Thursday 3rd of December 2020 11:34:03 PM

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  অবশেষে ধরা পড়লেন শ্রীমঙ্গল আবাসিক হোটেলে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক হাসান মিয়া (২১) পিতা মোঃ হাকিম মিয়া গ্রাম দিলবরনগর।মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার রাধানগরের হাসান ট্রেইলারের মালিক মোঃ হাসান মিয়া নামের এই ব্যক্তি তার প্রেমিকাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গাজীপুর থেকে নিয়ে আসা খুলনার বিশোর্ধ এক নারী জেমির (ছদ্মনাম) অভিযোগের ভিত্তিতে বারবার অভিযান চালানোর এক পর্যায়ে মোবাইল ট্রাকিং এর মাধ্যমে ১৬ নভেম্বর সোমবার দিবাগত গভীররাতে তাকে গ্রেফতার করে স্থানীয় থানার পুলিশ।

পুলিশের সূত্রে জানা গেছে, আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারোক্তির পরে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে আসামী হাসান মিয়াকে।
জানা যায়, গতরাতে শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আব্দুল ছালিক দুলাল এর নির্দেশনায় এসআই রুকন,এসআই আলামিন ও এসআই তিথঙ্করসহ পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে রাধানগর এলাকার একটি পাহাড়ি ঢিলা থেকে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়,খুলনা জেলার লবণচোরা জিন্নাপাড়া এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা ওই নারী (ছদ্মনাম জেমি) গাজীপুরে থাকতেন। শ্রীমঙ্গল উপজেলার দিল্বরনগর গ্রামে বসবাস কারী ও রাধানগর এলাকায় দর্জির দোকানদার প্রেমিক হাসানের বিয়ের আশ্বাসে “শ্রীমঙ্গলে শহরের মৌলভীবাজার রোডস্থ আবাসিক একটি হোটেলে নিয়ে এসে এখানে কয়েকদিন থাকার কথা বলে প্রেমিক হাসান।এ সময় হোটেল রেজিস্টারে নাম উঠানো লাগবেনা বলে হোটেলে কর্মরত এক মহিলা কর্মী জানান বলে ভিকটিম জেমি (ছদ্মনাম) এ প্রতিনিধিকে জানান। জেমি আরও জানান, দু দিনে কমপক্ষে ৮ থেকে ১০ বার থাকে অনৈতিক কাজ করতে বাধ্য করা হয়েছে। একপর্যায়ে “অন্য পুরুষের হাতে তুলে দিতে চেষ্টা করলে আমি আপত্তি জানাই পরে আমাকে একা রেখে হোটেল থেকে পালিয়ে যায় হাসান।তাকে খুঁজে না পেয়ে তার এলাকায় গিয়ে স্থানীয়দের কাছে অভিযোগ করলে কয়েকজন আমাকে থানায় নিয়ে আসে এবং এক পর্যায়ে থানায় আমাকে রেখে ওরাও চলে যায়।” কথা বলার সময় ওই নারীকে কিছুটা অস্বাভাবিক অবস্থায় দেখা যায়। এ প্রতিনিধির সাথে ঘটনার দিন তারিখ এমনকি যেদিন মামলা করতে এসেছে ওই দিনটিতে কি বার ছিল তাও সে বলতে পারেনি।

তিনি এ প্রতিনিধিকে আরও বলেন, “নিরুপায় হয়ে হাসানকে খুঁজতে অটোরিকশা নিয়ে আবারও তার দোকানে (হাসান ট্রেইলারস) যাওয়ার সময় শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ রোডের রাবার বাগানের পাশে আমাকে আটকিয়ে মারপিঠ করে নির্যাতন করে গুরুতর আহত করে প্রায় ১৬ হাজার টাকা,মোবাইল,ভ্যানিটি ব্যাগ,কাপর চোপর সব নিয়ে যায়। পরে আহতাবস্থায় পথচারীদের সহযোগিতায় শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত শনিবার সন্ধ্যায় ভর্তি হয়ে চিকিৎসারত ছিলাম রোববার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে সশরীরে এসে শ্রীমঙ্গল থানায় অভিযোগ দ্বায়ের করেন ধর্ষিত নারী জেমি (ছদ্মনাম)। কথা বলার সময় জেমি বারবার সিসিটিভি চেক করে তার বিচারের ব্যবস্থা করার জন্য কাঁদতে থাকেন এবং বলতে থাকে হোটেল রেজিস্টারে তার কোন দস্তখত নেওয়া হয়নি সিসিটিভি দেখলেই সব পাওয়া যাবে, সিসিটিভি কেউ দেখতে চাইনা” বলে বারবার অভিযোগ করেন।

পরে হাসপাতাল থেকে থানায় এসে ওই নারী বিয়ের প্রলোভনে প্রতারণা করে ধর্ষণ, নির্যাতন, টাকা-পয়সা (প্রায় ১৬ হাজার টাকা ) ও এন্ডড্রইয়েট মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে শ্রীমঙ্গল থানার কর্মকর্তা ওসি আব্দুস ছালিকের নির্দেশক্রমে এস আই তিথঙ্কর দাস পুলিশ সদস্যদের সহযোগিতায় আহত নারীকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করেন। এখনো তিনি পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ব্যাপারে মামলার আইও তিথংকর দাসের সাথে কথা হলে তিনি বলেন “আমরা মেয়েটিকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়েছি।পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানা যাবে। অপরদিকে ঘটনার বর্ণনায় যে তারিখ মামলায় ব্যবহার করেছে সে তারিখ অনুযায়ী সিসিটিভি চেক করা হয়েছে তাতে তার উপস্থিতি পাওয়া যায়নি যতটুকু পাওয়া গেছে ঘটনার পরবর্তীর ফুটেজ।”

ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে ওসি আব্দুস ছালিক দুলাল বলেন, “মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে চিকিৎসা ও পরীক্ষার জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে,অভিযোগের পর থেকে আমরা বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে শেষ পর্যায়ে রাধা নগর এলাকার একটি পাহাড়ের চূড়া থেকে তাকে বিশেষ কৌশলে আটক করতে সক্ষম হয়েছি, এবং বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।পরবর্তীতে সেক্সুয়াল অ্যাসল্ট এর রিপোর্ট ও বিজ্ঞ আদালতের দেওয়া নির্দেশ মতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পূর্বের নিউজ এর লিঙ্ক

বিয়ের প্রলোভনে শ্রীমঙ্গল আবাসিক হোটেলে ধর্ষণের অভিযোগ

ক্রীড়া ডেস্কঃ ২৯ অক্টোবর ২০১৯—বাংলাদেশের ক্রিকেটের এক কালো অধ্যায়। জুয়াড়ির সঙ্গে কথোপকথন গোপন করে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসান। এই ক্রিকেট তারকাকে দুই বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। এর মধ্যে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা স্থগিত হয়। বাকি এক বছর ক্রিকেটের বাইরে থাকতে হয় দেশসেরা ক্রিকেটারকে।

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে এল নিষেধাজ্ঞার এক বছর। আজ বৃহস্পতিবার আইসিসির সব নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেলেন সাকিব। এখন থেকে সব ধরনের ক্রিকেটে খেলতে আর বাধা থাকবে না বিশ্বের অন্যতম অলরাউন্ডারের। বাংলাদেশ ক্রিকেটকে বড় ধাক্কাই দিয়েছিল গত বছরের ২৯ অক্টোবর। ২৮ অক্টোবর দিবাগত রাতে হঠাৎ গুঞ্জন ওঠে, নিষিদ্ধ হতে পারেন দেশসেরা ক্রিকেটার সাকিব। এই খবরে উত্তাল হয়ে ওঠে পুরো দেশের ক্রিকেট। টানা ১২-১৩ ঘণ্টা মিরপুর শেরেবাংলায় ভিড় জমান গণমাধ্যমকর্মীরা। পুরো স্টেডিয়ামের চারপাশ ঘিরে ছিলেন ভক্তরা। দীর্ঘ অপেক্ষার পর সন্ধ্যা নামতেই সেই গুঞ্জন সত্যিতে রূপ নেয়। জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন সাকিব।

সাকিবকে ফাঁসানোর পেছনে ছিলেন দীপক আগারওয়াল নামের একজন ভারতীয় জুয়াড়ি। মোট তিনটি অভিযোগ এনে সাকিবকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে আইসিসি। তবে ভুল স্বীকার করায় এক বছরের শাস্তি কমানো হয়। আইসিসির অ্যান্টিকরাপশন ইউনিটের (এসিইউ বা আকসু) ২.৪.৪ অনুচ্ছেদের মধ্যেই তিনটি অপরাধ করেছিলেন সাকিব।

যেগুলো হচ্ছে :

১. ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কা, জিম্বাবুয়েকে নিয়ে বাংলাদেশের যে ত্রিদেশীয় সিরিজ হয়েছিল, অর্থাৎ ২০১৮ আইপিএলে প্রথম ম্যাচ গড়াপেটার (ফিক্সিং) প্রস্তাব পান সাকিব। কিন্তু এ বিষয়ে তিনি আইসিসির অ্যান্টিকরাপশন ইউনিটকে (এসিইউ) বিস্তারিত কোনো কিছুই জানাননি।

২. একই ধারার অধীনে অপরাধ : ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের সময়ই আরো একটি ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু তখনো সে বিষয়ে সাকিব আইসিসিকে অবহিত করেননি।

৩. একই ধারার অধীনে অপরাধ : ২০১৮ সালের ২৬ এপ্রিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মধ্যকার ম্যাচেও ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু সে বিষয়েও তিনি আইসিসি কিংবা সংশ্লিষ্ট দুর্নীতি দমন সংস্থাকে কিছুই জানাননি।

নিষেধাজ্ঞায় থাকাকালীন বেশিরভাগ সময় যুক্তরাষ্ট্রেই কাটিয়েছেন সাকিব। সেখানেই স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির দ্বিতীয় কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন। দুই মেয়ে আর পরিবারকে নিয়ে সময় কাটিয়েছেন সাকিব। তবে দূর দেশে থেকেও করোনা পরিস্থিতিতে দেশের অসহায় মানুষকে সাহায্য করে যান তিনি। নিজের নামে একটি ফাউন্ডেশন চালু করে নিরলসভাবে কাজ করে যান। মানুষের সাহায্যের জন্য বিক্রি করে দেন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ রাঙানো প্রিয় ব্যাট। খাদ্য সহায়তা, করোনা কিট কেনা, অ্যাম্বুলেন্স দেওয়া, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তসহ অনেককেই সাহায্য করেন তিনি।

শ্রীলঙ্কা সফর দিয়ে ফিরবেন বলে মাঝে দেশে ফিরেছিলেন। যুক্তরাষ্ট্র থেকে উড়ে এসে বিকেএসপির মাঠে নিবিড় অনুশীলনও করেন বাংলাদেশের বিশ্ব তারকা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হয়ে যাওয়ায় আবারও যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে চলে যান সাকিব। তবে সাকিবের অপেক্ষার প্রহর শেষ হলো আজ। আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি লিগ। ঘরোয়া এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়েই ফের ২২ গজে ফিরবেন বাংলাদেশের প্রাণ সাকিব আল হাসান।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  নেত্রকোনার মদন উপজেলায় উচিতপুরের হাওরে ঘুরতে এসে নৌকাডুবিতে ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে আরও চারজন।

আজ বুধবার দুপুরের দিকে মদনের উচিতপুরের সামনের হাওর গোবিন্দশ্রী রাজালীকান্দা নামক স্থানে এ নৌকাডুবির নির্মম ঘটনা ঘটে।

মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বুলবুল আহমেদ সংবাদমাধ্যমকে ১৭ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

নিহত ১৭ জনের মধ্যে লুবনা আক্তার (১০) ও জুলফা আক্তার (৭) নামে দুই বোনের নাম জানা গেছে। তারা ময়মনসিংহের চরশিতা ইউনিয়নের ওয়ারেছ উদ্দিনের মেয়ে। বাকিদের পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়  প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে ময়মনসিংহ সদর থানার ৫নং চরশিরতা ইউনিয়ন ও আটপাড়া তেলিগাতী থেকে ৪৮ জন ঘুরতে মিনি কক্সবাজার উচিতপুরে আসে।

পরে হাওরের উত্তাল ঢেউয়ে গোবিন্দশ্রী রাজালীকান্দা নামক স্থানে নৌকাটি ডুবে যায়। এতে ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ আরও চারজন।

মদন থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রমিজুল হক জানান, মদন উপজেলার পর্যটনকেন্দ্র ‘মিনি কক্সবাজার’ খ্যাত উচিতপুর হাওরে নৌকাডুবিতে ১৭টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। চারজন নিখোঁজ রয়েছে। উদ্ধার কাজ চলছে।

তিনি বলেন, ময়মনসিংহ শহরের একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী–শিক্ষকেরা উচিতপুরের হাওরে ঘুরতে যান। উচিতপুর ঘাটে বুধবার বেলা দুইটার দিকে তাদের বহনকারী নৌকাটি ডুবে যায়। সেখান থেকে বেলা তিনটা পর্যন্ত ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বেনাপোল প্রতিনিধি:  যশোরের শার্শার নাভারনের ফুটবল খেলোয়াড় মেহেদী হাসান গগা হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তিকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন) । মৃত্যু কালে তার বয়স হয়েছির ৫১ বছর।
বুধবার দিনগত রাত দেড় টার সময় তিনি মৃত্যু বরন করেন। মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী, ২ মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। ফুটবল খেলোয়াড় মেহেদী হাসান গগা নাভারন ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য ইব্রাহীম খলিলের সেজ ভাই ও বারিপোতা গ্রামের মৃত রবিউল ইসলাম সরদার এর ছেলে। ফুটবল খেলোয়াড় মেহেদী হাসান গগা বেনাপোল ডিগ্রি কলেজের ক্রিড়া শিক্ষক ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সদস্য ছিলেন। তার অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

