Sunday 25th of October 2020 05:41:18 PM

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৫মে,ডেস্ক নিউজঃ ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২৪মে) বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে টেলিফোনে কথা হয় বলে সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন।

প্রেস উইং সূত্রে জানা যায়, টেলিফোনে শেখ হাসিনা ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আব্বাসের স্বাস্থ্যের খোঁজ-খবর নেন। এসময় শেখ হাসিনা মাহমুদ আব্বাসের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

উল্লেখ্য, অসুস্থ্যতার কারণে গত ২০ মে মাহমুদ আব্বাসকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আব্বাসের ফুসফুসে সংক্রমণ হয়েছিল বলে জানিয়েছে আল ইশতিহারি আরব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জেরুজালেমে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে ৬০ জন ফিলিস্তিনির মৃত্যুর মতো সংকটময় পরিস্থিতিতে মাহমুদ আব্বাসের হঠাৎ হাসপাতালে ভর্তি এবং অসুস্থতা নিয়ে ফিলিস্তিনিদের মধ্যে উদ্বেগ আছে।

প্যালেস্টানিয়ান লিবারেশন অরগানাইজেশন-পিএলওর ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আল আলওয়াল গণমাধ্যমকর্মীদেরকে জানান, তাদের নেতার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে।

‘তার ফুসফুসে সংক্রমণ হয়েছিল এবং এ কারণে তার শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে গিয়েছিল’-বলেন আলওয়াল।

‘কিন্তু আল ইশতিহারি হাসপাতাল প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে এবং তার শরীর এখন স্বাভাবিক আচরণ করছে।’

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২মার্চ,হৃদয় দাস শুভ,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  মৌলভীবাজারে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা দুটি বাড়ির মধ্যে একটি বাড়ি ভাড়া নেয়া হয় বেসরকারি কোম্পানির ম্যানেজার পরিচয়ে। তিন মাস আগে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকার বাসাটি ভাড়া নেয়া হয়। ভাড়া নেয়ার সময় ওই জঙ্গি নিজের নাম বেলাল বলে বাড়ির কেয়ারটেকারকে জানিয়েছিল।
বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে খলিলপুর ইউনিয়নের নাসিরপুর এলাকার জঙ্গি আস্তানা ঘিরে রাখার সময় সেখানে দায়িত্বরত সহকারী পুলিশ সুপার রওশওউজ্জামান সিদ্দিকী এমন তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, গত জানুয়ারিতে বড়হাট এলাকার বাসাটি ভাড়া নেন বেলাল। বাড়ির কেয়ারটেকার জুয়েল মিয়ার কাছ থেকে তিনি মাসিক সাত হাজার ২০০ টাকায় বাসাটি ভাড়া নেন। এসময় বেলায় নিজেকে আরএফএল কোম্পানির ম্যানেজার পরিচয় দেন। বাড়িটিতে বেলালের সঙ্গে তার শ্বশুর ও তিন শিশু থাকতেন।

আরও দেখুনঃ মৌলভীবাজার জঙ্গি আস্তানার আশে পাশে ১৪৪ ধারা জারী– See more at:

পুলিশ কর্মকর্তা রওশনউজ্জামান আরও বলেন, বেলালের মাধ্যমে নাসিরনগরের গ্রামের বাড়িটি ছয় হাজার ৬০০ টাকায় ভাড়া নেন মাহফুজ নামে একজন। সেখানে তার সঙ্গে আছে শ্বশুর শাশুড়ি ও চার শিশু।
পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, পুলিশ, র্যাব ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। অভিযান চালানোর জন্য সোয়াটের অপেক্ষা করা হচ্ছে। তারা পৌঁছলেই অভিযান চালানোর পরিকল্পনা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য, গত রাত তিনটা থেকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়িটি ঘিরে রাখা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। সকাল থেকে দুটি বাড়ি থেকে গোলাগুলি ও গ্রেনেড বিস্ফোরনের শব্দ শোনা যায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ওই দুই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc