Saturday 5th of December 2020 11:28:25 PM

করোনা থেকে প্রাণ বাঁচতে আমাজনের আরো গভীর জঙ্গলে পালিয়ে যাচ্ছেন সেখানকার আদিবাসীরা।ব্রাজিলের ইনডিজেনাস পিপলস অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত আমাজনের ৭ হাজার ৭০০ জন আদিবাসী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৩৫০ জন। তবে আদিবাসীদের মাঝে রোগ ছড়ানোর প্রবণতা এই প্রথম নয়। এর আগেও হাম ও ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো রোগের ভাইরাস হানা দিয়েছে মূল জনপদ থেকে বিচ্ছিন্ন থাকা আদিবাসীদের মাঝে। সেসব ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্ষমতা তৈরি হয়েছিলো তাদের মধ্যে। তবে করোনা সেসব রোগ থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। অনেক বেশি মারাত্মক। এ ভাইরাসের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা নিতে পারেনি বিজ্ঞানও। আদিবাসীরা তাই ভাইরাসের আক্রমণ ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছেন। প্রাণঘাতী ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে তাই তারা নতুন পথ ধরেছেন।

জানা যাচ্ছে, ব্রাজিলের জনপদের কাছাকাছি থাকা আদিবাসী গ্রামগুলো এখন ফাঁকা। করোনা থেকে বাঁচলেও গভীর বনে অন্য অনেক বিপদ তাদের মৃত্যুর কারণ হয়ে উঠতে পারে। এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

আমাজনে আদিবাসীদের একটি গ্রাম ক্রুজইরিনহো। করোনা মহামারীর হাত থেকে রক্ষা পেতে ঐ গ্রামের সবাই আমাজনের গভীরে পালিয়ে চলে গেছেন। আরেকটি গ্রাম উমারিয়াকাও। ক্রুজইরিনহো থেকে সেখানে নৌকায় যেতে সময় লাগে প্রায় এক সপ্তাহ। মিজুরানা উপজাতিদের বাস সেখানে। মোট ৩২টি পরিবারের মাঝে ২৭টি আরো গভীর বনে পালিয়ে গেছে।

করোনার প্রকোপ শুরু হওয়ার পর থেকে ঐসব অঞ্চলে কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আদিবাসীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার দিকে খেয়াল রেখেছিলো। কিন্তু এখন ব্রাজিলে ভাইরাসের প্রকোপ বেড়েছে কয়েকগুণ। ফলে, সেসব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যদের দেখা পাওয়া যাচ্ছে না। এমন সময় আদিবাসীরা ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছেন। তাই, গভীর অরণ্যে পালিয়ে যাওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই তাদের কাছে। সূত্রঃ এএফপি ও জি নিউজ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc