Tuesday 20th of October 2020 07:45:58 PM

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন রাজধানীর তিন সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনরত রিকশাচালকদের নগর ভবনে চায়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন । একই সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনার সুযোগ রয়েছে বলেও জানান তিনি।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে নগরীতে সুশৃঙ্খল গণপরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে আয়োজিত এক আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা বিনিময় বিষয়ক কর্মশালায় এ আহ্বান জানান ডিএসসিসি মেয়র।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সাঈদ খোকন বলেন, তাদের যদি কোনো কথা বা দাবি থাকে, আমরা সেগুলো শুনবো। আমি তাদের নগর ভবনে চায়ের আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আলোচনার মাধ্যমে আমরা সমাধানের পথ বের করবো।

তবে দুই রুটের তিন সড়কে রিকশাচলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত বহাল রাখার ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেন, যে সড়কগুলোতে রিকশা বন্ধ করা হয়েছে সেখানে যাত্রী বা নাগরিকদের তেমন একটা ভোগান্তির চিত্র দেখা যায়নি। নগরবাসীর চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক গণপরিবহন রয়েছে। এছাড়া আমরা পরীক্ষামূলকভাবে টিকিট সিস্টেম ফ্রাঞ্চাইজির বাস চালু করতে যাচ্ছি। পথচারীদের হাঁটার সুবিধার জন্য ফুটপাত দখলমুক্ত করছি। তাই এসব রুটে ফের রিকশা চলবে তেমনটা আপাতত আমরা মনে করছি না। তবুও সাতদিন পার হলে আমাদের কমিটির (ঢাকা ট্রাফিক কন্ট্রোল অথরিটি-ডিটিসিএ) সঙ্গে পুনরায় পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবো।

গত রোববার থেকে রাজধানীর দুই রুটের তিন সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর প্রতিবাদে টানা দ্বিতীয় দিনের মতো রামপুরা রুটে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছেন রিকশাচালকরা।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি (টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা) বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ এবং বিশ্ব ব্যাংকের রিজিওনাল ডিরেক্টর জন রুম। এছাড়াও সভায় বাস রুট রেশনালাইজেশন বিষয়ে গঠিত কমিটির সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন।

রাজধানীর কয়েকটি সড়কে রিকশাচলাচল বন্ধ করার ঘোষণায় মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের মতো বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করেছেন রিকশাচালকরা। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন রাজধানীবাসীসহ ঢাকায় আগত নাগরিক।

নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গঠনে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। সমাজ থেকে চিরতরে এ মাদককে দূর করতে না পারলে এদেশের তরুণ ও যুব সমাজ ধ্বংসের পথে পরিচালিত হবে। তাই মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গঠনে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। মাদক, সন্ত্রাস, বাল্য বিবাহ, জঙ্গীবাদ ও ইভটিজিং মুক্ত সমাজ গঠন করতে পারলে অচিরেই বাংলাদেশ একটি সুখী সমৃদ্ধিশালী দেশে পরিণত হবে।

এখন থেকে সকলকে অপরাধ বিমুখ হতে হবে। শিক্ষার্থীরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। উন্নত সমাজ ও রাষ্ট্র গঠন করতে তাদেরকে ভুমিকা নিতে হবে। সমাজের অপরাধ দমনে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসতে হবে। সড়ককে নিরাপদ রাখতে সকল শ্রেণীর মানুষকে ট্রাফিন আইন মেনে চলতে হবে।
বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় উপজেলা অডিটরিয়াম হল রুমে জনশৃঙ্খলা, জনসচেতনতা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন নওগাঁর পুলিশ সুপার মো.ইকবাল হোসেন।
আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: মোবারক হেসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ছানাউল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এবাদুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম, নওগাঁ সরকারি ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম খাঁন, বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজের সহকারি অধ্যক্ষ সোহেল রানা, আত্রাই প্রেসক্লাবের সভাপতি

ডেস্ক নিউজঃ সুজন সম্পাদক ড বদিউল আলম মজুমদার এর বাসা থেকে একটি অনুষ্ঠান শেষে ফেরার পথে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের গাড়ি বহরকে লক্ষ্য করে মোটরসাইকেল আরোহীসহ একদল দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়েছে। পুলিশের দ্রুত সহযোগিতায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মার্শিয়া বার্নিকাট।

রোববার মার্কিন দূতাবাসের দেয়া বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, গতদিনের রাতে রাজধানী ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকায় হামলায় রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট, তার গাড়িচালক ও নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের কোনো ক্ষতি না হলেও দুটি গাড়ির কিছুটা ক্ষতি হয়েছে।

এ ঘটনায় পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য ঢাকা মহানগর পুলিশ ও নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে মার্কিন দূতাবাস।

“ডিসিদের প্রতি মাঠ প্রশাসনে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির সংস্কৃতি চালু করার আহ্বান জানালেন রাষ্ট্রপতি আলহাজ্জ মো. আবদুল হামিদ”

ডেস্ক নিউজঃ  রাষ্ট্রপতি আলহাজ্জ মো. আবদুল হামিদ সব বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের প্রতি মাঠ প্রশাসনে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির সংস্কৃতি চালু করার আহ্বান জানিয়ে ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়া বাদ দিয়ে জনগণের কল্যাণকে অগ্রাধিকার দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে দেশের সব বিভাগ ও জেলার প্রশাসনিক প্রধানদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়া বাদ দিয়ে জনগণের কল্যাণকে অগ্রাধিকার দিন।’

রাষ্ট্রপতি তাদের সত্যিকারের ‘জনসেবক’ হিসেবে দেশ ও জনগণের সেবা করার নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘জনগণ যাতে সরকারি সেবা নিতে গিয়ে কোনো ধরনের হয়রানির শিকার না হয় তাও নিশ্চিত করতে হবে।’

দুর্নীতি সমাজ ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করে উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি ডিসিদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে তৃণমূল পর্যায়ে জনগণকে সচেতন করে তোলার আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি ডিসিদের তাদের কোনো কর্মকাণ্ডে সরকার বা স্থানীয় প্রশাসন যাতে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে না পড়ে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার পরামর্শ দেন।

উন্নয়ন ও প্রশাসনিক বিষয়ে নীতি-নির্ধারকদের সঙ্গে মতবিনিময় এবং পরবর্তী এক বছরের জন্য কাজে অগ্রাধিকার ও দিক-নির্দেশনা প্রণয়নের লক্ষ্যে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের এ বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বাংলাদেশকে ধর্ম নিরপেক্ষতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত উল্লেখ করে মাঠপর্যায়ে প্রশাসকদের জঙ্গি তৎপরতা ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রচারণার মাধ্যমে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে অগ্রণী ভূমিকা পালন করার নির্দেশ দেন।

কৃষি, শিক্ষা, যোগাযোগ ও অবকাঠামো খাতে সরকারের বিভিন্ন মেগা উন্নয়ন প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘জনগণের প্রতিটি টাকার যাতে সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত হয় সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।’

রাষ্ট্রপতি ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের লক্ষ্যে পরিচালিত সরকারের সব কার্যক্রম বাস্তবায়নে ডিসিদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার জন্য জেলা প্রশাসকদের পরামর্শ দেন। তিনি গ্রামপর্যায়ে জনকল্যাণমুখী ও টেকসই ভূমি ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলার ওপর জোর দিয়ে ভূমি রেকর্ড ও জরিপ ব্যবস্থাপনাকে ডিজিটাইজড করতে জেলা প্রশাসকদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে বলে উল্লেখ করেন।

তিনি মাঠপর্যায়ের বিভিন্ন সরকারি কর্মকাণ্ডের প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি প্রগতিশীল, গণতান্ত্রিক, আধুনিক ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ে তোলার মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ বিনির্মাণে জেলা প্রশাসকদের মেধা ও দক্ষতা কাজে লাগানোর আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি হামিদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ২০৩০ সালের মধ্যেই টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) সব অভিষ্ট লক্ষ্য অর্জন করে ২০৪১ সালে বাংলাদেশকে উন্নত অর্থনীতির দেশে পরিণত করতে সরকারি কর্মকর্তাসহ দেশবাসীর ঐকান্তিক সহযোগিতা কামনা করেন।

রাষ্ট্রপতি ডিসিদের অবকাঠামো উন্নয়ন, শিক্ষা, পরিবেশ ও যুব উন্নয়নসহ বিভিন্ন আর্থ-সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ইস্যুতে ডিসিদের বেশ কিছু দিক-নির্দেশনাও দেন।

মন্ত্রী পরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোখলেসুর রহমান সরকার ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তৃতা করেন। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এবং বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকবৃন্দ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।সূত্র:বাসস।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২১ফেব্রুয়ারিঃ একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি আলহাজ্জ মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাত ১২টা ১টি মিনিটে প্রথমে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী। এ সময় অমর একুশের কালজয়ী গান ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ বাজানো হয়।

এরপর জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা পরে মন্ত্রিবর্গ ও দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের নিয়ে দলের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় মন্ত্রিসভার সদস্যরা, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাগণ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, তিন বাহিনীর প্রধানগণ, কূটনীতিকবর্গ এবং উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যদের নিয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

এরপর আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের নেতৃবৃন্দ শহীদ বেদিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

এসময় শহীদ মিনার বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য অপেক্ষা করছিল হাজার হাজার মানুষ।

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সঙ্গে সারা দেশের শহীদ মিনারগুলোতেও একুশের প্রথম প্রহর থেকে চলে শ্রদ্ধা নিবেদনের পালা।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ পৃথক বাণী দিয়েছেন।

এর আগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মঙ্গলবার রাত ১১টা ৩০ মিনিটে মাইক দিয়ে আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটি বাজানোর পর আনোয়ার ইসলামের সঞ্চালনায় মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়।

অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক মেজবা কামাল, রূপ চক্রবর্তী, দেবাশীষ কুন্ডু, সাব্বির আহমেদ, অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, ফাহমিদা ইয়াসমিনসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কিছু শিক্ষক-শিক্ষার্থী।

রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ১৯৫২ সালের এই দিনে বাঙালির রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল রাজপথ। রক্তের দামে এসেছিল বাংলার স্বীকৃতি আর তার সিঁড়ি বেয়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয় স্বাধীনতা।সুত্রঃ আমাদের সময়

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৯সেপ্টেম্বর,ডেস্ক নিউজঃ   মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর চালানো গণহত্যা দ্রুত বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে পাকিস্তান সরকার। প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পাকিস্তান মন্ত্রিসভার বৈঠকে পাস করা একটি প্রস্তাবে এ আহ্বান জানানো হয়।

রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু মুসলমানদের ওপর গণহত্যা চালানোর কড়া নিন্দা করা হয়েছে এ প্রস্তাবে। এতে বলা হয়েছে- নিরস্ত্র বেসামরিক লোকজনের ওপর শুধু রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসবাদই চলছে না বরং সামগ্রিক মানবতা ও দেশ-সমাজের বিবেক নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

এছাড়া, গণহত্যা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পাওয়া মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচির প্রতি আহ্বান জানিয়েছে পাক মন্ত্রিসভা।

এর পাশাপাশি ঠাণ্ডা মাথায় রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর গণহত্যা বন্ধে দ্রুত ভূমিকা নেয়ার জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। এর আগে পাক সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে রোহিঙ্গা মুসলমান হত্যার বিরুদ্ধে নিন্দা জানিয়েছে।পার্সটুডে

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০২সেপ্টেম্বর,নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইল কেন্দ্রীয় পৌর ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করলেন “নড়াইল একপ্রেস” মাশরাফি বিন মোত্তর্জা কৌশিক। নামাজ শেষে দেশবাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ৭ টায় ছোট ভাই সিজার, মামা নাহিদুল ইসলামসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে ঈদগাহে এসে পৌছায় মাশরাফি।  এ সময় মাশরাফির পরনে ছিল সাদা রঙের পানজাবি। নামাজ শেষে তিনি আত্মীয় স্বজন বন্ধু-বান্ধব ও ভক্তদের সাথে কোলাকুলি করেন।

নড়াইল কেন্দ্রীয় পৌর ঈদগাহ ময়দানে জেলা প্রশাসক মোঃ ইমদাদুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলামসহ সর্বস্তরের মুসল্লিরা ঈদ জামায়াতে শরিক হন।

জামায়াতে ইমামতি করেন নড়াইল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মওলানা আশরাফ আলী। দেশ জাতির কল্যান কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

এছাড়াও জেলার বিভিন্ন ঈদগাহ ও মসজিদে শান্তিপুর্নভাবে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১৩মার্চঃ চলতি মাসের ৬ তারিখে শ্রীমঙ্গল উপজেলা ছাত্রলীগ, সরকারী কলেজ ছাত্রলীগ ও পৌর ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়।এতে নতুন কমিটিতে উপজেলা ছাত্রলীগ এর সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন আসিফ চৌধুরী নাঈম।

নব কমিটি ঘোষনার পরেই অভিযোগ উঠে যে,নাঈম চৌধুরী বিবাহিত।যেহেতু ছাত্রলীগের কমিটিতে বিবাহিতরা আসতে পারে না ফলে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকায় এ সংক্রান্ত সংবাদও প্রকাশিত হয়।সে সকল সংবাদের প্রতিবাদে সোমবার (১৩ মার্চ) রাতে নাঈম চৌধুরী লিখিত এক বার্তায় শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেস ক্লাবকে জানান যে,তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

তিনি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন যে “অভিযোগ প্রমাণ স্বরুপ যে ছবিটি ব্যবহার করা হয় তা একটি পারিবারিক আংটি বদলের ছবি।কর্তৃপক্ষ নিশ্চয়ই আংটি বদল ও বিবাহের পার্থক্য জানেন।”

প্রতিবাদ বার্তায় তিনি আরও বলেন,”আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক। আমি উক্ত কর্মকান্ডের প্রতিবাদ জানাই এবং আপনাদের মাধ্যমে উক্ত বিষয়টি কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।”

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc