Saturday 5th of December 2020 09:31:01 PM

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: সিলেট-আখাউড়া রেলপথের মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ভানুগাছ রেলষ্টেশনে বিট্রিশ শাসনামলে নির্মিত গেডাউনটি কর্তৃপক্ষের অবহেলায় বিনষ্ট হচ্ছে। জানা যায়, ভানুগাছ রেলষ্টেশনের ২শ গজ উত্তরে আউটার সিগন্যালের পার্শ্বে বিট্রিশ শাসনামলে রেলওয়ে পরিবহনে বহনকৃত মালামাল সংরক্ষনের জন্য টিন দিয়ে তৈরী করা হয়। তৎকালীন সময়ে ঘরটিতে মালামাল সংরক্ষন করা হলে ও স্বাধীনতার পর তা অব্যবহৃত অবস্থায় থাকলে রাজস্ব আয়ের স্বার্থে বিভিন্ন জনের কাছে ভাড়া দেয়া হতো।

ভানুগাছ রেলওয়ে ষ্টেশনের সহকারী ষ্টেশন মাষ্টার উত্তম কুমার জনি জানান, প্রায় ১৫ বছর পূর্বে স্থানীয় হীরা মিয়া ঘরটি ভাড়া নেয়ার পর ঘরটি ব্যবহার করতে না পারার কারণে তা প্রত্যাহার করে নেন। এমতাবস্থায় পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকার কারণে ঘরটির বিভিন্ন মূল্যবান সামগ্রী চুরি হয়ে যায়। এরই মধ্যে ১৯৯৭ সালের ঝড়ে ঘরটি বিধ্বস্ত হয়ে ভুলুন্ঠিত হয়ে পড়ে। এই সুযোগে কতিপয় সংঘবদ্ধ চোর চত্রু ঘরটির মূল্যবান সামগ্রী চুরি করে নিয়ে যায়। ফলে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারনে সরকারের লাখ লাখ টাকার সম্পদ বিনষ্ট হচ্ছে। আলাপকালে শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম জানান, এটা দেখাশুনার মূল দায়িত্বে রেলওয়ে আই ডব্লিউ বিভাগ। তবে স্থানীয়ভাবে সংশ্লিষ্ট ষ্টেশন মাষ্টাররাই তদারকি করে থাকেন।

আই ডব্লিউ বিভাগের কুলাউড়ার জুয়েল আহমেদ রলেন, ভানুগাছ রেলওয়ে ষ্টেশনের গোডাউন ভেঙ্গে পড়ে আছে আমি তা জানিনা। এখন জানতে পারলাম তদন্তক্রমে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ রোডস্থ ব্যবসায়ীদের সাথে পুলিশের সভা অনুষ্ঠিত।  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে প্রশাসনের সাথে ভানুগাছ রোডস্থ ব্যসায়ীদের নবগঠিত কমিটির  আলোচনা সভা  অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার (৯ জুন) বিকেল সাড়ে ৫ টায় শহরের ভানুগাছ  রোডস্থ একটি রেস্টুরেন্টে ভানুগাছ রোডের ব্যবসায়ী কল্যাণ সংগঠনের উদ্যোগে ব্যবসায়ী হাজী সিরাজুল ইসলাম খাঁনের সভাপতিত্বে ও ভানুগাছ রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান পাঠানের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান (সার্কেল শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ), বিশেষ অতিথি ছিলেন শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুছ ছালেক, ৭ নং ওয়ার্ডের  পৌর কাউন্সিলর (প্যানেল মেয়র-২) মীর এম এ সালাম, ৫ নং পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিল্লাদ হোসেন মিরাশদার ও ১ নং পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর  মো. আলকাছ মিয়াসহ বিভিন্ন  ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।
এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি ও আমার সিলেট সম্পাদক আনিছুল ইসলাম আশরাফী।
বক্তব্য রাখেন যথাক্রমে ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম সোহাগ,জুবায়েরসহ, শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস ছালিক ও প্রধান অথিতি সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান আশিক।
আশরাফুজ্জামান আশিক তার দীর্ঘ বক্তব্যের এক পর্যায়ে বলেন,”শহরে বা গ্রামে যারা চুরি ডাকাতি  করে তাদের চুরি ডাকাতির মালামাল যারা ক্রয় করেন তারাও চোর,নিজের সামান্য লাভের জন্য অপরের কত টা ক্ষতি হচ্ছে তা ঐ সকল ব্যাবসায়ীদের ভাবা উচিত।” তিনি তার বক্তব্যে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে আরও বলেন, এই এলাকায় চুরি,মাস্তানি, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসীদের কোন স্থান নেই,সে কেহই হোক আমাকে খবর দিবেন,সে যত বড় অপরাধীই হোক তার বুকের পাঁটা কত বড় আমরা দেখবো,আপনারা আমাদের সহযোগিতা করুন আমরা আপনাদের সহযোগিতা করতে সর্বদা বাধ্য, এর আগে শ্রীমঙ্গল থানার কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুছ ছালিক তার বক্তব্যে বলেন,এমপি স্যার,এসপি স্যার ও এএসপিস্যারের নির্দেশনা এই এলাকায় অপরাধের জিরো ট্রলারেন্স রাখা,আমরা সেই চেষ্টায় সবসময় আছি এবং থাকবো,সেই সাথে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করি।
উক্ত সভায় ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে চুরি ডাকাতি ঠেকানোসহ বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc