Friday 26th of February 2021 09:33:31 PM

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলে অনুষ্ঠিত “বিজয় দিবস বঙ্গবন্ধু টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে” এস, এম ,সুলতান একাদশ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আজ মঙ্গলবার নড়াইল-২এর সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তুজার সার্বিক ব্যাবস্থাপনায় নড়াইল বীরশ্রেষ্ট নূর মোহম্মদ ষ্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলায় এস,এম সুলতান একাদশ ৭ রানে বীরশ্রেষ্ঠ নূর একাদশকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়।
সমাপনী ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল প্রধান অতিথি হিসাবে যুক্ত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতি মন্ত্রী মোঃ জাহিদ হাসান রাসেল।
মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার খেলাধুলার ক্ষেত্রে খুবই আন্তরিক, সে জন্য দেশের ১৮৬ টি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি ষ্টেডিয়ামে তৈরী করেছে। এ সরকার খেলা ধুলার জন্য যা করনীয় তা করে চলেছে। তিনি নড়াইলে বঙ্গবন্ধুর নামে এমন একটি খেলার উদ্যোগ নেয়ার জন্য সংসদ সদস্য মাশরাফিকে ধন্যবাদ জানান এবং নড়াইলে ক্রিড়ার উন্নয়নের জন্য ষ্টেডিয়ামসহ যা যা করনীয় তা তিনি করবেন বলেও প্রতিশ্রতি দেন।
পরে সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তুজাসহ উপস্থিত অতিথিরা চ্যাম্পিয়ন এস,এম, সুলতান একাদশকে প্রাইজ মানি ৩ লক্ষ ও ট্রপি এবং রানার্স আপ বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহম্মদ একাদশকে ২লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন।
জেলা প্রশাসক মোঃ হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাপনী ও পুরস্কার বিতরনী আয়োজক সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তুজা, বাংলাদেশ পুলিশের উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (সিআইডির ডিআইজি) মোঃ শেখ নাজমুল আলম ,বিপিএম (বার) পিপিএম (বার), জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), স্পন্সর মীনা বাজার ও ওয়ালটন গ্রুপের কর্মকর্তা,রাজনীতিবিদ,সাংবাদিকসহ ক্রিকেট প্রেমী দর্শকবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
এস,এম, সুলতান একাদশ একাদশ প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান করে জবাবে নূর মোহম্মদ একাদশ-২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৭ রান করে।
এ র্টুর্নামেন্টে ম্যান অফ দা ফাইনাল হয়েছেন আল্ ইমরান, সর্বোচ্চ উইকেটের পুরস্কার পেয়েছেন আল আমিন, সর্বোচ্চ রানের পুরস্কার পেয়েছেন ফারদিন হাসান অনিক এবং ম্যান অফ দা টুর্নামেন্ট হয়েছেন রাজিবুল ইসলাম।
এ টুর্নামেন্টে এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন, নূর মোহম্মদ একাদশ, বিজয় সরকার একাদশ, এস,এম, সুলতান একাদশ ও মোশলেম উদ্দিন একাদশ -৫টি দল অংশ করে।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ  নড়াইলে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের মাঝে শীত বস্ত্র কম্বল বিতরণ করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফ্ফর আলীর কন্যা চিত্রনায়িকা শাহানূর। আজ মঙ্গলবার বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মোজাফ্ফর আলী ৭ম মৃত্যু বাষিকী উপলক্ষে সদরের তুলারামপুর মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ চত্বরে শীত বস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়।

সময় তুলারামপুর মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা সৈয়দা মোঃ মহসীন, আশার আলো কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ রওশন আলীসহ তুলারামপুর মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ আশার আলো কলেজের শিক্ষককর্মচারি এলঅকার বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা সময় উপস্থিত ছিলেন।

চিত্রনায়িকা সৈয়দা কামরুনাহার শাহানূর বলেন , আমার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মোজাফ্ফর আলী ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন কর্মকর্তা। তার মৃত্যু বার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান হিসাবে  মুক্তিযোদ্ধাদের কথা চিন্তা করে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য , শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষককর্মচারি ছাড়াও হত দরিদ্র শীতার্তদের মাঝে  শতাধিক শীত বস্ত্র  কম্বল বিতরণ করা হচ্ছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ প্রতিনিধিঃ  সিলেটের গোয়াইনঘাট থেকে হারুনুর রশিদ হারুনকে গ্রেফতার করেছে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। হারুন ডাকাত সর্দার বলে জানিয়েছে ডিবি।সোমবার (১১ জানুয়ারী) সন্ধা সাত ঘটিকার সময় জেলা গোয়েন্দা শাখা (উত্তর) এর অফিসার ইনচার্জ সাইফুল আলম এর নেতৃত্বে ডিবি পুলিশ গোয়াইনঘাট থানাধীন মানিকগঞ্জ বাজারে অভিযান চালিয়ে ডাকাত হারুনুর রশিদ (৪২) কে গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতারকৃত হারুন গোয়াইনঘাট থানার নগর ডেংরী গ্রামের মৃত মুহিবুর রহমানের ছেলে। তার বিরুদ্ধে গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, বিয়ানীবাজার থানায় অস্ত্র, ডাকাতি সহ মোট ৬ টি মামলা রয়েছে।

ডিবি পুলিশ জানায়, সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নির্দেশনায় শীত মৌসুমে প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেট জেলায় ডাকাতি প্রতিরোধে চিহ্নিত ডাকাত ও তাদের গ্যাং লিডারদের বিরুদ্ধে ডিবিসহ থানা পুলিশ সাড়াশি অভিযান শুরু করে। যার প্রেক্ষিতে সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বনাথ ও বিয়ানীবাজারে বিপুল পরিমান আগ্নেয়াস্ত্রসহ চিহ্নিত একাদিক ডাকাতকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিশ। এসব ঘটনার পরিকল্পনাকারী অনেকেই পালিয়ে যায়। যাদেরকে গ্রেফতার করতে জেলা পুলিশের একাদিক টিম অভিযান অব্যাহত রাখে। এরই ধারাবাহিকতায় ডাকাত সর্দার হারুন কে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (উত্তর)।

তার বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার থানায় ইতিপূর্বে দায়েরকৃত অস্ত্র ও ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তাকে জেলা গোয়েন্দা শাখা হতে বিয়ানীবাজার থানায় হস্তান্তর করা হবে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও মিডিয়া) মো: লুৎফর রহমান জানান, সিলেট জেলায় ডাকাতি প্রতিরোধে ডাকাতদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযান অব্যাহত রেখেছে জেলা পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ ডাকাত হারুনকে গ্রেফতার করেছে জেলা ডিবি।

নূর মোহাম্মদ সাগর,শ্রীমঙ্গল:   মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ফলন্ত লেবু গাছ কেটে কৃষকের সর্বনাশ ঘটিয়েছে। জানান যায়, প্রায় পাঁচ হাজার ফলন্ত লেবুর গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। এসময় লেবু গাছের সাথে থাকা সম্পূরক ফসল কলা গাছগুলোও কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। তবে গত শনিবার দুপুরে এই গাছগুলো বন বিভাগের কর্মীরা কেটেছে বলে অভিযোগ করেছেন লেবু বাগানের মালিক সাচ্চু আহমেদ।
সরেজমিনে উপজেলার মাখড়িয়াছড়া এলাকার এই লেবু বাগানে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় পাঁচ হাজার লেবু গাছ মাটিতে পড়ে রয়েছে। সব গাছের কেটে ফেলা হয়েছে। পাশপাশি কলাগাছগুলোও কেটে মাটিতে ফেলে রাখা হয়েছে। লেবু গাছগুলোতে ফল ও ফুল দুটোই রয়েছে।
লেবু বাগানের মালিক সাচ্চু আহমেদ বলেন, শনিবার দুপুরে বন বিভাগের কর্মীরা লোকজন নিয়ে এসে আমাদের বাগানের শ্রমিকদের বাগান থেকে তাড়িয়ে দেয়। এসময় তারা লেবু বাগানের লেবু গাছ ও কলাগাছ গুলো কাটতে শুরু করে। আমাদের শ্রমিকরা সেখানে বাধা দিতে চাইলে তারা তাদের সেখান থেকে মারধর করে সরিয়ে দেয়। বন বিভাগের লোকেরা লেবু বাগানের গাছগুলো কাটার পর প্রায় ৭-৮ গাড়ি লেবু নিয়ে যায়।
তিনি বলেন বিভিন্ন জায়গা থেকে ঋণ নিয়ে এই লেবু বাগান টি করেছিলাম। আমার ফলন্ত লেবু গাছগুলো কাটার ফলে আমি পথে বসে গিয়েছি। আমি কিভাবে মানুষের ঋণ শোধ করবো বুঝতে পারছি না। জায়গাটি নয়ন নামের একজন লিজ নিয়েছে। তার কাছ থেকে আমি সাব লিজ নিয়ে বাগান করেছি। বন বিভাগ কোন প্রকার নোটিশ না দিয়েই আমার বাগান কেটে ধংস করে দিয়েছে। এতে আমার অনেক টাকা ক্ষতি হয়ে গিয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাতগাঁও বন বিটের বিট অফিসার বলেন, বন বিভাগ কোন গাছ কাটেনি। আমি অসুস্থ, বাসায় আছি। এই বিষয়ে আর কিছু আমার জানা নেই।

নূর মোহাম্মদ সাগর,শ্রীমঙ্গল, যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে কালভার্ট। তবে কালভার্ট নির্মাণের এক বছরেও তৈরি হয়নি কালভার্টের দুইপাশের সড়ক যোগাযোগ রাস্তা। এতে কালভার্টের সুবিধা পাছেন গ্রামের কয়েক শত মানুষ। মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার আশীদ্রোন খোশবাস গ্রামে গিয়ে এমনটাই দেখা যায়।
রাস্তা না থাকায় কালভার্টটি এখন এলাকাবাসীর কাছে মরার ওপর খরার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে। খোশবাস গ্রামের মধ্য দিয়ে মধ্যপাড়া নামে গ্রামীয় কাঁচা রাস্তাটি আশীদ্রোন-শ্রীমঙ্গল পাঁকা রাস্তাটির সাথে মিলিত হয়। কাঁচা রাস্তার মধ্য খানে খালের উপরে নির্মাণ করা হয় কালভার্ট। কিন্তু‘ এক বছরেও হয়নি যোগাযোগ ব্যবস্থা।
এলাকাবাসী জানান, উপজেলার আশীদ্রোন খোশবাস গ্রামে কয়েকশত মানুষের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা এটি। তাহাদের প্রাণের দাবি ছিল এই কালভাট নির্মাণ। কালভার্ট নির্মাণের সেই দাবি পূরণ হলেও পারাপারের সংযোগ সড়ক না থাকায় কালভার্টটি তাহাদের কোনো কাজেই আসছে না। তাই তাহাদের দীর্ঘদিনের দাবি কালভার্টটির দুই পাশ্বে মাটি ভরাট করে তাহাদের চলাচলে ব্যবস্থা করে দেওয়া।
উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এডিবি বরাদ্ধ ছিল কালভার্টটি। ইষ্টিমিট ছিল এক লক্ষ টাকা, অনলাইনে ৫% লেস দিয়ে ৯৫,০০০/-টাকায় কাজ পান মের্সাস অটো গ্যালারী নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। প্রায় এক বছর পর ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ৩০জুন নির্মাণের কাজ শেষ করে প্রতিষ্ঠানটি। নির্মাণের পর দুই পাশে সংযোগ মাটি ভরাট করার কথা থাকলেও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মাটি ভরাটের কাজ শেষ করেনি।
আশীদ্রোন গ্রামের মো. অজুদ মিয়া বলেন, আমাদের বহুদিনের আশা ছিল কালভার্টটি কিš‘ কালভার্ট হল আমাদের চলাচল করা সম্ভব নয়।
একই গ্রামের আজিজ মিয়া বলেন, আমাদের এলাকার প্রধান রাস্তা হল এটি। এই রাস্তা দিয়ে আমরা চলাচল করি। আগে আমরা খালের উপর বাঁশ দিয়ে চলাচল করতাম। এখন কালভার্ট হয়েছে। কিন্ত চলাচল করতে পারছিনা। আমাদের দাবী কালভার্টের দুই পাশে মাটি ভরাট করে চলাচল করার ব্যবস্থা করে দিতে।
শ্রীমঙ্গল উপজেলা উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান খান বলেন, কালভার্টটির ইষ্টিমিট ছিল এক লক্ষ টাকা, অনলাইনে ৫% লেস দিয়ে  ৯৫,০০০/-টাকায় কাজ পান মের্সাস অটো গ্যালারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। পরে ভ্যাট টেক্স দিয়ে ৭৫ বা ৭৬ হাজার টাকা টিকে। টাকার বাজেট কম থাকায় কাজটি সর্ম্পূন করা হয়নি। এবিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে কাজটি সর্ম্পূন করার চেষ্টা চলছে।
উপজেলার আশীদ্রোন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রনেন্দ্র প্রসাদ বর্ধন জানান, এলাকাবাসী আমাকে বললে আমি কালভার্টটি পরিদর্শন করেছি, খুব শীঘ্রই কালভাটের দুই পাশ্বে মাটি ভরাট করে চলাচলের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে।

নূরুজ্জামান ফারুকী বিশেষ প্রতিনিধি: সিলেটের সুবিদবাজার ফাজিল চিশত এলাকায় ট্রাকের চাপায় দুই ছাত্রদল নেতার মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১১ জানুয়ারি) রাত ১০টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর স্থানীয়রা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেছে।নিহতরা হলেন সিলেট নগরের বনকলাপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি সজিব আহমদ (২৮) এবং ছাত্রদল নেতা মো. লুৎফুর রহমান (২৫)।বিক্ষোভের এক পর্যায়ে সড়কে আটকে পড়া ট্রাকে আগুন লাগিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ সময় অর্ধশতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। রাত পৌনে ১১টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত, অন্তত তিনটি ট্রাক আগুনে পুড়ে যায়।আগুনের খবর পেয়ে দমকলবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভায়।

কোতোয়ালি থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। নিহত দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।দুর্ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের জানান, সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের কোতোয়ালি থানার ফাজিল চিশত এলাকায় একটি ট্রাক এবং মোটর সাইকেলের সংঘর্ষে মোটর সাইকেলের দুজন আরোহী ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

ঘাতক ট্রাকের চালক ও তার সহকারী দুর্ঘটনার পরপরই পালিয়ে যায়। ট্রাকটি ঘটনাস্থলে রয়েছে।তিনি আরও জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে কোতয়ালি থানার ওসি এসএম আবু ফরহাদ, এসআই জগৎজ্যোতিসহ অন্য পুলিশ অফিসাররা ফোর্স নিয়ে রয়েছেন। পুলিশ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

নড়াইল প্রতিনিধি:  তৃতীয় ধাপে নড়াইল ও কালিয়া পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১০ টার পরে এ দুটি পৌরসভা নির্বাচনের স্ব-স্ব নির্বাচন অফিস থেকে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, নড়াইল ও কালিয়ায় মেয়র পদে ৭জন, সংরক্ষিত নারী কমিশনার পদে ২০ জন ও সাধারণ কমিশনার পদে ৭১ জন প্রার্থী এ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করছে । এরমধ্যে নড়াইল পৌরসভায় মেয়র পদে ৪ জন , সংরক্ষিত নারী কমিশনার পদে ১১ জন ও সাধারণ কমিশনার পদে ৩৯ জন এবং কালিয়া পৌরসভায় মেয়র পদে ৩ জন , সংরক্ষিত নারী কমিশনার পদে ৯ জন ও সাধারণ কমিশনার পদে ৩২ জন প্রার্থীর এ নির্বাচনে প্রতিদ্বদ্ধিতা করবেন।

