কোম্পানীগঞ্জে যৌতুক নির্যাতনের দায়ে স্বামী গ্রেফতার,স্ত্রীকে হুমকী

    0
    34

    আমারসিলেট 24ডটকম , সেপ্টেম্বর  : কোম্পানীগঞ্জে স্ত্রী নির্যাতন ও যৌতুকের দায়ে স্বামী মফিজ উদ্দিন (৩১) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। সে উপজেলার পূর্ব ইসলামপুর ইউনিয়নের চাঁনপুর গ্রামের মৃত জীবন মিয়ার পুত্র এবং কোম্পানীগঞ্জ সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে এমএলএসএস পদে কর্মরত। এ ঘটনায় নির্যাতিতা সাবিনার পরিবারকে একঘরে করে রেখেছে মফিজের পরিবার। তাদের অব্যাহত হুমকীতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে সাবিনা ও তার পরিবার।
    পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গ্রেফতারকৃত মফিজ বিগত প্রায় ৮ বছর পূর্বে চাঁনপুর গ্রামের মো: জজ মিয়ার মেয়ে মোছা: সাবিনা আক্তার (২৬) কে এক লাখ পচাত্তর হাজার টাকা দেনমোহরে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে স্বামী মফিজ যৌতুকের জন্য বিভিন্ন সময় চাপ সৃষ্টি করে এবং তাকে শারীরিক নির্যাতন করে আসছে। সে প্রায়ই নেশাগ্রস্থ অবস্থায় গভীর রাতে বাড়ী ফিরে এবং সাবিনাকে নির্যাতন করে। তার নির্যাতন থেকে রেহাই পেতে প্রায়ই সাবিনা তার বড় ভাই আবু ছায়েদসহ আত্মীয়দের কাছ থেকে টাকা এনে দিত। শুধু তাই নয়, নির্যাতিতা সাবিনা কোম্পানীগঞ্জ সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে নকলনভিশ পদে চাকুরীরত। সেখান থেকে প্রাপ্ত প্রতিমাসের বেতনের পাঁচ হাজার টাকাও সে মফিজের হাতে তুলে দেয়।  বছরখানেক পূর্বে নিজের চাকুরী সরকারীকরণ করার কথা বলে সাবিনাকে এক লাখ টাকা  এনে দিতে বলে মফিজ।

    সেমতে, সাবিনা তার বড় ভাই আবু ছায়েদের কাছ থেকে ১ লাখ টাকা এনে দিলে ৩ মাসের মধ্যে টাকা ফেরত দেবে বলে কথা দেয় মফিজ। কিন্তু এক বছর অতিবাহিত হলেও সে টাকা ফেরত দেয়নি। সর্বশেষ গত ১৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্ত্রী সাবিনার কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে মফিজ। এতে অপারগতা প্রকাশ করলে সাবিনার ওপর অমানুষিক নির্যাতন চালায়। তাকে চুলে ধরে টেনে হেঁচড়ে উপর্যূপরি কিল, ঘুষি ও লাথি মারতে থাকে। একপর্যায়ে হতার উদ্দেশ্যে সাবিনার মুখে বালিশ দিয়ে চেপে ধরে পাষন্ড স্বামী মফিজ। এসময় পাশের রুমে থাকা সাবিনার আত্মীয় হেপী আক্তার (১৮) তাকে রক্ষা করে। খবর পেয়ে পরদিন শনিবার সাবিনার বড় ভাই আবু ছায়েদ চিকিৎসার জন্য সাবিনাকে কোম্পানীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

    এদিকে যৌতুকের টাকার জন্য মারপিট ও হত্যা চেষ্টার ঘটনায় নির্যাতিতা গৃহবধূ সাবিনা আক্তার নিজে বাদী হয়ে শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) স্বামী মফিজ উদ্দিনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় আসামী মফিজকে শনিবার রাত ৮টার দিকে পুলিশ গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ থানার এস.আই মুখলেছুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি আসামী গ্রেফতারের সত্যতা স্বীকার করে জানান, স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় মফিজকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যৌতুকের জন্য মারধর করলে স্ত্রী বাদী হয়ে তার উপর এ মামলা দায়ের করে।
    এদিকে ঘটনার পর থেকে মফিজের পরিবারের লোকজনদের অব্যাহত হুমকীতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছে সাবিনা ও তার পরিবার। প্রতিদিন বিভিন্ন উপায়ে সাবিনাকে প্রাণনাশের হুমকী প্রদান করা হচ্ছে। এমতাবস্থায় একঘরে হয়ে বন্দি জীবন কাটাচ্ছে সাবিনার পরিবার।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here