নবীগঞ্জে মৃত্যুর ছয় বছর পরেও অক্ষত একজনের লাশ

    0
    43

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২২জুন,সানিউর রহমান তালুকদার,নবীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ক্যান্সারজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ৬ বছর পূর্বে ইউপি সদস্য আব্দুল হক পঞ্চাশ বৎসর বয়সে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বৃষ্টি হওয়ায় আব্দুল হকের কবরে দেখা দেয় ভাঙ্গন।  এতে করে বেড়িয়ে আসে ইউপি সদস্যের অক্ষত মৃতদেহ।

    অলৌকিক হলেও সত্য ৬ বছর পরও মরদেহ রয়েছে অক্ষত।  আব্দুল হকের অক্ষত মরদেহ এক নজর দেখতে কবরের পাশে ভীড় জমান স্থানীয় লোকজন।  এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সর্বত্রজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। ঘটনাটি ঘটেছে নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামে।

    প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামে ৬ বছর পূর্বে ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেন ইউপি সদস্য আব্দুল হক।  পরে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

    মৃত্যুর প্রায় ৬ বছর পর গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বৃষ্টির পানিতে কবরে ভাঙ্গন দেখা দিলে আব্দুল হকের মরদেহ বেড়িয়ে আসে।  ৬ বছর পরও অক্ষত অবস্থায় মরদেহ থাকায় এলাকাজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।  এক নজর দেখার জন্য কয়েক শতাধিক লোকজন ভীড় করেন।

    পরে গতকাল সকালে স্থানীয় দুর্লভপুর মসজিদের ইমামসহ আব্দুল হকের পরিবার ভেঙ্গে যাওয়া কবরস্থান ভরাট করেন।  দুর্লভপুর মসজিদের ইমাম বলেন, আল্লাহর ইচ্ছায় মৃত্যুর এত বছর পরও উনার লাশ অক্ষত রয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here