কাব্য বিলাসের ‘কপাল’ মাতাল কোলকাতা

    0
    71

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৬জুন,নিজস্ব প্রতিনিধি: কোলকাতা আর্ন্তজাতিক শিশু নাট্য উৎসব ও নৈহাটি অ্যাস্থেটিকস এর নাট্য উৎসবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অংশগ্রহণ করা কাব্য বিলাস নাট্য গোষ্ঠী মঞ্চায়ন করে ‘কপাল’। নাটকটি সুধিজনের ব্যাপক প্রশংসা কুড়াতে সক্ষম হয়েছে। রাহুল রাজের রচনা ও নির্দেশনায় এ নাটকে নদী ভাঙ্গা মানুষের জীবন-চিত্র বাস্তাব ভাবে ফুটে ওঠে।

    চলতি মাসের ১৭ ও ১৯ জুন কোলকাতা একাডেমী ভবন ও নৈহাটির ঐকতানে সফল ভাবে কাব্য বিলাসের শিল্পীরা দর্শকদের সামনে তুলে ধরে পদ্মার ভাঙ্গনের করুন চিত্র।

    কোলকাতা আর্ন্তজাতিক শিশু নাট্য উৎসবে বিশ্বের আট দেশের ১৬ টি নাটক মঞ্চায়ন হয়ে ২১ জুন উৎসবের পর্দা নামে। ১৯ জুন নৈহাটিতে মৈত্রী নাট্য উৎসবে এপার বাংলা ওপার বাংলার মিলন মেলায় বাংলাদেশ থেকে কাব্য বিলাস কপাল নাটকের দ্বিতীয় মঞ্চায়ন করে।

    উৎসব থেকে প্রাপ্ত অর্থ তুলে দেওয়া হয় সতীশ সাউ ও গণপতি নমস্কারের চিকিৎসার্থে। নৈহাটি অ্যাস্থেটিকস এর পক্ষে শমিত ঘোষ জানান, দুই বাংলার মৈত্রী নাট্য উৎসবে ঢাকা থেকে কাব্য বিলাস নাট্য গোষ্ঠী অংশগ্রহণ করে উৎসবকে সফল করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। আগামীতেও এই বন্ধুত্ব আরো দৃঢ় হবে। কাব্য বিলাস ছাড়াও এ উৎসবে ভারতের পক্ষে উজাগর নাট্য গোষ্ঠী এমনও বসন্ত দিনে নাটক নিয়ে অংশগ্রহণ করে।

    এদিকে কোলকাতায় আর্ন্তজাতিক নাট্য উৎসবে কাব্য বিলাস এর অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে ড. তাপস দাস বলেন, আগামীতেও কাব্য বিলাস এসো নাটক শিখির আয়োজনে সাড়া দেবে।

    কোলকাতা ও নৈহাটিতে কপাল নাটকের মঞ্চায়ন শেষে শিল্পীদের অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন অনেক নাট্য সমালোচক।

    নাটকটি বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছে, নোঈম ইসলাম, আমির হোসেন রায়হান, জেনিষা বিশ্বাস, নূরুল ইসলাম খান মামুন, মো; সোহেল, মো: মূসা, পারিসা বিশ্বাস, জাহিদ হাসান হৃদয়, মনিকা মন্ডল, মনোতষ বিশ্বাস এবং রাহুল রাজ।

    কোলকাতা ও নৈহাটির উদ্দেশ্যে কাব্য বিলাসের ১১ সদস্যের দল গত ১৬ জুন রাতে বাংলাদেশ ত্যাগ করে এবং নাট্য উৎসব শেষ দলটি ২৪ জুন বাংলাদেশে সফল ভাবে ফিরে এসেছে।

    প্রতিভার প্রতিক্ষায় নতুনের জয় গান এই শ্লোগানে ২০০৬ সালে রাজধানীর কাওলায় দলটি আত্মপ্রকাশ করে। এই এক যুগে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ভাবে ৭৮টি নাটকের ৪৮৮ টি মঞ্চায়ন করে দেশের অন্যতম শিশু-কিশোর নাট্য দল হিসাবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here