Friday 26th of February 2021 04:40:12 PM

ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধিঃ  আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬ টায় স্বামীর সাথে মোটর বাইকে বসা ছিল এক স্ত্রী। হঠাৎ ব্যস্ততম সড়কে ছিটকে পড়ে গেলে তার মাথার উপর দিয়ে দ্রুত গতির একটি  ট্রাক পিষে চলে যায়, এতে সে ঘটনা স্থলেই মারা যায়, স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, আরোহী যাত্রী দুজনে স্বামী স্ত্রী,স্ত্রী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল বলে ধারনা করা হচ্ছে ।

জানা গেছে নিহত নারী পলাশ উপজেলার জিনারদি ইউনিয়নের তারা গাও গ্রামের মানান মিয়ার স্ত্রী, ঘাতক গাড়িটির চালকসহ গাড়িটি পুলিশ আটক করেছে।আপডেট

আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন কমিশন নিবন্ধিত দেশের বৃহত্তর নির্বাচন পর্যবেক্ষণ মোর্চা ইলেকশন মনিটরিং ফোরাম -এর উদ্যোগে পর্যবেক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা এবং নগর উন্নয়ন ও নাগরিক প্রত্যাশা শীর্ষক মুক্ত আলোচনা সভা আগামী ২৩ জানুয়ারী বিকাল ২.৩০ ঘটিকায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব বঙ্গবন্ধু হলে আয়োজন করা হচ্ছে। এতে আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের সাবেক কমিশনার জনাব মো: শাহ্ নেওয়াজ ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

এতে সভাপতিত্ব করবেন ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ আবেদ আলী। উক্ত সভায় অংশগ্রহণের জন্য ফোরামের অন্তর্ভুক্ত সকল সংগঠনসমূহের সদস্যবৃন্দ এবং বিশিষ্ট নাগরিকদের আহ্বান জানিয়েছেন ফোরামের সমন্বয়কারী জনাব মো: মনির হোসেন।প্রেস বিজ্ঞপ্তি

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ থেকে: নবীগঞ্জ-ইনাতগঞ্জ সড়কে রক্তাক্ত মরাদেহ দেখতে পান স্থানীয় পথচারী। মরদেহ ব্যক্তি নবীগঞ্জ উপজেলার বড় ভাকৈর (পূর্ব) ইউনিয়নের ছোট ভাকৈর গ্রামের বড় বাড়ির মরহুম আবুল কালাম আজাদের বড় পুত্র মোঃ আলমগীর মিয়া (৪০) এর লাশ হিসেবে শনাক্ত করেন তার পরিবার। বুধবার(২১ জানুয়ারি) ভোর রাতে নবীগঞ্জ-ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাড়ির ইন্সপেক্টর সামছুদ্দিন এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে লাশটি উদ্ধার করেন। পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তে জন্য হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরন করেছে। ঘটনার খবর পেয়ে নবীগঞ্জ-বাহুবল উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সার্কেল এ এসপি পারভেজ আলম চৌধুরী ঘটনাস্থলে পৌছেন।

মোঃ আলমগীর মিয়ার মৃত্যুতে তার বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। নিহতের পরিবারের দাবী তাকে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে লাশ রাস্তার পাশে ফেলে রেখেছে। এবং এটাকে রোড এক্সিডেন্ট হিসেবে চালিয়ে দেওয়ার জন্য পরিকল্পনা করা হয়। নিহত মোঃ আলমগীর মিয়ার ভাই রুনেল জানান- তার ভাই বেগমপুর গ্রামে একটি বাড়িতে প্রতিদিন যাওয়া আশা করতেন। ওই দিন রাতে তিনি ওই বাড়িতে যান। রুনেল আরো বলেন- যেভাবে রাস্তায় তার ভাইয়ের লাশকে ফেলে রাখা হয়েছে এবং শুধুমাত্র মাথায় আঘাত করা হয়েছে এটা পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। যদি সড়ক দূর্ঘটনা হতো তাহলে শুধু মাথায় আঘাত নয় সম্পূর্ণ শরীরে একাধিক স্পট থাকতো। সে তার ভাইয়ের হত্যার বিচার চায়।

ইনাতগঞ্জ ফাড়ির ইনচার্জ মোঃ সামছুউদ্দিন জানান-সম্ভবত রাতে কোন অজ্ঞাতনামা গাড়ী থাকে চাপাদিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু ঘটে। তার শরীরের বিভিন্ন অংশে সড়ক দুর্ঘটনার চিহ্ন রয়েছে। তিনি ধারনা করছেন এটি সড়ক দুর্ঘটনা। তবে নিহত পরিবার যদি মামলা দায়ের করে সেটা তাদের একান্ত নিজস্ব ব্যাপার।ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে বুঝতে পারবো এটা পর

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ থেকে: নবীগঞ্জে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় সজিব আহমেদ নামে এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত ৮টার দিকে নবীগঞ্জ-আউশকান্দি সড়কের বাংলা বাজার এলাকায় এ দূর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহতসজিব উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের মো. ছাদ মিয়ার ছেলে। নবীগঞ্জ থানার ওসি আজিজুর রহমান জানান, ওই সময় সজিব আউশকান্দি থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় বাংলা বাজার এলাকায় পৌঁছলে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি গাড়ির নিচে ছপা পড়েন।

গুরুত্বর আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজে পাঠান। সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মারা যান।

রাজধানীর কোতয়ালীতে ৯০ ভরি স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মুন্সিগঞ্জ জেলার একজন সহকারী পরিচালকসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। ওই সহকারী পরিচালকের নাম সাকিব হাসান। অন্য ৪ জন সিপাহী। তারা ‘ডিবি পুলিশ’ পরিচয়ে এই অপকর্ম করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ওই কর্মকর্তা ও তার ২ সহযোগীকে আদালতের নির্দেশে ৩ দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ায় বাকি ২ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া কর্মকর্তার নাম এস এম সাকিব হোসেন। তিনি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মুন্সিগঞ্জ জেলা শাখার সহকারী পরিচালক।
গত (১৭ জানুয়ারি) রোববার বিভিন্ন সময়ে রাজধানী ও আশপাশের এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এবং পুলিশের মধ্যে টানাপোড়েন চলে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

সাকিব হোসেনের উল্লেখযোগ্য দুই সহযোগী হলেন- কনস্টেবল আমিনুল ইসলাম এবং সোর্স হারুন। জানা গেছে, এস এম সাকিব হোসেন ৩৪তম বিসিএসে নন-ক্যাডার কর্মকর্তা হিসেবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে নিয়োগ পান। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলাম শিক্ষা বিভাগের ছাত্র ছিলেন। যশোরের ছেলে সাকিব থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলে। তিনি হল শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন বলে জানিয়েছে সূত্রগুলো।

ঢাকা মহানগর পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) বিপ্লব বিজয় তালুকদার ডাকাতির অভিযোগে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেপ্তারের খবর নিশ্চিত করেছেন। এর চেয়ে বেশি কোনো তথ্য তিনি দিতে চাননি। অন্যদিকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আদালত সূত্র জানায়, ৭ জানুয়ারি সাকিব হোসেন, সেপাই আমিনুল ইসলাম ও সোর্স হারুন রাজধানীর জিন্দাবাহার লেনের একটি স্বর্ণের দোকানে যান। ডিবি পরিচয়ে তারা ওই দোকানের মালিককে তুলে নিয়ে যান এবং ৯০ ভরি স্বর্ণ লুট করেন। এ ঘটনায় ১২ জানুয়ারি কোতোয়ালি থানায় ভুক্তভোগী স্বর্ণ ব্যবসায়ী মামলা করেন। পুলিশ প্রথমে দোকানের একজন কর্মচারীসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করে। গত সোমবার তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। ওই জবানবন্দিতে তারা ডাকাতির ঘটনায় সাকিব হোসেনের সম্পৃক্ততার কথা জানান। তাদের জবানবন্দির ভিত্তিতে সোমবারই পুরান ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় সাকিব হোসেনকে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর মুন্সিগঞ্জের সহকারী পরিচালক এস এম সাকিব হোসেন ১৭ জানুয়ারি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) বেসিক ক্রিমিনাল ইনটেলিজেন্স অ্যানালাইসিস কোর্সে অংশ নিতে ঢাকায় আসেন। এই কোর্সটির মেয়াদ ৩ মাস।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সূত্র বলছে, সাকিব হোসেন নবীন কর্মকর্তা হলেও দাপটের সঙ্গে চলতেন, তাঁর সেপাই আমিনুল ইসলামও কাউকে বিশেষ পাত্তা দিতেন না। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার নাম সাকিব শিকদার। সেখানে তিনি নিজেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য হিসেবে পরিচয় দিতেন। তাছাড়া মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের বিভিন্ন অভিযানের ছবি ও ছাত্রলীগের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে বার্তা পোস্ট করেছেন। পুলিশের একটি সূত্র জানায়, গ্রেপ্তারকৃত ৫ জনের মধ্যে স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনায় ২ জন গত সোমবার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ঘটনায় মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সদস্য ছাড়াও আরও অনেকে জড়িত রয়েছেন। জবানবন্দিতে তাদের অনেকের নামও এসেছে। তাদের আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে পুলিশের লালবাগ বিভাগের ডিসি বিপ্লব বিজয় তালুকদার সাংবাদিকদের বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে কর্মরত কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে তিনি আর কোনো তথ্য দিতে রাজি হননি। ২-৩ দিন পর তার সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ দেন তিনি।

সংশ্নিষ্টরা বলছেন, মাদক নিয়ন্ত্রণের সঙ্গে যুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সরকারি গাড়ি ও পোশাক নিয়ে স্বর্ণ লুটের চক্রে জড়িয়ে পড়ার এমন ঘটনা উদ্বেগজনক। মাদক কারবারিদের মোকাবিলায় অধিদপ্তরের সদস্যদের অস্ত্র দেওয়ার বিষয়টি আলোচনায় রয়েছে। এমন প্রেক্ষাপটে মাদক নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে তাদের কার্যকর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠবে বলে আশঙ্কা করছেন তারা।

সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেটের জকিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারককে ঘুষ দেয়ার চেষ্টার দায়ে পুলিশের এক উপ-পরিদর্শককে (এসআই) ক্লোজড করা হয়েছে। মঙ্গলবার জকিগঞ্জ থানার এসআই রাজা মিয়া বিচারককে ঘুষ দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন। এ অভিযোগে বুধবার তাকে ক্লোজড করে পুলিশ লাইনে নিয়ে আসা হয়। ক্লোজড হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. লুৎফর রহমান।

সূত্র জানায়, এসআই রাজা মিয়া একটি মামলার (সিআর ৫৮/২০২০) এক আসামিকে বাদ দিয়ে তিন আসামির বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এসময় আদালতের বিচারক একজন আসামিকে কেন বাদ দেয়া হয়েছে জানতে চেয়ে মামলার বাদী ও তদন্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে শুনানির দিন ধার্য করেন। মঙ্গলবার ছিল শুনানির ধার্য্য তারিখ।

ওইদিন এসআই রাজা মিয়া অনুমতি ছাড়াই বিচারক আনোয়ার হোসেন সাগরের খাস কামরায় ঢুকে তাকে উৎকোচ দেয়ার চেষ্টা করেন। এসময় বিচারক কৌশলে এসআই রাজা মিয়াকে এজলাসে নিয়ে আসেন। সেখানে আইনজীবী ও উপস্থিত লোকজনের সামনে এসআই রাজা মিয়াকে গ্রেফতারপূর্বক জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এসময় এসআই রাজা মিয়া কান্নাকাটি শুরু করেন এবং করজোড়ে ক্ষমা চান। পরে রাত ৮টার দিকে জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর আবদুন নাসের ও জকিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায় বিভাগীয় দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেয়ার শর্তে তাকে মুক্ত করেন।

এ অভিযোগে এসআই রাজা মিয়াকে সিলেট পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়।

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ প্রতিনিধিঃ  পঞ্চম ধাপে ৩১টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি। এরমধ্যে হবিগঞ্জ পৌরসভাও রয়েছে। এসব পৌরসভায় মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২ ফেব্রুয়ারি, বাছাই ৪ ফেব্রুয়ারি, মনোনয়ন প্রত্যাহার ১১ ফেব্রুয়ারি এবং প্রতীক বরাদ্দ হবে ১২ ফেব্রুয়ারি।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর। তিনি বলেন, এ ধাপের সব পৌরসভায় ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে।সচিব জানান, ভোটের দিন সাধারণ ছুটি থাকবে না। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে।দেশের পৌরসভা রয়েছে মোট ৩২৯টি। প্রথম ধাপের তফসিলের ২৪টি পৌরসভায় ইভিএমে ভোট হয় ২৮ ডিসেম্বর।

দ্বিতীয় ধাপে ৬০টি পৌরসভায় ১৬ জানুয়ারি ভোট হয়।তৃতীয় ধাপে ৬৪টি পৌরসভায় ৩০ জানুয়ারি এবং চতুর্থ ধাপে ৫৬টি পৌরসভায় ১৪ ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, আমার সমস্ত সত্তাজুড়ে একটাই আকুতি, আমরা ঐক্যবদ্ধ হব। যুক্তরাষ্ট্রের সব নাগরিককে আমার সঙ্গে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানাই। আমরা আবারও যুক্তরাষ্ট্রকে বিশ্বের নেতৃত্বের আসনে নিয়ে যেতে চাই। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাস নানা সংঘাতের মধ্য দিয়ে গেছে। আমরা সব সময় ঐক্যবদ্ধভাবে এসব উতরে গেছি। ফলে ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া শান্তি আসবে না।’

বাংলাদেশ সময় বুধবার রাত পৌনে ১১টার দিকে (ওয়াশিংটনের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা) আমেরিকার ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন জো বাইডেন। দেশটির ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন তিনি। এরপর দেওয়া জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে একথা বলেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট।

অভিষেক ভাষণে বাইডেন আরও বলেন, ‘এটা আমেরিকার দিন। এটা গণতন্ত্রের দিন। ইতিহাস ও আশার একটি দিন। আমরা আবারও গণতন্ত্রের মূল্য অনুধাবন করতে পেরেছি। গণতন্ত্র ভঙ্গুর ও এই মুহূর্ত থেকে আমার বন্ধুরা, গণতন্ত্র সর্বত্র বিরাজমান। এখন থেকে পবিত্র এই ভূমিতে, যেখানে কয়েকদিন আগে ক্যাপিটলে তাণ্ডব হয়েছে যেখানে এক জাতি হিসেবে আমাদের আবার একত্রিত হতে হবে।’

সমাজে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ বাড়ানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমেরিকার মাহাত্ম্যের জন্য একজোট থাকা জরুরি। চিৎকার করা বন্ধ করুন, উত্তেজনা কমান। ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া শান্তি আসবে না। ঐক্যই সামনে অগ্রসর হওয়ায় পথ।’

যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতি ও সামজ ব্যবস্থায় সাম্প্রতিক বিভক্তি নিয়ে বাইডেন বলেন, ‘যে অপশক্তি আমাদের বিভক্ত করেছে তার শেকড় সমাজের অনেক গভীরে পৌঁছে গেছে। তবে ইতিহাস, বিশ্বাস ও কার্যকরণ ঐক্যের পথ দেখিয়েছে। ইউনাইটেড স্টেটস অব আমেরিকা হয়ে আমাদের অবশ্যই ওই মুহূর্তে পৌঁছাতে হবে।’

ভাষণে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘একজন আমেরিকান হিসেবে সাধারণত কোনো জিনিসগুলো আমরা ভালোবাসি? সুযোগ-সুবিধা, নিরাপত্তা, স্বাধীনতা, আত্মমর্যাদা, সম্মান, মর্যাদা এবং সত্য।’

গত ৬ জানুয়ারির ক্যাপিটলে ট্রাম্প সমর্থকদের দাঙ্গার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সেখানে ক্ষমতা ও লাভের জন্য মিথ্যা বলা হয়েছে। আমাদের অসভ্য এই যুদ্ধ বন্ধ করতে হবে। যেটা নীলের বিরুদ্ধে লালকে লেলিয়ে দিয়েছে।’

নূরুজ্জামান ফারুকী,নবীগঞ্জ থেকে:  নবীগঞ্জ- হবিগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের আক্রমপুর এলাকায় পণ্যবাহী ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বসত ঘরের ভিতরে ঢুকে পড়ে। এতে ঘুমন্ত অবস্থায় আহত হয়েছে ২ জন। বুধবার (২০ জানুয়ারি) ভোরে ৬টায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- আক্রমপুর এলাকায় বাসিন্দার নিশু মালাকারের স্ত্রী উজ্জলা মালাকার (৩৫), উজ্জলা মালাকার এর মেয়ে প্রমি মালাকার (১৭)।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, বুধবার ভোরে নবীগঞ্জগামী একটি পণ্যবাহী ট্রাক আক্রমপুর এলাকায় এ এল এম মাহবুব চৌধুরী বসত ঘর ঢুকে পড়ে । দুর্ঘটনার পর ট্রাক চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। গাড়ির নাম্বার ঢাকা মেট্রো ট -১৮ ৫৬ ৮৭
নিশু মালাকার জানান, এ এম এল মাহবুব চৌধুরীর বাড়িতে দীর্ঘ দিন ধরে আমার পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছি। আমি আজকে আরেক বাড়িতে গিয়েছিলাম সকালে জানতে পারি এই দূর্ঘটনার কথা। তারাতাড়ি এসে আমি দেখি ঘরের প্রায় সব আসবাপত্র ভাংচুর হয়ে গেছে ও আমার স্ত্রী সন্তান আহত। আমি আমার ক্ষতি পূরণ চাই এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে নবীগঞ্জ থানার এস আই অমিতাভ ও এক দল পুলিশ। পরে আহতদের উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়।নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি আজিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বসতবাড়ির উপর ট্রাক ঢুকে পড়ে। চালক আর হেলপার পালিয়ে গেলেও আমরা ট্রাকটি জব্দ করেছি।

এম ওসমান, বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শার বাগআঁচড়ায় এনজিও কর্মি পরিচয় দিয়ে সরকারি অনুদানের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীর ২৪ দিনের পুত্র সন্তান চুরির ঘটনা ঘটেছে।
বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ঘটনাটি ঘটে শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া বাজারের রিফাত হোটেলে। ভিডিও ফুটেজে এক নারীকে ওই শিশুটি নিয়ে যেতে দেখা গেলেও বোরকাপরা ও মুখ ঢাকা থাকায় শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। বিষয়টি শার্শা থানা পুলিশকে জানালেও এখন পর্যন্ত ওই চোরকে শনাক্ত ও বাচ্চা উদ্ধার করতে পারেনি।
চুরি যাওয়া শিশু তাসিনের মা জান্নাতুল বেগমের বাড়ি উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের রুদ্রপুর গ্রামে। তিনি ঐ গ্রামের আশরাফুলের স্ত্রী।
শিশুটির মা জান্নাতুল জানান, ১৫/২০ দিন আগে নাম ঠিকানা না জানা অজ্ঞাত এক মহিলা এনজিও কর্মি পরিচয় দিয়ে তাদের বাসায় গিয়ে গর্ভবতী কার্ড করে দিবে বলে প্রলোভন দেখায়। সেই মোতাবেক অজ্ঞাত সেই মহিলা আশরাফুলের বাসায় গিয়ে বুধবার সকালে ৩০ হাজার টাকা দিবে বলে তাসিনের মাতা ও দাদাকে বাগআঁচড়া বাজারে নিয়ে আসে।
এক পর্যায়ে উভয়ে নাস্তা করার জন্য বাগআঁচড়া বাজারের রিফাত হোটেলে প্রবেশ করলে অজ্ঞাত মহিলা তাসিনের মাতা ও দাদাকে নাস্তার টেবিলে বসিয়ে নাস্তা করায় এবং শিশু তাসিনকে নিজের কাছে নিয়ে হোটেল থেকে কৌশলে বেরিয়ে পালিয়ে যায়। বেশ কিছুক্ষণ পার হলেও হোটেলের চারপাশ এবং মেইন সড়কগুলো খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্তানসহ ওই নারীকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।
বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ উত্তম কুমার জানান, ভিডিও ফুটেজে অজ্ঞাত ওই নারীকে দেখা গেছে। শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যেই বাচ্চা উদ্ধার করতে পারবো।

মিনহাজ তানভীরঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার রাজঘাটে ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার নাইন স্কুল প্রজেক্টের একটি স্কুল নির্মিত হচ্ছে। জানা গেছে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য আধুনিক শিক্ষার ব্যবস্থা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থার সুযোগ করে দিতে সারাদেশে ৯ টি ‘সরকারি মাধ্যমিক স্কুল’ প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে, এর মধ্যে ১ টি স্কুল প্রতিষ্ঠিত হবে শ্রীমঙ্গলে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, প্রত্যন্ত রাজঘাট ইউনিয়নের প্রত্যন্ত বর্মাচরা চা বাগানের নির্মল-সবুজ প্রকৃতির বুকে গড়ে উঠবে এই প্রতিষ্ঠান। স্কুলটি নির্মাণে প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫ কোটি টাকা। ১১ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে ৬ তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনসহ স্কুলের চৌহদ্দি নির্ধারণ করা হয়েছে, শীঘ্রই উদ্বোধনের মাধ্যমে শুরু হবে স্কুলের নির্মাণকাজ ।

তিনি আরও বলেন, শ্রীমঙ্গল উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। শ্রীমঙ্গলের পিছিয়ে পড়া চা জনগোষ্ঠীর আধুনিক শিক্ষার সুব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য। ধন্যবাদ জানাই মাননীয় সংসদ সদস্য উপাধক্ষ্য ড. মো. আব্দুস শহীদ এম পি স্যারকে শ্রীমঙ্গলে স্কুলটি প্রতিষ্ঠায় জোরালো ভূমিকার জন্য।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc