গ্রামীণ মৎস্য পশু সম্পদের বিরুদ্ধে ২শকোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

    0
    16

    আমার সিলেট  24 ডটকম,অক্টোবরগ্রামীন মৎস্য ও পশু সম্পদ ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে প্রায় ২শ কোটি বিদেশী দাতাসংস্থার অনুদানের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলার কোনাবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনে গতকাল শুক্রবার বিকালে হতদরিদ্র সুবিধাভোগীরা বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। গ্রামীন মৎস্য ও পশু সম্পদ ফাউন্ডেশন দূর্নীতি বিরোধী সংগ্রাম কমিটির উদ্দ্যোগে এ সমাবেশটির আয়োজন করা হয়। সংগ্রাম কমিটির নেতা সুশিল কুমার সাহার সভপতিত্বে কামারখন্দ উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান, মিজানুর রহমান, আব্দুল মান্নান খান, আলেয়া বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

    এদিকে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে হতদরিদ্রদের অনুদান আত্মসাত বিষয়ে অবগতের প্রতিশ্রুতিসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়ে সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার-১ মো. মোকতার হোসেন, সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার ফোরকান শিকদার ও বঙ্গবন্ধু পশ্চিম থানার ওসি এটিএম আমিনুল ইসলাম একাত্বতা প্রকাশ করে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন, গ্রামীন ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মোহাম্মদ ইউনুস এবং ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এহেসানুল হক বারি মিলে ফাউন্ডেশনের প্রকল্পের নামে প্রায় ২শ কোটি টাকা বিদেশী দাতা সংস্থা ইউএনডিপি থেকে এনেছে।

    সেগুলো বিগত ১০ বছরে হতদরিদ্র উপকারভোগীদের মৎস্য চাষ, গাভী প্রতিপালন, গরু মোটাতাজা করন ও হাঁস-মুরগী পালনসহ প্রকল্পের বিভিন্ন উন্নয়নমূখী কাজে ব্যায় না করে সেগুলো কৌশলে মাইক্রোক্রেটিড খাতে খাটানো হচ্ছে। প্রকল্পের কর্মকর্তাসহ ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে বার বার এ বিষয়ে বলেও কোন লাভ হয়নি। শুধু তাই না ২০০৫ সালের পর থেকে এ প্রতিষ্ঠানটি রুগ্ন ফাউন্ডেশনে পরিনত হয়েছে। এসকল বিষয় চিন্তা করেই তারা আন্দোলনে নেমেছে বলে জানান ।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here