মরহুমের মেজ ভাই নাভারন ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য ইব্রাহীম খলিল জানান, গগা বুধবার রাতে হঠাৎ করে বুকে ব্যাথা অনুভব করেন। তখনি দেরি না করে তাকে চিকিৎসার জন্য যশোরের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাবার সময় যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের কলাগাছি নামক স্থানে পৌঁছালে রাত দেড়টার সময় রাস্তায় গাড়িতেই সে মৃত্যু বরন করেন।

বৃহস্পতিবার বাদ আসর সরদার বারিপোতা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয় ।
মরহুমের জানাজায় নাভারন ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ইব্রাহীম খলিল, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব নূরুজ্জামান, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব সালে আহম্মেদ মিন্টু, শার্শা ইউপি চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন, শার্শা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহরিন আলম বাদল, শার্শা ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুর রহিম সরদারসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেষার মানুষ অংশ নেন।

শ্রীমঙ্গলে সম্প্রসারিত বিট পুলিশিং কার্যক্রম সম্পর্কিত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

সোলেমান আহমেদ মানিক,শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: ‘‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার’’ এই শ্লোগান নিয়ে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ উদ্যোগে শ্রীমঙ্গলে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, চুরি ,ডাকাতি, ইভটিজিং ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সম্প্রসারিত বিট পুলিশিং কার্যক্রম সম্পর্কিত এক মতবিনিময় সভা পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত, গীতা পাঠ এবং জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়।
আজ বুধবার বিকালে শ্রীমঙ্গল থানা প্রাঙ্গণে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি (উপ মহা পরিদর্শক) কামরুল হাসান, বিপিএম (বার)।
এ সময় প্রধান অতিথি ডিআইজি (উপ মহা পরিদর্শক) কামরুল হাসান, বিপিএম (বার) প্রায় ২০ মিনিট জনতার উদ্যেশে বক্তব্য রাখেন।তিনি তার দীর্ঘ বক্তব্যে পুলিশের আইন নিয়ে নানান ধরনের চমকপ্রদ কথা বলেন যা উপস্থিত জনতা হাততালি দিয়ে সাধু বাদ জানান।এক পর্যায়ে তিনি বলেন “পুলিশ এমন কিছু না যে থাকে দেখলেই সালাম দিতে হবে বা চেয়ার টেনে এনে দিতে হবে।পুলিশ চাকরি করে সেবা দেওয়া তার কর্তব্য সহযোগিতা করা আপনাদের দায়িত্ব।” তিনি বলেন ২০ কিলোমিটার দূর থেকে একজন অভিযোগ নিয়ে থানায় যাতে না আসতে হয় বরং পুলিশ যাবে অভিযোগকারির দ্বারে এটিই হচ্ছে সম্প্রসারিত বিট পুলিশিং কার্যক্রম।

শ্রীমঙ্গলে সম্প্রসারিত বিট পুলিশিং কার্যক্রম সম্পর্কিত মতবিনিময় সভায় উপস্থিতদের একাংশ।

পরে স্থানীয়রা ভিবিন্ন সমস্যা তুলে ধরেন এর মধ্যে রয়েছে বধ্যভূমি ৭১ এলাকায় অবৈধ চালচলন বন্ধকরন বিষয়ক,  শ্রীমঙ্গল শহরকে যান জট মুক্ত রাখতে টমটম জাতিয় রিক্সা গুলোর চালকদের নিয়ন্ত্রণকরণ,সিএনজি স্ট্যান্ড স্থানান্তর,মাদক নিয়ন্ত্রণে অবৈধ মদের পাট্টা গুলো বন্ধ করণ,সুদী কারবারবন্ধকরণসহ নানা অভিযোগ ডিআইজি (উপ মহা পরিদর্শক) কামরুল হাসান, বিপিএম (বার) সম্মুখে তুলে ধরেন।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোঃ ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে ও শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুস ছালেক ও জহর লাল এর সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা চেয়ারম্যান রণধীর কুমার দেব, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনোয়ারুল হক (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত), সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সার্কেল), উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অর্ধেন্দু কুমার দেব ভেবুল ও সাধারণ সম্পাদক শহীদ হোসেন ইকবাল।
আরও উপস্থিত ছিলেন,স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ, কমিউনিটি পুলিশিং এর উপদেষ্টা প্রাক্তন স্বাস্থ্য উপপরিচালক ডা. হরিপদ রায়, ওসি তদন্ত সোহেল রানা,বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ,ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি এএসএম ইয়াহিয়া, সম্পাদক হাজী কামাল হোসেনসহ পৌর কাউন্সিলরগন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যগন,বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগন, কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্যবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ স্থানীয় বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে যা রাত ৮ টার পর থেকে শুরু হবে বলে জানা গেছে ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc