চলে গেলেন চুনারুঘাটের হাফেজ জাবেদ আহমেদ

    0
    31

    চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার মিরাশী ইউনিয়নের সাত্তালিয়া বড়বাড়ি গ্রামের হাফেজ জাবেদ আহমেদ বুধবার রাত ৮টার দিকে দূরারোগ্য কূলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি আইয়ুব আলী মহালদারের ৩য় পুত্র। মৃত্যকালে তাহার বয়স হয়েছিল ২০ বৎসর। সে শায়েস্তাগঞ্জ মডেল কামিল মাদ্রাসার ফাযিল ১ম বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

    মরহুমের জানাজার নামাজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় সাত্তালিয়া গ্রামস্থ তার নিজ বাড়িতে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত জানাজার নামাজে অংশগ্রহণ করেন- উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব লুৎফুর রহমান মহালদার, মিরাশী ইউপি চেয়ারম্যান মো: রমিজ উদ্দিন, রানীগাঁও ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবু সালেহ মো: শফিকুর রহমান, প্রভাসক কাউসার মিয়া, মাওলানা বশির আহমদ, সাবেক মেম্বার আব্দুস সহিদ, হাজী আকবর হোসেন, আদমপুর গাউছিয়া সুন্নীয়া মাদ্রাসার সুপার আব্দুল কাইয়ুম তরফদার, প্রাক্তন মিরাশী ইউপি চেয়ারম্যানে হোসেইন আলী রাজন, সাবেক মেম্বার আকছির মিয়া, এইচ.আর আফজল, গাতাবলা বাজারের বিশিষ্ট ফার্নিচার ব্যবসায়ী মাসুক মিয়া, শানখলা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড তাঁতীলীগের সভাপতি শেখ মো: মেহের উল্লা প্রমুখ।

    মৃত্যুকালে হাফেজ জাবেদ আহমেদ তার পিতা-মাতা, ৩ ভাই ও ১ বোন সহ অসংখ্য আত্মীয় সজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার বড় ভাই জুয়েল মিয়া মৃত্যুর সংবাদ শুনে দুবাই থেকে আজ সকালে বাড়ি ফিরে এসেছেন। কোরআনের হাফেজ জাবেদ আহমেদের মৃত্যুতে তার পরিবার সহ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। উল্লেখ্য যে, হাফেজ জাবেদ আহমেদ গত ০২ মাস পূর্বে পেটে টিউমার রোগে আক্রান্ত হয়ে সিলেট নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় দূরারোগ্য কূলন ক্যান্সার ধরা পড়লে তার শরীরে অস্ত্রোপচার করা হয় এবং শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে গত ৩/৪ দিন আগে বাড়িতে নিয়ে আসার পর গতকাল বুধবার রাত ৮টার দিকে নিজ বাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

    হাফেজ জাবেদ আহমেদের জানাজার শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। হাফেজ জাবেদ আহমেদ চুনারুঘাট অনলাইন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো: ফারুক মিয়ার ভাগিনা।চুনারুঘাট অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে মরহুমের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়েছে।