নবীগঞ্জের দেবপাড়া ইউপি সচিব বরখাস্ত

0
161
নবীগঞ্জের দেবপাড়া ইউপি সচিব বরখাস্ত
নবীগঞ্জের দেবপাড়া ইউপি সচিব বরখাস্ত

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ  প্রতিনিধিঃ ভিজিডির কার্ডধারীদের সঞ্চয়ের টাকা ব্যাংকে জমা না দেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমামকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।শুক্রবার (৪ মার্চ) হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সাময়িক বরখাস্ত সংক্রান্ত এক বিজ্ঞপ্তির বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিন।

জানা যায়-গত বছরের ২৮ নভেম্বর নবীগঞ্জ উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়। নির্বাচনে দেবপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শাহ রিয়াজ নাদির সুমন। চলতি বছরের ৯ জানুয়ারী দেবপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান সুমন।

দায়িত্ব গ্রহণ করলেও দেবপাড়া ইউনিয়নের সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমাম অফিসের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে অনীহা প্রকাশ করেন। বার বার তাগিদ দিলেও কর্ণপাত করেননি সচিব তৌফিক ইমাম।(১৪ ফেব্রæয়ারী) খোদ দেবপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ রিয়াজ নাদির সুমন বাদী হয়ে সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমামের বিরুদ্ধে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, অফিসের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে বার বার সচিবকে বলা হলেও সচিব বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে সময়ক্ষেপন করেন। এছাড়া ২০২১ সালের ভিজিডি কর্মসূচির আওতায় সুবিধাভোগী কার্ডধারীদের সঞ্চয়ের টাকা ব্যাংক এশিয়ায় সুবিধাভোগীদের নিজস্ব ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা দেয়ার কথা থাকলে সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমাম সঞ্চয়ের টাকা জমা দেননি।

এছাড়া নিয়মিত অফিসে না আসা, বিভিন্ন বরাদ্দ সঠিক সময়ে বন্ঠন করতে না পারাসহ সচিবের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তোলেন চেয়ারম্যান সুমন।অভিযোগের ভিত্তিতে গত (২৩ ফেব্রæয়ারি) দুপুরে সরেজমিনে তদন্তে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন। বারবার তাগিদ দেয়ার পরও তদন্তকালে সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমাম উপস্থিত হননি। বন্ধ রাখেন নিজের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন। তদন্তে দেবপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ রিয়াজ নাদির সুমন করা লিখিত অভিযোগের সত্যতা পায় উপজেলা প্রশাসন।

পরে দেবপাড়া ইউনিয়নের সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে জেলা প্রশাসকের বরাবর সুপারিশ করেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ।এরপ্রেক্ষিতে (৩ মার্চ) হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান স্বাক্ষরিত আদেশে দেবপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব এইচ. এ. এম. তৌফিক ইমামকে ভিজিডির কার্ডধারীদের সঞ্চয়ের টাকা সংশ্লিষ্ট ব্যাংক একাউন্টে জমা না করা, প্যানেল চেয়ারম্যান গঠন না করা, উন্মুক্ত ওয়ার্ড সভা না করা, কম্বল বিতরণ বিলম্ব হওয়া, নিয়মিত অফিস না করা এবং ইউপি অফিসের দায়িত্ব বুঝিয়ে না দেয়ার ঘটনায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) কর্মচারী চাকুরী বিধিমালা অনুসারে তাকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়- বরখাস্তকালীন সময়ে বিধি মোতাবেক খোরপোষ ভাতা প্রাপ্য হবেন এইচ. এ. এম. তৌফিক ইমাম। এছাড়া দেবপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে সাপ্তাহে দুই-দিন পানিউমদা ইউনিয়ন পরিষদের সচিবকে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিন বলেন- দেবপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াজ নাদির সুমনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্তে সচিবের বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায়। তদন্তকালে ভিজিডির কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের সঞ্চয়ের ৪ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা সচিব ব্যাংকে জমা দেননি বলে প্রতিয়মান হয়। এছাড়া প্যানেল চেয়ারম্যান গঠন না করা, উন্মুক্ত ওয়ার্ড সভা না করা, কম্বল বিতরণ বিলম্ব হওয়া, নিয়মিত অফিস না করা এবং ইউপি অফিসের দায়িত্ব বুঝিয়ে না দেয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হয়। এরপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের আদেশে দেবপাড়া ইউনিয়নের সচিব এইচ.এ.এম তৌফিক ইমামকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here