Friday 30th of October 2020 11:18:23 AM

নড়াইল প্রতিনিধি: গত এক সপ্তাহেও কোনো জট খোলেনি নড়াইলের কলেজ শিক্ষক অরুণ রায় হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর উপজেলার তুলারামপুর ইউনিয়নের ব্যানাহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এগারখান এলাকাবাসীর আয়োজনে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তরা বলেন, গত এক সপ্তাহেও মর্মান্তিক এ হত্যাকান্ডের কোনো জট খোলেনি। তারা প্রশাসনের কাছে দ্রুত এ মামলার আসামিদের সনাক্ত করে তাদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান। তুলারামপুর ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি অসিত কুমার মল্লিকের সভাপতিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নিহতের স্ত্রী মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর(মাউশি) খুলনার উপ-পরিচালক এবং মামলার বাদি নিভা রাণী পাঠক, নিহতের ভাই কলেজ শিক্ষক স্বপন রায়, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শিমুল দাস, অধ্যক্ষ (অব) বিপ্লব সেন, অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম, কলেজ শিক্ষক নিখিল আঢ্য, নিখিল পাঠক, রমেশ চন্দ্র অধিকারী, স্বপন অধিকারী, বিপুল বিশ্বাস প্রমুখ। এ সময় নিহতের পূত্র প্রকৌশলী ইন্দ্রোজিত রায় উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশে স্থানীয় কয়েক গ্রামের কয়েক’শত নারী-পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।
নিহতের স্ত্রী নিভা রাণী পাঠক বলেন, তার স্বামী কারও কোনো ক্ষতি করেনি, কাওকে ফাঁকি দেয়নি ও বি ত করেনি। সব সময় মানুষের পাশে থেকেছেন, উপকার করেছেন. এলাকার মন্দির ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য কাজ করেছেন। কখনও ভাবতে পারিনি তার শেষ পরিণতি এই হবে। কে বা কারা কি উদ্দেশ্যে তাকে হত্যা করলো তার বিচার চাই। এ ধরণের পরিণতি যেন আর কারও না হয়।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার এস.আই শিমুল কুমার দাস জানিয়েছেন, নিহতের ঘটনায় যে ৬জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছিল। তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের কাছ থেকে কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। আসামিদের সনাক্ত ও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য, শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে সদর থানা পুলিশ সদরের তুলরামপুর ইউনিয়নের হিন্দু অধ্যুষিত ব্যানাহাটি গ্রামের নিজ বাড়িতে অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক অরুণ রায়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়। জানা গেছে, এ বাড়িতে তিনি একা থাকতেন। শুক্রবার সারাদিন অরুণ রায়ের সাথে পরিবারের সদস্যরা যোগাযোগ করে না পাওয়ায় সন্ধ্যার পর নীভা রাণী পাঠক খুলনা থেকে বাড়িতে এসে স্বামীকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। নিহতের ঘটনায় ২৪ অক্টোবর নিহতের স্ত্রী নিভা রাণী পাঠক সদর থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জঃ  নবীগঞ্জে এক বখাটের উৎপাতে জনৈকা কলেজ ছাত্রী ও তার পরিবার অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। হতাশা ও আতংকের মাঝে দিন কাটাচ্ছে মেয়েটির পরিবার। উক্ত বখাটে উপজেলার রায়ঘর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে আহমদ জয়। এ ব্যাপারে কলেজ ছাত্রীর মা নবীগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ প্রদান করেছেন।
অভিযোগ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের দূর্লভপুর গ্রামের মনির মিয়া মেয়ে আউশকান্দি স্কুল এন্ড কলেজে একাদশ শ্রেণীতে অধ্যায়নরত। কলেজে আসা যাওয়ার পথে দীঘলবাক ইউপির রায়ঘর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে আহমদ জয় মেয়েটিকে উত্যক্ত করে। এক পর্যায়ে তার সাথে সম্পর্ক স্থাপন করে মেয়েটির ব্যবহৃত মোবাইল থেকে ওই ছাত্রীর ব্যক্তিগত কিছু ছবি তার মোবাইলে নিয়ে যায়। পরে ওই ছবি গুলো ইন্টারন্যাটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে কুপ্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হয়।

এদিকে আহমদ জয় বিবাহের প্রস্তাব নিয়ে ওই ছাত্রীর পরিবারের কাছে গেলে তারা অভিভাবক পাটাতে বলেন। এতে সে অনীহা জানায়। ফলে মেয়ের পরিবার অভিভাবক ছাড়া তাদের মেয়েকে বিয়ে দিতে অপারগতা জানালে সে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ওই ছাত্রীর ছবি আপলোড করে অশ্লীল কথাবার্তা লিখে।

এ ঘটনায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরীর সেলিমের মধ্যস্থতায় শালিস বিচারে বিষয়টি নিস্পত্তি হয়। বকাটে ছেলে ও তার বড় ভাই ভবিষ্যতে ওই ছাত্রীকে বিরক্ত করবে না মর্মে অঙ্গীকার করে।

সম্প্রতি ওই বকাটে আহমদ জয় পুণঃরায় ওই ছাত্রীর নাম ব্যবহার করে একটি পেইক ফেসবুক আইডি খোলে তার ছবি ও মোবাইল নম্বার ব্যবহার করে বিশ্রী ভাষায় কথাবার্তা লিখে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করে। এক পর্যায়ে মেয়ের আত্মীয় স্বজনের মোবাইলে ইমুতে এ সব লেখা ও ছবি তার মোবাইলের ইমু থেকে প্রেরণ করে। এছাড়া মেয়ের পরিবারকে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করছে।

ফলে ওই কলেজ ছাত্রীসহ তার পরিবার আতংকের মাঝে দিনাতিপাত করছেন। বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যানকে অবগত করা হয়েছে বলে তারা জানান। এদিকে নিরূপায় হয়ে ওই পরিবার নবীগঞ্জ থানায় এক সপ্তাহ আগে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরও বন্ধ হয়নি উক্ত বকাটের উৎপাত। প্রতিনিয়ত হুমকীর মুখে আতংক ও উৎকন্ঠায় জীবন যাপন করছেন ওই ছাত্রী ও তার পরিবার।

কলেজ ছাত্রলীগের ছয় নেতা কর্মীসহ ১১ জনের নামে গণধর্ষণ! মামলা দায়ের,সবাইকে খুঁজছে পুলিশ।   

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রলীগের ৬ নেতাকর্মীসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে মামলা করেছেন, সংবাদটি নিশ্চিত করেছেন শাহপরান থানার ওসি কাইয়ুম চৌধুরী।

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, ছাত্রলীগের ৬ নেতা ও অজ্ঞাত আরও ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মামলার আসামিরা হলেন- এমসি কলেজ ছাত্রলীগের নেতা ও ইংরেজি বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, মাহফুজুর রহমান মাছুম, এম সাইফুর রহমান, অর্জুন এবং বহিরাগত ছাত্রলীগ কর্মী রবিউল এবং তারেক আহমদ।

তাদের মধ্যে সাইফুর রহমানের বাড়ি বালাগঞ্জে, রবিউলের বাড়ি দিরাইয়ে, মাহফুজুর রহমান মাছুমের বাড়ি সিলেট সদর উপজেলায়, অর্জুনের বাড়ি জকিগঞ্জে, রনি হবিগঞ্জের এবং তারেক জগন্নাথপুরের বাসিন্দা।

এদিকে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণের ঘটনায় যে ৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছ তাদের মধ্যে সাইফুর রহমান নামে একজনের কক্ষ থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার ভোর রাতে ওই ছাত্রাবাসে সাইফুরের কক্ষ থেকে একটি পাইপগান, চারটি রামদা, একটি ছুরি ও দুটি লোহার পাইপ উদ্ধার করে বলে ওসি কাইয়ুম চৌধুরী জানিয়েছেন। তিনি বলেন, রাতে এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সাইফুর রহমানের কক্ষ থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত শুক্রবার সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে টিলাগড় এলাকার কলেজটির ছাত্রাবাসে এ ঘটনা ঘটে। ওই তরুণীকে ক্যাম্পাস থেকে তুলে ছাত্রাবাসে নিয়ে পালাক্রমে গণধর্ষণ ও নির্যাতন করা হয় বলে  পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে। আপডেট নিউজ

মিনহাজ তানভীরঃ  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল বিএনপির শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজ শাখার আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। শনিবার ১২ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. রুবেল মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান এর স্বাক্ষরিত জেলা ছাত্রদলের প্যাডে মিজানুর রহমান আহ্বায়ক ও নয়জন যুগ্ম আহ্বায়ক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন করা হয়েছে ।
শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজ শাখার আহবায়ক কমিটির সদস্যদের নামের তালিকা নিম্নরূপ- মিজানুর রহমান আহবায়ক, সুমন মিয়া যুগ্ম আহ্বায়ক, ইসরাফিল আলম মেরাজ যুগ্ন আহবায়ক, আলাউদ্দিন আহমেদ শামিম যুগ্ন আহবায়ক, শাহানশাহ আখলাক যুগ্ন আহবায়ক, সাইফুল ইসলাম যুগ্ম আহ্বায়ক, হুমায়ূন আহমেদ হাসনাত যুগ্ন আহবায়ক, মোস্তাফিজুর রহমান যুগ্ন আহবায়ক, মুদাসির আহমদ যুগ্ম আহ্বায়ক, সাইদুর রহমান ফাহিম যুগ্ন আহবায়ক।

এ ছাড়া জুনেদ মিয়া সদস্য সচিব। সাধারণ সদস্যরা হলেন, আসাদুজ্জামান পায়েল, সোহাগ মিয়া, রেদওয়ান উদ্দিন খান, জায়েন উদ্দিন সাগর, নাজমুল হোসেন, নিজামুল হক, পারভেজ আহমেদ জুয়েল,যুনায়েদ আহমেদ ,ইমন আহমেদ জিল্লুর রহমান রাফি।

উল্লেখ্য ১২/০৯/২০২০ তারিখ থেকে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে সকল বিভাগ অনুষদ ও ক্লাস কমিটি গঠন করে কাউন্সিলের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে হবে বলে লিখিত ভাবে বলা হয়েছে ।

“প্রাতিষ্ঠানিক ত্রুটিজনিত কারণে কাউকে বঞ্চিত না করে সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের দ্রুত আত্তীকরণ করতে হবে”

প্রাতিষ্ঠানিক ত্রুটিজনিত কারণে কাউকে বঞ্চিত না করে প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণের তারিখে কর্মরত সকল শিক্ষক-কর্মচারীকে অন্তর্ভূক্ত করে দ্রুত এডহক নিয়োগের দাবীতে সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতি (সকশিস)-এর সিলেট আঞ্চলিক ইউনিটের ভার্চ্যুয়াল সভা গতকাল (সোমবার) সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতি (সকশিস)-এর সিলেট আঞ্চলিক ইউনিটের সভাপতি, ইমরান আহমেদ মহিলা কলেজের সহাকারি অধ্যাপক শাহেদ আহমেদ-এর সভাপতিত্বে এবং কেন্দ্রীয় কমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক, ফেঞ্চুগঞ্জ সরকারি কলেজের প্রভাষক অসীম কুমার তালুকদার-এর সঞ্চালনায় সরকারি কলেজ বিহীন উপজেলাসমূহে ১টি করে কলেজ সরকারিকরণের জন্য স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা, বৈষম্যহীন শিক্ষা ব্যবস্থার অগ্রপথিক,ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার, মানবতার মহাননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা-কে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞা জ্ঞাপন করে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সকশিস সিলেট আঞ্চলিক ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক, মদন মোহন কলেজের প্রভাষক আবুল কাশেম।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সকশিসের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জনাব জহুরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি জনাব জাকারিয়া মাহমুদ, সহ-সভাপতি জনাব কামরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি জনাব মো. আবু সাইদ আতিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জনাব দীপু কুমার গোপ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জনাব মো. ইসহাক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জনাব আ.ন.ম. রিয়াজ উদ্দিন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জনাব মো. আব্দুস সবুর সরকার ও সাংগঠনিক সম্পাদক (সার্বিক) জনাব মো. কামরুল হাসান পাঠান।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন সকশিস সিলেট জেলা কমিটির সভাপতি মো. আব্দুল হামিদ ও সাধারণ সম্পাদক জুলহাস আহমেদ, সকশিস হবিগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি অনুপ রায় ও সাধারণ সম্পাদক তাপস রায়, সকশিস মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সভাপতি রজত কান্তি গোস্বামী ও সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দীন এবং সকশিস সুনামগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি মো. মশিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক লিটন চন্দ্র সরকার। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগের সদ্য সরকারিকৃত কলেজসমূহের শিক্ষকবৃন্দ।

বক্তারা সকশিস কেন্দ্রীয় কমিটির ১৪ দাবীর প্রতি একাত্ততা জানিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর দাবী পূরণের আবেদনপত্র জমা দান, স্থানীয় সংসদ সদস্য বরাবরে আবেদন পত্র জমা দান ও মত বিনিময়, দেশব্যাপী গণসংযোগ, ৬৪ টি জেলা সদরে/ ডিসি অফিসের সামনে মানব বন্ধন ও ঢাকায় মানব বন্ধন কর্মসূচী বাস্তবায়নের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন। প্রেস রিলিজ

মিনহাজ তানভীরঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে গতকাল শনিবার (২৯ আগস্ট) বিকাল থেকে এক কলেজ ছাত্র নিখোঁজ হয়, নিখোঁজের পর আজ রোববার (৩০ আগস্ট) ভোরে তার মৃত দেহের সন্ধান পাওয়া যায় উপজেলার লাখাইছড়া চা বাগানে।
জানা যায়,শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভাড়াউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কল্যান দেব এর ছেলে স্বাক্ষর দেব (১৮) শনিবার ২৯ আগস্ট বিকেল ৬ টা থেকে নিখোঁজ হয়। স্বাক্ষরের বাড়ী শ্রীমঙ্গলের মৌলভীবাজার রোডস্থ ইসবপুর গ্রামে।
এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানায় ডায়েরী করা হয়। শ্রীমঙ্গল উপজেলার লাখাইছড়া চা বাগান হতে স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে নিখোঁজের ১২ ঘণ্টা পর স্বাক্ষরের মৃত দেহের সন্ধান পায় স্থানীয় পুলিশ।
নিখোঁজের পর খুন করা হয়েছে কি না তা বলা যাচ্ছে না। কে বা কারা ? কেন ? তাকে খুন করেছে অথবা কিভাবে মৃত্যু হয়েছে এ বিষয়টি সঠিক ভাবে উদ্ঘাটনে তদন্ত করতে মৌলভীবাজার জেলা থেকে সিআইডির একটি স্পেশাল টিম আসছে বলে ঘটনা স্থলে থাকা শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের সুত্রে জানা গেছে।
ঘটনা স্থলে শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আব্দুস ছালিক, তদন্ত ওসি সোহেল রানা ও এস আই আলআমীনসহ পুলিশের একটি টিম রয়েছে। জানা গেছে সিনিয়র এএসএসপি আশরাফুজ্জামান ও মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের এসপি  ফারুক আহমদ ঘটনা স্থলে আসছে বলে সেখানে থাকা রমা রঞ্জন দেব থেকে জানা গেছে। বিস্তারিত আসছে…।।

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট ১০নং মিরাশি ইউপি সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী মাস্টারের ছোট ছেলে মোঃ জুবায়ের আহমেদ রাফি তালুকদার (২০)  বিদ্যুতায়িত হয়ে করুণ মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) বিকাল ৩.৩০ মিঃ সময়ে ওই ইউপির গাতাবলা গ্রামে এঘটনাটি ঘটেছে। রাফি নরসিংদী আব্দুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ এর এইচএসসি পরীক্ষার্থী।
জানা যায়, রাফি নিজ বাড়ির (বন) খেরের ফ্যান থেকে খের আনতে গেলে বিদ্যুতায়িত হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন।
এব্যাপারে চুনারুঘাট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজমুল হক সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সাদিক আহমেদ,নিজস্ব প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার আর কে মিশন রোড সংলগ্ন সোনামিয়া রোডে সাঁতার কাটতে গিয়ে পানিতে ডুবে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

মৃত ছেলেটির নাম শাকিল আহমেদ (২২)। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে শায়েস্তাগঞ্জ সরকারি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

আজ ১৯ জুলাই (রোববার) দুপুর ২:৩০ মিনিটে হাজী আলাবক্স জামে মসজিদের পুকুরে ডুবে যাওয়ার বিষয়টি পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

পরবর্তীতে তাকে পুকুর থেকে তুলে এনে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে সেখান থেকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়।পরবর্তীতে দুপুর ৩ টায় মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল থেকে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, নিহত শাকিল আহমেদ সোনামিয়া রোডের বক্স বাড়ির ভাড়াটিয়া চান মিয়ার পুত্র। চার ভাই তিন বোনের মধ্যে তিনি পঞ্চম।

নিহতের জানাজা আজ বাদ এশা সোনা মিয়া রোড হাজী আলাবক্স জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য মৃত্যুর ১০/১৫ মিনিট আগেও সে অনলাইনে ছিল। পরিবার সূত্রে জানা গেছে নিহত শাকিল কয়েক মাস ধরে সাঁতার শিখেছেন।

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: সম্প্রতি বয়ে যাওয়া ঘূর্নিঝড় আম্পানের ক্ষত নিয়ে দাড়িয়ে আছে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার বান্দাইখাড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজ। আম্পানের তান্ডবে কলেজটির স্বাভাবিক চেহারা পাল্টে গেছে। আম্পানের তান্ডবে কলেজের পুরাতন ভবনের টিনের ছাউনি উড়ে গিয়ে বৃষ্টির পানিতে কলেজের ডিজিটাল হাজিরা ডিভাইস, সিসি ক্যামেরা ও কম্পিউটার নষ্ট হয়ে গেছে।

কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান রিজভী জানান, করোনা ভাইরাসের থাবায় এমনিতে কলেজে দীর্ঘদিন যাবত পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তার উপর আবার আম্পানের তান্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে কলেজের সবকিছু। আত্রাই উপজেলার এই প্রত্যন্ত এলাকার যুব সমাজে গুণগত কারিগরি শিক্ষা বিস্তারে বান্দাইখাড়া টেকনিক্যাল কলেজ অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। জেলার মধ্যে এই প্রতিষ্ঠানটি একমাত্র ডিজিটাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কিন্তু সেই তুলনায় আধুনিক উন্নয়ন কাঠামোতে তেমন কোন ছোঁয়া লাগেনি। এই প্রতিষ্ঠানটি ডিজিটাল কলেজ হিসেবে জেলার শ্রেষ্ঠ পদক পেয়েছে।

তিনি আরো বলেন এই অ লের অনেক গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের অনেকটা বিনামূল্যে এই প্রতিষ্ঠান থেকে কারিগরী শিক্ষা প্রদান করা হয়। আজ এই অ লের অনেক বেকার যুবারা কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করে বিভিন্ন রকমের কর্ম গ্রহণ করে স্বাবলম্বী হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত এই প্রতিষ্ঠানে সরকারি কোন সুযোগ-সুবিধা বা আধুনিকতার ছোঁয়া তেমন স্পর্শ করেনি। শিক্ষকদের সহযোগিতা আর উপজেলা প্রশাসনের একটু থোপ বরাদ্দ দিয়ে কোন মতে মাথা উচু করে দাড়িয়ে আছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিশেষ করে আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন শিক্ষা ভবনসহ অন্যান্য সুবিধা পেলে এই প্রতিষ্ঠান আগামীতে এই অ লসহ বিভিন্ন অ লের বেকার যুব ছেলে-মেয়েদের মাঝে কারিগরি শিক্ষা পৌছে দিতে বর্তী হিসেবে কাজ করবে বলে আমি মনে করি। আম্পানের ফলে প্রতিষ্ঠানের যে ক্ষতি হয়েছে তা মেরামত করা প্রতিষ্ঠানের একার পক্ষে সম্ভব নয়। তাই সরকারি কোন সহযোগিতা পেলে অতিদ্রুত প্রতিষ্ঠানটি মেরামত করা সম্ভব হতো।

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  হবিগঞ্জ জেলার মিরপুর আলিফ সুবহান চৌধুরী সরকারি কলেজে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার এক কর্মির উপর ছাত্রলীগের কর্মীরা হামলা চালায়। সন্ত্রাসী এই হামলায় ওই কলেজের ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক গুরুত্বর আহত হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা মিরপুর আলিফ সোবহান চৌধুরী সরকারি কলেজে শাখার ( হবিগঞ্জ জেলার আওতাধীন) সাধারন সম্পাদক শামসুল ইসলাম জাকীরের উপর ছাত্রলীগ নেতা রায়হান এর নেতৃত্বে আজ (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ বর্বর হামলা হয়। এতে শামসুল ইসলাম জাকী গুরুত্বর আহত হয়।
জানা গেছে, কলেজের একটি বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের কর্মিরা এই হামলা করে। এর আগে মিরপুর আলিফ সুবহান চৌধুরী সরকারি কলেজের ছাত্রলীগের বিভিন্ন অন্যায় কাজে প্রতিবাদ করা নিয়ে ছাত্রলীগের কর্মীদের সাথে ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদকের কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ১৩ ফেব্রুয়ারী কলেজের বিতর্ক প্রতিযোগীতায় শামসুল ইসলাম জাকীকে অংশ গ্রহন করতে ছাত্রলীগ কর্তৃক বাধা প্রদান করা হয়। কিন্তু তিনি ছাত্রলীগের বাধাকে উপেক্ষা করে বিতর্ক প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করেন এবং বিজয়ী হন।
পরবর্তীতে দুপুরে কলেজের ছাত্রলীগ নেতা রায়হান এবং তার কিছু সহযোগীদের নিয়ে ছাত্রসেনার সাধারন সম্পাদক এর উপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলার সময় কলেজের শিক্ষকগন বাধা প্রদান করলে তারা শিক্ষকদের গায়েও হাত তুলেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরবর্তীতে আহত জাকিকে ছাত্রসেনার অন্যান্য কর্মীরা উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায়। আহত জাকীকে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
তাকে দেখতে হাসপাতালে আসেন ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা কাউছার আহমদ রুবেল, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট বাহুবল উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ,জেলা ছাত্রসেনার সভাপতি নুরুদ্দীন, শাহজাদা সৈয়দ মোহাম্মদ আলী বশনী, এম এ কাদির ও জুনের প্রমূখ।

সোলেমান আহমেদ মানিক, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ আর মাত্র কয়েক ঘন্টা বাকী, রাত পোহালেই শুরু হবে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে সুবর্ণজয়ন্তী ও মিলনমেলা। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর এই উৎসবের সকল প্রস্তুতি প্রায় শেষ। এখন পরিকল্পনা মতো অনুষ্ঠান তুলে আনার ছক আকঁছেন অত্র বিদ্যাপীঠের বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও আয়োজকরা। আনন্দ উল্লাস আর চাপা উত্তেজনার মধ্য দিয়ে সময় কাটাছে তাদের।
ইতিমধ্যে কলেজ ক্যাম্পাসকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে। আলপনায় আলপনায় রাঙানো হয়েছে পুরো ক্যাম্পাস। শুধু আলপনা নয় উৎসবকে কেন্দ্র করে কলেজের সব কিছুতেই লেগেছে নতুনত্বের ছোঁয়া। কলেজের ফটক থেকে শুরু করে সকল স্থাপনাকে রঙিন করা হয়েছে। কলেজ মাঠে তৈরী হয়েছে বিশাল প্যান্ডেল। হৃদয় নিংড়ে সাজসজ্জায় সকল ভালোবাসা ঢেলেছেন কলেজের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। শহরের বিভিন্ন সড়কে তৈরি করা হয়েছে তোরণদ্বার।
“এসো মিলি প্রাণের মেলায়”- এই শ্লোগান নিয়ে কাল (২৮ ডিসেম্বর) কলেজের সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। রাত ফুরিয়ে ভোরের আলো ফুটলেই বিদ্যাপীঠটির বর্তমান-সাবেক শিক্ষার্থীর জীবন খাতায় এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ঘিরে রচিত হবে একটি বিশেষ দিন। এ উপলক্ষে ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের বাড়ছে আনাগোনা।
উৎসব উদযান পরিষদসূত্র জানায়, বেশ ঘটা করেই উপজেলার সর্বোচ্চ এই বিদ্যাপীঠের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনের প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা। কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সাথে বর্তমান শিক্ষার্থীরা মিলিত হবে নবীন প্রবীণদের প্রাণের উৎসবে। চলতি মাসের প্রথম দিনে উৎসবের প্রাক প্রস্তুতি হিসেবে কলেজ থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শ্রীমঙ্গল শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সুবর্ণ জয়ন্তীর বর্ণিল উৎসবে কলেজের ৫০টি ব্যাচের শিক্ষার্থীরা অংশ নেবেন। এজন্য নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষ করা হয়েছে আগেই।
উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মোস্তফা জামান আব্বাসী। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মৌলভীবাজার ৪ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহিদ এমপি, বিশেষ অতিথি গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ডাঃ আব্দুন নূর তুষার। সংগীত পরিবেশন করবেন ডলি সায়ন্তনী ও পিন্টু ঘোষ।

চট্টগ্রাম কলেজ সরকারী চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী কল্যাণ সমিতির কার্য্যকরি কমিটি অদ্য ১২ নভেম্বর সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে উক্ত কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: মুজিবুল হক চৌধুরী, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো: মুজাহিদুল ইসলাম ও শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ও রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জনাব ড. মো: রিয়াজুল হকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত নির্বাচনে মো: নুরুল আলম সভাপতি, মো: নাছির উদ্দিন সহ সভাপতি, মো: শহীদুল্লাহ সাধারণ সম্পাদক ও মো: মনিরুল ইসলামকে কোষাধ্যক্ষ নির্বাচিত করে ০৯ সদস্যের কার্য্যকরি কমিটি ২০১৯-২০২০ অনুমোদিত হয়েছে।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিশে^র দ্বিতীয় সেরা প্রধানমন্ত্রী ঘোষনা করায় নড়াইলে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাস থেকে একটি আনন্দ মিছিল বের করা হয়।মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে প্রশাসনিক ভবনের সামনে এসে শেষ হয়।
নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন ববির সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাইম ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক সিদ্ধার্থ সিংহ পল্টু, নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জোবায়ের হোসেন মানিক প্রমূখ।  এসময় সদর উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন গ্রহণ ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে। যা আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তির আবেদন গ্রহণ চলবে।

প্রার্থীদের অনলাইন আবেদন ফরম আগামী ১৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে। আর ১ অক্টোবর থেকে অনার্স ১ম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে। এছাড়া আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ভর্তির আবেদন গ্রহণ শুরু করবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

গত মাসের রোববার (২৮ জুলাই) সকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সাধারণ সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সুত্র আরও জানায়. আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ১ম বর্ষ ভর্তির অনলাইন আবেদন গ্রহণ শুরু হবে।

আগামী ৯ অক্টোবর পর্যন্ত প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন প্রার্থীরা। এসব কোর্সে ভর্তির অনলাইন আবেদন ফরম ১০ অক্টোবরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে। প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ১ম বর্ষের ক্লাস আগামী ২৪ অক্টোবর শুরু হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কোন প্রার্থী স্লাতক (সম্মান), স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল ও স্নাতক (পাস) কোর্সে দ্বৈত ভর্তি হলে তার উভয় ভর্তি বাতিল হবে। দৈনিক পত্রিকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.nu.ac.bd/admissions) ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে।

গত সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান, ট্রেজারার অধ্যাপক মো. নোমান উর রশীদ, স্কুল অব আন্ডার গ্রাজুয়েট স্টাডিজের ডিন অধ্যাপক ড. মো. নাসির উদ্দিন, ডিনরা, রেজ্রিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, পরিচালক আইসিটিসহ সকল বিভাগীয় প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

এম ওসমান : শার্শা উপজেলার নাভারণ ডিগ্রী কলেজে সাবেক অধ্যক্ষ আলহাজ্ব শফিউদ্দিন আহমেদ ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি ২৯শে আগস্ট বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় যশোরের ঝিকরগাছার পৌর সদরের কৃষ্ণনগরের নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে ও ২ মেয়েসহ অসংখ্য শুধানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।

কর্মজীবনে তিনি দীর্ঘদিন শার্শা উপজেলা নাভারন ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ পদে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে ২০০৯ সালের জুন মাসে অবসর গ্রহন করেন। শুক্রবার জুম্মা নামাজ বাদ ঝিকরগাছা সম্মিলনী মহিলা কলেজ প্রাঙ্গণে তার জানাজা নামাজ অনুষ্টিত হয়। জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মরহুমের নামাজে জানাজায় উপস্থিত ছিলেন, মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ৮৫ যশোর-১ (শার্শা) আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিন এবং মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ৮৬ যশোর-২ (ঝিকরগাছা-চৌগাছা) ডাক্তার মোঃ নাসির উদ্দিন,যশোর জেলা পরিষদের সদস্য ও নাভারণ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ ইব্রাহীম খলিল, সাবেক বিদুৎ প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনির, শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, পৌর মেয়ের মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মুকুল, সাধারণ সম্পাদক মুছা মাহামুদ, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজাসহ তাহার সকল পর্যায়ের সহকর্মীবৃন্দ।

মরহুমের জানাজার নামাজ পড়ান তার ছোট পুত্র হাফেজ মোঃ সবুজ হোসেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc