জৈন্তাপুরে ফ্রেসিয়া টি এন্ড টুরিজম লিমিটেড এর নামে ভূমি লীজের প্রতিবাদে মানববন্ধন

0
71
জৈন্তাপুরে ফ্রেসিয়া টি এন্ড টুরিজম লিমিটেড এর নামে ভূমি লীজের প্রতিবাদে মানববন্ধন
জৈন্তাপুর ষ্টেশন বাজার এলাকায় মানব বন্ধন পালন করছে নিজপাট ইউপির ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্ধারা।

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধিঃ সিলেটের জৈন্তাপুরে ফ্রেসিয়া টি এন্ড টুরিজম লিমিটেড এর নামে জনসাধারনের বসতবাড়ী সহ সরকারী খাস ভূমি লীজ প্রদানের প্রতিবাদে জৈন্তাপুর ষ্টেশন বাজারে মানব বন্ধন পালন করেছে ৬নং ওয়ার্ডের (কালিঞ্জিবাড়ী ও হর্ণি) গ্রামের প্রায় দুই হাজার বসতবাড়ীর বাসিন্ধারা।

২৬ জানুয়ারী বুধবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিটের সময় নিজপাট ইউপির ৬নং ওয়ার্ডের কালিঞ্জিবাড়ী ও হর্ণি গ্রামের বাসিন্ধা মাষ্টার রহমত আলীর সভাপতিত্বে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড জৈন্তাপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদের পরিচালনায় মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন নিজপাট ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মতিন শাহীন, আব্দুল মালিক পাখি, মো. ইন্তাজ আলী, মো. নাজিম উদ্দিন, মো. ইসলাম উদ্দিন, মাওলানা আলীম উদ্দিন, মো. জালাল উদ্দিন লিটন, এছাড়া আলহাজ্ব হোসেন আহমদ, রহিম উদ্দিন, সাব্বির আহমদ, গ্রাম বাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন মো. মন্তাজ আলী, হারিছ উদ্দিন বাবুল, মো. আব্দুস শুকুর, মো. আব্দুল করিম, মো. আব্দুল মালিক, সিকন্দর আলী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সহ সভাপতি ইউপি সদস্য আব্দুল কাদির প্রমুখ।

মানব বন্ধনে বক্তারা বলেন নিজপাট ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড হচ্ছে কালিঞ্জিবাড়ী ও হর্ণি গ্রাম এই গ্রামে প্রায় দুই হাজারের বসতবাড়ী রয়েছে। একটি বিশেষ মহলের ইশারায় ওয়ার্ডবাসীকে উচ্ছেদ করে ফ্রেসিয়া টি এন্ড টুরিজম লিমিটেড নামে জমি বরাদ্ধ নিয়ে উচ্ছেদ, ফসল বিনষ্ট, বাড়ীঘর ধ্বংস করে আপনি টি কোম্পানী প্রতিষ্টা করেত পারবেন না রবং আপনি (ফ্রেসিয়া টি কোম্পানী) যেখানে আছেন সেখানে থাকেন। নতুবা দুই হাজার বসতবাড়ীর জনসাধারণ আপনাকে ফুলের তোড়া উপহার দিবে না। জায়গায় অবস্থান নেওয়ার চিন্তা করলে আপনাকে হাজার হাজার বাসিন্ধাদের রক্তের ¯্রােত বইতে হবে।

তারা আরও বলেন, সরকার বাহাদুর ভূমিহীন মানুষদের ভূমি বরাদ্ধ দিয়ে তাদের আবাসন ব্যবস্থা করে দিচ্ছে। সেই দেশে শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাসরত নাগরিকদের উচ্ছেদ করে আপনি টি কোম্পনী করবেন তাহা হবে না। আমরা জানি যুগের পর যুগ যে সমুস্ত এলাকায় জন বসতি গড়ে উঠেনি এবং সরকারের হাজার হাজার একর ভূমি পতিত রয়েছে সেগুলো লীজ দেওয়ার বিধান রয়েছে। যুগের পর যুগ বসবাস করে আসা জন বসতি উচ্ছেদ করে একটি টি কোম্পানীকে বরাদ্ধ দেওয়ার ইতিহাস বাংলাদেশে নেই। সরকার যদি এসব জমি বরাদ্ধ দিতে হয় তাহলে এই ভূমিতে বসবাসকারীদের নামে বরাদ্ধ দিতে হবে। আমরা অভিলম্বে সরকার বাহাদুরের কাছে দাবী জানাচ্ছি দ্রুত লীজ বাতিল করে এলাকার শান্তিপ্রিয় জনসাধারণদের শান্তিতে বসবাস করার সুব্যবস্থা নিতে। অন্যতায় সিলেট তামাবিল মহাসড়ক অবরোধ, জৈন্তাপুর উপজেলা প্রশাসন ঘেরাও সহ গোঠা জৈন্তাপুর উপজেলাকে অচল করে দেওয়া হবে।

অপরদিকে জৈন্তাপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মুফিজ মাষ্টারের বড় ছেলে মো. শামীম আহমদ তার বক্তব্যে বলেন, আমাদের পিতা সহ চাচারা বুকের তাজা রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছেন। সেই ভূমিতে আমরা বসবাস করছি। আমরা ভূমি রক্ষায় শান্তিপূর্ণ ভাবে সকল আন্দোলন সংগ্রাম করেও যদি এদেশে বসবাস করতে না পারি তাহলে বাংলাদেশ ছেড়ে ছেলে মেয়ে সহ পরিবার পরিজন নিয়ে সীমান্তবর্তী দেশ ভারতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হব। মানব বন্ধানশেষে বিক্ষোভ মিছিল সহ উপজেলা প্রশাসনের নিকট স্মারকলিপি পেশ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here