জামাত নেতা কাদের মোল্লার রায়ের অনুলিপি ট্রাইব্যুনালে

    0
    11

    আমারসিলেট24ডটকম,০ডিসেম্বরঃ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার পূর্ণাঙ্গ রায়ের অনুলিপি ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হয়েছে। আজ রবিবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার একেএম শামসুল ইসলাম রায়ের অনুলিপি ট্রাইব্যুনালের রেজিস্ট্রারের কাছে হস্তান্তর করেন বলে জানা যায়।ট্রাইব্যুনালের রেজিস্ট্রার একেএম নাসির উদ্দিন মাহমুদ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রায়ের অনুলিপি আনতে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার অফিসে যান। পরে বেলা প্রায় ১২টার দিকে রায়ের অনুলিপি পাঠান। এর আগে ট্রাইব্যুনাল রেজিস্ট্রার জানিয়েছিলেন, আমাদের কাছে আপিল বিভাগের রায়ের কপি আসামাত্রই আমরা সেটি জেলখানাসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠিয়ে দেব। সঙ্গে আসামির বিরুদ্ধে মৃত্যু পরোয়ানাসহ অন্যান্য কাগজপত্রও থাকবে।

    রিভিউর জন্য অপেক্ষা করবেন কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে রেজিস্ট্রার বলেন, এটা আমাদের কাজ নয়। রিভিউ দেখার দায়িত্ব আমাদের নয়। আমাদের কাজ রায়ের কপি হাতে পাওয়ার পর জেল কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া। অন্যদিকে আবদুল কাদের মোল্লার আইনজীবী তাজুল ইসলাম বলেন, যেদিন সংক্ষিপ্ত রায় ঘোষণা করা হয়েছে, সেদিনই পূর্ণাঙ্গ রায়ের সার্টিফাইড কপি চেয়ে আপিল বিভাগে একটি আবেদন করা হয়েছে। আমরা সার্টিফাইড কপি হাতে পাওয়ার পর রিভিউ পিটিশন দায়ের করব। এ ক্ষেত্রে সংবিধান অনুযায়ী ৩০ দিন সময় দেয়া থাকলেও যতক্ষণ পর্যন্ত সময় লাগবে আমরা ততক্ষণ পর্যন্ত সময় নেব। ৩০ দিনের আগে সাজা কার্যকর করার কোনো অধিকার কারা কর্তৃপক্ষের নেই বলে দাবি করেন আইনজীবী।

    তিনি বলেন, জেল কোড অনুযায়ী ১৫ দিনের মধ্যে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করারও সুযোগ রয়েছে। এ ছাড়া জেল কোড অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির রায়ের সার্টিফাইড কপি হাতে পাওয়ার পর সাজা কার্যকরের ক্ষেত্রে ২১ দিনের আগে নয়, আবার ২৮ দিনের পরে নয় এ সংক্রান্ত যে বিধান রয়েছে তা কাদের মোল্লার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আইনের ২০ (৩) ধারায় বলা হয়েছে, ট্রাইব্যুনালের দেওয়া সাজা কার্যকর করবে সরকার। তাই এ ক্ষেত্রে সরকারের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here