Sunday 28th of February 2021 11:52:30 AM

জেলা  প্রতিনিধি,নড়াইলঃ  নড়াইল জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সম্বলিতবঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ চেতনা চত্বরএর উদ্বোধন করা হয়েছে আজ মঙ্গলবার জেলা প্রশাসন, নড়াইলের  আয়োজনে চত্বরের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইসমাইল হোসেন ,এনডিসি 

জেলা প্রশাসন গনপূর্ত বিভাগ ,নড়াইলের আর্থিক সহযোগীতায় আনুমানিক ৫০ লক্ষ টাকা  ব্যয়েবঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ চেতনা চত্বরে বঙ্গবন্ধু জীবন কর্ম এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস  টেরাকোটার চিত্র কর্মের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ সোহরাব হোসেন বিশ্বাস,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), গনপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ নাহিদ পারভেজ, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডঃ সুবাস চন্দ্র বোস. অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( সার্বিক) মোঃ ইয়ারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) মোঃ ফখরুল ইসলাম,নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল কবির টুকু, নড়াইল চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মোঃ হাসানুজ্জামান,সরকারি কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদ, মুক্তিযোদ্ধা,সাংবাদিক, এনজিও প্রতিনিধি,সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ সময় উপস্থিত ছিলেন। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা সুধি জনের সাথে এক মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহন করেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইসমাইল হোসেন ,এনডিসি  

বেনাপোল প্রতিনিধি: ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের শ্রমিকরা অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করায় যশোরের বেনাপোল বন্দরের সঙ্গে বাণিজ্য সচল হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় আন্দোলকারীরা তাদের অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছেন। মঙ্গলবার সকাল থেকে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে। দাবি মেনে নেওয়ায় আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে তারা পায়ে হেঁটে পেট্রাপোল ও বেনাপোলের মধ্যে যাতায়াত করতে পারবেন।
পেট্রাপোলে শ্রমিকরা সোমবার ও মঙ্গলবার দুই দিন কর্মবিরতি পালন করলে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ হয়ে যায়। এতে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকায় দুই বন্দরে শত শত পণ্যবোঝাই ট্রাক আটকা পড়ে। তবে এ সময় বেনাপোল বন্দরে পন্য ওঠা মানা ও খালাস স্বাভিক ছিলো। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত প্রায় ১০০ টি ট্রাক আমদানি শুরু হয়েছে আর ৫০ টি ট্রাক রফতানি হয়েছে।
বেনাপোল স্থল বন্দরের পরিচালক ( ট্রাফিক) মোঃ আব্দুল জলিল আমদানি রফতানি শুরু হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সততা স্পোর্টিং ক্লাবের উদ্যোগে প্রাইজমানি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।  মংগলবার (২ফেব্রুয়ারী) বিকাল সাড়ে  চারটায় উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের উত্তরভাগ মাঠে টুর্নামেন্টের  সমাপনী  খেলায় পূর্ব  জালালপুর যুব সংঘ, আদমপুর  একতা স্পোর্টিং ক্লাব, আলীনগর  কে ১৪০ রানের  টার্গেটে দশ বল হাতে রেখে  তিন উইকেটে  হারিয়ে   চ্যাম্পিয়ন  হয়।খেলা  শেষে   প্রবীণ সমাজ সেবক হাজী ইসলাম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সংস্কৃতি কর্মী সাদেক হোসেনের সঞ্চালনায় পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  সাবেক আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাব্বির আহমেদ ভূঁইয়া।

এছাড়া  বিশেষ অতিথি ছিলেন  আদমপুর ইউপি সদস্য বশির বক্স, যুবলীগ নেতা  রঞ্জিত অধিকারী, ডাঃ মনির  আলী, মরহুম আব্দুস সামাদ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম,  রূহূল আমিন প্রমূখ।

নুরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধি : সৌদি আরবের জেদ্দায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আহমদ আব্দুল মান্নান ওরফে ফখরুল ইসলাম (৪২) মারা গেছেন। সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে স্থানীয় হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তিনি মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার গোয়ালবাড়ি ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামের বাসিন্দা মরহুম আব্দুল মান্নানের ছেলে।

জানা যায়, প্রায় দেড় বছর পূর্বে আহমদ সৌদি আরবের জেদ্দায় যান। সেখানে গাড়ি (কার) চালাতেন। গত ২১ জানুয়ারি গাড়ি নিয়ে গওজেন এলাকায় যান। সেখানে যাওয়া বা আসার সময় রাতের বেলা আলখুমরা এলাকায় প্রচন্ড ধুলাউড়ে (স্থানীয় ভাষায় স্ট্রং)। অন্ধকার বা কুয়াশাচ্ছন্ন এ সময় একটি ট্রেইলারের সাথে কারের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। খবর পেয়ে গুরুত্বর আহতাবস্থায় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জেদ্দাস্থ কিং আব্দুল আজিজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে অজ্ঞান অবস্থায় ১২দিন কুমায় থাকার পর সোমবার তার মৃত্যু হয়।

মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তার পরিবারসহ সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। তিনি মা, ৫ ভাই, ৩ বোন, স্ত্রী, ২ মেয়েসহ বহু আত্মী স্বজন রেখে যান। উন্নত জীবন-জীবিকার সন্ধানে জনাব আহমদ জেদ্দা যাবার আগে বাহরাইন, কাতার ও আরব আমিরাতে প্রায় বিশ বছর অতিবাহিত করেন। আহমদ আব্দুল মান্নান এর লাশ দেশে আনার জন্য তাঁর পরিবার সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন।

বগুড়া প্রতিনিধি:বগুড়ায় বিয়ের অনুষ্ঠানে মদ খেয়ে শেষ পর্যন্ত দশজনের মৃত্যু সংবাদ পাওয়া গেছে ।জানা গেছে গতকাল সাতজনের মৃত্যু হয় এবং একই ঘটনায় আজ মঙ্গলবার আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনায় জানা যায়, একটি বিয়ের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে মদ খাওয়ার এই অনুষ্ঠানে তাদের মৃত্যু হয় বিস্তারিত আসছে।

মিয়ানমারে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পর ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। নতুন সামরিক জান্তার বৈঠক শেষে এ তথ্য জানিয়েছেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইং।
মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একটি অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বৈঠকের সারাংশ তুলে ধরে জানানো হয়েছে, দেশটিতে সুষ্ঠু ও সত্যিকারের শৃঙ্খলাপূর্ণ বহুদলীয় গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা অনুশীলনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন কমান্ডার-ইন-চিফ সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লেইং।
অবশ্য কবে নাগাদ নির্বাচন দেয়া হতে পারে সে বিষয়ে কোনো সময়সীমা জানায়নি মিয়ানমার সেনাবাহিনী। তবে সোমবার সকালে অভ্যুত্থানের পরপরই এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করেছে তারা। গত ৮ নভেম্বরের নির্বাচনে অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) ৮৩ শতাংশ আসন পায়। ২০১১ সালে সামরিক শাসন শেষ হওয়ার পর দেশটিতে এটি দ্বিতীয় নির্বাচন ছিল। তবে ভোটের ফলাফল মেনে নেয়নি সামরিক বাহিনী। তারা সুপ্রিম কোর্টে দেশটির প্রেসিডেন্ট এবং নির্বাচন কমিশনের প্রধানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। এরপর সোমবার সকালে সু চি, দেশটির প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টসহ বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতাকে আটক করে অভ্যুত্থান ঘোষণা করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।
সকাল থেকে জরুরি অবস্থা জারির পর রাজধানী নাইপিদোতে মোবাইল ফোন ও রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এবং রেডিওর প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে সামরিক বাহিনী নিয়ন্ত্রিত টেলিভিশন মায়াবতির সম্প্রচার চালু রয়েছে।
টেলিভিশনটির এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, গত ৮ নভেম্বরের বহুদলীয় সাধারণ নির্বাচনে যে ভোটার তালিকা ব্যবহার করা হয়েছে তাতে গড়মিল পাওয়া গেছে। এ বিষয়টির সমাধান করতে ব্যর্থ হয়েছে ইউনিয়ন নির্বাচন কমিশন।
এতে আরও বলা হয়, ভোটার তালিকা নিয়ে জালিয়াতি করা হয়েছে, যার ফলে গণতন্ত্র নিশ্চিত সম্ভব হচ্ছে না। বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে অস্বীকৃতি জানানো এবং উচ্চ ও নিম্নকক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হয়েছে পার্লামেন্ট। মিয়ানমার সেনাবাহিনী বলছে, এই সমস্যার সমাধান না হলে এটি গণতন্ত্রের ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করবে। আইন অনুযায়ী, এই সমস্যার অবশ্যই সমাধান করতে হবে। একারণে ২০০৮ সালের সংবিধানের ৪১৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। আগামী এক বছর এই জরুরি অবস্থা থাকবে।

“ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় কিছু ভুঁইফোড় কোম্পানি সাধারণ জনগণের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে-এমন তথ্যের ভিত্তিতে রবিবার অভিযান চালিয়ে ১৫ জন ভুক্তভোগী উদ্ধারসহ ১১ প্রতারককে গ্রেপ্তার করা হয়” 

চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগে রাজধানীর মিরপুর ও আশুলিয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এসময় ১৫ ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করা হয়। সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) র‌্যাব-৪ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।
র‌্যাব জানিয়েছে, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানা গেছে, ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় কিছু ভুঁইফোড় কোম্পানি সাধারণ জনগণের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে-এমন তথ্যের ভিত্তিতে রবিবার অভিযান চালিয়ে ১৫ জন ভুক্তভোগী উদ্ধারসহ ১১ প্রতারককে গ্রেপ্তার করা হয়। এর মধ্যে মিরপুরের এলাকার ‘আনন্দ সিকিউরিটি সার্ভিস লিমিটেড’ নামের অফিসে অভিযান অভিযান চালিয়ে নয়জন প্রতারককে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় ১০০টি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ফরম, ২০০টি ভর্তি ফরম, ১২০টি ভুয়া নিয়োগপত্র, ১৭৫টি জরুরি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, চারটি ডিজিটাল সিল, ১৫টি নিবন্ধিত বই এবং ৪৫০টি ভিজিটিং কার্ড উদ্ধার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন শামিমা বেগম, রেশমা খাতুন, আকলিমা আক্তার ওরফে আখি, রায়হান হোসেন, তুষার রহমান, শ্রাবন হোসেন , সাকিব ইসলাম, জাকির হোসেন, সোহেল মিয়া।
এছাড়া সাভারের আশুলিয়া থেকে ক্যাপটর সিকিউরিটি লিমিটেডের অফিসে অভিযান চালিয়ে দুই প্রতারককে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় ২০০টি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ফরম, ২০টি ভুয়া নিয়োগপত্র, ১০০টি জীবন বৃত্তান্ত ফরম, চারটি ডিজিটাল সিল, দুটি রেজিস্টার খাতা এবং দুটি চাকরিতে যোগদানের অঙ্গীকারপত্র ফরমের বই উদ্ধার করা হয়। এ সময় লিটন শিকদার, ওসমান গনিকে গ্রেপ্তার করা হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তাকৃতরা র‌্যাবকে জানিয়েছেন, তারা একটি প্রতারক চক্রের সদস্য। এ চক্রটি রাজধানীসহ ঢাকা জেলার বিভিন্ন এলাকায় অফিস ভাড়া করে ভিন্ন নামে-বেনামে প্রতিষ্ঠান খুলে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অল্প শিক্ষিত বেকার ও আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল তরুণ-তরুণীদেরকে বেশি বেতনের চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে প্রতারণা করে আসছে। চাকরি দেয়ার নামে তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল চক্রের সদস্যরা। এছাড়াও তারা ট্রেনিং এর নামে টাকা নিতো। পাশাপাশি চাকরিপ্রার্থীরা অন্য সদস্য সংগ্রহ করে দিলে কমিশন দেয়ার প্রলোভন দিতো।
গ্রেপ্তার প্রতারক চক্রের সদস্যদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে স্থানীয় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় কামাল হোসেন নামের একজন স্থানীয় সাংবাদিককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত অবস্থায় ওই সাংবাদিককে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট জাদুকাটা নদীর ঘাগটিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতিত কামাল হোসেন তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ও দৈনিক সংবাদ এবং দৈনিক শুভ প্রতিদিনের উপজেলা প্রতিনিধি।

সাংবাদিক কামাল হোসেন বলেছেন, ‘আমি আজ দুপুরে উপজেলার জাদুকাটা নদীর থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সংবাদের জন্য ছবি নিতে সেখানে গিয়েছিলাম। কাজ শেষে আমি ওই এলাকার একটি দোকানে বসে অন্যদের সঙ্গে কথা বলছিলাম। তখন ঘাগটিয়া গ্রামের মাহমুদুল ইসলাম, দীন ইসলাম ও রইস উদ্দিন এসে আমাকে এলোপাড়াতি মারধর শুরু করেন। পরে তারা আমাকে ধরে নিয়ে গিয়ে বাজারের একটি গাছের সঙ্গে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখে।’ এদিকে, খবর পেয়ে বেলা আড়াইটার দিকে কামাল হোসেনের পরিবারের লোকজন স্থানীয় বাদাঘাট ফাঁড়ি থেকে পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। পরে তাঁকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন সাংবাদিক কামাল। তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত কর্মকর্তা মাহমুদুল ইসলাম জানিয়েছেন, তারা খবর পেয়ে কামাল হোসেনের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সেখানে গিয়েছিলেন। পরে তাঁকে পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তাঁরা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছেন।

যাদুকাটা নদী থেকে বালু ও পাথর উত্তোলন অবৈধ উল্লেখ করে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রদ্মাসেন সিংহ বলেন, ‘ঘটনাটি আমরা শুনেছি। এটি খুবই গুরুতর ঘটনা। আমরা এর সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি। নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক মামলা করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ইউএনও আরো বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিদিন অভিযান পরিচালনা করা হয়। কিন্তু প্রশাসনের লোকজন গেলে শ্রমিকরা পালিয়ে যায়। আবার চলে এলে এরা লুকিয়ে বালু উত্তোলনের চেষ্টা করে। তার পরও আমরা বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

উল্লেখ্য,প্রশাসনিকভাবে নদীতে বালু পাথর উক্তোলন , ক্রয় বিক্রয় বন্ধ থাকার পরেও গত এক বছর ধরে ঘাগটিয়াসহ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের শত শত শ্রমিকরা নদীতে বিভিন্ন জাতের পাথর, কয়লা, লাকড়ি তুলছেন। নদীতে গত এক বছর ধরে কোন ধরণের কোয়ারী নেই। 

সাংবাদিককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের চিত্র ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc