তারেকের খালাস বিচারের নামে প্রহসনঃছাত্র মৈত্রী

    0
    18

    আমার সিলেট  24 ডটকম,১৭নভেম্বরঃ বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি বাপ্পাদিত্য বসু ও সাধারণ সম্পাদক তানভীর রুসমত আজ এক বিবৃতিতে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান দুর্নীতির বরপুত্র ও তরুণ সমাজের কলঙ্ক’ তারেক রহমানের মানি লন্ডারিংয়ের মামলায় খালাস পাওয়ার ঘটনাকে বিচারের নামে প্রহসন’ বলে উল্লেখ করেছেন।বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, বিএনপি-জামাত-চার দলীয় জোটের ক্ষমতায় থাকাকালীন তারেক রহমানের দুর্নীতি ও লুটপাটের ঘটনা ‘দিনের আলোর মতো সত্য’। ক্ষমতার সমান্তরাল কেন্দ্র হাওয়া ভবন খুলে রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করে তার ইয়ার দোস্তদের সঙ্গী করে সর্বোচ্চ পর্যায়ের দুর্নীতি সংঘটিত করেছেন তিনি।

    দেশের তরুণপ্রজন্মের কলঙ্ক তিনি। খাম্বা কোম্পানি, ড্যান্ডি ডাইং থেকে শুরু করে দেশের সকল পর্যায়ের ব্যবসা-বাণিজ্য-উন্নয়ন কাজ থেকে উৎকোচ গ্রহণ এমনকি এতিমদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থও লুটপাট করেছেন তারেক রহমান। ক্ষমতায় থাকাকালেই তার নামের সাথে খাম্বা তারেক এবং মিস্টার টেন পার্সেন্ট সহ বিভিন্ন বিশেষণ যুক্ত হয়েছিল দুর্নীতির কারণেই। দেশের অর্থ লুট করে বিদেশে পাচারের ঘটনাও পরিষ্কার সত্য। এই সরকারের আমলেও কয়েক দফায় বিদেশ থেকে তার পাচার করা টাকা ফেরত আনা হয়েছে। কিন্তু আমরা অবাক বিষ্ময়ে লক্ষ্য করলাম কোনো এক অদৃশ্য সুতোর টানে তারেক রহমানের মতো সর্বোচ্চ পর্যায়ের দুর্নীতিবাজকে খালাস দেওয়া হলো।

    বিবৃতিতে ছাত্র মৈত্রীর নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এতো এতো দুর্নীতি করেও এভাবে খালাস পাওয়া কোনোভাবেই কাম্য নয়।দুর্নীতির বরপুত্রকে খালাস দিয়ে তারই সহযোগী চুনোপুটির ঘাড়ে সব দায় চাপিয়ে সাজা প্রদানের ঘটনায় বিচারের নামে দেশে এক নজিরবিহীন কালো অধ্যায় সূচিত হলো। এতে করে দুর্নীতি-দুর্বত্তায়নের রাজনীতি আরো উৎসাহিত হবে এবং ক্ষমতাকে ব্যবহার করে যারা দুর্নীতি করেন, তাদের দৌর্দ- প্রতাপ আরো বৃদ্ধি পাবে। একটি সভ্য গণতান্ত্রিক দেশে এই কালো নজির কোনোভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। তাই দেশের ছাত্রসমাজ ও জনগণ প্রহসনের এই রায় প্রত্যাখ্যান করছে।বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় অবিলম্বে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুর্নীতি দমন কমিশনের আপিল করার মধ্য দিয়ে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত করার আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here