Sunday 25th of October 2020 11:13:41 PM

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার,লচনা নামক গ্রামে ফকির শাহ আব্দুর রহমান মাইজ ভান্ডারী (মাঃ জীঃ আঃ ) কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত দায়রা শরীফে, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মহান ২৩ আশ্বিন, হযরত গোলামুর রহমান প্রকাশ (বাবা ভান্ডারি রহঃ)’র খোশরোজ শরীফ উদযাপন উপলক্ষে আজিমুশশান মিলাদ (দঃ)মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান বক্তা হিসাবে তকরির পেশ করেন, এশিয়া খ্যাত দ্বীনি শিক্ষা নিকেতন,চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার শিক্ষার্থী ও রাংগুনিয়া মোগলেরহাটস্হ মির্জা হোসাইন তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া মাদরাসার আরবি মুদাররিস, উদিয়মান তরুণ বক্তা ক্বারী মাওলানা মুহাম্মদ হোসাইন কাদেরী,(মাঃজিঃআঃ)। বিশেষ বক্তাঃ- মাওলানা সেলিম উদ্দিন জালালী সাহেব। এতে সভাপতিত্ব করেন–ফকির শাহ আব্দুর রহমান মাইজ ভান্ডারী, প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন–চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়ার শিক্ষার্থী ও রাংগুনিয়া গোলশানে মদিনা চার আউলিয়া (রহ) সুন্নিয়া মাদরাসার সহঃ সুপার, শাহজাদা মাওলানা মো: মুজিবুল বশর মাইজ ভান্ডারী, বিশেষ অতিথি ছিলেন মো: সিরাজুল ইসলাম মাইজভান্ডারী (কুমিল্লা)।

মাহফিলে দেশ ও জাতির কল্যানে মোনাজাত করা হয়।মোনাজাত পরিচালনা করেন শাহজাদা মাওলানা মো: মুজিবুল বশর মাইজ ভান্ডারী।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বছিলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে র‌্যাব। নিহত দুইজনের পরিচয় জানা যায়নি।। তবে র‌্যাব বলেছে- তারা নিজেদের বোমার বিস্ফোরণে নিহত হয়েছে।

বছিলায় মেট্টো হাউজিংয়ের ওহাব আলীর টিনসেড বাড়িটি আজ সোমবার ভোর থেকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখে র‌্যাব। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ির ভেতর থেকে গুলি ছোড়া হয়। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এর পর বাড়ির ভেতরে বেশ বড় ধরনের কয়েকটি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। এতে বাড়িটির টিনের চাল উডে যায় এবং বাড়িতে আগুন ধরে যায়।

এ দিকে ওই বাড়িতে অবস্থানরত মসজিদের ইমাম, বাড়ির মালিক ওহাব মিয়া ও বাড়ির কেয়ারটেকারসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান বলেন, “গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি বছিলার মেট্রো হাউজিং এলাকার একটি টিনসেড বাড়িতে জঙ্গিরা অবস্থান করছে। ভোরে ওই বাড়িটি ঘিরে ফেলা হয়।

পরে আশে-পাশের বাসিন্দাদের নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে নেওয়া হয়। ওই বাড়ি থেকে দুই দফা বিস্ফোরণ হয়েছে। বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড পৌঁছানোর কমান্ড অভিযান শুরু হয়।ইত্তেফাক

ডেস্ক নিউজঃ চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে একটি জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব। তাদের সাথে কাজ করছে, বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল।জঙ্গি সন্দেহের  এই অভিযানে  নিহত হয়েছে দুই জনসহ প্রচুর অস্র ও বিস্ফোরক  উদ্ধার করা হয়েছে।

র‍্যাব সুত্রে জানা যায়, জোরারগঞ্জে চৌধুরী ম্যানসন নামে একটি জঙ্গি আস্তানার খবর পান তারা। এতে গত রাত ৩টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে, বাড়ির ভেতরের লোকজনকে বাইরে বেরুতে বলেন র‍্যাব সদস্যরা। এ সময় ভেতর থেকে গুলি চালানো হয়। পাল্টা গুলি ছোড়ে র‍্যাব। বাড়িটির ভেতরে কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। সকাল ৯টায় ঢাকা থেকে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল ঘটনাস্থলে পৌছলে, অভিযান শুরু হয়। সন্দেহভাজন একজনকে আটক করেছে র‍্যাব।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৮নভেম্বর,ডেস্ক নিউজঃ  রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোদাগাড়ী উপজেলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি  সোমবার রাত থেকে ঘিরে রেখেছে র‍্যাব। চর আলাতলী গ্রামের ওই বাড়িতে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।এতে দুইজন কে আটক করা হয়েছে।

র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) রাজশাহী সদর কোম্পানির অধিনায়ক আশরাফুল আলমের ভাষ্য, গতকাল দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে বাড়িটি তাঁরা ঘিরে ফেলেন। ‘জঙ্গিদের’ আত্মসমর্পণ করার জন্য র‍্যাব মাইকে আহ্বান জানায়। কিন্তু ‘জঙ্গিরা’ ভেতর থেকে বিস্ফোরণ ঘটায়। খরের দ্বারা  নির্মিত বাড়িটিতে আগুন লেগে যায়। বাড়িটির বেশ কিছু অংশ পুড়ে গেছে।

মঙ্গলবার সকালে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাড়িটি ঘিরে রেখেছে র‍্যাব। ঢাকা থেকে বিস্ফোরক দ্রব্য নিষ্ক্রিয়করণ দলের আসার অপেক্ষায় আছেন তাঁরা।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১৫আগস্ট,ডেস্ক নিউজঃ  রাজধানীর পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের পাশে একটি হোটেলকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

 আজ মঙ্গলবার ভোর থেকে পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের পাশে ওলিও নামের হোটেল ভবনটি ঘিরে রাখা হয়েছে। সেখান থেকে বিকট শব্দে  বিস্পুোরনের শব্দ শোনা গেছে।
কলাবাগান থানার ওসি ইয়াসির আরাফাত বলেন, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে রাত সাড়ে ৩টা থেকে ভবনটি ঘিরে রাখা হয়েছে।

কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) একটি সূত্র জানায়, হোটেলের মধ্যে থাকা ব্যক্তি ট্রলিবোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। ১৫ আগস্টকে সামনে রেখে ৩২ নম্বরে হামলার উদ্দেশেই সে এখানে উঠেছিলো।

এর আগে সিটিটিসি’র একটি সূত্র জানিয়েছিল, হোটেলটির ভেতরে একজন নব্য জেএমবির সদস্য ছিলো। ওই সদস্য নব্য জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলীয় কমান্ডার বলে ধারণা পুলিশের।

হোটেলের এক কর্মকর্তা জানান, ওই রুমে যে ছিলো সে গত তিনদিন আগে সেখানে উঠেছিলো। সিটিটিসি ইউনিটের একটি সূত্র জানান, আত্মঘাতী ওই জঙ্গি খুলনার বিএল কলেজের শিক্ষার্থী ছিলো।

উল্লেখ্য, রাজধানীর পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের পাশে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে হোটেল ‘ওলিও ইন্টারন্যাশনাল’ জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ঘটনাস্থলে পুলিশ, ডিবি পুলিশের পাশাপাশি সোয়াটসহ বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নেয়।

সকাল পৌনে দশটা নাগাদ ভবনের বাইরে বোমা বিস্ফোরণ ঘটে । এতে পুরো এলাকা কেপে ওঠে। তারপর গুলির শব্দ শোনা গেছে। একজন পুলিশ আহত হয়েছে। আহত পুলিশকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ আগস্ট) ভোর সাড়ে ৩টা থেকে ওই ভবনটি ঘিরে রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এখন পর্যন্ত অভিযান শুরুর খবর পাওয়া যায়নি।

সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে এসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঘিরে রাখা ওই ভবনে নাশকতার সরঞ্জাম থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেখানে সোয়াটসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়েছেন।

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,২৬ এপ্রিলঃ    শিবগঞ্জে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা ও র‌্যাব।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বুধবার রাত আনুমানিক ৩টা থেকে উপজেলার চককীর্তি ইউনিয়নের কৃষ্ণচন্দ্রপুর গ্রামে জেন্ট বিশ্বাসের বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। জঙ্গিরা ভেতর থেকে বোমা ও গুলি ছুঁড়ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এলাকায় ১৪৪ধারা জারি করা হয়েছে।

মোহন, সালামসহ তিনজনকে আটক করেছে প্রশাসন। ভেতরে চার জঙ্গি অবস্থান করছে বলে ধারণা করছে প্রশাসন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার মুজাহিদুল ইসলাম জানান, সকাল পৌনে ৮টার দিকে ঐ বাড়িটির ভেতর থেকে প্রশাসনকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এরপরেই নিশ্চিত হওয়া যায় যে ঐ বাড়িতে জঙ্গি বা সন্ত্রাসী অবস্থান করছে। নিরাপত্তার স্বার্থে বাড়ির আশেপাশে কাউকে যেতে দিচ্ছে না পুলিশ।

তিনি আরো জানান, জঙ্গিদের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে অভিযান শুরু করবে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা।

শিবগঞ্জ থানার প্রাপ্ত কর্মকর্তা হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হয়েছে।ইত্তেফাক

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১এপ্রিল,হৃদয় দাশ শুভ,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ   বড়হাটের জঙ্গি আস্তানার বাড়িটা দুর্ভেদ্য নির্মাণ কৌশল ও শক্তিশালী নির্মাণ উপকরণ অভিযানে অংশ নেওয়া সংস্থা গুলোকে ভাবিয়ে তুলেছে।
ডুপ্লেক্স ভবনটাতে বুলেটপ্রুফ কাচ ও ভবনের ভেতরে-বাহিরে টাইলসের আস্তরণ থাকায় তা ভাঙতে বেগ পেতে হয় সোয়াটের (স্পেশাল উইপন অ্যান্ড ট্যাকটিস টিম)।
একাধিক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, অভিযানের সময় দেয়াল এবং বুলেটপ্রুফ মার্কারি গ্লাস থেকে গুলি ফিরে আসে। গ্লাসের গায়ে গুলির আঁচড় সামান্য লাগলেও পুরো একদিনে তা ভাঙা যায়নি। যে কারণে ভবনে প্রবেশ করতে সময় বেশি লেগেছে সোয়াট সদস্যদের।
একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বাড়ির গঠন দেখে বাড়ির মালিককে সন্দেহ করা হচ্ছে।
স্থানীয়দের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, বাড়িটিতে টু-লেট লাগানো দেখে ভাড়া নিতে গেলেও স্থানীয়দের ভাড়া না দিয়ে একই জঙ্গি গ্রুপকে নাসিরপুর ও বড়হাট এর দুই বাড়ি ভাড়া দেওয়ায় এ সন্দেহ জোরদার হয়েছে।
এই সন্দেহ থেকে সোয়াট নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক জুয়েলকে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে তার জঙ্গি কানেকশনের সম্ভাবনা।
এ ব্যাপারে পুলিশ সূত্র জানান, জুয়েল স্থানীয়দের বাড়ি ভাড়া না দিয়ে একই জঙ্গি গ্রুপকে ২০ কিলোমিটারের মধ্যে দুই বাড়ি ভাড়া দেওয়া থেকেই তাকে সন্দেহ করা হচ্ছে। কিন্তু বড়হাট আস্তানার নির্মাণ সামগ্রী ও বুলেটপ্রুফ গ্লাসের ব্যবহার মালিককেও সন্দেহের মধ্যে নিয়ে এসেছে।
বাড়িটি যেন এক শক্ত পরিখা দ্বারা সুরক্ষিত। মালিক কেন হঠাৎ করে এমন নিরাপত্তাহীনতার কথা চিন্তা করেছিল ভাবা হচ্ছে তাও। খতিয়ে দেখা হচ্ছে জঙ্গি অর্থায়নের সঙ্গে তার জড়িত থাকার সম্ভাবনা আছে কি না।

 

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩১মার্চ,হৃদয় দাশ শুভ,নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার থেকে: নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানা থেকে সাতটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি লাশ পুরুষের, দুইটি নারীর ও চারটি শিশুর। প্রাথমিক তদন্ত শেষে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের রেসিডেন্সিয়াল মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) পলাশ রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
পলাশ রায় বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে সাতটি মৃতদেহ শনাক্ত করা হয়েছে।  সকালে ময়নাতদন্ত হবে। তারপরই বিস্তারিত তথ্য জানানো সম্ভব হবে।’
এর আগে, নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন হিট ব্যাক শেষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, জঙ্গি আস্তানায় সাত থেকে আটটি লাশ রয়েছে। সেগুলো ছিন্নভিন্ন ছিল বলে লাশের সঠিক সংখ্যা তাৎক্ষণিকভাবে বলতে পারেননি তিনি।
উল্লেখ্য, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাত থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায় একটি বাড়ি এবং খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজার এলাকার নাসিরপুর গ্রামের একটি বাড়িতে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পেয়ে ঘিরে রাখে পুলিশ ও সিটিটিসি। বুধবার সন্ধ্যায় নাসিরপুরের আস্তানায় অভিযান শুরু করে সোয়াট। পরে আলোর স্বল্পতার কারণে রাতে অভিযান স্থগিত রাখা হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার পরে পুনরায় অভিযান শুরু করে সোয়াট। বিকালে অভিযান শেষ হয়। শহরের বড়হাট এলাকার জঙ্গি আস্তানাটি এখনও ঘিরে রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এদিকে, কুমিল্লার কোটবাড়ী ও গাজীপুরের তামিরুল মিল্লাত মাদ্রাসার আবাসিক এলাকা জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রেখেছে পুলিশ। বড়হাট ও কোটবাড়ির আস্তানা দুইটিতে শুক্রবার সকাল থেকেই অভিযান শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩০মার্চ,হৃদয় দাশ শুভ,নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার থেকেঃ  মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নাসিরপুর গ্রামের জঙ্গি আস্তানায় ফের অভিযান শুরু করেছে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)। অভিযানের শুরুতেই সেখানে টানা গুলির শব্দ শোনা যাচ্ছে।

এদিকে নাসিরপুরে জঙ্গি আস্তানায় সিটিটিসির সদস্যরা ড্রোন ব্যবহার করছে বলে অভিযান সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে সিটিটিসির প্রধান মনিরুল ইসলাম  জানান, বৃহস্পতিবার সকালে তারা অভিযান চালানোর চেষ্টা করেছিল। কিন্তু বৃষ্টির কারণে তা সম্ভব হয়নি।
নাসিরপুরে অভিযান শেষে বড়হাটে অভিযান চালানো হবে বলে নিশ্চিত করেছেন মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানার এসআই রাশেদুল আলম খান।
এর আগে সিলেটের জঙ্গি আস্তানা আতিয়া মহলেও ড্রোন ব্যবহার করেছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
উল্লেখ্য, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাত থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায় একটি বাড়ি এবং খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজার এলাকার নাসিরপুর গ্রামে আরও একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ ও সিটিটিসি। দুটি আস্তানাতেই বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-বিস্ফোরক আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,৩০মার্চ,সাজন আহমেদ রানা,বিশেষ প্রতিনিধিঃ গত দু’দিন ধরে শ্রীমঙ্গল উপজেলার  জেলা শহর মৌলভীবাজারে জঙ্গি হামলা ও জঙ্গি সন্ধান মিলায় আতংকে শ্রীমঙ্গল এলাকাবাসি। শ্রীমঙ্গলের সুশীল সমাজ বলছেন শ্রীমঙ্গলেও কি জঙ্গি  আস্তানা আছে ? শ্রীমঙ্গল শহর “এ ক্লাস” পৌরসভা এবং পর্যটক নগরী। এ শহরের মানুষ গত কাল হতে আতংকিত।অনেকের মনে সন্দেহ বাঁধছে শ্রীমঙ্গলেও কি জঙ্গি আছে ? আবার অনেকেই বলছেন শ্রীমঙ্গলের পুলিশ প্রশাসন সতর্ক রয়েছে তাছাড়া শ্রীমঙ্গলে  র‍্যাব-৯ এর ক্যাম্প ও বিজিবি ক্যাম্প থাকায়  কিছুটা স্বস্তির।শ্রীমঙ্গলে সরকার দলিয় জঙ্গি নির্মূল কমিটি,ও আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা সজাগ রয়েছেন বলে জানান শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদ হোসেন ইকবাল।
এদিকে পুলিশ বাসা বাড়ী ভাড়া নিয়ে জোরদার ভুমিকা রাখছে,মালিক ভাড়াটিয়াদের ভোটার আইডি,ছবি,জীবন বৃত্তান্ত থানায় জমা দিতে বাধ্য করেন শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনর্চাজ কে এম নজরুল ইসলাম।তিনি বলেন,আমরা আইডি কার্ড যাছাই বাছাই করছি,আমি আশা করি শ্রীমঙ্গলে জঙ্গিদের আস্তানা হবেনা-তা হতে দেব না এ ব্যাপারে আমরা পুর্নসতর্ক রয়েছি।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৯মার্চ,হাবিবুর রহমান খানঃ মৌলভীবাজার বড়হাট আবু শাহ মাদ্রাসার পাশে দুটি বাড়ীতে জঙ্গি আছে,পুরো এলাকা রাত তিনটা থেকে ঘিরে রেখেছে পুলিশ ও বিজিবি।

ঐ এলাকার পানি,বিদ্যূত, গ্যাস বন্ধ থাকার কারনে স্থানিয়রা আতংকে জানা গেছে জঙ্গী আস্তানায় অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ।

অপরদিকে সরকার বাজারের নাসিরপুর  থেকে ব্যাপক গুলাগুলীর শব্দ শুনা যাচ্ছে। স্থানিয়রা বলছে পুলিশের দিকে গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হয়েছে বলে শুনা যাচ্ছে।

জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রওশনুজ্জামান জানান, অভিযান অব্যাহত আছে এবং অন্যান্য বাহিনী যুক্ত হচ্ছে। উভয় বাসায় পুলিশ ঘেরাও করে রেখেছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২মার্চঃ   মৌলভীবাজারের বড়হাটের মৃত লেবু মিয়ার ছেলে প্রবাসী মিজানের বাড়ি ও সরকার বাজারের নাসিরপুর এলাকায় জঙ্গীদের আস্তানা সন্দেহে দুটি ভবন ঘেরাও করেছে পুলিশ।

স্থানিয় সুত্রে জানা গেছে ফজরের নামাজের পূর্ব থেকে এলাকায় পুলিশ অবস্থান নিয়েছে,গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন থাকায় বড়হাট এলাকায় রান্নাবান্নার কাজে সাময়িক সমস্যা হচ্ছে। বিস্তারিত পড়ে আসছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২মার্চ,হাবিবুর রহমানঃ   সিলেটর দক্ষিণ সুরমা উপজেলার শিববাড়ি পাঠানপাড়াস্থ জঙ্গি আস্তানা আতিয়া মহল থেকে একের পর এক প্রচণ্ড বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যাচ্ছে। প্রচণ্ড বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠছে দক্ষিণ সুরমা। শনিবার বেলা ২টায় প্রথম দফায় বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায়।

পরে বেলা ২টা ১৭ মিনিট এবং ২টা ৩১ মিনিটে ফের দু’দফায় বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মনে করছেন, এগুলো শক্তিশালী গ্রেনেডের বিস্ফোরণ হতে পারে।

সেনাবাহিনীর প্যারা-কমান্ডোরা এখন আতিয়া মহলে জঙ্গিদের ফ্ল্যাটে অভিযানে রয়েছেন। অভিযানের নেতৃত্বে আছেন ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আনোয়ারুল মোমেন

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৪মার্চ,হাবিবুর রহমান খানঃ  সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার শিববাড়ির পাঠানপাড়ায় একটি বাড়িতে ‘জঙ্গিদের’ ঘিরে রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পাঁচতলা ভবনের নীচতলার একটি ফ্ল্যাটে ‘জঙ্গিরা’ অবস্থান করছে। সেখানে অভিযান চালাতে সিলেট এসে পৌঁছেছে বিশেষায়িত টিম সোয়াত। তারা অভিযানের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- এর আগে শুক্রবার বিকাল ৩টা ৫২ মিনিটে সোয়াত ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায়।

আজ শুক্রবার রাত ৩টা থেকে পুলিশ ওই বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। নীচতলার ওই ফ্ল্যাটে নারীসহ কয়েকজন জঙ্গি রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সকাল ৭টার দিকে বাড়ির ভেতর থেকে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পরে পুলিশ জানায়, এটি শক্তিশালী গ্রেনেড হতে পারে। পুলিশও কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েছে।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলার শিববাড়ি পাঠানপাড়ায় ‘জঙ্গি’ আস্তানা এলাকায় এসেছে সেনাবাহিনীর একটি টিম। শুক্রবার রাত পৌনে ৮টার দিকে টিমটি ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায়। ঘটনাস্থলে শুক্রবার বিকেল থেকেই অবস্থান করছেন সোয়াত টিমের সদস্যরা। এছাড়া বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরাও রয়েছে ঘটনাস্থলে। পাশাপাশি র্যা ব, পুলিশ, ডিবি, সিটি এসবি, পিবিআইসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন সতর্ক অবস্থানে।

রাতের যে কোনো সময় অভিযান শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। শুক্রবার রাত ৩টা থেকে ওই বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। আতিয়া মহল নামের পাঁচতলা ওই ভবনের নীচতলার একটি ফ্ল্যাটে নারীসহ একাধিক জঙ্গি রয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc