Friday 23rd of October 2020 02:30:25 AM

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নের খড়িয়া বিল থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার দায় দুই ব্যক্তিকে এক লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ওই অর্থদণ্ড প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মুমিন। এ সময় বালু উত্তোলনের সরঞ্জামসহ ড্রেজার মেশিন ঘটনাস্থলে ধ্বংস করা হয়।
সূত্রে জানায়, বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর আওতায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন, উপজেলা ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মুমিন, তফশিলদার বিষ্ণুপদ চক্রবর্তী, আবিদ আলীসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় সার্বিকভাবে সহায়তা করেন নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।
এ ব্যাপারে উপজেলা ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মুমিন বলেন, জনকল্যাণে ও জনস্বার্থে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আমাদের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীতে অভিযান চালিয়ে ৮ লক্ষাধিক টাকা নৌকা ও শেইভ মেশিন আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি।
জানাযায়,উপজেলার যাদুকাটা নদীতে সোমবার বিকালে গোপন সংবাদের বিত্তিতে বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ  সদস্যদের সহযোগিতায় অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে নদীর পাড় কাটার অপরাধে ৮টি নৌকা ও শেইভ মেশিন ধ্বংস করা হয় করে জনসম্মুখে আগুলে পোড়ানো হয়।যার আনুমানিক মূল্য আট লাখ টাকা।
এঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি জানান,নিয়ম বর্হিভুত ভাবে পরিবেশ ধংশ করে ও নদীর পাড় কেটে কাউকে কোন কাজ করতে দেওয়া হবে না।  যারা অনিয়ম করবে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

গতকাল (রবিবার) এক টুইট বার্তায় ইরানকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।ট্রাম্প বলেছেন: ইরান যুদ্ধ করতে চাইলে, তা হবে ইরানের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি। যুক্তরাষ্ট্রকে হুমকি দিও না।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের যুদ্ধ লেগে যাওয়ার সম্ভাবনায় পুরো মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে! সৌদি বাদশাহ সালমান ৩০শে মে মক্কায় এক জরুরী বৈঠকে বসতে আরব লীগ এবং উপসাগরীয় দেশগুলোর জোট জিসিসি সদস্যদের দাওয়াত পাঠিয়েছেন।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভাদ জারিফ বলেছেন: ট্রাম্পের আশপাশের কিছু মানুষ তাকে যুদ্ধ শুরুর উস্কানি দিচ্ছে।

এছাড়া শনিবার জারিফ বলেছিলেন: ইরান কোনো যুদ্ধ চায় না। তবে ইরানের সঙ্গে লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্র জয়ী হবে না এটাও মার্কিনীরা জানে। সুত্র: ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

ভারতের উত্তর প্রদেশের বিজেপি নেতা রঞ্জিত বাহাদুর শ্রীবাস্তব বলেছেন, মুসলিমদের ধ্বংস করতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ভোট দিন। লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে গত (বৃহস্পতিবার) উত্তর প্রদেশের বারাবাঁকিতে এক নির্বাচনী সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় তিনি ওই মন্তব্য করেন।

রঞ্জিত বাহাদুর শ্রীবাস্তব বলেন, ‘গত পাঁচ বছরে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের মনোবল ভেঙে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেজন্য আপনারা যদি মুসলিমদের ধ্বংস করতে চান তাহলে নরেন্দ্র মোদিকে ভোট দিন। দেশভাগের পর থেকে ভারতে মুসলিমদের জনসংখ্যা দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার ভোটদানের মাধ্যমে তারা এই দেশের ক্ষমতা কুক্ষিগত করতে চাচ্ছে। এখনই না আটকানো গেলে তারা একদিন তাতে সফল হবে।’

বিজেপি’র ওই নেতা বলেন, ‘লোকসভা নির্বাচনের পরে চীন থেকে দাড়ি কাটার মেশিন নিয়ে আসা হবে। সেই মেশিন দিয়ে ১০/১২ হাজার মুসলিমের দাড়ি শেভ করা হবে। এরপর তাদেরকে জোর করে হিন্দুধর্ম গ্রহণ করতে বাধ্য করা হবে। নরেন্দ্র মোদি বা বিজেপিকে ভোট না দিলে এর বিপরীতটাও হতে পারে। সেজন্য ওই ধরনের অবস্থা থেকে নিজেদের রক্ষা করতে এবং মুসলিমদের ধ্বংস করতে মোদি ও বিজেপিকে ভোট দিন।’

বিজেপি নেতার ওই মন্তব্য প্রসঙ্গে আজ (শনিবার) পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কোলকাতার ঐতিহ্যবাহী যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল মাতিন রেডিও তেহরানকে বলেন, ‘গোলওয়ালকর, হেডগেওয়ারের বইগুলো পড়লে বোঝা যাবে তাতে স্পষ্ট লেখা আছে যে মুসলিম, কমিউনিস্ট, খ্রিস্টান তারা জাতির অংশ নয় এবং তাদের ধ্বংসের কথা অনেক আগেই বলা হয়েছে।

এটা হয়তো তারা এখন নতুন ভাষায় বলছে। চীন থেকে ব্লেড নিয়ে এসে দাড়ি কাটা হবে, ধর্মান্তরিত করা হবে, এগুলো হচ্ছে নতুন ভাষা। যদি ধর্মান্তরিত করাই হয় তাহলে তাদেরকে হিন্দু ধর্মের কোথায় ঠাই দেয়া হবে? ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয়, বৈশ,শূদ্র না অতি শূদ্র কোন স্তরে তাদেরকে স্থান দেয়া হবে?’পার্সটুডে

বিক্রমজিত বর্ধন,নিজস্ব প্রতিনিধি:  মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল সেক্টরের ৫৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে মাদকদ্রব্য ধ্বংস ও মাদক বিরোধী সচেতনতা সভা-২০১৮। ৪৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটেলিয়ন ও ৫৫ ব্যাটেলিয়ন গত ১ জানুয়ারী ২০১৭ থেকে ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত মাদকদ্রব্য বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে এই মাদকদ্রব্যগুলো আটক করে।

সোমবার ১৩ আগস্ট দুপুরে শ্রীমঙ্গল শহরের ভানুগাছ রোডস্থ মহসীন অডিটরিয়ামে ৫৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর ব্যবস্থাপনায় মাদক বিরোধী সচেতনতা মুলক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজিবি শ্রীমঙ্গল সেক্টরের,সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. জাহিদ হোসেন।

এসময় বক্তব্য রাখেন ৪৬ বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর খালেদ হায়দার, মৌলভীবাজার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মীর মো. মাহাবুবুর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মৌলভীবাজার মো.আশরাফুজ্জামান, হবিগঞ্জ সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার পারভেজ চৌধুরী, হবিগঞ্জ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের কর্মকর্তা সুবোধ কুমার দে, শ্রীমঙ্গল বর্ডার গার্ড উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিশিকান্ত দেব প্রমুখ।

পরে পৌরসভা প্রাঙ্গনে বিজিবি কর্তৃক আটককৃত প্রায় ৪ কোটি টাকা মুল্যের দেশী ও বিদেশী মদ, ফেনসিডিল ইত্যাদি মাদকদ্রব্য ভেঙ্গে বিনষ্ট করা হয় এবং গাঁজা আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এসময় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

আমারসিলেট  টুয়েন্টিফোর ডটকম,০২জুন,কমলগঞ্জ  প্রতিনিধিঃ    কমলগঞ্জ উপজেলার রাজকান্দি রেঞ্জের অধীন আদমপুর বনবিট থেকে প্রতিদিন চুরি হচ্ছে মূল্যবান গাছ গাছালি। অব্যাহত ভাবে গাছ চুরির কারনে বনাঞ্চল প্রায় শূন্য হতে চলেছে। প্রাকৃতিক ও সামাজিক বনায়ন থেকে গাছ পাচারের সাথে বিটের কর্মরত অসাধূ এক কর্মচারীর জড়িত থাকার অভিযোগ থাকলেও কার্যকরী কোন পদক্ষেপ গ্রহন করছেন না বিভাগীয় কর্তৃপক্ষ। রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বন প্রহরী একই এলাকার হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না বলেও শোনা যাচ্ছে।

গত ১০ দিনে সামাজিক বনায়নের আগর বাগান থেকে প্রায় ১৫ টি মূল্যবান আগর গাছ চুরি হয়েছে। আদমপুর বন বিট কর্মকর্তা শ্যামল দেব আগর গাছ চুরির কথা স্বীকার করে বলেন,সামাজিক বনায়ন থেকে গাছ চুরি রোধে উপকারভোগীদের সহযোগীতা প্রয়োজন।

আগরসহ মূল্যবান অন্যান্য গাছ পাচারের সাথে জড়িত রয়েছেন ওই বিটে কর্মরত প্রহরী কামাল হোসেন। তার সহযোগীতায় কোন ধরনের বাধা ছাড়াই প্রতিদিন পাচার হচ্ছে হাজার হাজার টাকা মূল্যের মূল্যবান বৃক্ষরাজি। বন প্রহরী হলেও কর্মকর্তার মতোই ক্ষমতা প্রয়োগ করেন কামাল হোসেন। ওই বিটে যেই বিট অফিসার হিসেবে যোগদান করেন তাকে ম্যানেজ করে বা ফাঁকি দিয়ে কামাল হোসেন দীর্ঘ দিন যাবত গাছ পাচার কর আসছেন।

২০১৭ সালের আগষ্ট মাসে আদমপুর বিটে কামাল হোসেন যোগদান করার পর স্থানীয় গাছ পাচারকারীদের সাথে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলেন। ২ মাস পর ডেপুটেশনে তাকে কামারছড়া বিটে পদায়ন করা হয়। সেখানেও তার বিরুদ্ধে গাছ পাচারের ব্যাপক অভিযোগ উঠে। ৩ মাস পর আবার তাকে আদমপুর বিটে পদায়ন করা হয়। রাজকান্দি রেঞ্জ অফিসে কর্মরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্টাফ জানান, রেঞ্জ কর্মকর্তার কারনে কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে কোন বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। রেঞ্জ কর্মকর্তা আর কামাল হোসেন একই এলাকার যে কারনে কামালের বিষয়ে একাধিক অভিযোগ উঠলেও রেঞ্জার কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেন না।

অভিযুক্ত কামাল হোসেন বলেন, তিনি কোন ধরনের গাছ পাচারের সাথে জড়িত নয়। রাজকান্দি রেঞ্জ কর্মকর্তা আবু তাহের বলেন, কামালের প্রতি তার কোন দুর্বলতা নেই। ডিএফও ব্যবস্থা না নিলে তিনি কিছু করতে পারেন না। আর বিশাল বনে গাছ চুরি তো থাকবেই।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৭ডিসেম্বর,রেজওয়ান করিম সাব্বির,নিজস্ব প্রতিনিধি:  সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার সীমান্তের খাঁসি হাওর এলাকার ১২৭৮নং আর্ন্তজাতীক পিলারের ৫এস সংলগ্ন এলাকায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে ২০টি বোমা মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়- খাঁসি হাওর এলাকার ১২৭৮নং আর্ন্তজাতীক পিলারের ৫এস সংলগ্ন খাঁসি নদী হতে মোঃ আকবর আলী ও মোঃ আব্দুস ছাত্তারের নেতৃত্বে পাথর খেকু চক্র সম্পূর্ণ বেআইনি ভাবে অবৈধ বোমা মেশিন ব্যবহার করে পাথর উত্তোলন করে আসছে। প্রশাসনের পক্ষ হতে গত ২ডিসেম্বর নিষেধাজ্ঞা জারী করার পরও চক্রটি বোমা মেশিন ব্যবহার করে পাথর উত্তোলন করে আসছে।

আজ ৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌরীন করিমের নেতৃত্বে সকাল সাড়ে ১০টায় বিষেশ অভিযান পরিচালনা করে অন্তত ২০টি বোমা মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে। এছাড়া যেহেতু খাঁসি নদীর সরকারী কোন লীজ কিংবা কোয়ারী নয় সেহেতু নদীর উৎস্যমুখ হতে বালু পাথর উত্তোলন করা সম্পূর্ণ বেআইনি ঘোষনা করে বিশেষ অভিযান পরিচালিত হয়।

এলাকাবাসীর দাবী পাথর খেকুদের হাত থেকে নদীকে এবং শত শত একর ফসলী জমি রক্ষার জন্য প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। অন্যতায় খাঁসি হাওরের জৈব বৈচিত্র ধ্বংস হবে শত শত একর ফসলী জমি বিলিন হয়ে জাফলংয়ের মত পরিবেশ ধ্বংস হবে। এছাড়া জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান।
এবিষয় জানতে চাইলে জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌরীন করিম বলেন- সহকারী কমিশনার(ভূমি) কে পাঠিয়ে অবৈধ কার্যক্রম বন্ধের নিদের্শ দেওয়ার পরও পাথর খেকু চক্রের সদস্যরা খাঁসি নদী হতে তাদের কার্যক্রম বন্দ করেনি। খাঁসি নদীতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অন্তত ২০টি মেশিন ধ্বংস করি। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পরিবেশ অধিদপ্তরকে জানানো হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২২নভেম্বর,কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে প্রতিহিংসায় বিনষ্ঠ এক হতদরিদ্র কৃষকের ৩০শতক শিম বাগান। বুধবার দুপুরে ইসলামপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর (কোনাগাঁও) গ্রামে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় কৃষক দিলাল মিয়ার শিম বাগানের সব শিম গাছের গোড়ায় কেটে দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, আজ সকালে তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা বাগানে কাজ করতে গিয়ে দেখে বাগানের প্রায় চারশ শিম ঝাড় একেবারে সমূলে কেটে দেওয়া হয়েছে। ধার দেনা করে অনেক কষ্টে অন্যের জমি বন্ধক নিয়ে প্রায় লক্ষাধিক টাকা খরছ করে তিনি বাণিজ্যিক ভাবে হাইব্রিড শিম চাষ করেছিলেন। কিছুদিন হতে শিম ধরা শুরু হয়ে বাজারে বিক্রি করার উপযোগী হতেই প্রতিহিংসা বশতঃ কে বা কারা তার পুরো বাগানের সব গাছ কেটে দিয়েছে।

স্থানীয় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা পূর্ণচাঁদ সিংহ শিম বাগান বিনষ্ঠ হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, সব মৌসুমেই দিলাল মিয়া নানা জাতের শাক-সব্জী চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। বিনষ্ট না হলে তিনি এ মৌসুমে প্রায় তিন লক্ষ টাকার শিম বিক্রি করতে পারতেন। শিম বাগান বিনষ্ঠ হওয়ায় সহজ সরল হতদরিদ্র দিলাল মিয়ার এখন সর্বস্ব হারিয়ে পাগল প্রায়।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩০জুন,নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে যে সূতিজালের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ এবাদুর রহমান ছুরিকাহত হয়েছিলেন সে সূতিজালটি ভষ্মীভূত করা হয়েছে। গত বুধবার আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মোখলেছুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে উপজেলার শুটকিগাছা স্লুইসগেটে সূতিজালটি আটক করে সেখানেই আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন।
স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, সূতিজালের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে শুটকিগাছা বাজারে দু’টি গ্রুপের সৃষ্টি হয়। সেখানে গত রোববার দিবাগত রাত ১০ টার দিকে আত্রাই উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ এবাদুর রহমান গেলে লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় উপজেলা চেয়ারম্যানকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এ ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই শহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে গত সোমবার রাতে ১০জনকে আসামি করে আত্রাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ উপজেলার কাশবপাড়া গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে জিল্লুর রহমানকে আটক করে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।
এদিকে এ ঘটনার পর গত বুধবার আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মোখলেছুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে সেই সূতিজালটি আটক করে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছেন। বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে আত্রাই থানার ওসি বদরুদ্দোজা বলেন, মামলার পর আসামিরা গা ঢাকা দিয়েছে। একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২২জুন,ডেস্ক নিউজঃ    ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় মসুল শহরে সেনাবাহিনীর অগ্রাভিযানের মুখে আরেকটি ভয়াবহ অপরাধ করেছে উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ। তারা নগরীর ৮০০ বছরের পুরনো আন-নুরি মসজিদ ধ্বংস করে দিয়েছে।

২০১৪ সালে এই মসজিদ থেকে নিজেদের কথিত খেলাফতের ঘোষণা দিয়েছিল দায়েশ জঙ্গিরা।
আরবি নিউজ চ্যানেল আল-আলম জানিয়েছে, ইরাকের সেনাবাহিনী যখন এই ঐতিহাসিক মসজিদটি থেকে মাত্র ৫০ মিটার দূরে ছিল তখন ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এটি ধ্বংস করে দেয় তাকফিরি জঙ্গিরা।  মসুল শহরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নিদর্শন ছিল আন-নুরি মসজিদ ও এটির ‘আল-হাদবা’ মিনারটি।

মসুল থেকে নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে আল-আলম জানিয়েছে, মসজিদটি ধ্বংস করার আগে দায়েশ জঙ্গিরা শহর থেকে পলায়নরত ৬০টি পরিবারের সব সদস্যকে ধরে এনে মসজিদের মধ্যে আটকে রাখে। বিস্ফোরণে হতভাগ্য এসব মানুষের সবাই নিহত হয়েছে বলে সূত্রটি জানিয়েছে।

ইরাকি নের্তৃবৃন্দের প্রতিক্রিয়া

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-এবাদি আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে দায়েশের এই অপরাধযজ্ঞের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেছেন, নিজেদের খেলাফতের প্রতীক আন-নুরি মসজিদ ধ্বংস করে দায়েশ জঙ্গিরা আনুষ্ঠানিকভাবে নিজেদের পরাজয় ঘোষণা করেছে।

ইরানের পার্লামেন্ট স্পিকার সালিম আল-জাবুরি বলেছেন, দায়েশ জঙ্গিদের উগ্র মতবাদ যে মারাত্মক ব্যাধিতে আক্রান্ত তা মসজিদ ধ্বংসের মাধ্যমে প্রমাণিত হলো। উগ্র এই জঙ্গি গোষ্ঠীর অপরাধযজ্ঞ সব কিছুর সীমা অতিক্রম করেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৫মে,শিমুল তরফদার, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:মাদককে না বলুন, যুব সমাজকে রক্ষা করুন, স্ব-নির্ভর দেশ গড়তে সহায়তা করুণ, এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারে ৪৬ বিজিবির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে শোভাযাত্রা ও সীমান্ত এলাকা থেকে আটক প্রায় অর্ধ কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকারের মাদক ধ্বংস করণ অনুষ্ঠান।
বৃহস্পতিবার দুপুরে মৌলভীবাজার ৪৬ বিজিবির উদ্যোগে আয়োজিত এ শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি।  শ্রীমঙ্গল পৌর শহীদমিনার থেকে শুরু হওয়া শোভাযাত্রাটি শহরের ভানুগাছ রোড, ষ্টেশন রোড, কলেজ রোড, গুহ রোড ও কমলগঞ্জ রোড হয়ে বিজিবি ক্যাম্পে এসে শেষ হয়। পরে বিজিবি ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয় মাদক বিরোধী সচেতনতা মূলক আলোচনা সভা।

অনুষ্ঠানে ৪৬ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল আনিছুজামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যদেন জাতীয় সংসদের সাবেক চীফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্যদেন বিজিবি সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আশরাফুল ইসলাম, মৌলভীবাজার অতিরিক্ত জেলা প্রাশাসক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, এ এস পি আশফাক, পৌরসভার মেয়র মহসীন মিয়া মধু, মেজর খালেদ,  মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তা সুবোধ কুমার বিশ্বাস ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি বৃন্দ।

শোভাযাত্রা ও আলোচনাসভায় বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক, সাংস্কৃতিককর্মী, কিশোরী ক্লাব, পৌর প্রশাসন, রাজনৈতিক নেতৃবিন্দ ও বিজিবি সদস্যসহ সহ¯্রাধিক লোক অংশ নেন। আলোচনা সভা শেষে অতিথিদের উপস্থিতিতে প্রায় ৩৭ লক্ষ টাকার বিভিন্ন প্রজাতির মাদক দ্রব্য ধ্বংস করা হয়।

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,২১মে,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা থেকে উদ্ধারকৃত মর্টারশেল ধ্বংস করেছে সিলেট জালালাবাদ সেনাবাহিনীর বোমা ডিসপোজাল টিম।
রোববার (২১ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার সোনাই নদীর পাড়ে বোমা ডিসপোজাল টিমের ক্যাপ্টেন আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে এটি ধ্বংস করা হয়।
সূত্রে জানা যায়, রোববার (১৯ মার্চ/২০১৭) দুপুরে মাধবপুর উপজেলার বহরা ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে রহিছ মিয়ার পুকুর খনন করতে গিয়ে মর্টারশেলটি উদ্ধার করে শ্রমিকরা। তখন স্থানীয় লোকজন ৫৫ বিজিবির মনতলা সীমান্ত ফাঁড়িতে খবর দিলে হাবিলদার মফিজ উদ্দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে মর্টারশেলটি উদ্ধার করে ক্যাম্পের হেফাজতে নিয়ে যায়।
৫৫ বিজিবির মনতলা সীমান্ত ফাঁড়ির সুবেদার জয়েন উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, মর্টারশেলটি উদ্ধারের পর বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। এর মাধ্যমে জানান যায় মুক্তিযুদ্ধের সময় মর্টারশেলটি ব্যবহার করা হয়নি। যে কারণে এটি সচল রয়েছিল। তাই ধ্বংস করা হয়।

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,০৮মে,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় নির্মানের পূর্বেই ভবনের প্রতিরক্ষা দেয়াল ধ্বসে পড়েছে। কোন কারন ছাড়াই গত শুক্রবার দুপুরে উপজেলা সদরের পাশে বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর নির্মানাধীন মূল ভবনের পূর্ব দিকের ৩০ফুট লম্বা প্রতিরক্ষা দেওয়াল ধ্বসে পড়ে যায়।

এসময় এলাকায় আতংকে সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্ট কার্য্যালয় সুত্রে জানা যায়,বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় পরিষদের পশ্চিম পাশে নির্মানাধীন প্রায় ২কোটি টাকা ব্যয়ে উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর কার্য্যালয়ের ভবনের নির্মান কাজ চলছে। কিন্তু শুক্রবার তা হঠাৎ ভেঙ্গে যায়। অভিযোগ উঠেছে এই দেয়াল যদি এত অল্প সময়ের মধ্যে হঠাৎ ভেঙ্গে যেতে পারে তাহলে মুল ভবনটিও ভেঙ্গে যেতে পারে। কারন এই ভবন নির্মানের কাজ ব্যবহার করা হয়েছে একবারেই নিন্ম মানের নিমার্ন সামগ্রী।

এব্যাপারে গনপূর্ত অধিদপ্তরের সুনামগঞ্জ নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বক্কর বলেন,গত শুক্রবার ভবনের ভিতরে ঠিকাদারের লোকজন ড্রেজার দিয়ে মাটি ভরাটের কাজ করার সময় বালি ও পানির চাপে তা ভেঙ্গে যায়। এখানে কোন অনিয়ম ও দূর্নীতি করা হয় নি।

আর এখনও আমরা এই ভবনটি ঠিকাদারের কাছ থেকে বুঝে নেই নি। কাজ শেষে সব কিছু দেখে শুনে ভবন বুঝে নিব। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা জানান,উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর কার্য্যালয়ের ভবনের দেওয়াল ধ্বসে খবর শুনেছি এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া।

“বিজিবির উন্নয়ন পরিকল্পনা ভিশন টোয়েন্টি টোয়েন্টি ওয়ান বাস্তবায়ন হলে দেশের মাদক  চোরাচালান কমে যাবে মৌলভীবাজারে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন”

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৩মার্চ,জহিরুল ইসলামঃ  মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ৫৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন শ্রীমঙ্গল সেক্টর কর্তৃক ৩ কোটি ৩৮ লক্ষ ১৮ হাজার ৩ শত ৮০ টাকার মাদক দ্রব্য ধ্বংস করেছে।

আটককৃত মাদকের পরিমাণ- ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার মদ ১৯,৩৮০ বোতল,ফেন্সিডিল ১০০৩ বোতল, গাঁজা ৯৩২কেজি ১০০ গ্রাম,বাংলা মদ ৩৩০ লিটার ৫০০ গ্রাম , বিয়ার ৪৩৫ বোতল, কোরেক্স সিরাপ ১৯৬ বোতল, ইয়াবা ট্যাবলেট ৬৭০৩  পিস।

এছাড়াও বিভিন্ন প্রকার নেশা জাতীয় ট্যাবলেট ৬১১৪ পিস।

উল্লেখ্য ২০১৬ সালের মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে এই মাদক গুলো উদ্ধার করা হয়। আটককৃত এইসব মাদক বৃহস্পতিবার বিকেল ৫ টায় শ্রীমঙ্গল বিজিবি সেক্টরে ধ্বংস করা হয় ।

এসময় প্রধান অতিথি সাবেক চিফ হুইপ আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি  বলেন , যারা মাদক ব্যবসা বা পাচার করে তাদের জন্য আইন খুবই কঠিন কিন্ত আমরা অনেকেই তা জানি না। মাদক সম্পর্কে তরুণদের সচেতন করতে হবে।মাদকের ব্যাপারে বিজিবি সীমান্তে খুবই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে।”

বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন বলেন, বিজিবির উন্নয়ন পরিকল্পনা ভিশন টোয়েন্টি টোয়েন্টি ওয়ান বাস্তবায়ন হলে দেশের মাদক দ্রব্য চোরাচালান ও মাদক ব্যবহার কমে যাবে। তিনি আরোও জানান, “বর্ডার এলাকায় সীমান্ত সড়ক, বিদ্যুৎ ও সীমান্ত হাটগুলো স্থাপিত হয়ে গেলে ঐ জনপদে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে এবং বেকার যুবকদের কর্ম সংস্থানের সুযোগ হবে এতে সীমান্তে যারা মাদক চোরা কারবারের সাথে জড়িত তারা আর এ পেশায় যাবেনা। অন্যদিকে মাদকদ্রব্য  দেশে না আসলে যুব সমাজও এর নাগাল পাবে না।”

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন , রিজিয়ন কমান্ডার উত্তর পূর্ব রিজিয়িন সরাইল বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আবুল হাসনাত মুহাম্মদ খায়রুল বাশার, শ্রীমঙ্গল সেক্টারের সেক্টর কমার্ন্ডার কর্ণেল মো: আশরাফুল ইসলাম , ৫৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক,লেঃ কর্নেল সাজ্জাদ হোসেন , ৪৮ বর্ডার গার্ড ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লে: কর্ণেল এসএম আনিসুজ্জামান, মৌলভীবাজার জেলা অতিরিক্তি পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, শ্রীমঙ্গল পৌর মেয়র মো: মহসীন মিয়া মধু, শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল ইসলাম প্রমুখ ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc