Saturday 6th of March 2021 02:51:36 PM

নড়াইল প্রতিনিধি: সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত নড়াইলের চন্ডিবরপ্রু ইউনিয়নের ভুমুরদিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ছানোয়ার হোসেন মোল্যা  চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।  আজ ভোরে তিনি মারা যান।

নিহতের ছেলে মাহাবু রহমান জানান, গত ১০ জানুয়ারী তার পিতা ছানোয়ার হোসেন নড়াইলে যাচ্ছিলেন। আউড়িয়া ইউনিয়নের বোড়াবাদুরিয়া গ্রামে পৌছালে দত্তপাড়া গ্রামের /১০জন সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে বেপরোয়াভাবে মারপিট কুপিয়ে গুরুতর  জখম করে। স্থানীয়রা উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোরের একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে আজ ভোরে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নড়াইল সদর থানার ওসি মোঃ ইলিয়াস হোসেন জানান, হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলাটি  হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে।

বেনাপোল প্রতিনিধি: ভারত থেকে আমদানিকৃত পণ্যবাহী ট্রাক থেকে বুধবার রাতে ফেনসিডিল ও বিভিন্ন প্রকার ঔষধ উদ্ধার করে বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। আর এ ঘটনায় উক্ত কাজে নিয়োজিত সিএন্ডএফ এজেন্ট প্রতিনিধি মেসার্স খলিলুর রহমান এন্ড সন্সের বর্ডারম্যান আক্তারুজ্জামানকে আটক করা হয়। পরে রাত ১২ টার সময় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কাগজে তার স্বাক্ষর সহ কাস্টমস পারমিট কার্ড কেড়ে নেওয়ার প্রতিবাদে এবং দশ দফা দাবিতে কাস্টমসের কার্যক্রম বন্ধ রেখেছে বেনাপোল ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্টস ষ্টাফ এসোসিয়শনের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) বেলা ১২ থেকে তারা এ কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। দশ দফা দাবিগুলো হলো, ১- কাস্টমসের অধীনে পোস্টিং মানিনা। ২- কোন ভারতীয় ট্রাকে অবৈধ মালামালের জন্য ষ্টাফ এসোসিয়শনের সদস্য দায়ী থাকবে না। ৩- কোন সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ব্যতিরেকে কাস্টমস সরকার পারমিট কার্ড বাতিল মানবো না। ৪- ষ্টাফ এসোসিয়শনের কোন সদস্যের সাথে অসদাচরণ করা চলবে না। ৫- যত্রতত্র কাস্টমস সরকার পারমিট কার্ড/লাইসেন্স বাতিল করা মানিনা। ৬- এনজিও কর্মি মুক্ত কাস্টমস চাই। ৭- ষ্টাফ এসোসিয়শনের কোন সদস্যের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের পূর্বে ষ্টাফ এসোসিয়শনকে অবহিত করতে হবে। ৮- যোগ্যতাকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাস্টমস সরকার পারমিট পরিবর্তন করতে হবে। ৯- সুষ্ঠ কর্ম পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। ১০- বর্ডারে এন্ট্রি পয়েন্টে প্রত্যেক ভারতীয় ট্রাক ১০০% চেক করে ঢোকানো হোক। তাহাতে ষ্টাফ এসোসিয়শনের কোন আপত্তি নেই। তবে ট্রাক ঢোকানোর পরে যদি কোন অবৈধ মালামাল পাওয়া যায়, তার জন্য ষ্টাফ এসোসিয়শনের কোন সদস্য দায়ী থাকবে না।

এসময় বক্তারা বলেন, করোনা কালিন সময়ে আমাদের বর্ডাম্যান ভাইয়েরা ভারতে প্রবেশ করতে পারেন না। ভারতীয় এক্সপোর্টাররা ও ট্রাক ড্রাইভার/হেলপাররা আমদানি পণ্য নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে থাকে। সেক্ষেত্রে পণ্য আনলোডের পূর্বে কিভাবে আমাদের বর্ডারম্যানরা বুঝবে তাতে অবৈধ মালামাল আছে কিনা। আর সেক্ষেত্রে কেনইবা কাস্টমস কর্তৃপক্ষ সদস্যদের পারমিট কার্ড কেড়ে নেবে। তারা বলেন, কাস্টমস হাউজের প্রত্যেকটি শুল্কায়ন শাখা ও পরীক্ষণ শাখায় অসংখ্য এনজিও কর্মি রয়েছে। তারা কাস্টমস অফিসারদের বিভিন্ন রকম ভুলভাল বুঝিয়ে সিএন্ডএফ এজেন্টস সদস্যদের হয়রানি সহ বাড়তি উৎকোচ দাবি করেন। যা কোন ভাবেই কাম্য নয়। আর সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে কাস্টমস অফিসাররাও সিএন্ডএফ এজেন্টস সদস্যদের সাথে অসদাচরণ করে থাকেন। আমরা সদস্যরা ২৪ ঘন্টাই সরকারি রাজস্ব আদায়ে অগ্রণী ভূমিকা রাখি। তাহলে কেন আমাদের সাথে এ আচরণ। আমাদের তো সরকার কোন বেতন ভাতা দেয় না। তারপরও রাজস্ব আদায়ে আমরা সর্বদা সচেষ্ট থাকি।

বর্ডারম্যান আক্তারুজ্জামান বলেন, আমাকে আটক করে আমার পারমিট কার্ড কেড়ে নিয়ে, কাগজে আমার সই নিয়ে আমাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সেক্ষেত্রে ভারতীয় ড্রাইভারকে না আটক করে কেন তাকে ছেড়ে দেওয়া হলো ? আর এ অবৈধ মালামালের জন্য আমি কেন দায়ী হবো? সঠিক তদন্ত পূর্বক আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে বেনাপোল স্থলবন্দরের টিটিআই টার্মিনাল থেকে ২০০ বোতল ফেন্সিডিল ও বিভিন্ন প্রকার ঔষধ জব্দ এবং ভারতীয় ট্রাকটি আটক করে বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ প্রতিনিধি:দক্ষিণ সুনামগঞ্জের শিমুলবাঁক ইউনিয়নে তেরয়াল গ্রামে ধামাইল বিলের মালিকানা নিয়ে দুই মৎস্যজীবী সমিতির মধ্যে সংর্ষের ঘটনায় জইনুদ্দিন (৬০) নামে একজন নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তি তেরয়াল গ্রামের তেরয়াল আদর্শ মৎস্যজীবী সমিতির সদস্য। বৃহস্পতিবার ভোরে (১৪ জানুয়ারি) বিলের কর্তৃত্ব নিয়ে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে শিমুলবাঁক ইউনিয়নের ধামাইল বিলের মালিকানা নিয়ে স্থানীয় দুইটি মৎস্যজীবী সমিতির মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে বিলের কর্তৃত্ব নিয়ে তেরয়াল মৎস্যজীবী সমিতির আব্দুস সালামের গ্রুপ ও তেরয়াল আদর্শ মৎস্যজীবী সমিতির শহীদ-মোশাহিদ গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে।

প্রায় ঘণ্টাখানেক সময় ধরে এই সংঘর্ষে দুই পক্ষের প্রায় অর্ধশত লোক আহত হয়। গুরুতর আহত জইনুদ্দিনকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় দুই পক্ষের কয়েকজনকে আটক করেছে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি কাজী মোক্তাদির হোসেন বলেন, শিমুলবাঁক ইউনিয়নে জলমহাল নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে জইনুদ্দিন নামে ১ জন নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। এই ঘটনায় দুই পক্ষের কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ প্রতিনিধি :  সিলেটের বিশ্বনাথে বাস সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। গুরুত্বর আহত হয়েছেন অটোরিকশা সিএনজির এক যাত্রী ও ড্রাইভার। বুধবার(১৩ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্বনাথ রামপাশা সড়কের নরশিংপুর নামক স্থানে এ দূর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম সাইদুর রহমান (২৫)। সে উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের দশপাইকা গ্রামের আব্দুস সোবহানের পুত্র এবং গুরুত্বর আহতরা হচ্ছেন, একই গ্রামের ছমক আলীর পুত্র কবির হোসেন (২৬) ও অটোরিকশা চালক মীরগাঁও গ্রামের ময়না মিয়ার পুত্র আব্দুল মতিন (২৭)। তারা দুজনকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সিলেট-জ ০৪-০০৭৯ মিনিবাস ও নাম্বার বিহীন অটোরিকশা সিএনজিটি আটক করে। তবে, বাসে থাকা কোন যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানা যায়নি।

জানা যায়, সিলেট থেকে ছেড়ে আসা একটি মিনিবাস বি বৈরাগী সড়ক দিয়ে যাচ্ছিল। অপর দিকে উপজেলার দশপাইকা থেকে ছেড়ে আসা একটি সিএসজি বিশ্বনাথের দিকে আসছিল। নরশিংপুর নামক স্থানে আসা মাত্র দুটি গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান ছাইদুর রহমান। এবং সিএনজির ড্রাইভার ও এক যাত্রী গুরুত্বর আহত হন। মূমূর্ষ অবস্থায় দু’জনকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শামিম মুসা জানান,  গাড়ি দুটি আটক করা হয়েছে। এবং দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ প্রতিনিধি: বাহুবলে আলমগীর মিয়া (১৫) নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে ও ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের বাংলাবাজার নাম স্থানে। নিহত মোঃ আলমগীর মিয়া ওই ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের মোঃ আফতাই মিয়ার পুত্র।

বুধবার সকালে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেছে। জানা যায়, বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের মোঃ আফতাই মিয়ার পুত্র মোঃ আলমগীর মিয়া একই ইউনিয়নের ডাকবাংলা নামক স্থানে একটি বেডমিন্টন প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে যায়। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ডাকবাংলা নামক স্থানে পৌঁছামাত্র মোটরসাইকেল ও সিএনজি চালিত অটোরিকশা নিয়ে আসা দুর্বৃত্তরা আলমগীরের মাথায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।

এতে সে মাটিতে লুঠিয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক বন্ধু মুন্না সহ এলাকার মানুষ তাকে উদ্ধার করে বাহুবল উপজেলা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আলমগীরের বন্ধু পুটিজুরী ইউনিয়নের যাদবপুর গ্রামের মুন্না বলেন, গত ৬ জানুয়ারি মুগকান্দি গ্রামের মজনু শাহের উরসে সম্ভপুর গ্রামের সোহেল মিয়ার কিশোর পুত্র আকাশ মিয়া নামক এক ছেলের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় আলমগীরের।

মঙ্গলবারও তাদের ঝগড়া হয়, পার্শ্ববর্তী নবীগঞ্জ উপজেলার বড়চর গ্রামের ওয়াজ মাহফিলে। এসব ঘটনার জের ধরে আকাশ ও তার লোকজন এ ঘটনাটি ঘটাতে পারে। বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে কিশোরকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা না হলেও ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মাগুরার জেলার সন্তান ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান এর দাদি রেবেকা নাহার (৯২) বার্ধক্যজনিত কারণে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাত দশটার দিকে  শহরের কেশব মোড়ে নিজ বাসভবনে  ইন্তেকাল করেন- ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মৃত রেবেকা নাহারের নাতী (মেয়ের ছেলে) জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার মেহেদি হাসান উজ্জ্বল মোবাইলফোনে জানান, দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন রেবেকা নাহার। সবশেষ মঙ্গলবার ঢাকার নিউরো সাইন্স হাসপাতাল থেকে মাগুরায় আনা হয় তাকে।

রেবেকা নাহার দুই ছেলে, তিন মেয়ে, নাতী-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাদের মধ্যে সাকিব আল হাসান বর্তমানে বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলছেন। আর মেয়ের ছেলে মেহেদি হাসান উজ্জ্বল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক খেলোয়াড় ছিলেন।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বিশিষ্ট শিক্ষানূরাগী ও সফল ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা মরহুম আব্দুস সামাদ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এম এ আহাদকে সংবর্ধনা দিয়েছে পতন উষার আব্দুন নূর-নুরজাহান চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়। বুধবার (১৩ জানুয়ারী) বেলা একটায় বিদ্যালয় হলরুমে ইউপি সদস্য মইনুল ইসলামের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পতনউষার ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশরী তওফিক আহমেদ বাবু। হাবিবুল ইসলাম ইমনের স ালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রভাষক আব্দুল আহাদ, কমরেড সাইফুর রহমান,এডভোকেট তাজুল ইসলাম,সাংবাদিক শাহীন মিয়া প্রমূখ।

এ সময় স্কুলের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল ড্রেস বিতরণ করা হয়।

দেশের বিট কয়েন প্রতারণা চক্রের মূলহোতা মো. রায়হান হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। এসময় তার কাছ থেকে ১৯টি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র, ১৮টি সিম কার্ড, ২৭১টি ব্যাংক একাউন্টের কাগজ জব্দ করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গ্রেপ্তার রায়হান আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের সদস্য। তার ব্যাংক একাউন্ট পর্যালোচনা করে গত একমাসে ৩৫ হাজার ডলার লেনদেনের তথ্য পাওয়া গেছে। বিট কয়েনের মাধ্যমে প্রতারণা করে অর্জিত অর্থ দিয়ে রায়হান এক কোটি ১০ লাখ টাকা দামের ওডি গাড়ি কিনেছেন। তার মাধ্যমে প্রতারণার শিকার হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষ।
বিকালে কুর্মিটোলা র‍্যাব সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে করে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান এলিট ফোর্স এর এই কর্মকর্তা।

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে ১ লাখ ৪৩ হাজার ৭২৭.৯৯ মেট্রিক টন কয়লা আত্মসাতের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের সাবেক ছয়জন ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) ২২ জনকে কারাগারে প্রেরণ করেছেন আদালত।
বুধবার মামলার নির্ধারিত তারিখে ওই ২২ জন কর্মকর্তা দিনাজপুরের স্পেশাল জজ মো. মাহমুদুল করীমের আদালতে হাজির হলে আদালত তাদের জামিন বাতিল করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ কথা নিশ্চিত করে দিনাজপুরের কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. ইরাফিল জানান, এর আগে তারা আদালত থেকে জামিনে ছিলেন। তিনি জানান, বুধবার এ মামলায় আদালতে দায়েরকৃত চার্জশিটের শুনানির দিন নির্ধারিত ছিল। তবে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়নি,শুনানির জন্য পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত।

যাদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে তারা হলেন- বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানির সাবেক এমডি মো. আবদুল আজিজ খান, প্রকৌশলী খুরশীদুল হাসান, প্রকৌশলী কামরুজ্জামান, মো. আমিনুজ্জামান, প্রকৌশলী এসএম নুরুল আওরঙ্গজেব ও সাবেক এমডি প্রকৌশলী হাবিব উদ্দিন আহমেদ, সাবেক জিএম (প্রশাসন) মো. শরিফুল আলম, মো. আবুল কাসেম প্রধানীয়া, আবু তাহের মো. নুর-উজ-জামান চৌধুরী (মাইন অপারেশন বিভাগ), নিরাপত্তা বিভাগের ম্যানেজার মাসুদুর রহমান হাওলাদার, মো. আরিফুর রহমান (ম্যানেজার, মেইন্টেন্যান্স অ্যান্ড অপারেশন), নিরাপত্তা বিভাগের ম্যানেজার সৈয়দ ইমাম হাসান, কোল হ্যান্ডলিং ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ডিজিএম মুহাম্মদ খলিলুর রহমান,মেইন্টেন্যান্স অ্যান্ড অপারেশন বিভাগের ডিজিএম মো. মোর্শেদুজ্জামান,প্রোডাকশন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ডিজিএম মো. হাবিবুর রহমান, মাইন ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ডিজিএম মো. জাহেদুর রহমান, ভেন্টিলেশন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক ডিজিএম সত্যেন্দ্রনাথ বর্মণ ও মো. মনিরুজ্জামান, কোল হ্যান্ডলিং ম্যানেজমেন্টের ম্যানেজার মো. শোয়েবুর রহমান, স্টোর ডিপার্টমেন্টের ডিজিএম একেএম খালেদুল ইসলাম, প্রোডাকশন ম্যানেজমেন্টের ম্যানেজার অশোক কুমার হালদার ও মাইন প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের ডিজিএম মো. জোবায়ের আলী।

এর আগে গত বছরের ২৪ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মো. সামসুল আলমের পক্ষে দুদক দিনাজপুর সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমান আদালতে সাবেক ৭ জন ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) ২৩ জনকে আসামি করে চার্জশিট দাখিল করেন এবং আদালত গত বছরের ১৫ অক্টোবর চার্জশিট আমলে নেন। এদের মধ্যে সাবেক এমডি মো. মাহবুবুর রহমান মারা যাওয়ায় বর্তমানে এ মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি ২২ জন।

চার্জশিটে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ২০০৬ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের ১৯ জুলাই পর্যন্ত (মেয়াদে) বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ঘাটতিকৃত ১ লাখ ৪৩ হাজার ৭২৭.৯৯ মেট্রিক টন কয়লা আত্মসাতে জড়িত। যার বাজার মূল্য ২৪৩ কোটি ২৮ লাখ ৮২ হাজার ৫০১ টাকা। আসামিরা দণ্ডবিধির ৪০৯/১০৯ এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন বলে তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনায় ২০১৮ সালের ২৪ জুলাই বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানির পক্ষে ম্যানেজার (প্রশাসন) মোহাম্মদ আনিছুর রহমান বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলা করেছিলেন। ওই মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় দুদককে। দুদকের উপ-পরিচালক মো. সামসুল আলম এ তদন্ত শেষে চাজশিট তৈরি করেন।

চার্জশিটে এজাহারভুক্ত ১৯ জনের মধ্যে ১৪ জনকে আসামি করা হয়। এছাড়া তদন্তে নতুন করে ৭ জন সাবেক এমডিসহ ৯ জনের নাম বেরিয়ে আসে। এ নিয়ে চার্জশিটে ২৩ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। কিন্তু একজন সাবেক এমডি মারা যাওয়ায় তাকে বাদ দিয়ে বর্তমানে এ মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি ২২ জন।

জেলা প্রতিনিধি,হবিগঞ্জঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম রুবেল। এদিকে সাইফুল আলম রুবেল নৌকার প্রার্থী চূড়ান্ত হওয়ায় চুনারুঘাট পৌরশহরে তাঁর সমর্থকরা আনন্দ মিছিল করে উল্লাস প্রকাশ করেছেন। বুধবার (১৩ জানুয়ারি) আওয়ামীলীগ সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় চুনারুঘাট পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে সাইফুল আলম রুবেল এর নাম ঘোষণা করা হয়।

এছাড়া পৌর নির্বাচনে নৌকার দাবিদার ছিলেন – মুক্তাদির কৃষাণ চৌধুরী, বজলুর রশীদ দুলাল, নাজমুল হক বকুল। কিন্তু কেন্দ্রীয় ভাবে চুনারুঘাট ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম রুবেলকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এক প্রতিক্রিয়ায় সাইফুল আলম রুবেল বলেন, চুনারুঘাট পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় প্রথমে মহান আল্লাহ পাকের কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। সেই সাথে বিশেষভাবে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি দলীয় সভানেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি ও জেলা, উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগের দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি। তিনি আরো বলেন, আমি আশা করছি চুনারুঘাট পৌরবাসী আমাকে মেয়র পদে নির্বাচিত করলে একটি আধুনিক ও পরিকল্পিত পৌরশহর গড়ে তুলতে পারবো।

উল্লেখ্য, ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী চতুর্থ ধাপে চুনারুঘাট পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি।পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ আগামী ১৭ জানুয়ারি। বাছাই ১৯ জানুয়ারি। প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৬ জানুয়ারি এবং ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এ ভোট গ্রহণ হবে।

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ থেকে: নবীগঞ্জে পুলিশের হাতে আটক স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শহিদুল ইসলামকে জামিন দিয়েছে বিজ্ঞ আদালতগ মঙ্গলবার বিকেলে তিনি এ জামিন লাভ করেন। পরে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে নবীগঞ্জ পৌছালে গোল্ডেন প্লাজায় বিএনপি কার্যালয়ে তাকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব ছাবির আহমেদ চৌধুরীসহ বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত ৯ জানুয়ারি নবীগঞ্জ নতুন বাজার মোড় থেকে নির্বাচনী প্রচারণার সময় তাকে গ্রেফতার করে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc