Saturday 5th of December 2020 03:04:36 AM

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মাননীয় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মুহাম্মদ আবদুল্লাহর আকষ্মিক ইন্তেকালে আহলে সুন্নাতের শীর্ষস্থানীয় আলেমেদ্বীনের মধ্যে নায়েবে আ’লা হযরত আল্লামা মুফতি ইদ্রিচ রেজভী, শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী, আল্লামা আবদুল করীম সিরাজনগরী, পীরে তরিক্বত সৈয়দ মুহাম্মদ মছিহুদ্দৌলা, পীরে তরিক্বত আল্লামা আবুল কাশেম নুরী, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান, মহাসচিব আল্লামা এম এ মতিন, আন্জুমানে রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট সহ-সভাপতি আলহাজ¦ মুহাম্মদ মহসীন, জেনারেল সেক্রেটারী আলহাজ¦ মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, পীরে তরিকত আল্লামা কাজী আব্দুস শকুর নক্শবন্দি, পীরে তরিকত সৈয়দ মুহাম্মদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল-মাইজভান্ডারী, পীরে তরিক্বত সৈয়দ বদরুদ্দোজা বারী, অধ্যক্ষ আল্লামা সৈয়দ অছিউর রহমান আলকাদেরী, আল্লামা হাফেজ সোলায়মান আনসারী, শায়খুল হাদিস কাজী মুহাম্মদ মঈনুদ্দীন আশরাফী, শায়খ আল্লামা আবু সুফিয়ান খাঁন আলকাদেরী, স উ ম আব্দুচ সামাদ, সৈয়দ মাওলানা মুহাম্মদ জয়নুল আবেদীন আলকাদেরী, আল্লামা ড. সৈয়দ এরশাদ আহমদ আল বোখারী, এড. মোছাহেব উদ্দিন বখতেয়ার, আল্লামা মাসউদ হোসাইন আলক্বাদেরী আনজুমানে খোদ্দামুল মোসলেমীন ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুহাম্মদ সাহাবুদ্দীন চৌধুরী, কাজী মুহাম্মদ সোলাইমান চৌধুরী, মাওলানা মুহাম্মদ আবদুল মতিন, অধ্যক্ষ আল্লামা মুহাম্মদ তৈয়্যব আলী, আল্লামা নুর মুহাম্মদ আলকাদেরী, পীরজাদা গোলামুর রহমান আশরফ শাহ্, পীরে তরিক্বত আল্লামা ছাদেকুর রহমান হাশেমী, অধ্যক্ষ ইসমাইল নোমানী, অধ্যক্ষ বদিউল আলম রেজভী, অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুহাম্মদ পেয়ার মোহাম্মদ কমিশনার, মহাসচিব আলহাজ্ব শাহজাদ ইবনে দিদার।

এ ছাড়াও এড. মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, ইসলামী ফ্রন্ট মহানগর উত্তর সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ নঈমুল ইসলাম, সম্পাদক নাছির উদ্দিন মাহমুদ, দক্ষিণ জেলার সভাপতি অধ্যাপক মনছুর দৌলতী, সম্পাদক হাফেজ আহমদ আলকাদেরী, উত্তর জেলার সভাপতি মাওলানা কদম রসুলী, সম্পাদক এস এম ইয়াসিন হোসাইন হায়দারী, চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা এম এন ইসলাম জিহাদী, সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ আশরাফ হোসাইন আলকাদেরী, আলহাজ কাজী মুহাম্মদ ফোরকান রেযা, হুজুরের শাহ্জাদা মাওলানা কাযী আবুল এরফান হাশেমী, কাযী মুহাম্মদ আবুল ফোরকান হাশেমী, মাস্টার মুহাম্মদ ইছমাইল হোসেন, আন্জুমানে রজভীয়া নুরীয়া ট্রাস্ট সেক্রেটারী অ্যাডভোকেট আব্দুর রশিদ দৌলতী, যুবসেনা কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ গোলাম মুহাম্মদ মানিক ভুঞা, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম, ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সভাপতি জি এম শাহাদত হোসাইন মানিক, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইমরান হোসাইন তুষার, সুন্নী নাগরিক ঐক্য পরিষদের সচিব অধ্যাপক মুহাম্মদ কাওসার হামিদ, হিজরী নববর্ষ উদ্যাপন পরিষদের মহাসচিব মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকী, রাবেত্বায়ে উলামায়ে আহলে সুন্নাতের চেয়ারম্যান আল্লামা আবুল হাসান মুহাম্মদ ওমাইর রজভী, মহাসচিব আল্লামা ইকবাল হোসাইন আলকাদেরী, রজভীয়া নুরীয়া ইসলামী সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি শায়ের মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরী, মহাসচিব শায়ের নাজিম উদ্দিন, মাদ্রাসা ছাত্র ফ্রন্টের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ইদ্রিস, মহাসচিব মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, বিএম ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দের মধ্যে মুহাম্মদ শফিউল আলম, এস এম ইকবাল বাহার, মুহাম্মদ জাহেদুল আলম, মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, মুহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন সিদ্দিকী, মুহাম্মদ রবিউল মোস্তফা প্রমূখ আজ ১৪ জুন সংগঠনের দপ্তর সচিব মুহাম্মদ ফিরোজ আলমের স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলেন, বৈশ্বিক এ চরম ক্রান্তিকালে তাঁর ইন্তেকালে আমরা গভীরভাবে শোকাহত হয়েছি।

নেতৃবৃন্দ বলেন- মরহুম আবদুল্লাহ্ দীর্ঘদিন যাবত সরকারী মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব থেকে ইসলাম, তাহজীব- তমুদ্দনের অভূতপূর্ব উন্নয়নে অসমান্য অবদান রাখেন। রাষ্ট্রীয়ভাবে মিলাদ- কিয়াম, আক্বিদাগত মৌলিক বিষয়গুলো নিয়ে প্রতিষ্ঠার পক্ষে আপ্রাণ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছিলেন যা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করতে হয়। বিশেষত সুন্নীয়তের মৌলিকত্বকে অনুধাবনে তাঁর মেধাবী কৌশল সকল মহলে প্রশংসিত হয়েছিল। তাঁর ইন্তেকালে আমরা একজন ভাল মানুষকে হারিয়েছি এ বিয়োগ পূরণ হওয়ার নয। নেতৃবর্গ মহান প্রভুর দরবারে ক্ষমা প্রাথর্নার পাশাপাশি জান্নাতের আ’লা মাকাম দান কামনা এবং সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ রাজধানী ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুবরণ করেছেন।ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেছেন।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেছেন, কয়েকদিন ধরেই তিনি অসুস্থ ছিলেন। শনিবার রাতে তার হার্ট অ্যাটাক করে। রাত ১১টার দিকে তাকে সিএমএইচে নেয়া হয়। সেখানে নেয়ার পর দ্বিতীয়বার তার হার্ট অ্যাটাক করে। এর পরপরই তিনি রাত সাড়ে ১১টার দিকে মারা যান।

শেখ মো. আবদুল্লাহ ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব লাভ করেন। রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনে ব্যস্ততার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৭ মে তার নির্বাচনী এলাকার (টুঙ্গীপাড়া-কোটালীপাড়া) উন্নয়নে প্রতিনিধির দায়িত্ব দেন তাকে।

শেখ মো. আবদুল্লাহ ১৯৪৫ সালের ৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জ জেলার মধুমতী নদীর তীরবর্তী কেকানিয়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত ধার্মিক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা শেখ মো. মতিউর রহমান এবং মাতা মরহুমা আলহাজ মোসাম্মৎ রাবেয়া খাতুন।

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফ্রন্ট মুজিব বাহিনীর সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। কিন্তু রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে দেশ সেবা করার লক্ষ্যে চাকরির পরিবর্তে রাজনীতি করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। এরপর কাউন্সিলের মাধ্যমে গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। দীর্ঘদিন তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জাতীয় পর্যায়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc