Sunday 25th of October 2020 08:28:11 AM

নূরুজ্জামান ফারুকীঃ  প্রেমের বিয়ে মেনে নিতে পারেনি পরিবার। ফলে বিয়ে করলেও স্ত্রীকে আনুষ্ঠানিকভাবে বাড়িতে তুলা সম্ভব হয়নি। এরই মধ্যে সন্তানের জন্ম। সেই সন্তানকে ভালভাবে নিজের বাড়িতে তুলতে না পারায় এক ধরনের মানসকি যন্ত্রণায় ভুগছিলেন মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের ইটাখলা গ্রামের হেফজুর রহমান মাস্টারের ছোট ছেলে সাইফুর রহমান মুর্শেদ। এ নিয়ে ঝগড়া লেগেই থাকতো পরিবারে। নিজে মাস্টার্স ডিগ্রীধারী হওয়ায় পরিবারের লোকজনের প্রতিনিয়ত কটু কথা ও মানসিক নির্যাতনে এক পর্যায়ে আত্মহত্যাই করে মুর্শেদ। আত্মহত্যার আগে স্ত্রী সন্তানকে চিরকুট লিখে যায়। নিজের অপারগতা প্রকাশ, স্ত্রীকে উপযুক্ত মূল্য দিতে না পারা ও সন্তানকে নিজের মতো করে গড়ে তুলতে না পারার আক্ষেপের কথা রয়েছে চিরকুটে। নিজ বাড়িতে আত্মহত্যার সময় স্ত্রী সন্তান ছিল ইটাখলা গ্রাম থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দুরের শশুর বাড়ি খরকী গ্রামে। ভেতরের দিক দিয়ে দরজা বন্ধ করে গলায় ফাস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে মুর্শেদ।

মাধবপুর থানা পুলিশ দরজা ভেঙে লাশ উদ্ধার করে। স্বামীর আত্মহত্যার বিষয়টি গোপন রেখে স্ত্রী হাসিনা আক্তার হাসি ও সন্তান মিরাকে খরকী গ্রাম থেকে নিয়ে আসে নিহত মুর্শেদের বোন জামাই নজরুল ইসলাম বাবুল, বাবুলের স্ত্রী মাহবুবা শিরীন ও মাহবুবা শিরীনের দেবর মোজাহিদুল ইসলাম রমজান। হাসিনা আক্তার হাসি স্বামীর বাড়িতে এসে স্বামীর লাশ দেখে কান্নাকাটি করে বিচার প্রার্থী হলে শুরু হয় ভিন্ন নাটক। এবার নিহত মুর্শেদের ভাই, ভাবী, বোন, বোন জামাই সবাই মিলে একজোটভাবে প্রচার করে হাসিনা আক্তার হাসিই মুর্শেদকে হত্যা করেছে। স্বামীর মৃত্যুর জন্য দায়ী করায় নিহত মুর্শেদ এর বড় ভাই সফিকুর রহমান শামিম ও তার লোকজন হাসিনা আক্তার হাসিকে শারিরিকভাবে নির্যাতন করে।

হাসিনা আক্তার হাসি বলেন- ‘আমি স্বামীর মৃত্যুতে কাতর। যতই আমি কান্নাকাটি করে বলি আমার ভাসুর সফিকুর রহমান শামিম ও তার সহযোগিরা আমার স্বামীর মৃত্যুর জন্য দায়ী, ততই আমার উপর নির্যাতন বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে মাধবপুর থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে আমাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়। আমার বিরুদ্ধেই হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। অথচ আমার স্বামী তার পিত্রালয় ইটাখলা গ্রামের নিজ বসতঘরে ভেতরের দরজা বন্ধ করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। আমার স্বামীর মৃত্যুর খবরও আমি জানতাম না। আমাকে ভুল তথ্য দিয়ে পিত্রালয় থেকে ইটাখলা গ্রামে নিয়ে আসা হয়। আমার স্বামীর মৃত্যুর জন্য সফিকুর রহমান শামিম ও তার লোকজন দায়ী বলে বিচার প্রার্থী হওয়ায় আমাকে হত্যা মামলার আসামী করা হয়।

পুলিশ পারিপার্শ্বিক কোনো বিষয় আমলে না নিয়ে সফিকুর রহমান শামিম ও তার লোকজনকে রক্ষা করতেই আমার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা রেকর্ড করে এবং আমাকে গ্রেফতার দেখায়।

ইতিমধ্যে হাসিনা আক্তার হাসি জামিন লাভ করেছেন। হাসিনা আক্তার হাসি স্বামী সাইফুর রহমান মুর্শেদের মৃত্যুর জন্য মুর্শেদের ভাই সফিকুর রহমান শামিম, মশিউর রহমান জুনাইদ, মোস্তাফিজুর রহমান মোশাহিদ, শামিমের স্ত্রী রুনা আক্তার, জুনাইদের স্ত্রী শামসুন্নাহার শ্রাবনী, মুর্শেদের বোন জামাই নজরুল ইসলাম বাবুল, বোন মাহবুবা শিরীন, বোন খাদিজা আক্তার জোস্না, মাহবুবা শিরীনের চাচাতো দেবর মোজাহিদুল ইসলাম রমজানকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। হাসিনা আক্তার হাসি আরও বলেন- আমার স্বামীকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার অনেক কারণ জড়িত। এর মধ্যে আমার সাথে মুর্শেদের ছিল প্রেমের বিয়ে, যা তার পরিবার মেনে নিতে পারেনি।

তাছাড়া সফিকুর রহমান শামিমের সাথে আমার স্বামীর ছিল টিভি ফ্রিজ ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী ও তাশ মাতাশ ৯৯ নামীয় অংশীদারিত্ম ব্যবসা, যে ব্যবসায় আমার চাকুরীর টাকা ও আমার পিত্রালয় থেকে আনা টাকা বিনিয়োগ করা হয়। সেই ব্যবসায় সফিকুর রহমান শামিম এর লোভ জাগে, আমার শশুরকে ম্যানেজ করে তার সহায় সম্পত্তি থেকে আমার স্বামীকে বঞ্চিত করাসহ বিভিন্ন কারণে আমার শশুর বাড়ির লোকজনের গলার কাটা হয়ে দাড়িয়েছিল মুর্শেদ। মুর্শেদকে তারা কোনভাবেই সহ্য করতে পারছিল না। সম্প্রতি আমরা স্বামী স্ত্রী সন্তান কক্সবাজার ঘুরে আসার পর উপরুক্ত ব্যক্তিরা আমার স্বামীর উপর মারাত্মকভাবে ক্ষিপ্ত হয়।

তিনি বলেন- আমি একজন সরকারী চাকুরীজীবী। আমার চাকুরী ক্ষতিগ্রস্থ করা, আমাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করা, আমার চরিত্রে কালিমা লেপন করা, আমার সন্তানকে তার পিতার সম্পত্তি থেকে বঞ্চি করার হীন উদ্দেশ্যে আমার বিরুদ্ধে পরিকল্পিতভাবে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। আমি জেলে থাকাকালীন আমার সন্তানের জীবন বিপন্ন হওয়ার আশংকা ছিল। এখনও সে আশংকা বিদ্যমান। আমি এখনও আতংকে আছি। যে কোনো সময় তারা আমার ও আমার সন্তানের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে।

জেলা প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ:হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে চলন্ত গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে লিটন মিয়া (২৩) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নিহত লিটন মিয়া শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার বাগুনীপাড়া গ্রামের মৃত রজম আলীর ছেলে।

সূত্র জানায়, সোমবার রাতে লিটন শায়েস্তাগঞ্জের বাগুনীপাড়া এলাকায় একটি পিকআপ ভ্যান থেকে লাফ দিয়ে পড়ে সে আঘাতপাপ্ত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে মঙ্গলবার ভোররাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহতর ছোট ভাই শিপন মিয়া বলেন, লিটন মিয়া কয়েকদিন ধরেই তিনি মানসিক রোগেভূছিলেন। হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে কর্মরত এস আই নেছার মিয়া নিহতে বিষয়টি নিশ্চিত করছেন।

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  যশোরের শার্শা উপজেলার পাঁচভূলেট সীমান্তের ইছামতি নদী থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে শার্শা থানার পুলিশ। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার সময় লাশটি উদ্ধার করা হয়।
শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম জানান, স্থানীয় মেম্বার এর মাধ্যমে জানতে পারি ইছামতি নদীর পাড়ে একটি লাশ পড়ে আছে। পরে ঘটনাস্থলে নাভারন সার্কেল এএসপি জুয়েল ইমরানসহ উপস্থিত হয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পযর্ন্ত তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ:  নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের মিনাজপুর গ্রামের হাওরে ঘাস কাটতে গিয়ে বিষাক্ত সাপের কামড়ে আব্দুল আউয়াল (৩৫) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।  রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার মিনাজপুর গ্রামের মৃত আরব উল্লার পুত্র মোঃ আব্দুল আউয়াল গ্রামের পাশের হাওরে ঘাস কাটতে যায়। সারাদিন চলে গেলেও তার কোন খোঁজ না পাওয়ায় পরিবারের লোকজন তার সন্ধানে  বের হন।

অনেক খোঁজাখুজি করে দুপুর ২ টায় জমির মধ্যে তার নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করেন।

খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আজিজুর রহমান জানান- নবীগঞ্জ থানা পুলিশ আব্দুল আউয়ালের লাশ উদ্ধার করেছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে  বিষাক্ত সাপের কামড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের শার্শায় সুদের দেনার জ্বালা সহ্য করতে না পেরে ফ্যানের সাথে গলায় গামছা পেচিয়ে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে শামীম হোসেন (৩২) নামের যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার ভোর রাতে। নিহত শামীম শার্শা উপজেলার বেড়ি নারায়নপুর পশ্চিমপাড়ার হাবিলুর রহমানের ছেলে।
নিহতের পিতা হাবিলুর রহমান জানান, শামীম নাভারণ বাজারে কাপড়ের ব্যবসা করত। ব্যবসাকালীন সময়ে সে কাউকে না জানিয়ে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে চড়া সুদে টাকা ধার নেয়। পরে নিজের ব্যবসায় গুটিয়ে নেয়ার পর জানতে পারলাম সে অনেক টাকার দেনা। ছেলের বউ বাপের বাড়ি থাকায় অনেক রাত পর্যন্ত তার সাথে গল্প করে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি দেখে ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে দেখতে পাই ফ্যানের সাথে তার দেহ ঝুলছে। চিৎকার করলে এ সময় স্থানীয়রা এসে তার লাশ উদ্ধার করে।
সূত্রে জানা যায়, শনিবার বাজারে পাওনাদারেরা আটকিয়ে রেখে টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করে।
শার্শা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বদরুল আলম খান মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লাশটি ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

হাবিবুর রহমান খান,জুড়ী প্রতিনিধিঃ  মৌলভীবাজারের জুড়ীতে গাছ থেকে পড়ে গিয়ে নেপাল দাস (৩১) নামের এক যুবক মারাত্মক আহত হন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
নিহত নেপাল দাস এর পরিবার সূত্রে জানা জায়,গত মঙ্গলবার দুপুরে তিনি গাছের কাঠাল পাড়তে গিয়ে গাছ থেকে পড়ে মারাত্মকভাবে আহত হন। পরে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে তিনি মারা যান। উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের ভূয়াই এলাকার বাসিন্দা মৃত রতীশ দাসের ছেলে নেপাল দাস।
জায়ফরনগর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য আজন মিয়া জানান- নেপাল দাসের লাশ বাড়ীতে এনে বিকাল চারটায় অন্তেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে।

গোসল ও জানাযা না দিয়ে তড়িঘরি করে দাফন!

নড়াইল প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তির ১৫ মিনিটের মধ্যেই শওকত নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১মার্চ) রাত ৯ টার দিকে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর রাত একটার দিকে গোসল, জানাযা না করেই কোন রকম কবর খুড়ে তড়িঘড়ি করে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে নড়াইলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
জানা গেছে, নড়াইল পৌরসভার দক্ষিণ নড়াইলের ওমর আলীর ছেলে সুপারী ব্যবসায়ী শওকত ১০দিন আগে ঠান্ডা, সর্দি, জ্বর, শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হন। করোনা ভাইরাসের উপসর্গ থাকায় তার পরিবার আইসিইডিআরের হট লাইনে যোগাযোগ করেও সন্তোষজনক কোন উত্তর পাননি। এক পর্যায়ে নড়াইলে একটি প্রাইভেট চেম্বারে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করছিলো। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার রাত পৌনে ৯ টার দিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর ওয়ার্ডে নেয়ার সময় ১৫ মিনিটের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) মশিউর রহমান বাবু দাবি করেন মিনি স্ট্রোকে তার মৃত্যু হয়েছে।
এদিকে প্রশাসনের নির্দেশে রাত একটার দিকে গোসল, জানাযা ছাড়াই কোন রকম কবর খুড়ে দক্ষিণ নড়াইল কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
এদিকে শওকতের মৃত্যুর ঘটনায় শহর জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তার শরীরে করোনা ভাইরাস আছে কিনা তা পরীক্ষা নিরীক্ষার দাবি জানিয়েছেন বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ।

এম ওসমান:  যশোরের শার্শার বাগআঁচড়ায় ইভটিজিং করার দায়ে ইমানুর রহমান রিপন (২৯) নামে এক যুবককে ১বছরের বিনাশ্রম কারদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহষ্পতিবার বিকাল ৪টার সময় বাগআাঁচড়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। কারাদন্ড প্রাপ্ত রিপন উপজেলার পশ্চিম কোটা গ্রামের আব্দুল জলিল’র ছেলে।
জানা যায়, বৃহষ্পতিবার বিকাল ৪টার সময় বাগআাঁচড়া বাজারে বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে এক স্কুল ছাত্রীর ইভটিজিং করার দায়ে ইমানুর রহমান রিপনকে ১বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদারতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মৌসুমি জেরিন কান্তা। ইভটিজিং আইনের দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ৫০৯ ধারা মোতাবেক তাকে দন্ড দেওয়া হয়।
শার্শা থানার এসআই মামুনুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চত করে জানান, বাগআাঁচড়া বাজারে বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে এক স্কুল ছাত্রীর ইভটিজিং করার দায়ে ইমানুর রহমান রিপন নামে এক যুবককে ১বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

হাবিবুর রহমান খান,জুড়ীঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে পুটিছড়া বাঁশ মহাল থেকে  এক ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার করেছে স্বজনরা।
গত কাল (৩১ জুলাই) রাত্রে জুড়ী সাগরনাল ইউপির সমাই পুটিছড়া বাঁশ মহাল থেকে আবুল খা (৩৪) নামে এই ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার করে তার আত্নীয় স্বজন। পরে তারা লাশটি বাড়ীতে নিয়া আসেন।
আজ (১ আগষ্ট) সকালে এই বিষয়ে থানার খবর দিলে থানার এ এস আই আব্দুল কাদির সহ সংগীয় ফোর্স সহ উত্তর বড়ডহর গ্রামের মৃত আবুল খা বাড়ীতে গেলে পুলিশ লাশটি তার ঘরের বারান্দায় দেখতে পায়।সাগরনাল ইউপির উত্তর বড়ডহর গ্রামের তৈইব খা’র ছেলে আবুল খা (৩৪) বলে স্ব৴জনরা জানান ।
লাশের আত্নীয় স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুরে প্রতিদিনের ন্যায় পুটিছড়া বাঁশ মহাল এলাকায় বাঁশ ও কচুর মুখি এবং কচুর লতি আনার জন্য আব্দুল খা মহালের উদ্দেশ্যে বাড়ী থেকে বের হন।পরে আর বাড়ীতে ফিরিয়ে না আসায় তার আত্নীয় স্বজন রাত ৯ ঘটিকায় হইতে সমাই পুটিছড়া বাঁশ মহাল এলাকায় অনেক খোঁজা খোঁজি করেন। পরে ভোরে তার লাশটি পুটিছড়া বাঁশ মহালের ছড়ায় পড়ে থাকতে দেখা যায়।
এবিষয়ে জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান,এ বিষয়ে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এম ওসমান : যশোরের শার্শা উপজেলার গোগা-কালিয়ানী সীমান্ত থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবকের (২৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
যশোরের শার্শার বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক (তদন্ত) শুকদেব রায় বলেন, বুধবার সকালে উপজেলার গোগা-কালিয়ানি সীমান্তের খড়ের মাঠ নামক স্থান থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।
শুকদেব রায় বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে সংবাদ পেয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরি দিয়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে তাকে গুলি করা হয়েছে কিনা পুলিশ সেটা নিশ্চিত করতে পারেনি।
এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত স্থানীয়রা তার পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি।
লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য যশোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত ছাড়া কিছু বলা যাবে না।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের সদর উপজেলার গৌরারং ইউনিয়নের লালপুর এলাকায় অজ্ঞাত যুবকের গলাকাটাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখমসহ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান,নিহতের নাম পরিচয় জানা যায়নি। লাশের নাম পরিচয় পেতে ফিঙ্গার প্রিন্টের সাহায্য নেয়া হবে। তিনি আরো জানান,রবিবার (২১ জুলাই) ভোরে সুনামগঞ্জ-বিশ্বম্ভরপুর সড়কের পার্শ্বে কালভার্টের কাছে গলাকাটা অবস্থায় অজ্ঞাত যুবকের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মোঃ বরকতুল্লাহ খান।

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের বেনাপোলে শ্বশুর বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম সুমন (২৫) এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
সোমবার সকাল ১০ টার দিকে বেনাপোল স্থলবন্দরের ৫ নম্বর গেটের সামনে গাজিপুর এলাকায় শ্বশুর বাড়ি থেকে সুমনের লাশ উদ্ধার করা হয়। সুমন
বেনাপোলর দূর্গাপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সুমন সোমবার ভোরে বাড়ি থেকে বের হয়ে তার শ্বশুর বাড়িতে যান। সকাল ১০টার দিকে শ্বশুর বাড়ি থেকে পরিবারের কাছে খবর আসে সুমন গলাই দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরে পরিবারের সদস্যরা সেখানে গিয়ে সুমনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। পরিবারের সদস্যদের দাবি সুমনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। শ্বশুর বাড়ির সাথে সুমনের পারিবারিক কলহ চলে আসছিল বেশ কিছু দিন যাবত।
পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ সুমনের বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।
বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি (তদন্ত) আলমগীল হোসেন জানান, এটি হত্যা না আত্মহত্যা, ময়না তদন্তের পর তা জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে ।

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জের পিংলি নদী থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় রুবেল মিয়া (২৫) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।শুক্রবার দুপুরে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ওই লাশটি উদ্ধার করে। রুবেল মিয়া উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের ফতেহপুর গ্রামের মৃত খুরশেদ মিয়ার পুত্র।

জানা যায়, গত তিনদিন ধরে রুবেল মিয়া নিখোঁজ ছিল। শুক্রবার সকালে পিংলি নদীতে একটি অর্ধগলিত লাশ দেখতে পায় স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক নবীগঞ্জ থানার ওসি ইকবাল হোসেন, ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর আহমেদ সহকারে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় একটি মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে  লাশটি উদ্ধার করে হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেন। নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রাথমিক ভাবে তাকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা নদীতে ফেলে দিয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

জৈন্তাপুরে (সিলেট) প্রতিনিধি: সিলেটের জৈন্তাপুরে গাছের ডালে ঝুলে যুবকের আত্মহত্যা, পরিবারের দাবী ছেলেকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে লাশ গাছের সাথে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।
এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানাযায়- উপজেলার চরিকাটা ইউনিয়নের নয়খেল দক্ষিণ গ্রামের মোঃ ইলিয়াছ মিয়ার ছেলে মোঃ সেলিম আহমদ(২৫) গত ১৫ মে সন্ধ্যায় বাড়ীতে ইফতারি করে বের হয়ে যায়। কিন্তু সে আর ফিরে আসেনি। পরিবারের সদস্যরা নিকটআত্মীয়দের সাথে যোগাযোগ করলেও কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। সকালে বাড়ীর সদস্যরা নিজ বাড়ীর সম্মুখের টিলায় কাঁঠাল গাছের ঢালের সাথে তার মৃতদেহ দেখতে পান। তাৎক্ষনিক বিষয়টি ইউপি সদস্যের মাধ্যমে জৈন্তাপুর মডেল থানায় অবহিত করা হয়। খবর পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মাইনূল জাকিরের নির্দেশে এস.আই প্রদীপ রায় সঙ্গীয় ফৌস নিয়ে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রির্পোট তৈরী করে অধিকত্বর তদন্তের জন্য মোঃ সেলিম আহমদের মৃত দেহটি সিলেট এম.এ.জি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেলিম আহমদ ৬মাস পূর্বে বিয়ে করে।
এবিষয়ে সেলিম আহমদের আপন চাচা মোঃ রইছ আলী জানান, তার বাতিজা ১৫ মে সন্ধ্যায় বাড়ীর সকলের সাথে ইফতারি খেয়ে বাড়ী থেকে বের হয়। সেহরি পর্যন্ত বাড়ীতে না ফিরায় আমরা নিকট আত্মীয়দের নিকট খোঁজ খবর নেই। কিন্তু কোথাও পাননি। পরদিন সকালে থাকে বাড়ীর সম্মুখের কাঠাঁল গাছের সাথে তার মৃতদেহ পাই। তিনি দাবী করেন তার ভাতীজাকে পারিবারিক বিষয় নিয়ে প্রতিপক্ষের সাথে বিরোধ রয়েছে তারা পরিকল্পিত ভাবে হত্যাকান্ড ঘটিয়ে সেলিমের লাশ গাছের ডালে বেঁধে রেখে যায়। আমরা থানায় অভিযোগ করব।
এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন- বিষয়টি নিয়ে পুলিশ তদন্ত অব্যাহত রেখেছে। তবে ঘটনাটি ভিন্নতর হওয়ায় এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না আমরা তদন্ত চালাচ্ছি।

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় ভুট্টু বাহাথ (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আহসানগঞ্জ রেলস্টেশন এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।নিহত ভুট্টু বাহাথ জয়পুরহাট সদর ঋষিপাড়া এলাকার নগীন বাহাথের ছেলে।

এব্যাপারে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মো: মোবারক হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা চলাহাটি তিতুমির এক্সপ্রেস ট্রেনটি আহসানগঞ্জ রেলস্টেশন এলাকা অতিক্রম করার সময় ভুট্টু বাহাথ ট্রেনের সামনে চলে আসে।

এসময় ট্রেনের সঙ্গে মাথায় ধাক্কা খেয়ে মাটিতে ছিটকে পড়ে। সাথে সাথে স্থানীয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় এবং চিকিৎসার কিছু সময় অতিবাহিত হওয়ার পর সে মারা যায় এবং তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc