Friday 26th of February 2021 01:10:39 AM

জেলা প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে দেয়াল ধসে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার দেউন্দি চা বাগানে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত দুই শ্রমিক দেউন্দি চা বাগানের দিনেপ বাপ্পির ছেলে আজিত বাপ্পি (৪০) ও অমিন মালের ছেলে স্বপন মাল (৩৫)।

দেউন্দি চা বাগান পঞ্চাইত কমিটির সভাপতি প্রবীর ব্যানার্জী বলেন, দেউন্দি চা বাগানের ফ্যাক্টরীতে পুরাতন একটি দেয়ালে কাজ করছিল তারা। এ সময় হঠাৎ করে দেয়ালটি তাদের উপর ধসে পড়ে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন।

এস এম সুলতান খান চুনারুঘাট: চুনারুঘাট উপজেলার লালচাঁন্দ চা বাগানের এক পাহারাদারকে খুনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশের দাবি, লাশের গায়ে কোন চিহ্ন নেই। যে কারণে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।
জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ বাগানের টিলা থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ মর্গে পাঠায়। খুন হওয়া ব্যক্তি লালচাঁন্দ চা বাগানের লক্ষীচরণের ছেলে নীলকণ্ঠ (৫৭)। তিনি ওই বাগানে পাহারাদার হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।
চুনারুঘাট থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) চম্পক দাম জানান, মঙ্গলবার রাতে ওই বাগানের পাহারার মতিন মিয়ার সাথে নিহত নীলকণ্ঠের তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি মিমাংশা করে দেন। নীলকণ্ঠ রাতের খাবার খেয়ে পাহারার কাজে বেরিয়ে পড়েন। সকাল হলেও তিনি আর বাড়ি ফিরে যাননি।
বুধবার বিকেলে স্থানীয় লোকজন বাগানের টিলায় তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।
তিনি বলেন, লাশের গাঁয়ে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে পরিবারের দাবি তাকে হত্যা করা হয়েছে। যে কারণে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধিঃ  র‌্যাবের জালে এবার ‘ইয়াবাসুন্দরী’ রোকসানা ধরা খেলেন। এ সময় রোকসানার কাছ থেকে প্রায় ২৮ হাজার ৮শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয় বলে র‌্যাবের সুত্রে জানা যায়,

আরও জানা যায়,বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে র‌্যাব-৯ এর লেঃ কর্ণেল আবু মুসা মোঃ শরীফুল ইসলামের নেতৃত্বে মেজর মোঃ শওকাতুল মোনায়েম, এএসপি এ,কে,এম কামরুজ্জামান ও এএসপি আব্দুল্লাহসহ সদর কোম্পানীর একটি চৌকস টিম বৃহস্পতিবার সিলেট নগরীর শাহজালাল উপশহরে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

এসময় তার কাছ থেকে ২৮ হাজার ৮শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে র‌্যাব।গ্রেফতারকৃত রোকসানা সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার এওলাসার গ্রামের আব্দুল হামিদ চোধুরীর স্ত্রী।গ্রেফতারের পর রোকসানাকে সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধি :  হবিগঞ্জের মাধবপুরে তামান্না আক্তার মনি (২০) নামে এক নারী শ্রমিকের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের বেজুড়া গ্রামে বসতঘর থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত তামান্না মৌলভীবাজার সদর উপজেলার জালুয়াবাদ গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী। তিনি জগদীশপুরে যমুনা ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে শ্রমিক পদে কর্মরত ছিলেন। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গত দুই মাস যাবত উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের বেজুড়া গ্রামে অলি মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থেকে যমুনা কোম্পানিতে চাকুরী করতেন। সাড়ে তিন বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। প্রতিনিয়ত সংসারে অভাব-অনটন আর ঝগড়া গেলেই থাকত। রাতে কোন এক সময় এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে পুলিশের ধারণা।

ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছেন বলে স্থানীয়রা জানান। স্বামী পলাতক থাকায় এটি হত্যা না আত্মহত্যা এ নিয়ে ধূমজাল সৃষ্টি হয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে। মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) ইকবাল হোসেনে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান , মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়ার কারণে সে আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে বিস্তারিত জানা যাবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ এনজিওস নেওয়ার্ক ফর রেডিও এন্ড কমিউনিকেশন (বিএনএনআরসি) এর উদ্যোগে মহামারী “কোভিড-১৯ এর টিকাদান বিষয়ক কমিউনিটি রেডিও মাধ্যমে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও অপপ্রচার প্রতিরোধ” শীর্ষক একটি অনলাইন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালার উদেশ্য ছিল, জনস্বাস্থ্য এবং আর্থ-সামাজিক দৃষ্টিকোণ থেকে কোভিড-১৯ টিকার গুরুত্ব, টিকা গ্রহণে কমিউনিটির সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করা এবং টিকাদান কর্মসূচি নিয়ে জনমনে সৃষ্ট বিভ্রান্তি দূর করার উপায় নিয়ে কমিউনিটি রেডিও করণীয় স্থির করা। সম্প্রচাররত ২০টি কমিউনিটি রেডিও থেকে মোট ৩০জন সম্প্রচারকারী এ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

বিএনএনআরসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এইচএম বজলুর রহমানের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে কর্মশালার সূচনা হয়। তিনি কোভিড-১৯ এর টিকাদান কর্মসূচির সরকারী পরিকল্পনা সংক্ষেপে উপস্থাপন করেন। কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীগণ টিকাদান কর্মসূচি বিষয়ক সরকারের গৃহীত কার্যক্রম এবং টিকা গ্রহণের গুরুত্ব, টিকা গ্রহণে জনগণকে উদ্বুদ্ধকরণ এবং টিকা গ্রহণ পরবর্তী সম্ভাব্য শারীরিক সমস্যা, টিকাদান কর্মসূচি নিয়ে জনমনে সৃষ্ট আতঙ্ক, মিথ্যা তথ্য চিহ্নিতকরণ, ভুল ধারণা, গুজব এবং অপপ্রচার বিস্তার রোধ, বিজ্ঞান ভিত্তিক তথ্য সরবরাহ এবং টিকাদান কর্মসূচিতে দলিত ও সুবিধাবি ত জনগোষ্ঠী যেমন- নাপিত, ঝাড়–দার, মুচি, কামার, জেলে, হিজড়া সম্প্রদায়, প্রতিবন্ধী ব্যক্তি এবং ঝুঁকিতে রয়েছে এমন অন্যান্য প্রান্তিক সম্প্রদায়ভূক্ত জনগোষ্ঠীর অন্তর্ভূক্তি নিশ্চিতকরণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন ও এ বিষয়ে কমিউনিটি রেডিওর মাধ্যমে দ্রুত জনসচেতনতামূলক প্রচারণা শুরু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

বিএনএনআরসি’র সমন্বয়ক প্রতিভা ব্যানার্জী কমিউনিটি রেডিওতে কোভিড-১৯ টিকাদান সম্পর্কিত প্রচারণার অনুষ্ঠানের জন্য একটি আউটলাইন উপস্থাপন করেন এবং অংশগ্রহণকারীগণ আলোচনার মাধ্যমে তা চূড়ান্ত করেন।
আশা করা যায়, কমিউনিটি রেডিওর এই জনসচেতনতামূলক প্রচারণার মাধ্যমে সাধারণ মানুষ সরকারী পরিকল্পনা অনুযায়ী কোভিড ১৯ এর টিকা গ্রহণে আগ্রহী হবেন এবং প্রতিবেশীদেরও উদ্বুদ্ধ করবেন। বিএনএনআরসি’র সমন্বয়ক মার্ক মানস সাহা কর্মশালাটি স ালনায় করেন।

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধিঃ  দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে চলছে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যার বিচার কার্যক্রম। সর্বশেষ বুধবার (২৭ জানুয়ারি) নির্মম এ হত্যাকাণ্ডে দায়েরকৃত মামলার ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকসহ আরো চারজনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে।
বুধবার দুপুরে সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহরিয়ার কবিরের আদালতে তাদের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয় বলে জানিয়েছেন আদালতের পিপি সরওয়ার চৌধুরী আবদাল।আদালতে সাক্ষ্য দেন শাহ এ এমএস কিবরিয়ার ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডা. মো আব্দুল্লাহ, ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রহমত আলী, আব্দুল মতিন ও ইমান আলী।

এ নিয়ে ওই মামলায় মোট ১৭১ জন সাক্ষীর মধ্যে ৪৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হলো। সাক্ষ্যগ্রহণকালে মামলার আসামির মধ্যে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র জিকে গৌছসহ ১৯ আসামি সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন। এ মামলায় পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন আগামী ৩ মার্চ ধার্য করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৫ সালর ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদর উপজলার বৈদ্যের বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়াজিত জনসভা শেষে ফেরার পথে গ্রেণেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়াসহ ৫ জন। বুধবার এই হত্যাকাণ্ডের ১৬ বছর পূর্ণ হলো। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা তিন দফায় তদন্ত করে সিআইডি। প্রথমদফায় ২০০৫ সালে ১৮ মার্চ শহীদ জিয়া স্মৃতি ও গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতিসহ ১০ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে একটি অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি। এই অভিযোগপত্রের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজি আবেদন করেন বাদী মজিদ খান। পরে ২০০৭ সালে মামলাটি পুনঃ তদন্তের জন্য ফের সিআইডিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।এরপর ২০১১ সালের ২০ জুন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, মুফতি হান্নানসহ ২৪ জনকে আসামি করে অধিকতর তদন্তের অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।
২০১১ সালের ২৮ জুন শাহ এএমএস কিবরিয়ার স্ত্রী আসমা কিবরিয়া এই অভিযোগপত্রের উপরও না-রাজি আবেদন করেন।সর্বশেষ ২০১৪ সালের ১২ নভেম্বর সিআইডি সিলেট রেঞ্জের সিনিয়র এএসপি মেহেরুন নেছা পারুল সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ ৩২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। পরে গত ২০১৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। তবে নানা অজুহাতে এই আদালতেও পিছিয়ে যাচ্ছে মামলার কার্যক্রম।

নূরুজ্জামান ফারুকী ,বিশেষ প্রতিনিধি: আজমিরীগঞ্জ উপজেলার বিরাট গ্রামে পারিবারিক কলহের জের ধরে মোজাহিদ মিয়া (৩০) নামের এক ব্যক্তি বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

গতকাল বুধবার সকালে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তিনি ওই গ্রামের আব্দুস সোবহানের পুত্র। গত মঙ্গলবার রাতে মোজাহিদ স্ত্রীর সাথে অভিমান করে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সদর থানা পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে মর্গে প্রেরণ করে।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুরখান বাজারের সৃষ্ট ঝগড়া নিয়ে দু’পক্ষের ৫ জন আহত হলেও যেন ঝগড়ার ক্ষিদে তাদের মিঠেনি। দু’বার মুখোমুখি হওয়ার পর আবার ও শ্রীমঙ্গল থানার সম্মুখে ব্যাস্ততম রাস্তায় দুটি পক্ষ মুখোমুখি হয়, এ সময় অবস্থিত গণ্যমান্যরা থামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে একটি পক্ষ থানার ভিতরে চলে যায় অপরপক্ষ রাস্তায় অবস্থান করে।

ঘটনার সূত্রপাত সম্পর্কে কবির মিয়া নামের একজন জানান, চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় চেয়ারম্যান হেলালের পক্ষ থেকে সালিশের জন্য আমার ভাই জসিম উদ্দিনকে অপরপক্ষ সালাম মিয়া,কালাম মিয়া, দুলাল মিয়া,পিতা রফিক মিয়াকে ঘটনার বিচার সংক্রান্ত তারিখের জন্য বললে দু’পক্ষের মধ্যে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। এতে আমার দু ভাই আহত হয়েছে।

এ দিকে অপর পক্ষ আহত দুলাল মিয়া ও তার সাথে থাকা অন্যান্য আহতরা জানান, আমরা নিরীহ তাই তারা লোকজন নিয়ে এসেছে আমাদের থানার সামনে হামলা করতে।

তবে ঝগড়া মীমাংসা কারী ইউপি সদস্য নিয়াজ মোরশেদ মাশুক জানান, তারা এলাকায় ঝগড়া করার পর আহত হয়ে হাসপাতালে ও মুখোমুখী হয় আবার এখানে থানার সামনেও একে অপরের প্রতি মারমুখী হলে আমি ওসি ও তদন্ত অফিসারের সাথে কথা বলে মীমাংসার জন্য সময় নির্ধারণ করেছি।

নড়াইল প্রতিনিধি:  নড়াইলে “গ্রামীন খেলা ও অটিস্টিক শিশুদের জন্য ক্রীড়া আনন্দ উৎসব” অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার জেলা ক্রিড়া অফিস, নড়াইলের আয়োজনে নড়াইল সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয় মাঠে নতুন খেলোয়ার সৃষ্টি এবং অটিজম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধীতা সচেতনতার জন্য অটিষ্টিক শিমুদেও নিয়ে এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।
বল নিক্ষেপ, দৌড়, লাফ,সংখ্যা গনণাসহ মোট ৭টি ইভেন্টে ২৫ জন অটিস্টিক শিশু এ প্রতিযোগীতা অংশ গ্রহন করছে। প্রতিযোগীতা শেষে সকল প্রতিযোগীকে পুরস্কৃত, যাতায়াত খরচ ও জার্সি প্রদান করা হয়।
এ প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রেশাসক মোহাম্মদ হাবিুর রহমান। জেলা সংস্থার কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে সমাজ সেবার, নড়াইলের উপ-পরিচালক রতন কুমার হালদার, সিকদার ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সিকদার মঞ্জুরুর রহমান পান্নু,, জেলা ক্রিড়া অফিসের কর্মকর্তাগণ , অটিস্টিক শিশু প্রতিযোগী ও অভিভাবকগন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc