কনভয় রওনা হয় সাউথব্লকের উদ্দেশে। মোদির পরনে ছিল বিস্কিট রঙের ফুলহাতা পাঞ্জাবি। চকোলেটরঙের গলাবন্ধ জওহর কোট। সাদা চুড়িদার পাজামা ও কালো বেল্টের জুতো। গতকালশপথগ্রহণের সময় কালো ব্যান্ড ও কালো ডায়ালের যে ঘড়িটি হাতে ছিল, সেটি আজওপরেছিলেন মোদি। বুক পকেটে ছিল দামি একটি কলম।
    প্রধানমন্ত্রী প্রবেশেরসঙ্গে সঙ্গেই দফতরের কর্মীরা ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান নরেন্দ্র মোদিকে।এরপর মহাত্মা গান্ধীর ছবিতে গোলাপের পাপড়ি দিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান মোদি।তারপরেই শুরু হয় প্রধানমন্ত্রিত্বের কাজ। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিজেরজীবনের প্রথম কর্মদিবসের প্রথম ট্যুইটেমোদি ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর প্রতি শ্রদ্ধা জানান।কেননা- আজ মঙ্গলবারই তার প্রয়ান দিবস। ৫০বছর আগে এই দিনটিতেই (২৭ মে)নেহেরু মারা গিয়েছিলেন।
    প্রথমেই বেশ কিছু ফাইলে সই করেন তিনি। তারপররওনা হন হায়দরবাদ হাউসের উদ্দেশে। সার্কভুক্ত দেশগুলির রাষ্ট্রপ্রধানেরসঙ্গে সেখানেই শুরু হয় মোদির বৈঠক। আজ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মোদিরদায়িত্ব গ্রহণের পরই বিদেশ মন্ত্রকের দায়িত্ব নেন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রীসুষমা স্বরাজ। তাকে সঙ্গে নিয়েই মোদির কনভয় রওনা হয় রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গেদ্বিপাক্ষিক বৈঠকে।
    পর পর আফগানিস্তান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, ভুটান, নেপাল ও মরিশাসের রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেন মোদি ও সুষমা। হামিদকারজাইয়ের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে উঠে আসে হেরাটে ভারতীয় উপদূতাবাসেহামলার প্রসঙ্গ। কারজাই মোদিকে জানান, ওই হামলার নেপথ্যে লস্কর-ই-তৈইবাজঙ্গিরা রয়েছে বলে দৃঢ সন্দেহ আফগান পুলিশের তদন্তকারী দলের। বিষয়টি নিয়েবিশদ তদন্ত চলছে বলেও মোদিকে আশ্বাস দেন কারজাই। এরপর মালদ্বীপের প্রধানআবদুল ইয়ামিন, শ্রীলঙ্কার মাহিন্দা রাজাসপক্ষে ও অন্যান্যদেশের প্রধানদেরসঙ্গে বৈঠক শেষে ১২টা ২৫ নাগাদ হায়দরাবাদের ডেকান স্যুটে প্রবেশ করেন মোদি ওনওয়াজ শরিফ।
    প্রসঙ্গত,সোমবার সন্ধ্যায় শপথ গ্রহণের কিছুক্ষণের মধ্যেইতার সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে নতুন প্রধানমন্ত্রী তার কাজশুরু করে দিয়েছিলেন। অবশ্য এখনো দেশটির প্রধানমন্ত্রী জন্য নির্ধারিত রেসকোর্স সড়কের ৭ নম্বর বাড়িতে ওঠেননি। আরো কয়েকমাস তিনি গুজরাট ভবনেই থাকবেনবলে জানা যায়।সুত্রঃ ইন্টারনেট।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here