Tuesday 1st of December 2020 06:17:10 PM

বেনাপোল প্রতিনিধি:  প্রায় ৩০ লাখ টাকা শুল্কফাঁতিকে সহযোগীতার মাধ্যমে আমদানি পণ্য চালান খালাস দেওয়ার অভিযোগে বেনাপোল কাস্টমস হাউজের তিন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া রাজস্ব ফাঁকির সহয়তায় দুই সিঅ্যান্ডএফ প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্সও বাতিল করা হয়েছে।
সোমবার (১৩ জুলাই) কাস্টমস কর্মকর্তা বরখাস্তও লাইসেন্স বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বেনাপোল কাস্টমস হাউজের অতিরিক্ত কমিশনার ড. নেয়ামুল ইসলাম।
অভিযুক্ত কাস্টমস কর্মকর্তারা হলেন, বেনাপোল কাস্টমস হাউজের রাজস্ব কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম, সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা শহিদুলল্লাহ ও ইবনে নোমান। বাতিলকৃত লাইসেন্স সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট মদিনা এন্টার প্রাইজ ও মাহিবি এন্টার প্রাইজ।
কাস্টমস সুত্রে জানা যায়, ঢাকার আমদানি কারক আলহামদুলিল্লাহ্ এন্টার প্রাইজ ভারত থেকে ৬৬৫ প্যাকেজ মটরপার্টসসহ অনান্য পণ্য আমদানি করে। এসময় আমদানি কারক ও তার প্রতিনিধি সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অভিযুক্ত তিন কাস্টমস কর্মকর্তাদের সাথে হাত মিলিয়ে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে পণ্য চালান ছাড় করিয়ে নিয়ে যায়। বিষয়টি কাস্টমসের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানতে পেরে ঘটনা তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করেন।
উল্লেখ্য , বেনাপোল কাস্টমসে রাজস্ব ফাঁকিসহ বিভিন্ন অনিয়মন বেড়ে যাওয়ায় গত পর পর তিন বছর ধরে এখান থেকে সরকারের বিপুল পরিমানে রাজস্ব ঘাটতি হচ্ছে। সর্বশেষ গেল ২০১৯-২০ অর্থ বছরে রাজস্ব ঘাটতি হয় ৩ হাজার ৩৯২ কোটি ২২ লাখ টাকা।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc