Friday 30th of October 2020 08:01:50 AM

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে অনলাইন ভর্তি আবেদন। তিনটি ধাপে অনলাইন আবেদন কার্যক্রম আজ রোববার শুরু হয়ে আগামী ২০ আগস্ট পর্যন্ত চলবে। তবে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে অনলাইন সার্ভিস ও কল সেন্টার বন্ধ থাকবে।  ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক হারুন অর রশীদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

বোর্ড থেকে বলা হয়েছে, ভর্তি আবেদন ফি পরিশোধ করার সময় এবং প্রথমবার আবেদনের সময় শিক্ষার্থীকে একটি মোবাইল নম্বর (নিজের/অভিভাবকের) দিতে হবে, যেটি শিক্ষার্থীর যোগাযোগ নম্বর হিসেবে বিবেচিত হবে। যোগাযোগ নম্বরটি শিক্ষার্থীর জন্য অতীব গুরুত্বপূর্ণ কেননা পরবর্তীতে শিক্ষার্থীর সকল যোগাযোগ ও আবেদনের জন্য এটির প্রয়োজন হবে। আবেদন করার সময় কলেজের পছন্দক্রম বিশেষ বিবেচনাপূর্বক সাবধানে পূরণ করতে বলা হয়েছে।

বলা হয়েছে, এসএসসি/সমমান পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ-র ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে। সমান জিপিএপ্রাপ্তদের ক্ষেত্রে ধারাবাহিক মূল্যায়ন (Continuous Assessment) ব্যতীত মোট প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে। ভর্তির ফলাফল তিনটি পর্যায়ে প্রক্রিয়াকরণ করা হবে। একজন শিক্ষার্থীকে তার মেধা, কোটা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও পছন্দ ক্রমানুযায়ী একটি মাত্র কলেজের জন্য নির্বাচন করা হবে। নির্বাচিত শিক্ষার্থী নিজেই অনলাইনে বোর্ডের রেজিস্ট্রেশন ও অন্যান্য ফি বাবদ ২০০ টাকা জমা দিয়ে প্রাথমিক ভর্তি নিশ্চায়ন করবে। একজন শিক্ষার্থী সর্বোচ্চ দুইবার স্বয়ংক্রিয়ভাবেকৃত মাইগ্রেশনের জন্য বিবেচিত হবে। এক্ষেত্রে মাইগ্রেশন সর্বদাই শিক্ষার্থীর পছন্দ ক্রমানুসারে উপরের দিকে যাবে।

যেভাবে আবেদন করা যাবেঃ চলতি বছর একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র অনলাইনে আবেদনের সুযোগ পাচ্ছেন। শিক্ষার্থীদের অগোচরে আবেদন করিয়ে নেয়া বন্ধ করতে চলতি বছর এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া বন্ধ করা হয়েছে। www.xiclassadmission.gov.bd -এ ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। একজন সর্বোচ্চ ১০টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবেন। শিক্ষার্থীকে তার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল উল্লেখ করে আবেদন করতে হবে।

অর্থ জমা দিতে হবে যেভাবেঃ  একদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে অনলাইনে একজন শিক্ষার্থী সর্বনিম্ন ৫টি কলেজে এবং সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে আবেদন করতে পারবে। তবে একই প্রতিষ্ঠানের একাধিক শিফট/ভার্সন/গ্রুপে আবেদন করা যাবে। আবেদনের জন্য ১৫০ টাকা টাকা ফি পরিশোধ করতে হবে। এ অর্থ নগদ/সােনালী ব্যাংক/টেলিটক/বিকাশ/শিওর ক্যাশ/রকেট এর মাধ্যমে সার্ভিস চার্জসহ প্রদান করতে হবে।

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,১৬এপ্রিলঃ দীর্ঘ ১৮ বছর পর সিলেট রসময় মেমোরিয়েল স্কুল থেকে অষ্টম শ্রেণির মেধাবী শিক্ষার্থী দেবপ্রিয় পাল তুষার টেলেন্টপুল বৃত্তি পেয়েছে । সে হবিগনঞ্জ জেলার ছাতিয়াইন গ্রামের জনপ্রিয় কোম্পানি মিল্লাত ফার্মাসিটিকেল সিলেট বিভাগের (আর এস এম) দেবাশীষ পাল অপু এর ছোট ছেলে। বর্তমানে জামতলার বাসিন্দা তুষার ছোট বেলা থেকেই অত্যন্ত মেধাবি ও সৃজনশীল কর্মে পারদর্শী দেবপ্রিয় পাল তুষার বড় হয়ে মানুষের সেবা করার মানসে ডাক্তার হতে চায়।
বর্তমানে সে রসময় মেমোরিলে স্কুলের নবম শ্রেণিতে পড়ছে সে সকলের দোয়া প্রার্থী। উল্লেখ্য সে জামতলাস্থ স্টাডি হোম একাডেমি কেয়ার থেকে গাইড লাইন নিয়ে পড়াশুনা করে আসছে তার এই সফলতার জন্য স্কুলের প্রধান শিক্ষক সেলিম উদ্দিন বলেন আমরা খুব আনন্দিত,পুলকিত আমরা তাকে অভিনন্দন তার পরিবারের   প্রতি অভিনন্দন জানাই আশা করি সে আগামিতে ধারবাহিতকা ধরে রাখবে। এদিকে স্কুলের ইরেজির শিক্ষক মো. আব্দুন নুর বলেন  মেধাবীর হাতে
আগামির বাংলাদেশ আর এই মেধাবীরাই আগামির বাংলাদেশ নির্মাণ করবে ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc