করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মৌলভীবাজার পুলিশের ঘোষণা

    0
    23

    নিজস্ব প্রতিনিধি:  পৃথিবীব্যাপী যখন করোনাভাইরাস আতঙ্কে বিভিন্ন জনগোষ্ঠী নাকাল তখন বাংলাদেশ হয়ে উঠেছে অভয়ারণ্য। আন্তর্জাতিক আইন ও স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করছে অনেকেই। অন্যদিকে সমসাময়িক আতঙ্ককে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে আবেগের বশে সদ্য আসা প্রবাসীরা ঘোরাফেরা করছে স্বজনদের বাড়িতে, হাটে-মাঠে-ঘাটে জনবহুল এলাকাতে ফলে একদিকে যেমন তাদের নিজেদের জীবনের ঝুঁকি বাড়ছে অন্যদিকে পরিবারসহ অন্যান্যদের ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের প্রশাসন দেরিতে হলেও কচ্ছপ গতিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে করোনা ভাইরাস এর ছোবল থেকে সচেতন করে জনগণকে রক্ষা করতে।এরই প্রেক্ষিতে নিচে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের এস পি ফারুক আহমেদ পিপিএম বার এর সচেতনমূলক ঘোষণাটি সাধারণ মানুষের কল্যাণে প্রকাশ করা হলো। ঘোষণাটি নিম্নরূপ-

    “সম্প্রতি বিদেশ ফেরত যে সকল সম্মানিত প্রবাসী ভাই-বোনেরা মৌলভীবাজার জেলায় অবস্থান করছেন আপনাদের প্রতি যথাযথ সম্মান এবং ভালাবাসা রেখে অনুরোধ জানাচ্ছি যে, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করেছে। বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে। এমতাবস্থায়, আপনাকে আপনার সন্তান, পরিবারসহ সর্বোপরি বাংলাদেশকে নিরাপদ রাখার বৃহত্তর স্বার্থে নূন্যতম ১৪ (চৌদ্দ) দিন যথানিয়মে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের সকলের সম্মিলিত প্রয়াসে করোনা ভাইরাসকে প্রতিরোধ করতে পারবো ইনশাল্লাহ।

    সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক মৌলভীবাজার জেলায় যাদের “হোম কোয়ারেন্টাইনে” থাকার কথা তারা এর লংঘন করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ব্যাপারে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বিদেশ ফেরত সচেতন দেশপ্রেমিক প্রবাসী ভাই-বোনদের কাছে বিনীতভাবে সহযোগিতা কামনা করা হচ্ছে।

    আমাদের সকলের নিরাপত্তার জন্য সদ্য বিদেশ ফেরত কোন প্রবাসী ভাই/বোনকে “কোয়ারেন্টাইন” লংঘন করা দেখা মাত্র স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, জেলা ও উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সংশ্লিষ্ট থানা ও মৌলভীবাজার পুলিশ কন্ট্রোলরুমকে অবহিত করুন।

    আসুন আমরা সচেতন হই, নিজে সুস্থ থাকি, অন্যকেও সুস্থ রাখি।

    জরুরী প্রয়োজনে :-
    জেলা পুলিশ, মৌলভীবাজার কন্ট্রোল রুমঃ ০১৭১৩৩১০৯৪৯, ০৮৬১-৫৪৩৪২
    সিভিল সার্জন, মৌলভীবাজার এর নম্বর-০১৭১১৭০৫৩১৫

    প্রচারে : জেলা পুলিশ, মৌলভীবাজার।”

    উল্লেখ্য, এছাড়াও মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলসহ বিভিন্ন উপজেলায় খাদ্যদ্রব্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি ও মজুদ করলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি প্রদান করেছেন।

    উপরোল্লিখিত বিষয়ে স্থানীয় পুলিশ কন্ট্রোল রুম,স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রসহ,স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে যে কোন অভিযোগ করার জন্য মাইকিং পরিচালনা করে বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা।