নবীগঞ্জে কোরবানিকে কেন্দ্র করে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষে  আহত অর্ধশতাধিক

0
109
নবীগঞ্জে কোরবানিকে কেন্দ্র করে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষে  আহত অর্ধশতাধিক
নবীগঞ্জে কোরবানিকে কেন্দ্র করে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষে  আহত অর্ধশতাধিক

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধি: কোরবানির পশুর মাংস ভাগাভাগি নিয়ে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ ও সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। সোমবার (১১ জুলাই ২০২২) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জগন্নাথপুরের গোতগাঁও গ্রামের যুক্তরাজ্যপ্রবাসী শাহীন মিয়া যুক্তরাজ্যের একটি দাতব্য সংস্থার মাধ্যমে গোতগাঁও গ্রামের একটি মাদ্রাসায় কোরবানির জন্য ৩৫টি গরু দেন। গরুগুলোর মাংস ভাগাভাগি নিয়ে জগন্নাথপুরের পাইলগাঁও ইউনিয়নের গোতগাঁও গ্রামের শামীম মিয়া ও নবীগঞ্জের উমরপুর গ্রামের আহসান মিয়াসহ দুই গ্রামের কয়েকজনের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। একপর্যায়ে সোমবার বিকেলে দুই গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয় গ্রামের অর্ধশতাধিক লোক আহত হন। আহত ব্যক্তিদের জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও নবীগঞ্জ উপজেলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

গুরুতর আহত জীবন মিয়া (১৭), সূর্য বেগম (৫৫), আলতাব উদ্দিন (৫৬), আবদুল মনাফ (২২), আবদুল খালিছ (৪০), আহসান উদ্দিন (৫০) ও আনাছ উদ্দিনকে (৪৫) সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খবর পেয়ে জগন্নাথপুর ও নবীগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সুনামগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর ও শান্তিগঞ্জ সার্কেল) শুভাশীষ ধর বলেন, কোরবানির পশুর মাংস ভাগাভাগি নিয়ে দুই উপজেলার প্রতিবেশী দুই গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। উভয় পক্ষের আহত ব্যক্তিদের জগন্নাথপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, নবীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here