Friday 4th of December 2020 01:46:32 PM

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারদের পার্সোনাল প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) দিলেন মৌলভীবাজার জেলা যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও ভানুগাছ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী গোলাম রব্বানী তৈমুর।

তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) এর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় ব্যক্তিগতভাবে বুধবার (২৪ জুন) দুপুর ১২টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এম, মাহবুবুল আলম ভূঁইয়ার হাতে ১৯ জন ডাক্তার ও নার্সদের জন্য ১৯টি পিপিই তুলে দেন। ডাক্তারদের পিপিই প্রদান করায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এম, মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া যুবদল নেতা গোলাম রব্বানী তৈমুরকে ধন্যবাদ জানান।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক সাজিদুর রহমান সাজু, আহমেদুজ্জামান আলম, ফারহান চৌধুরী, মোঃ কামরুজ্জামান, সাদিকুর রহমান সামু, মবু আহমেদ চৌধুরী, মোঃ আব্দুল মালিক প্রমুখ।

এছাড়াও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসকগণ উপস্থিত ছিলেন।

জহিরুল ইসলাম.নিজস্ব প্রতিবেদক: মানবতার ডাকে,সামাজিক দুরত্বে করোনার বিরুদ্ধে এক সাথে এই স্লোগানকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে উপজেলা প্রশাসনের শপে নগদ টাকা ও উপজেলা স¦াস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তার নার্সদের সু রক্ষার জন্য টিইইবি’র পিপিই প্রদান করেছেন।

আজ শনিবার (২৩মে) শ্রীমঙ্গল সনাক টিআইবি পরিবারের পক্ষ থেকে শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলাম কাছে শপের জন্য নগদ ২০ হাজার টাকা প্রদান করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা  ডা. সাজ্জাদ হোসেন চৌধরীর হাতে উন্নত মানের কিছু পিপিই তুলে দেওয়া হয়েছে।

শ্রীমঙ্গল টিআিইবি’র (সনাক) নবনির্বাচিত সভাপতি দ্বীপেন্দ্র ভট্টাচার্য্য এসব জিনিসপত্র তুলে দেন।নগদ অর্থ ও পিপিই প্রদানে এসময় উপস্থিত ছিলেন,সনাক পরিবারের সদস্য জহর তরফদার,রহিমা বেগম,রিতা দত্ত এবং টিআইবি শ্রীমঙ্গল শাখার এরিয়া ম্যনেজার পারভেজ কৈরী।

এসময় শ্রীমঙ্গল সনাক (টিআইবি) সভাপতি দ্বীপেন্দ্র ভট্টাচার্য্য বলেন,করোনা মোকাবেলায় নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সকল ডাক্তার ও নার্স এবং অন্যান্য কর্মীবৃন্দ।সনাকের পক্ষ থেকে এই মহামারীতে জীবন বাজী রেখে কাজ করে যাওয়া এই সব যোদ্ধাদের সুস্বাস্থ্য কামনা করা হয়।

এসময় তিনি আরোও বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলাম ঘরে ঘরে শপ পৌছে দিচ্ছে স্বল্প টাকা উপজেলা প্রতিটি গ্রামে নিজ উদ্যোগে শপ পৌছে দিচ্ছেন। সনাক পরিবার সম্পৃক্ত হতে পেরে গবির্ত বলে উল্লেখ করেন সনাক সভাপতি।স্বাস্থ্য বিধি মেনে প্রতিটি ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেয়ার এই অভিনব উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে সনাক শ্রীমঙ্গল। তাই আমরা শপে টিআইবি কিছু নগদ অর্থ দিতে পেরে আমরা খুবই খুশি।

কথায় বলে “যার বাবা করেছে দান-সে জানে দানের বিধান” আর সেই পুরনো দিনের কথা যেন আজ হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা পিপিই গ্রহণ এর একটি ছবি যা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আশরাফুজ্জামান তার ওয়ালে এই স্ট্যাটাসটি শেয়ার করেছেন। আমার চোখে স্ট্যাটাসটি ধরা পড়ার পর থেকে ভাবছি শ্রীমঙ্গল উপজেলায় বহু সম্পদের মালিক,কোটিপতি, পুঁজিপতি রয়েছে। যাদের সম্পদ,ইজ্জত রক্ষাকল্পে থানা পুলিশকে বেশ বেগ পেতে হয় অহরহ যা সকলের জানা।আমি এ কথা বলছিনা যে অন্যরাও পুলিশের সাধারণ সেবা থেকে বঞ্চিত।

অপরদিকে বলা হয়ে থাকে সম্পদ থাকলেই সবাই দান করার ক্ষমতা রাখেনা যেমনি ভাবে যৌবন থাকলেই সবাই যুবকের মত শক্তির বাহাদুরি দেখাতে অক্ষম।

অথচ আজ এই মহামারী দুর্যোগলগ্নে সাধারণ মানুষের অতি নিকটে থাকা এই পুলিশের নিরাপত্তা নিয়ে কেউ এখনো ভাবেনি যা ভেবেছে এক সাধারণ গ্রাম্য ফার্মেসির মালিক।এতে করে নিশ্চয় তিনি প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য বলে মনে করে সচেতন মহল।

জানা যায়, মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ব্যবহারের জন্য স্থানীয় উপজেলার ধোবার হাট বাজারের পারুল ফার্মেসির স্বত্বাধিকারী করুণাময় দেব নামক এক ব্যাক্তি শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের জন্য ৮টি পিপিই প্রদান করেছেন। পিপিই গুলি গ্রহণ করেন (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আশরাফুজ্জামান আশিক ও শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুছ ছালেক দুলাল। 

চলমান মহামারী দুর্যোগে ডাক্তার,পুলিশ,র‍্যাব, সেনাবাহিনী, সাংবাদিক,সমাজসেবকসহ সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন পেশার লোকেরা মানুষের নিরাপত্তার স্বার্থে যেভাবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন, এর মধ্যে পুলিশকে কাজ করতে হয় একেবারে মাঠ পর্যায়ে। নানা অভিযোগের কারণেই পুলিশকে মানুষের দৌরঘোরায় যেতে হয় সে দিক থেকে পুলিশ প্রশাসন সবার আগে ঝুঁকির পর্যায়ে রয়েছে।সে জন্য বলবো করোনা ভাইরাস আক্রান্ত পৃথিবীর অন্যান্য দেশের করুণ হাল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে আসি এর প্রতিরোধে।

একবার কল্পনা করি একমাস পুর্বেকার দেশের চিত্র সমাজের চিত্র। যে বন্ধুটির সাথে দেখা হলে আবেগে জড়িয়ে ধরতো আজ সেই বন্ধুটি তার হাত গুটিয়ে নিচ্ছে যা বিবেকবানদের ভবিষ্যৎ ভাবনার বিষয়ও বটে।

আসুন আমরা যে বা যারা যেই স্থান থেকে মহামারী প্রতিরোধে এবং এর শিকার মানবতাকে রক্ষায় দ্রুত এখনই এগিয়ে যাই। মনে রাখা দরকার নিঃশ্বাস বন্ধ হয়েই শুধু মানুষ মরে না,মানুষ মরে ভয়ে আত্মশক্তি হারিয়ে। শহরে আগুন লাগলে দেবালয় ও রক্ষা পাবে না। এম এ ইসলাম আশরাফী লেখক ও গবেষক  

নড়াইল-প্রতিনিধিঃ নড়াইলে ডাক্তারদের মাঝে ৩০টি পিপিই বিতরণ করা হয়েছে।শনিবার নড়াইল সদর হাসপাতালের তত্ত্বাধায়কের রুমে বাংলাদেশ মেডিকেল  এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ), নড়াইল জেলা শাখার আয়োজনে এ পিপিই বিতরন করা হয়। সিভিল সার্জন ডাঃ আব্দুল মোমেন ও সদর হাসপাতালের তত্ত্বাধায়ক ডাঃ আব্দুর শাকুরের হাতে এ পিপিই তুলে দেন বিএমএ, নড়াইল জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ মনোয়ার হোসেন তাপস। এ সময় সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডাঃ মশিউর রহমান বাবু, ডাঃ অলোক কুমার বাগচিসহ স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাগন এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 

বিএমএ, নড়াইল জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ মনোয়ার হোসেন তাপস জানান,বিএমএ কেন্দ্রীয় শাখার থেকে ৩০ টি পিপিই পাওয়া গেছে। এর থেকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ৫ টি, লোহাগড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ টি ও কালিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ টি এবং জেলার বিভিন্ন বে-সরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকের ডাক্তারদের জন্য ১৫ টি পিপিই আজ দেয়া হল।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc