Wednesday 28th of October 2020 07:59:16 AM

আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের খুগিয়ানি জেলার ‘ওয়াজির তাঙ্গি’ এলাকায় মার্কিন ড্রোন হামলায় অন্তত ৩০ জন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত ও ৪০ জন আহত হয়েছে। হতাহতরা কৃষক বলে জানা গেছে। সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ বা আইএস’র গোপন আস্তানা ভেবে বিশ্রামরত কৃষকদের ওপর বোমা ফেলার কারণে হতাহতের এ ঘটনা ঘটেছে।

নানগারহার প্রদেশের অন্তত তিনজন সরকারি কর্মকর্তা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নানগারহারের প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য সোহরাব কাদেরি বলেছেন, একটি পাইন বাদামের ক্ষেতে কর্মরত কৃষকদের ওপর ড্রোন থেকে হামলা চালানো হয়েছে। এর ফলে ৭০ জন কৃষক হতাহত হয়েছেন।

আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ওই হামলার খবরের সত্যতা স্বীকার করেছে, তবে হতাহতের সংখ্যা জানায় নি। প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র আতাউল্লাহ খুগিয়ানি বলেছেন, হামলার বিষয়ে সরকার তদন্ত চালাচ্ছে। এ পর্যন্ত নয় জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে মার্কিন বাহিনী এখন পর্যন্ত হামলার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করে নি।

‘ওয়াজির তাঙ্গি’ এলাকার উপজাতীয় নেতা মালিক রাহাত গুল বলেছেন, পাইন বাদাম সংগ্রহ করার পর ক্লান্ত-শ্রান্ত কৃষকরা যখন তাদের তাবুর কাছে জড়ো হয়ে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন তখনি ড্রোন থেকে বোমা ফেলা হয়। তাঁবুর পাশে তারা আগুন জ্বালিয়ে রেখেছিলেন।

এদিকে, দক্ষিণাঞ্চলীয় যাবুল প্রদেশে তালেবানের গাড়ী বোমা হামলায় অন্তত ২০ জন প্রাণ হারিয়েছে।পার্সটুডে

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩১মার্চ,হাবিবুর রহমান খান,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের বড়হাট জঙ্গি আস্তানার জঙ্গিরা আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন বলে ধারণা করছেন পুলিশ।

অভিযানে অংশ গ্রহণকারী পুলিশের একটি সুত্রে জানা যায় শুক্রবার দুপুরে  বড়হাট আস্তানার ভেতর কয়েকটি বিস্ফোরণ হয়। ওই বিস্ফোরণে হয়তো তারা মারা গেছেন। বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট বড়হাট আস্তানার ভেতর প্রবেশ করে। এ সময় অভিযানকারী টিম মুহুর্মূহু গুলি ছুড়ছে। তবে আস্তানার ভেতর থেকে কোনো জবাব পাওয়া যাচ্ছে না।

অভিযানে সংশ্লিষ্ট পুলিশের অপর এক কর্মকর্তা জানান, আস্তানার ভেতর ড্রোন পাঠিয়ে ভেতরের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে ভেতরে ৩/৪ জন নারী পুরুষ থাকতে পারে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩০মার্চ,হৃদয় দাশ শুভ,নিজস্ব প্রতিবেদক মৌলভীবাজার থেকেঃ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নাসিরপুর গ্রামের জঙ্গি আস্তানায় ফের অভিযান শুরু করেছে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)। অভিযানে সিটিটিসির সদস্যরা ড্রোন ব্যবহার করছে বলে অভিযান সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
এদিকে সিটিটিসির প্রধান মনিরুল ইসলাম  জানান, বৃহস্পতিবার সকালে তারা অভিযান শুরু করেছিলেন। কিন্তু বৃষ্টির কারণে তা স্থগিত করা হয়।
নাসিরপুরে অভিযান শেষে বড়হাটে অভিযান চালানো হবে বলে নিশ্চিত করেছেন মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানার এসআই রাশেদুল আলম খান।
এর আগে সিলেটের জঙ্গি আস্তানা আতিয়া মহলেও ড্রোন ব্যবহার করেছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
উল্লেখ্য, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাত থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায় একটি বাড়ি এবং শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজার এলাকার নাসিরপুর গ্রামে আরও একটি বাড়ি ঘিরে রাখে পুলিশ ও সিটিটিসি। দুটি আস্তানাতেই বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-বিস্ফোরক রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc