Friday 4th of December 2020 05:09:37 AM

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন। তাকে বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড প্রধান ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স অ্যান্ড হসপিটালের অধ্যাপক ডা. জাহেদ হোসেন।

বুধবার সন্ধ্যায় অধ্যাপক ডা. জাহেদ হোসেন বলেন বলেন, ‘আশা করছি আগামীকাল তাকে আমরা ছাড়পত্র দেবো। তবে তাকে পরবর্তী চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল থেকে সিআরপিতে (পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র বা সেন্টার ফর দ্য রিহ্যাবিলিটেশন অফ দ্য প্যারালাইজড) যাওয়ার জন্য লিখে দেবো।

ইউএনও ওয়াহিদা কতটা সুস্থ হয়েছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কোনো ধরনের সাপোর্ট ছাড়াই তিনি নিজে নিজেই হাঁটতে পারছেন। তার আর কোনো সমস্যা নেই, হাত পায়ের শক্তি প্রায় নরমালের কাছাকাছি। তবে বাড়িতে বা সিআরপিতে গিয়ে থেরাপি নিলে বাকিটা ঠিক হয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর দিনগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ইউএনও’র সরকারি বাসভবনে ঢুকে হামলা করে দুর্বৃত্তরা। প্রথমে গেটে দারোয়ানকে বেঁধে ফেলে তারা। পরে বাসার পেছনে গিয়ে মই দিয়ে উঠে ভেন্টিলেটর ভেঙে বাসায় প্রবেশ করে হামলাকারীরা। ভেতরে ঢুকে ভারী ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এবং আঘাত করে ইউএনও ওয়াহিদাকে গুরুতর আহত করে তারা। এ সময় মেয়েকে বাঁচাতে এলে বাবা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখকে (৭০) জখম করে দুর্বৃত্তরা। পরে তারা অচেতন হয়ে পড়লে মৃত ভেবে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। ভোরে স্থানীয়রা টের পেয়ে তাদের উদ্ধার করেন।

ওয়াহিদাকে প্রথমে রংপুরে ও পরে রংপুর থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকায় আনা হয়। বর্তমান তিনি ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।আমাদের সময়

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২মে,ডেস্ক নিউজঃ মালয়েশিয়ার বহুল আলোচিত রাজনীতিক আনোয়ার ইব্রাহিম আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই জেল থেকে ছাড়া পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিন বছর আগে সমকামিতার জন্য কারাদন্ডে দন্ডিত ইব্রাহিমকে সম্পূর্ণ ক্ষমা করে দিতে রাজি হয়েছেন দেশটির রাজা।

মালয়েশিয়ার নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ তার অতীত ঘনিষ্ঠ মিত্র আনোয়ার ইব্রাহিমকে মুক্ত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

এক সংবাদ সম্মেলনে মাহাথির মোহাম্মদ বলেছেন, তার রাজনৈতিক মিত্র আনোয়ার ইব্রাহিম তিন বছর আগে সমকামিতার জন্য কারাদন্ডে দন্ডিত হয়েছিলেন। তাকে সম্পূর্ণ ক্ষমা করে দিতে রাজি হয়েছেন দেশটির রাজা।

মাহাথির মোহাম্মদ আরো বলেছেন, তিনি আগামি দুই বছরের মধ্যে পদ ছেড়ে দেবেন এবং তখন আনোয়ার ইব্রাহিমই পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হবেন।

আনোয়ার ইব্রাহিমের স্ত্রী ইতিমধ্যেই কারাগারে গিয়ে তার সাথে দেখা করেছেন বলে জানা গেছে।

সমকামিতার অভিযোগে আনোয়ার ইব্রাহিমকে দুবার জেলে যেতে হয় এবং প্রথমবার তার কারাদন্ড হয়েছিল মাহাথির মোহাম্মদ প্রধানমন্ত্রী থাকার সময়ই।

আনোয়ার ইব্রাহিম বরাবরই তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, এগুলো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

তবে এবার মাহাথির মোহাম্মদের একটি নির্বাচনী অঙ্গীকারই ছিল যে তিনি আনোয়ার ইব্রাহিমকে মুক্ত করবেন।

নির্বাচনে ঐতিহাসিক বিজয়ের পর শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, রাজা আভাস দিয়েছেন যে তিনি অবিলম্বে ইব্রাহিমকে ক্ষমা করে দেবেন।

মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, এটা হবে সম্পূর্ণ ক্ষমা- যার অর্থ, তিনি যে শুধু ক্ষমা পাবেন তাই নয়, সঙ্গে সঙ্গেই তিনি মুক্তি পাবেন এবং তার রাজনীতি করার ওপরও কোন বাধা থাকবে না।

মালয়েশিয়ার নির্বাচনে জয়লাভ করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন ৯২ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ। আগামী দুই বছরের মধ্যেই মাহাথির ক্ষমতা আনোয়ার ইবাহিমকে হস্তান্তর করবেন বললেও এখনই তাকে মন্ত্রিসভায় নেয়া হবে কিনা তা তিনি স্পষ্ট করে বলেন নি।

গত বুধবারের নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে মালয়েশিয়ায় ছয় দশক ধরে ক্ষমতাসীন বারিসান নাসিওনাল কোয়ালিশনের পতন ঘটেছে।

মাহাথির মোহাম্মদ এবং আনোয়র ইব্রাহিম দুজনেই এক সময় এ জোটের সরকারের প্রধানমন্ত্রী এবং উপ প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

তবে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের সময়কার ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ ৯২ বছর বয়েসে মাহাথির মোহাম্মদকে অবসর থেকে আবার রাজনীতিতে ফিরিয়ে এনেছে।

নির্বাচনে পরাজিত জোটের কয়েক জন নেতা পরিবর্তনের ডাক দিয়ে বলেছেন, বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের পদত্যাগ করা উচিত।

রাজাকের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই দুর্নীতির মামলা হয়েছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc