পাকিস্তানে তালেবানের রক্তাক্ত জঙ্গিবাদঃঅবসান হবে কি ?

    0
    10

    আমারসিলেট24ডটকম,০৭ফেব্রুয়ারীঃ গতকাল পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে তালেবান মনোনীত একটি দলের আনুষ্ঠানিক শান্তি আলোচনা হয়েছে। এটি এক দশকের রক্তাক্ত জঙ্গিবাদ অবসানে দেশটির সরকার ও তালেবান প্রতিনিধিদের মধ্যে প্রথম দফা শান্তি আলোচনা। এ থেকে জঙ্গি তৎপরতার অবসান ঘটাতে একটি রোডম্যাপ তৈরি শুরু করার কথা রয়েছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে উভয়পক্ষে দেয়া যৌথ বিবৃতিতে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানী ইসলামাবাদের খাইবার পাখতুনখওয়া হাউসে অনুষ্ঠিত বৈঠকে যুদ্ধবিরতির জন্য চূড়ান্ত আলোচনার রোডম্যাপ প্রণয়ন নিয়ে আলোচনা হয়।

    ৪ ঘণ্টার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের যৌথ বিবৃতি পড়ে শোনান মাওলানা সামিউল হক। বৈঠকে সরকার পক্ষ সংবিধানের কাঠামোর মধ্যে থেকে একটি সমাধানে পৌছার কথা বলেন। অন্যদিকে তালেবান প্রতিনিধিরা সরকারি প্রতিনিধিদের ভূমিকা পরিষ্কার করে শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নে তাদের ক্ষমতা কতটুকু তা নিশ্চিত করতে বলেছেন। এছাড়াও তারা প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, সেনাপ্রধান ও আইএসআইয়ের মহাপরিচালকের সঙ্গে বৈঠকের দাবি জানান।
    ২০০৭ সালে পাকিস্তান তালেবান নামে পরিচিত তেহরিক-ই তালেবান দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করার পর এ পর্যন্ত হাজার হাজার  নিরীহ মানুষ নিহত হন।
    অপরদিকে সরকারের দেয়া শর্তগুলো নিয়ে নেতাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে যেতে রাজি হয়েছে তালেবানের মধ্যস্থতাকারীরা।
    তালেবানের একজন প্রতিনিধি মাওলানা সামিউল হক আলোচনার সারসংক্ষেপ সম্পর্কে বলেছেন, আলোচনার সময়টা অবশ্যই দীর্ঘ হওয়া উচিত নয়। কারণ সারাদেশ সুসংবাদ শোনার জন্য অপেক্ষা করছে। শান্তি এবং নিরাপত্তার বিরুদ্ধে যেসব কার্যক্রম চলছে সেগুলো অচিরেই বন্ধ হওয়া প্রয়োজন।
    জানুয়ারি মাসে তালেবানদের এক হামলায় সৈন্যসহ ১০০ জনের বেশি নিহত হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এ আলোচনার ঘোষণা দেন।
    ২০০৭ সালে পাকিস্তানি তালেবান নামে পরিচিত তেহরিক-ই তালেবান দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করে। সেসময় টিটিপি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করলে দেশটিতে কয়েক হাজার  সরকারী বেসরকারি মানুষ নিহত হয়।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here