এ নির্বাচনে নড়াইল পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নারী নেত্রী আঞ্জুমান আরা, মনোনয়ন বঞ্চিত নড়াইল পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জগ প্রতীকে সরদার আলমগীর হোসেন আলম, বিএনপি ধানের শীষের প্রার্থী জুলফিকার আলী ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ পাখা প্রতীকের প্রার্থী মাওলানা খায়রুজ্জামান এবং কালিয়া পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান হিরা, আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বঞ্চিত সাবেক আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র চামচ প্রতীক মেয়র ফকির মুশফিকুর রহমান লিটন এবং বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান মিলু প্রতিদ্বদ্ধিতা করবেন।
১১ জানুয়ারী প্রতীক বরাদ্দ এবং আগামী ৩০ জানুয়ারী এই দুই পৌরসভার ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  সোমবার (১১ জানুয়ারী) মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযানে মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য পণ্য ও ঔষধ বিক্রয় করা, মূল্য তালিকা না রাখাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে ফার্মেসীসহ ৩ টি প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও আদায় করা হয়। মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন এর নেতৃত্বে শমসেরনগর ফাঁড়ির পুলিশ ফোর্স এর সহযোগিতায় এদিন শমসেরনগরের জেবিএল ফার্মেসীকে দেড় হাজার টাকা, নূরজাহান ভেরাইটিজ ষ্টোরকে ২ হাজার টাকা ও রাজমহলকে ২ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়। এছাড়া নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান, হোটেল রেষ্টুরেন্ট, ফার্মেসী এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন জানান, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, চাল, তেল, শাক-সবজি, কাচামাল, মশলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ন্যায্য মূল্যে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং ভোগ্য পণ্য সামগ্রীর দাম যেন কেউ অনৈতিক ভাবে বাড়াতে না পারে এবং নকল হ্যান্ড সেনিটাইজার ও নিম্ন মানের সংক্রমণরোধী জীবাণুনাশক বিক্রয় না করতে পারে সেই লক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশে বসবাসরত মণিপুরী মুসলিম জনগোষ্ঠীর বৃহত্তম সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ মণিপুরি মুসলিম ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (বামডো)-এর কার্যনির্বাহী কমিটির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে মোঃ নূর উদ্দিন সভাপতি , আব্দুল খালেক সাধারন সম্পাদক ও হাফেজ শফিকুর রহমান সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন।রবিবার (১০ জানুয়ারি ) মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আদমপুর ইউনিয়নের তেতই গাঁও রসিদ উদ্দিন উ”চ বিদ্যালয়ে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মজিদ।

প্রিসাইডিং অফিসার জয় কুমার হাজরা জানান, বামডো’র ১১টি পদের মধ্যে ৮ টি পদে বিনা প্রতিদ্ব্িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছে -সহ সাধারন সম্পাদক মোঃ সেলিম রেজা, আন্তর্জাতিক ও নারী বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দীন, ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ ঈসমাইল হোসেন, অফিস সম্পাদক মোঃ ফেরদৌস আহম্মদ, কোষাধ্যক্ষ মোঃ নূর মোহাম্মদ, সহ সভাপতি মোঃ মজর আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ উসমান খান, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক মোহাম্মদ বীন তাহের।সভাপতি পদে মোঃ নূর উদ্দিন ( ছাতা) ভোট পেয়েছেন ২৬৭টি, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুল মতিন (আনারস) পেয়েছেন ২৩৭ ভোট।

আর সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুল খালেক পেয়েছেন ৩২২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুল হেকিম ভোট পেয়েছেন ১৮৮ ভোট এবং সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে হাফেজ শফিকুর রহমান ( বাল্ব) পেয়েছেন ৩১৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফখরুল ইসলাম (কাঠাল) পেয়েছেন ১৯০ ভোট।নির্বাচনে ৬৪২ ভোটারের মধ্যে ৫১৭ভোট দেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc