Thursday 29th of October 2020 11:32:14 AM

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি:  নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্স গ্রীসের প্রথম সচিব (শ্রম) হিসাবে পদায়ন হয়েছে। নবীগঞ্জে নবাগত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসাবে যোগদান করেছেন শেখ মহিউদ্দিন।

আাগামীকাল বুধবার থেকে তিনি দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন এর আগে তিনি কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে দায়িত্বরত ছিলেন।পরে তাকে সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে বদলি করা হয়।গত  ১৫  জুলাই সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় থেকে বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মশিউর রহমান ( এনডিসি) এর স্বাক্ষরিত এক  পত্রে শেখ মহিউদ্দিনকে নবীগঞ্জ নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে বদলি করা হয়।

নবীগঞ্জ উপেজলার সার্বিক কার্যক্রম এগিয়ে নিতে ও দায়িত্ব  পালনে সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন নবাগত ইউএনও শেখ মহিউদ্দিন।

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানায় নতুন অফিসার ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করেছেন সিআইডি থেকে আসা মো. আব্দুস ছালেক দুলাল। ৭ মে ২০১৯,  মঙ্গলবার দুপুরে  শ্রীমঙ্গল থানার ওসি হিসেবে তিনি দায়িত্বভার গ্রহণ করেন এবং সাবেক ভারপ্রাপ্ত ওসি কে এম নজরুল তার হাতে দায়িত্ব বুঝিয়ে দেন।বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে মো. আব্দুস ছালেক এক সময় মৌলভীবাজার মডেল থানাসহ বিভিন্ন থানায় দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।এ ছাড়া তিনি মৌলভীবাজার ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টের (সিআইডি) ওসি হিসেবে ও দায়িত্ব পালন করেছেন বলে জানা গেছে,আব্দুস ছালেক দুলাল এর গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার সায়েস্তগঞ্জ থানার লস্করপুর এলাকায় ।

অপরদিকে সোমবার বিকেলে সুনামগঞ্জে বদলী হওয়া শ্রীমঙ্গল থানার সাবেক ওসি কে এম নজরুল  ইসলাম কাজল নবাগত  ওসিকে  দায়িত্বভার বুঝিয়ে দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান ” শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ নতুন ওসি হিসেবে যোগদান করলেন তিনি আমার ব্যাচম্যট মো: আব্দুস ছালেক।”সাবেক ওসি কে এম নজরুল ইসলাম কাজল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শ্রীমঙ্গলের সবার কাছে দোয়া ও কামনা করেছেন ।

সদ্য যোগ দেওয়া ওসি মোঃ আব্দুস ছালেক দুলাল জানান, শ্রীমঙ্গল থানার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সার্বিক চেষ্টার পাশাপাশি শ্রীমঙ্গলকে মাদকমুক্ত ও অপরাধ মুক্ত রাখতে কাজ করে যাব এব্যাপারে তিনি শ্রীমঙ্গল থানার সকল নাগরিকের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য,শ্রীমঙ্গল থানার সাবেক ওসি কে এম নজরুল ইসলাম কাজল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্থানীয়দের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন।অপরদিকে নবাগত ওসি আব্দুস ছালেকের কাছে এলাকাবাসির প্রত্যাশা তিনি যেন ওসি নজরুলের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে শ্রীমঙ্গল থানাকে ঘুষ বানিজ্য মুক্ত রাখতে সচেষ্ট থাকেন।

জেলার তারাপাশা বাজারে ইসলামীক ফ্রন্ট বাংলাদেশের সভাপতি আব্দুর রহিম রেজভীর নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার বিকালে রাজনগর উপজেলা শাখার সভাপতি, সহ-সভাপতি, সাধারন সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদকসহ সকল নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টে যোগদান করেন এ মর্মে এম এম রাসেল মোস্তফা একটি লিখিত প্রেস বার্তায় জানিয়েছেন।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মৌলভীবাজার জেলা শাখার সভাপতি  মাওলানা হারিছ আহমদ আল ক্বাদেরী, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মৌলভীবাজার জেলা শাখার সিঃ সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুল মুহিত হাসানী, জেলা যুবসেনা সভাপতি ও কেন্দ্রীয়সহ সাংগঠনিক সম্পাদক এম মুহিবুর রহমান মুহিব,সাইফুদ্দিন সংগ্রামী,আব্দুল করিম,বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা মৌলভীবাজার জেলা শাখার সিঃ সহ সভাপতি জুনেদুল ইসলাম চৌধুরী আদনান, ছাত্রসেনা রাজনগর উপজেলা শাখা সভাপতি হাফেজ দেলোয়ার হোসেন, সিঃ সহ সভাপতি কে এম এ জলিল, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।প্রেস বার্তা

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩০এপ্রিল,রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধিঃ সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা হতে বাংলাদেশ পুলিশ ট্রেনিং রিক্রুট কনেষ্টেবল পুরুষ ও মহিলা পদে গত ফেব্রুয়ারী মাসে নিয়োগ প্রাপ্ত হয়ে মৌলিক প্রশিক্ষণ গ্রহনের জন্য প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে প্রবেশের প্রক্কালে জৈন্তাপুর উপজেলা হতে ২জন মহিলা সহ ২৭জন সুযোগ পাওয়ায় জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশ তাদেরকে সংবর্ধনা প্রদান করে।

গতকাল দুপুর ১টায় জৈন্তাপুর মডেল থানার আয়োজনে সংবর্ধনা প্রদান কালে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট সার্কেল সিনিয়র এ.এস.পি আমিনুল ইসলাম সরকার, জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মাঈনুল জাকির, অফিসার ইনচার্জ(তদন্ত) আনোয়ার জহিদ, সেকেন্ড ইন কমান্ড ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্জ রাজন সহ সকল এস.আই, এ.এস.আই এবং পুলিশ সদস্যবৃন্দ। পুলিশ টেনিংয়ের জন্য ২মহিলা সহ ২৭জন কনেষ্টেবল পদে নিয়োগ প্রাপ্তদের ফুল দিয়ে বরন করে তাদেরকে মিষ্টি মুখ করানো হয়।

সংবর্ধনা কালে সার্কেল এ.এস.পি আমিনুল ইসলাম বলেন- বাংলাদেশের আইন শৃংঙ্খলা রক্ষার জন্য পুলিশ বিভাগ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে। তারই ধারবাহিকতায় পুলিশ বাহিনীতে নতুন কনেষ্টেবল নিয়োগের মাধ্যমে এই বিভাগকে আরও শক্তিশালি করা হল। এবারই প্রথম ১শত টাকায় পুলিশ নিয়োগ করা হয়েছে।

পুলিশের ইতিহাসে নিয়োগটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে। আর তোমরা সততা নিষ্ঠা এবং কঠোর ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে এই বাহিনীকে যোগদান করে দেশের এবং পুলিশ বাহিনীর সুনাম অক্ষুন্ন রাখবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১৮এপ্রিল, রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধি: এক সময়ের নারী রাজ্য খ্যাত ছিল স্বাধীন জৈন্তিয়া রাজ্যের। ৭১ সালে মুক্তিযুদ্বের মাধ্যমে স্বাধীন  বাংলাদেশের জৈন্তাপুর উপজেলায় ২৬তম একজন সফল নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা যোগদান করেন, কর্মস্থলে যোগদার করার পর নির্বাহীর বাসভবনকে নারীর মত সাজিয়ে নিতে কিছু সময়ের জন্য সিলেটের বাসা থেকে এখানে এসে অফিসের কার্যক্রম চালিয়েজান তিনি।

এরপর হাতে তাহার নেতৃত্বে প্রশাসনকে দালাল মুক্ত করে সেবা নিতে আসা লোকজনের সাথে কথা বলার সুযোগ সৃষ্ট করেন। এর পর হতে এগিয়ে যাচ্ছে জৈন্তাপুরের প্রায় দেড়লক্ষ নাগরিক। প্রাণ চা ল্য ফিরে এসেছে প্রতিটি ক্ষেত্রে।

প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ভিশন ২০২১এর ধারাবাহিকতা রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রধান কাজ হলো উপজেলায় অবস্থিত সকল বিভাগের কাজকর্মের সমন্বয় সাধন। মাদকমুক্ত, যৌতুক-বাল্যবিবাহ রোধ ও জঙ্গিমুক্ত সামাজিক ব্যবস্থার গুরুত্বপূর্ণ কাজের ভার তাদের উপর।

এছাড়াও একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একটি উপজেলার সকল দায়িত্ব তদারকি করে থাকেন। পাশাপাশি জেলার সঙ্গে সমন্বয় করে তিনি অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। সাধারণ প্রশাসন, রাজস্ব প্রশাসন, ফৌজদারি প্রশাসন ও উন্নয়ন প্রশাসন বিষয়ে দায়িত্ব পালনের ভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)।

তাছাড়াও অন্যান্য দায়িত্ব হলো আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তদারকি করা, সরকারের বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন, সরকারের উন্নয়নমূলক কাজ তদারকি ও বাস্তবায়ন, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় পূর্বপ্রস্তুতি ও পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়ন।

ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প বাস্তবায়ন, আশ্রয়ণ প্রকল্প, আদর্শ গ্রাম, আবাসন প্রকল্প গ্রহণ ও তাদের বাস্তবায়ন, অসহায় মানুষদের বিভিন্ন আশ্রয়নে সংস্থানকরণ, আবাসনবাসীদের ঋণ প্রদান ও তাদের স্বাবলম্বী করা, উপজাতিদের ঋণ প্রদান, তাদের স্বাবলম্বী করা, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা পরিদর্শন ও তাদের শিক্ষার মান উন্নয়ন করা।

স্থানীয় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তি করা, ইউনিয়ন পরিষদে ট্যাক্স আদায়ের জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা করা ছাড়াও কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি, দুর্যোগকালীন ত্রাণসামগ্রী বিতরণ ও ভিজিডি, ভিজিএফ, অতিদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচি বাস্তবায়ন,সরকারের নতুন কর্মসূচি সম্পর্কে জনগণকে জানানো। জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসকল কাজ অত্যন্ত দক্ষতা বিচক্ষণতার সাথে করে যাচ্ছেন। ফলে প্রশাসনে ফিরে এসেছে প্রানচাঞ্চল্য ও গতিশীলতা।।

জৈন্তাপুর উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে গত বছর নভেম্বর মাসে যোগ দেন ২৯তম বি,সি,এস এর প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা মৌরীন করিম। একজন সফল নারী কর্মকর্তা হিসেবে মৌরীন করিম প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ২০১৫সালে সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ নারী কর্মকর্তার পুরস্কার পান। তিনি ২০১৬সালে সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ এ,সি ল্যান্ডের পুরস্কার পান।

মৌরীন করিম জৈন্তাপুরে যোগদান করার পর প্রতিটি সরকারী দপ্তর সহ জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয় সাধন করে একটি স্বচ্চ, গতিশীল ও দূর্নীতি মুক্ত প্রশাসন গড়ে তুলতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সকল জাতীয় দিবস ও সরকারী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন দক্ষতার সাথে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে তিনি জৈন্তাপুরের প্রশাসনের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে নতুন ইনোভেশন যুক্ত করে উপজেলা প্রশাসনের ওয়েব পোর্টাল ব্যবহার করছেন।

ফলে এ বছর সিলেট বিভাগের মধ্যে জৈন্তাপুর উপজেলার ওয়েব পোর্টাল শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেয়েছে। উপজেলায় নারী জাগরণ সৃষ্টি করতে তিনি প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ছাত্রীদের উদ্বুদ্ধ করছেন। তাঁর অফিসে এসে সাধারণ জনগণের পাশাপাশি নারীরা তাদের সমস্যার কথা অত্যন্ত স্বাচ্ছন্দের সাথে বলতে পারছে। তিনি এসকল সমস্যা দ্রুত সমাধান করছেন।বাল্যবিবাহ রোধে ছুটে চলেন গ্রামেগঞ্জে। মেয়েদের ও অভিবাবকদের  কাউন্সেলিং করে ইতোমধ্যে কয়েকটি বাল্যবিবাহ রোধ করেছেন।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন ও মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ সম্মান প্রদর্শনে তিনি কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন। সকল জাতীয় দিবসে স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীদের মাঝে মুক্তি যোদ্ধাদের উপস্থিত রেখে তাঁদের মুখ থেকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস শুনান। এ বছর মহান স্বাধীনতা দিবসে উপজেলার সকল মুক্তিযোদ্ধাদেরকে নাম ও ছবি সংবলিত ক্রেস্ট প্রদান করে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

উপজেলার সরকারী উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের পাশাপাশি তিনি বেসরকারি ভাবে উন্নয়ন ও রাস্তাঘাট নির্মাণ করতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করছেন।কিছুদিন পূর্বে নিজপাট উজানী নগরে স্থানীয় জনগণের উদ্যোগে একটি রাস্তা নির্মাণে তিনি জনগণের পাশে থেকে উৎসাহ প্রদান করেন। সাংস্কৃতিক উন্নয়নে তিনি ঝিমিয়ে পড়া উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির নতুন কমিটি গঠন করেন।

একাডেমির নতুন কার্য্যালয় স্থাপন করে শিক্ষক নিয়োগ এর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। মৌরীন করিম জৈন্তাপুর উপজেলায় যোগদানের পর সকল ক্ষেত্রে স্বচ্চতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা করে একটি জনকল্যাণমুখী গতিশীল প্রশাসন হিসেবে জৈন্তাপুরে ফিরে এসেছে প্রানচাঞ্চল্য।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০২জুলাই,এম এস জিলানী আখনজীঃ জাকজমকপূর্ণভাবে চুনারুঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বেলা ৪ ঘটিকায় উপজেলা পরিষদ মাঠে পুনর্মিলণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগর সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু তাহের।

আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি রুশন খানের সভাপতিত্বে ও গাজীপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি আঃ মালেকের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন-জেলা আওয়ামীলীগ কার্যকরী কমিটির সদস্য ও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যরিষ্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন, উত্তরা থানার উত্তর পূর্ব আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক মতি, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুুল লতিব, মদরিছ মিয়া মহালদার, যুগ্ন সম্পাদক আনোয়ার আলী, সুজিত কুমার দেব, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব রজব আলী, বাবু সজল দাশ, মোঃ ওয়াহেদ আলী, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক হাছান আলী, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক শফিউল আলম মানিক, ত্রান ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আব্দুল হাই, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক আনিস আলী, আওয়ামীলীগ নেতা নোমান চৌধুরী, পৌর আওয়ামীলীগ সেক্রেটারি আবুল খায়ের, গাজীপুর ইউনিয়নের সভাপতি ও চেয়ারম্যান হুমায়ূন কবির খান, আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের সভাপতি আলাউদ্দিন মাষ্টার, সেক্রেটারি প্রফেসর আবু নাসের, দেওরগাছ ইউনিয়নের সভাপতি মহরম আলী, সেক্রেটারি সত্যেন্দ্র দেব, পাইকপাড়া ইউনিয়নের সভাপতি ময়না মিয়া তালুকদার, সেক্রেটারি মোতাহার হোসেন তালুকার, শানখলা ইউনিয়নের সভাপতি শফিক মিয়া তরফদার, সেক্রেটারি আবুল কালাম চৌধুরী এখলাছ, উবাহাটা ইউনিয়নের সভাপতি আলহাজ্ব আকবর আলী, সেক্রেটারি প্রফেসর আঃ রউফ, সাটিয়াজুরী ইউনিয়নের সভাপতি ডাঃ হাবিবুর রহমান, সেক্রেটারি মোঃ ফরিদ মিয়া, রানীগাও ইউনিয়নের সভাপতি আঃ জলিল, মিরাশী ইউনিয়নের সভাপতি ইদ্রিছ আলী আলতা মিয়া তালুকদার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারি সাইফুল আলম রুবেল, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী, সেক্রেটারি মুজিবুর রহমান প্রমুখ।

এতে বক্তব্য রাখেন আহমদাবাদ ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, পৌর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আঃ রহমান, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি আমীর আলী, স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ন সম্পাদক আব্দুল হাই প্রিন্স, ছাত্রলীগের যুগ্ন সম্পাদক ইফতেখার আলম রিপনসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে চুনারুঘাট উপজেলার রানীগাও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল মোমিন চৌধুরী ফারুক, মিরাশী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ূব আলী তালুকদার, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা কাউসার বাহার, সদর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আঃ জব্বার, আরজু মিয়া মেম্বার, কেরামত আলী মেম্বার, আব্দুল্লাহ আল মামুন, রানীগাও ইউনিয়নের কাজী হারুন মিয়া, ফরহাদ বখত চৌধুরী, কামাল মিয়া মেম্বার, বাচ্চু মিয়া, লিলু মিয়া, হাজী আঃ ছালাম, হাজী রুশন আলী, আহমদাবাদ ইউনিয়নের সাচ্চু মিয়া, জমরুত আলী, পাইকপাড়া ইউনিয়নের আঃ কাদির ও শামীম মিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি জাপাসহ বিভিন্ন দলের ৫ শতাধিক নেতাকর্মী আওয়ামীলীগে যোগদান করেন।

পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্টানে গান পরিবেশন করেন বাউল শিল্পী প্রাণকৃষ্ণ রায়। এতে কয়েক হাজার মানুষ অংশ নেয়।

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,১০মে,চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ চুনারুঘাট উপজেলার পাইকপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের ১১জন নেতাকর্মী জাতীয়তাবাদী সামাজিক সংগঠন জাসাসে যোগদান করেছে। গত মঙ্গলবার বাদ মাগরিব চুনারুঘাট উপজেলার পাইকপাড়া ইউনিয়ন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা জাসাসের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়।

স্থানীয় ইউনিয়ন অফিস সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোঃ আইয়ূব আলী মেম্বার। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ মোঃ লিয়াকত হাসান। উদ্ভোদক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা জাসাসের আহ্বায়ক সারোয়ার নেওয়াজ শামীম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুর রব, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব খাইরুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব শামছুল হক তালুকদার, দপ্তর সম্পাদক মোঃ গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক সৈয়দ আবু নাঈম হালিম, দেওরগাছ ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আতিকুল কবির, সদর ইউনিয়ন বিএনপি নেতা মোঃ মোজাহিদ মিয়া ও ছাত্রদল নেতা ঈশা খান প্রমুখ।

ইউনিয়ন জাসাসের আহ্বায়ক গোলাপ তালুকদার এর সার্বিক প্রচেষ্টায়  শহীদ জিয়াউর রহমান তথা বিএনপির আদর্শে আদর্শিত হয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের বিভিন্ন স্তরের ১১জন নেতাকর্মী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা জাসাসে যোগদান করেন। যোগদানকারীরা হলেন আহাম্মদ আলী, জুয়েল মিয়া, সাইফউদ্দিন খান, আবুল খায়ের, আক্কাছ মিয়া তালুকদার, রাজন মিয়া তালুকদার, রিপন খান, রফিক খান, শাহজাহান মিয়া, মোঃ সাজু মিয়া ও বকুল সূত্রধর। প্রধান অতিথি বলেন, আজ অবৈধ আওয়ামী সরকারের নির্যাতনে দলীয় নেতাকর্মী সহ দেশবাসী অতিষ্ট হয়ে পড়েছে।

তা মোকাবেলায় নেতাকর্মীদেরকে যেকোন সময় প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান।

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,০৮মেঃ   খ্যাতিমান শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. এম এম এ হাসেম নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি খুলনায় কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের উপদেষ্টা হিসেবে যোগদান করেছেন। তিনি খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে বিগত ২৯ বছর ধরে সুনামের সাথে শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত আছেন।

তিনি বিআইটি, খুলনা (বর্তমান কুয়েট) থেকে ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্র ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং, থাইল্যান্ডের এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলোজি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স বিষয়ে মাস্টার্স অব ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ১৯৯৩ সালে জাপানের সাগা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চয.উ ডিগ্রী অর্জন করেন।

উল্লেখ্য, বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং-এ রেকর্ড সংখ্যক নম্বর পাওয়ায় কুয়েট থেকে তিনি স্বর্ণপদক লাভ করেন। ২০০৬ সালে তিনি ভিজিটিং প্রফেসর হিসাবে ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়াতে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের আওতায় বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বিডিআরইএন  টেকনিক্যাল সাপোর্ট টিমের কনসালট্যান্ট হিসাবে ২০০৯-২০১৩ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। দেশী-বিদেশী বিভিন্ন জার্নালে তাঁর উল্লেখযোগ্য সংখ্যক গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। তিনি বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থের প্রনেতা। কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে তিনি বাংলাদেশের একজন  সনামধন্য অধ্যাপক।

তিনি কুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্র ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীনসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক দায়িত্ব দক্ষতার সাথে পালন করেন। তিনি খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। তিনি শিক্ষাবিষয়ক প্রায় ৭০টি আন—র্জাতিক কনফারেন্সে অংশগ্রহণ করেছেন।
জনাব এম এম এ হাসেম ১৯৬৬ সালের ১১ই জুন যশোর জেলার ঝিকরগাছা থানার দিঘোরী গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন।

তিনি ছাত্রজীবনের প্রতিটি অঙ্গণে অনন্য মেধার স্বাক্ষর রেখেছেন। তাঁর সুযোগ্য নেতৃত্বে এনইউবিটি খুলনার কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ গুনগত শিক্ষা বিস—ারের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১৭মার্চ,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ভিবিন্ন রাজনৈতিক দলের শতাধিক ছাত্রের ছাত্রদলে যোগদান করেছে। এ উপলক্ষ্যে গতকাল শুক্রবার তাহিরপুর উপজেলা বাজারে বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মেহেদী হাসান উজ্জ¦ল এর হাত ধরে বাদাঘাট ও উত্তর বড়দল ইউনিয়নের স্কুল কলেজ পড়–য়া শতাধিক ছাত্র আনুষ্টানিক ভাবে ছাত্রদলে যোগদান করেন।

তাহিরপুর  উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুল ইসলাম ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল নব্য যোগদানকৃত ছাত্র নেতাদের ফুলের মালা দিয়ে  বরণ করে নেন।

যোগদান পূর্বে বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন,তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌস আলম আখঞ্জি,বিএনপি নেতা মাস্টার চান মিয়া,রফিকুল ইসলাম, উপজেলা যুবদল আহবায়ক ও তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন,উপজেলা ছাত্রদল সভাপতি মেহেদী হাসান উজ্জল প্রমুখ।

এছাড়াও অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,রোখন উদ্দিন,আবুজহর,ইফতেখার শিপুল,সোহাগ প্রমূখ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc