তাহিরপুরে ব্যবসায়ীর নাম ব্যবহার করে দুদকে অভিযোগ

    0
    59

    সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা ও পাথর ব্যবসায়ীর নাম ব্যবহার করে ওসির বিরোদ্ধে দুদকে অভিযোগ করায় সেই ব্যবসায়ী তাহিরপুর থানার জিডি করেছে। তিনি উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ী ও কলাগাঁও গ্রামের মৃত হামিদ ভুঁইয়া ছেলে ইকবাল হোসেন সেলিম (ফেইসবুকে সেলিম ইকবাল)। তাহিরপুর থানায় জিডি নং ৯২৬,তারিখ-২৮,১১,১৯ইং।
    তাহিরপুর উপজেলার স্থানীয় বাসীন্দা ও একাধিক আ’লীগের নেতারাগন আরো জানা যায়,সম্প্রতি সুনামগঞ্জের ১আসনের এমপি ও আ,লীগের একাধিক নেতাকর্মী বিরোদ্ধে দুদকে অভিযোগ দায়ের করার পর সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এর রেশ কাটতে না কাটতেই তাহিরপুর থানা পুলিশের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)নন্দন কান্তি ধরের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (২৬,১১,১৯) দুপুরে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুর্নীতি ও চাঁদাবাজির অভিযোগ তুলে লিখিত ভাবে অভিযোগ দিয়েছেন সেলিম ইকবাল নামে এক ব্যক্তি।

    এই লিখিত অভিযোগ দাখিল করার পর ব্যাপক বির্তকের সৃষ্টি হয়েছে। কারন ঐ ওসি তাহিরপুর থাকাকালিন সময়ে তার কাছে যারা আশ্রয়,প্রশ্রয় ও সহযোগীতা পায় নি এবং বিভিন্ন মামলার আসামী,ইয়াবা,চোরাচালানী ও মাদক ব্যবসায়ীদের আটক ও তাদের বিরোদ্ধে জোড়ালো ভূমিকা রাখায় এখন শুদ্ধি অভিযানের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে মনগড়া বিত্তিহীন তথ্য দিয়ে পুলিশ প্রশাসনের সুনামনষ্ট করেছে। আর ওসি নন্দনের বিরোদ্ধে অভিযোগে অভিযোগকারীর মোবাইল নাম্বার নেই যা সহজেই বুঝা যায় অভিযোগটি উদ্যোশ্য প্রনদিত তাহিরপুর উপজেলার সচেতন মহল মনে করেন।
    জিডি সুত্রে জানাযায়,উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ীর ইকবাল হোসেন সেলিম (ফেইসবুকে সেলিম ইকবাল) নাম ব্যবহার করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কার্য্যালয় ও দুদকে বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তি,রাজনীতিবীদ,প্রতিষ্টান এবং সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরোদ্ধে মিথ্যা,বানোয়াট ও উদ্যোশ্য প্রনোদিত ভাবে এলাকায় আমার জনপ্রিয়তা নষ্ট ও ক্ষতিসাধন করার জন্য ও রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য অজ্ঞাত ব্যক্তি এইসব অভিযোগ দায়ের করছে একটি কুচক্রি মহলের সহযোগীতা যা তিনি জানেন না।

    গত ২৭নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরোদ্ধে দুদকে অভিযোগ দায়ের করার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। আর তাতে অভিযোগকারীর নাম সেলিম ইকবাল লেখা রয়েছে যা আমার চোখে পড়ায় তা দেখে আমি নিজ উদ্যোগে থানার এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে জিডি করেছেন বলে জানান উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ীর সেলিম ইকবাল।
    এই বিষয়ে উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ীর ইকবাল হোসেন সেলিম (ফেইসবুকে সেলিম ইকবাল) জানান,আমার নাম ব্যবহার করে বার বার ভাল মানুষ গুলোর বিরোদ্ধে মিথ্যা সাজানো অভিযোগ দায়ের করে কিছু কুচক্রি মহল। আমি আমার সম্মান রক্ষায় অজ্ঞাত ঐ ব্যক্তির বিরোদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
    তাহিরপুর থানার ওসি আতিকুর রহমান জিডি করার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান এই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তর্দন্ত করা হচ্ছে।
    উল্লেখ্য,সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা পুলিশের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধরের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার দুপুরে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুর্নীতি ও চাঁদাবাজির অভিযোগ দিয়েছেন সেলিম ইকবাল। তিনি একই উপজেলার উত্তর বন্দর এলাকার বাসিন্দা।