তাহিরপুর হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মানে অনিয়মে পিআইসি’র ৭জন আটক

    0
    56

    সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মানে পিআইসি সভাপতি,সম্পাদকসহ ৭জন আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন,৪৬নং পিআইসির সভাপতি সিরাজুল হক শাহ (৪৬),সদস্য হুমায়ুন কবির (৫৮),৪৭নং পিআইসির সভাপতি মিজানুর রহমান (৬০),সাধারন সম্পাদক জামাল আখঞ্জি (৭০),সদস্য মজনু শাহ (৪৪),তোফাজ্জল হোসেন (৪৪),৩৭নং পিআইসি সভাপতি মনসাধ (৫০)। প্রকল্প তিনটি মাটিয়ান হাওরে বিভিন্ন স্থানে।

    জানাযায়,উপজেলার বিভিন্ন হাওরের পিআইসিরা কাজের গাফিলতি ও বাঁেধ অনিয়মের কারনে বার বার তাদের সর্তক করা হেেলও তা কর্ন পাত না করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম মঙ্গলবার দুপুর ১টায় তাদের আটক করতে তাহিরপুর থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন। পিআইসি আটকের গঠনায় উপজেলা জুড়ে ব্যাপক তুলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামকে ধন্যবাদ জানিয়েছে উপজেলার সচেতন মহলসহ সর্বস্থরের জনসাধারন।
    এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড তাহিরপুর দায়িত্বরত উপ-সহকারী প্রকৌশলী এমরান হোসেন জানান, ২৮ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাধের কাজ সমাপ্ত করার কথা কিন্তু প্রকল্প গুলোতে কমিটি কাজ শুরু না করায় নির্বাহী অফিসার তাদের আটক করে থানা পুলিশে দেন।
    ইউএনও জানান,কাজ শুরু না করায় আমি বিরক্ত হয়ে তাদের আটক করেছি। তাদের বার বার বলার পরও কোন হাওর রক্ষা বাঁধের কাজে কোন পরির্বতন হয় নি। বাঁেধর কাজে অনিয়ম আমি সহ্য করব না। আমি তাদের বিরোদ্ধে আইন অনুযায়ী সব ধরনের ব্যবস্থা নেব। কোন ছাড় পাবে না।
    তাহিরপুর থানার এসআই আমির উদ্দিন জানান,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম স্যার মঙ্গলবার দুপুরে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। আটককৃতরা এখন থানায় আছে।
    তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর পিআইসি আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেন।