জনগণকে নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনঃবিএনপি

    0
    11

    আমারসিলেট24ডটকম,০৯মার্চঃ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করা দলগুলোর সঙ্গে খুব শিগগিরই বৈঠকে বসছেন।খুব দ্রুত নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সরকারকে নির্বাচনে বাধ্য করতে ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জনকারী ও গণতন্ত্রমনা দলগুলোকে খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানানো হবে।
    এ সব দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে পৃথকভাবে বৈঠকে বসবেন খালেদা জিয়া। জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে সরকারকে নির্বাচনে বাধ্য করা এবং সরকার বিরোধী আন্দোলনে দলগুলোকে সম্পৃক্ত করাই এসব বৈঠকের উদ্দেশ্য হবে বলে জানিয়েছে বিএনপির সূত্র।
    বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের একাধিক নেতার সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, ধ্বংসাত্মক নয়, গণতান্ত্রিক উপায়েই জনগণের চাপে সরকারকে দ্রুত নির্বাচন বাধ্য করা হবে। এ জন্য বিএনপি প্রধান সমমনা ও নির্বাচন বর্জনকারী দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করবেন।
    সমমনা এই রাজনৈতিক দলগুলো হচ্ছে, সাবেক রাষ্ট্রপতি বি চৌধুরীর বিকল্পধারা, আ স ম রবের জেএসডি, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ও ড.কামালের গণ ফোরাম। এছাড়াও ১৯ দলীয় জোটের শরীকদের সঙ্গেও বসবেন খালেদা জিয়া।
    পাশাপাশি আলোচনা করবেন সুশীল সমাজ, শিক্ষক, সাংবাদিক, চিকিৎসক. ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রতিনিধিদের সঙ্গে।
    এ বিষয়ে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, বিএনপি সব সময় গণতন্ত্রের পক্ষে। কারণ দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান প্রথম দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন। বাংলাদেশে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে। সেই গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিরপেক্ষ নির্বাচন দরকার।

    তিনি বলেন, বিএনপি সব সময় চায় আলোচনার মাধ্যমে সুষ্ঠু সমাধান। জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে খালেদা জিয়া সব সময় সংলাপে বসার জন্য শেখ হাসিনাকে আহ্বান জানিয়ে আসছেন। আলোচনার মাধ্যমে বিএনপি এখনো দ্রুত নির্বাচন চায়। যদি সরকার আলোচনার মাধ্যমে না আসে তাহলে জনগণকে নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনা হবে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here