Saturday 5th of December 2020 03:16:47 PM

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৮ বছরের এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার সকালে ভিকটিম বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিল। সেটি তদন্তের পর আজ বৃহষ্পতিবার সকালে শার্শা থানায় মামলা রেকর্ড হয়েছে। যার নং ১৩, তারিখ ১৯/১২/২০১৯।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাগআঁচড়া ইউনিয়নের সামটা গ্রামের শাহাজান কবিরের বকাটে ছেলে মোনায়েম হোসেন মুন্না একই গ্রামের কলেজ পড়ুয়া  সুমনা (ছদ্মনাম) কে বিগত কয়েক মাস আগে বাগআঁচড়া কলেজে যাওয়া-আসার পথিমধ্যে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এক পর্যায়ে তাদের দু’জনার সাথে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে উঠে। মুন্না তাহেরাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক মাস যাবত শারীরিক সম্পর্ক করে আসছে।

এক পর্য়ায়ে তাহেরা মুন্নাকে বিয়ে করার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন। কিন্তু তখন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন ওই লম্পট মুন্না। পরে উপায়ন্তর না পেয়ে বাদী সুমনা (ছদ্মনাম) মঙ্গলবার শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে সুমনা (ছদ্মনাম) মা কান্না জড়িত কন্ঠে আকুতি করে বলেন, আমার মেয়ের সরলতার সুযোগ নিয়ে মুন্না আমার মেয়েকে একাধীকবার ধর্ষণ করেছে। এখন বিয়ে করতে চায়না তাই আমরা থানায় মামলা করেছি।

১৮ ডিসেম্বর সুমনা (ছদ্মনাম) বিয়ের দাবিতে ছেলে মুন্নার বাড়িতে এসে হাজির হয়। সারা রাত্রি মুন্নার বাড়ির সামনে অবস্থান করেন । ১৯ ডিসেম্বর সকাল আনুমানিক ১১ টার দিকে শার্শা থানর পুলিশ সুমনা (ছদ্মনাম)কে মুন্নার বাসা থেকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে মেডিকেল রিপোর্ট করার জন্য পাঠিয়েছে।

এ ব্যাপারে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। কিশোরীকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে মেডিকেল রিপোর্ট করার জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc