Sunday 28th of February 2021 12:47:01 PM

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধি:  গত বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) সিলেটের উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ গ্রামের পাশে বড়গাং নদী থেকে এক নবজাতকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। স্থানীয় জনতার কাছ থেকে খবর পেয়ে নদীতে ভাসমান একটি ভ্যানেটি ব্যাগ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পুলিশ তদন্ত চালিয়ে ওই শিশুর জন্মদাতাকে খুঁজে বের করে গ্রেপ্তার করেছে জৈন্তাপুর থানা পুলিশ। তদন্তে নেমে ওই নবজাতককে হত্যার রহস্যও উদঘাটন করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২৮ জানুয়ারি লাশ উদ্ধারের পর শিশুটির ময়না তদন্ত ও ডিএনএ টেষ্টের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এসময় ভ্যানেটি ব্যাগের ভিতরে টেইলারিং দোকানের একটি পুরনো স্লিপ পাওয়া যায়। ওই স্লিপ ধরে তদন্তে নামে পুলিশ।তদন্তে ওই নবজাতকে জন্মদাতার সন্ধান পায় পুলিশ এবং তাকে হত্যার কারণ জানতে পারে। এরপর নবজাতকের জন্মদাতা গোলাপ মিয়াকে শুক্রবার (২৯ জাুয়ারি) সন্ধ্যায় জৈন্তাপুর নিজপাট ইউনিয়নের নয়াবাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।
জৈন্তাপুর থানা পুলিশ জানায়, বছর দুয়েক আগে সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার গোলাপ মিয়া (২২) জৈন্তাপুর উপজেলার রহিমাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে গোলাপ মিয়া স্ত্রী ও শালিকে নিয়ে নয়বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকতেন। এসময় শালির সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন গোলাপ। এক পর্যায়ে শালি গর্ভবতী হয়ে পড়েন।গত ২৫ জানুয়ারি গোলাপ মিয়া শালিকে গোপন জায়গায় নিয়ে বাচ্চা প্রসব করান।  এর পর বাচ্চাটিকে হত্যা করে নারীদের ব্যবহৃত একটি ভ্যানেটি ব্যাগে ভরে বড়গাং নদীতে ভাসিয়ে দেয়। বুধবার পুলিশ ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে।গ্রেপ্তারের পর গোলাপ মিয়া শিশুটিকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এব্যাপারে গোলাপ মিয়ার শাশুড়ি বাদী হয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।
এব্যাপারে জৈন্তাপুর মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আজিজ আহমদ জানান, ব্যাগের ভিতরে থাকা দর্জির দোকানের স্লিপ’র মাধ্যমে তাৎক্ষনিক খোঁজাখুজি করে আমরা গোলাপ মিয়াকে আটক করেছি।জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসীন আলী বলেন, গ্রেপ্তারের পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে গোলাপ মিয়া হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী,নবীগঞ্জ থেকে: নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নে কুশিয়ারা নদীর চর কেটে ফের বালু ও মাটি বিক্রি করছে স্থানীয় কয়েকটি প্রভাবশালী মহল। কোনো ধরণের ইজারা ছাড়াই উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নের কসবা গ্রামে কয়েক মাস ধরে এ ঘটনা ঘটছে। এর ফলে সরকার হারাচ্ছে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, স্থানীয় ভূমি অফিসকে ম্যানেজ করেই সরকারের সম্পদ চুরি করে বিক্রি করা হচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানির কাছে। জানা যায়, উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নের বুক চিড়ে প্রবাহিত কুশিয়ারা নদীতে বর্তমান সময়ে পানি না থাকায় কসবা গ্রামে বিশাল চর জেগেছে। কয়েক মাস ধরে বিশাল স্থান নিয়ে জাগা এই চরে স্থানীয় ৪-৫টি সড়ঘবদ্ধ প্রভাবশালী চক্র কসবা গ্রামের কুশিয়ারা নদীর ঘাট এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। প্রতিদিন ভোরে ও সন্ধ্যার পর ওই সঙ্ঘবদ্ধ চক্রের ৪৫-৫০ জন শ্রমিক তারা নদীর চর কেটে ট্রাকে বালু ও মাটি তোলে দেন।

বালুগুলো বিভিন্ন কোম্পানির কাছে বিক্রি করা হয়। আর মাটি বিক্রি করা হয় ভিটা বাড়ি ভরাটের জন্য। নদীর চর থেকে প্রতি ট্রাক বালুর দাম ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। প্রতিদিন ৫০-৬০ ট্রাক বালু বিক্রি করা হচ্ছে। কুশিয়ারা নদীর চরের বালু মাটি বিক্রি করে সঙ্ঘবদ্ধ কুচক্রী মহল লাভবান হলেও কিছু অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছত্রছায়ায় সরকার কোটি কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে। এদিকে বন্যা কবলিত এলাকা হিসেবে দীঘলবাক ইউনিয়নে গত বছর প্রায় কয়েক শতাধিক পরিবারের ঘর-বাড়ি পানির নিচে তলিয়ে যায়। ঝুকিঁপূর্ন এলাকা হওয়া সত্ত্বেও কী ভাবে প্রকাশ্যে এ ইউনিয়নে নদীর চর কেটে অবাধে বালু বিক্রি করা হচ্ছে এনিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্ন।

অন্যদিকে নদীর চর থেকে প্রকাশ্যে ক্ষমতার দাপটে সরকারি সম্পদ চুরি করে বিক্রি করার বিষয়ে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে নানা আলোচনা দেখা দিয়েছে !। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) হবিগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল বলেন, নদী মাতৃক আমাদের এই বাংলাদেশ। কিছু অসাধু লোকজনের কারণে নদীর চর কেটে বালু বিক্রি করার উৎসব চলছে। তাই দ্রুত চর কাটা বন্ধে প্রশাসন সোচ্ছার হবে বলে আশাবাদী।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন বলেন, ইতিমধ্যে খবর পেয়ে আমি কয়েকদিন ঘটনাস্থলে গিয়েছি, কিন্তু সেখানে কাউকে পাওয়া যায়না। প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে যায়। যারা নদীর চর কেটে বালু বিক্রি করছে তাদের সবার বিরুদ্ধে শীঘ্রই নিদিষ্ট বালু ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর আওতায় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নূর মোহাম্মদ সাগর,শ্রীমঙ্গল: মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে নির্মান শ্রমিক বিদ্যুৎস্পষ্ট গুরুতর আহত আল-আমিন (২১) অবশেষে মারা গেলেন। গত শনিবার সন্ধ্যা (৩০ জানুয়ারি) প্রায় একমাস চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে শেষ নি:শ্বাষ ত্যাগ করেন। মৃত আল-আমিন উপজেলার জিলাদপুর গ্রামের মৃত মনফর মিয়ার ছেলে। তার মৃত্যুতে পুরো এলাকা জুড়ে নেমে এসে শোকের ছায়া।
স্থানীয়রা জানান, আল-আমিন খুব ভালো ছেলে ছিল। দুই ভাই এক বোন, সবার মধ্যে সে ছিল বড়, তার উপার্জনেই চলতো ছোট ভাইয়ের লেখাপড়াসহ তার পরিবার। আল-আমিনের মৃত্যুতে তার পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়েছে।
নিহতের মা রোকেয়া বেগম কান্না জড়িতকন্ঠে বলেন, বাবা আমার এই ছেলের উপার্জনে চলতো আমাদের সংসার, আমি কাউকে দোষী না, আল্লাহর ইচ্ছা।
উল্লেখ্য, গত (১৪ ডিসেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার আশিদ্রোন গ্রামের আইয়ূব আলী মার্কেটের পশ্চিম পার্শ্বে রফিকুল ইসলামের মালিকানাধীন নব-নির্মিত ভবনের দ্বিতীয় তলায় ছাদ ঢালাইয়ের কাজ চলাকালীন সময় দুইজন নির্মাণ শ্রমিক মোহাম্মদ রোমান মিয়া ও আল-আমীন একই সঙ্গে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয়। ছাদের খুব নিকটবর্তী পল্লী বিদ্যুতের মেইন লাইনে তাদের হাত লেগে যায়। এতে তারা দুইজনই গুরুতর আহত হয়।
এ ঘটনায় মো. রোমন মিয়া সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরলে ও লাশ হয়ে বাড়ী ফিরলেন আল-আমিন।
৬নং আশীদ্রোণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রণেন্দ্র প্রসাদ বর্ধন বলেন ‘ছেলেটির পরিবার থেকে জানানো হয়। বিল্ডিং মালিক ছেলেটির উন্নত চিকিৎসা চালিয়ে গেছে। তবে আমরা ছেলেটির পরিবারকে নিয়ে সামাজিক ভাবে বিল্ডিং মালিকের সাথে আজকে বসবো।’
শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল ছালেক বলেন, থানায় কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চুড়ান্ত করেছে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি। উভয় দলের পক্ষ থেকে গতকাল এ ঘোষণা দেয়া হয়। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য হবিগঞ্জ পৌর সভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগ সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান সেলিমকে আর ধানের শীষ নিয়ে লড়বেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এডঃ এনামুল হক সেলিম। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি, প্রার্থীতা বাছাই ৪ ফেব্রুয়ারি, প্রার্থীতা প্রত্যাহার ১১ ফেব্রুয়ারি ও প্রতীক বরাদ্দ ১২ ফেব্রুয়ারি।

দলীয় সূত্র মতে, হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৯ জন। প্রার্থীগণ হলেন-হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগ সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান সেলিম, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মরতুজ আলী, হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি এডঃ নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থ টিটু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সৈয়দ কামরুল হাসান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নূর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুল, হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বর্তমান মেয়র মিজানুর রহমান মিজান, হবিগঞ্জ মটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক শঙ্খ শুভ্র রায়, জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল আমিন ওসমান, পৌর আওয়ামলীগ নেতা শেখ তারেক উদ্দিন সুমন। তাদের নাম জেলা আওয়ামীলীগ কেন্দ্রে প্রেরণ করে। পরে প্রার্থীগণ তাদের স্ব-স্ব জীবন বিত্তান্ত কেন্দ্রে জমা প্রদান করেন। এর উপর ভিত্তি করে গতকাল জেলা যুবলীগ সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান সেলিমকে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা প্রদান করা হয়। আওয়ামীলীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপত্বিতে গণভবনে অনুষ্ঠিত মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
আতাউর রহমান সেলিম ছাত্র রাজনীতি থেকে দলের একজন নিবেদিত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ইতিপূর্বে তিনি হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ছাত্র রাজনীতি থেকে অবসর নিয়ে হাল ধরেন যুবলীগের। তিনি জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পরে জেলা যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব অর্পণ করা হয় আতাউর রহমান সেলিমের উপর। দীর্ঘ বছর ধরে তিনি দক্ষতার সাথে জেলা যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। পাশাপাশি তিনি আন্তর্জাতিক সেবা মুলক প্রতিষ্ঠান রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি হবিগঞ্জ জেলা ইউনিটের সাধারণ সম্পদকের দায়িত্ব পালন করছেন।
এদিকে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এডঃ মোঃ এনামুল হক সেলিমকে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে চুড়ান্ত ঘোষণা করা হয়েছে। দলের কেন্দ্রীয় সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী গতকাল এ ঘোষণা প্রদান করেন।
সূত্র মতে পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এডঃ মোঃ এনামুল হক সেলিম, যুগ্ম আহ্বায়ক ইসলাম তরফদার তনু, জেলা যুবদলের সভাপতি মিয়া মোঃ ইলিয়াছ, জেলা স্বেচ্ছা সেবকদলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুশফিক আহমেদ, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি শাহ রাজীব আহমেদ রিংগন দলের কেন্দ্রীয় জীবন বিত্তান্ত জমা দেন। বিচার বিশ্লেষন শেষে গতকাল দলের কেন্দ্রীয় সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী গতকাল হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এডঃ মোঃ এনামুল হক সেলিমকে হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় চুড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করেন।
হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এডঃ মোঃ এনামুল হক সেলিম ইতিপূর্বে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ছাড়াও হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি, জেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব, হবিগঞ্জ বৃন্দাবন সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচিত জিএস হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধি : সিলেটের জকিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মাত্র ২ ভোটের ব্যবধানে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল আহাদ। নারিকেল গাছ প্রতীকে আব্দুল আহাদ পেয়েছেন ২ হাজার ৮৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগের আরেক বিদ্রোহী ফারুক আহমদ জগ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৮১ ভোট। অপরদিকে আল-ইসলাহর প্রার্থী হিফজুর রহমান মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৯৭৮ ভোট।

এ পৌরসভায়ও নৌকা ও ধানের শীষের ভরাডুবি হয়েছে। নৌকা প্রতীকে বীর মুক্তিযোদ্ধা খলিল উদ্দিন ৬৬৯ ভোট পেয়ে হয়েছেন ছয় নম্বর।

বিএনপির প্রার্থী ইকবাল আহমদ ধানের শীষ প্রতীকে ৬১০ ভোট পেয়ে সপ্তম হয়েছেন। এছাড়া জাতীয় পার্টির প্রার্থী আবদুল মালেক ৭৬৯ ভোট, বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী আবদুল্লাহ আল মামুন হীরা ১৮৫ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জাফরুল ইসলাম ১ হাজার ১৫৬ ভোট পেয়েছেন।

নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর আত্রাইয়ে মূর্তি চক্রের একজন নারীসহ ১০ সদস্যকে আটক করেছে আত্রাই থানা পুলিশ। তারা দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে সঙ্গবদ্ধ হয়ে মূর্তি কিনতে এসে ফেঁসে যায়। বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

আটককৃতদের শনিবার সকালে তাদের নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, শুক্রবার রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ডোখলপাড়া গ্রামের নঈমুদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪০) বিশেষ ধাতব (যা আগুনে গলেনা) দ্বারা তৈরি “প্লাটিনাম” (মূর্তি) বিক্রির প্রলোভন দিয়ে একটি প্রতারক চক্রকে আত্রাইয়ে নিয়ে আসে। শুক্রবার বেলা ১০ টার দিকে ১০ জনের ওই চক্র উপজেলার আহসানগঞ্জ হাট চত্বরে পৌঁছলে সেখানে তাদের মাঝে দর কশাকসি শুরু হয়।

এদিকে ক্রেতা সেজে আগতরা আগে প্লাটিনাম দেখতে চায়। আনোয়ার বলে আগে ৩ কোটি টাকা দিন। টাকা দিলে প্লাটিনাম দেব। এ নিয়ে তাদের মাঝে বাকবিতন্ডার শুরু হলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আক্কাছ আলী তাদেরকে আটক করেন। পরে আত্রাই থানা পুলিশ গিয়ে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসে। আটককৃতরা হলো রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ডোখলপাড়া গ্রামের নঈমুদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪০), মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামের মৃত মোসলেম মাতব্বরের ছেলে সেন্টু মাতব্বর (৩৮), গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কেকনিয়া গ্রামের মৃত রওশন আলীর ছেলে হানিফ মিয়া (৪০), একই উপজেলার নিজরা গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে আজিজুর রহমান (৩৮), বি.বাড়িয়ার নাসিরগঞ্জ উপজেলার বড়ইউড়ি গ্রামের হরি চরন সরকারের ছেলে বিমল চরণ সরকার জয় (৪০), দিনাজপুরের বিরল উপজেলার রাজুরিয়া গ্রামের গোলাম হোসেনের ছেলে ছাইফুল ইসলাম (৪৫), নড়াইলের নরাগাঁথী উপজেলার কেশবপুর গ্রামের আসাদুজ্জামানের ছেলে রুবেল (৩৪), একই উপজেলার একই গ্রামের সবুর মোল্লার ছেলে ফারুক মোল্লা (৩০), নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার পুকুরিয়া গ্রামের মফিজ মিলিটারীর ছেলে জাহিদ (৪০), যশোরের অভয়নগর উপজেলার বাশুরিয়া দিঘীরপাড় গ্রামের ইব্রাহীম মোল্লার মেয়ে রোজিনা (৩০)।

এ বিষয়ে আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং শনিবার সকালে তাদের সবাইকে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধি: গোলাপগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী (বর্তমান মেয়র) আমিনুল ইসলাম রাবেল। তিনি  ৫৮৫৮  ভোট পেয়ে  বিজয়ী হয়েছেন বলে জানা গেছে।
আজ ৩০ জানুয়ারি (শনিবার) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।
তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ধানের শীষের প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন ও আওয়ামী লীগের অপর বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক মেয়র জাকারিয়া আহামদ পাপলুর মধ্যে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় ।

২য় স্থান অর্জন করেছেন আওয়ামী লীগের আরেক বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলু। তিনি পেয়েছেন ৪৬৫৮ ভোট।

ধানের শীষের প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া শাহিন পেয়েছেন ৪২২২ ভোট, অপরদিকে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকার প্রার্থী মোহাম্মদ রুহেল আহমদ পেয়েছেন ১১৭৫ ভোট। নির্বাচনে তিনিই সবচেয়ে কম ভোট পেয়েছেন।

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধি:  মৌলভীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব ফজলুর রহমান। তিনি নৌকা প্রতিকে ১৩ হাজার ৬ শত ৯৭ ভোট পেয়েছেন।

তাঁর প্রতিদ্বন্ধি বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী মো. অলিউর রহমান ৩ হাজার ৭ শত ৩৩ ভোট পেয়েছেন। দেশের দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনের অংশ হিসেবে মৌলভীবাজারে সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ না থাকার অভিযোগে ২৯ জানুয়ারি দুপুরে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী মো: অলিউর রহমান নির্বাচন বর্জন করেন।

উল্লেখ্য, এই নির্বাচনে মেয়র পদে ২ জন, কাউন্সিলর পদে ২৬ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০ জন প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

এম ওসমান,বেনাপোল প্রতিনিধি:  অবৈধ পথে ভারত গিয়ে দেড় থেকে ৩ বছর কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছেন ২ শিশুসহ ১২ বাংলাদেশী নারী-পুরুষ। শনিবার (৩০ জানুয়ারী) বিকাল ৫ টার সময় বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।
তারা ভারতে দেড় থেকে ৩ বছর কারাভোগ করেছে বলে ভুক্তভোগীরা জানায়। পরে বেনাপোল পোর্ট থানা থেকে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থা তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তরের জন্য যশোর শেল্টার হোমে নিয়ে যায়। ফেরত আসাদের মধ্যে ৩ জন নারী, ৭ জন পুরুষ ও দুইটি শিশু রয়েছে। এরা বাগেরহাট, খুলনা ও বরগুনা জেলার বাসিন্দা।
জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের এরিয়া ম্যানেজার এবিএম মুহিত বলেন, বিভিন্ন সময়ে দালালের খপ্পরে পড়ে ভালো কাজের আসায় তারা ভারতে যায়। সে দেশের ব্যাঙ্গালুর এলাকায় বিভিন্ন বাসা-বাড়ীতে কাজ করার সময় তারা ভারতীয় পুলিশের হাতে আটক হয়। সেখান থেকে তালাশ নামে একটি এনজিও সংস্থা ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। দেড় থেকে ৩ বছর পর তারা দেশে ফিরে এসেছে।
বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব বলেন, ‘এ সব নারী-পুরুষরা পাসপোর্ট ভিসা ছাড়া বিভিন্ন সীমান্ত পথে ভারতের বিভিন্ন অ লে কাজ করার সময় সেই দেশের পুলিশের হাতে আটক হয়। এরপর আদালতের মাধ্যমে তারা জেলহাজতে যায়। পরে ভারতের ব্যাঙ্গালুরে তালাশ নামে একটি বেসরকারি এনজিও সংস্থা তাদের জেল থেকে ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। সেখানে দেড় থেকে ৩ বছর থাকার পর ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে আজ দেশে ফিরেছে ।
ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবেন।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইল কালিয়া  দুই পৌরসভাই আওয়ামীলীগের দখলে। আওয়ামীলীগের  নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নড়াইল পৌরসভার ইতিহাসে প্রথম নারী মেয়র আঞ্জুমান আরা কালিয়া পৌরসভায় মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান হিরা বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৮টা থেকে টানা ৪টা পর্যন্ত নড়াইল কালিয়া পৌরসভায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কোনো প্রকার সহিংসতা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহন সম্পন্ন হয়। 

 বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে জানাগেছে, নড়াইল পৌরসভায় আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আঞ্জুমান আরা পেয়েছেন ১৯ হাজার ২৬ ভোট তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী পেয়েছেন হাজার ৮শত ৭১ ভোট

অপর দিকে কালিয়া পৌরসভায় আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান হিরা পেয়েছেন ১২ হাজার ২শত  ১১ তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী ,,ওয়াহিদুজ্জামান মিলু পেয়েছেন শত ২৬।

নড়াইল পৌর সভায়  মেয়র পদে জন , সাধারন কাউন্সিলর পদে ৩৯ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১১জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পৌরসভায় ভোটার রয়েছে ৩৪ হাজার ৩১৩ জন। 

কালিয়া পৌরসভায় মেয়র পদে ৪জন, সাধারন কাউন্সিলর পদে ৩২জন সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৯জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখানে ভোটার রয়েছেন ১৬ হাজার ৩৮৩ জন।

জেলা নির্বাচন অফিসার রিটার্নিং অফিসার মোঃ ওয়ালিউল্লাহ বলেন, সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণভাবে জেলার দুটি পৌরসভার ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও কোনো জাল ভোট বা কারচুপির খবর পাওয়া যায়নি। নড়াইল পৌরসভায় ৭৪.৯২% এবং কালিয়া পৌরসভায় ৮২% ভোট পড়েছে বলে জানান।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মৌলানা আব্দুস সুবহান ইসলামী গণ-পাঠাগার এর উদ্বোধন হয়েছে। শনিবার (৩০ জানুয়ারী) দুপুরে উপজেলার আদমপুর ইউনিয়ন এর কান্দিগাও সড়কে পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার কাইয়ুম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক সাজ্জাদুল হক স্বপনের সঞ্চালনায় মাওলানা আব্দুস সোবহান ইসলামী গণপাঠাগারের উদ্বোধন করেন ইসলামিক ফাউণ্ডেশন, মৌলভীবাজারের উপ পরিচালক মোঃ সিরাজুল ইসলাম।

এ সময় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন, চেয়ারম্যান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল হোসেন ও হাফেজ ইয়াহিয়া আহমেদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন আব্দুল মজিদ চৌধুরী,আব্দুস সামাদ, আব্দুল মতিন, আব্দুল ওয়াহিদ, আমজদ আলী, খুরশেদ আলী, কৃষ্ণকুমার সিংহ,মৌলানা কামরুজ্জামান, হাফেজ করিম উদ্দিন, মুফতি খোবাইব জাহাঙ্গীর প্রমূখ।

মিসবাহ উদ্দিন জুবায়ের:  শায়খুল ইসলাম হুসাইন আহমদ মাদানী রহ.’র সুযোগ্য খলিফা যুগশ্রেষ্ঠ ওলী শায়খ লুৎফর রহমান বরুণী রহ.-এর প্রতিষ্ঠিত,ফেদায়ে ইসলাম শায়খুল হাদীস আল্লামা খলীলুর রহমান হামিদী রাহিমাহুল্লাহ’র স্মৃতিজড়িত সিলেটের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি বিদ্যাপীঠ জামিয়া লুৎফিয়া আনওয়ারুল উলূম হামিদনগর বরুণার সালানা ইজলাস শুক্রবার ২৯ জানুয়ারী২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ১০টায় মাদরাসার সদরে মুহতামিম মাওলানা শায়খ সাইদুর রহমান বর্ণভীর উদ্বোধনী বয়ানের মধ্যদিয়ে সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হয়। দিবা-রাত্রীব্যাপী এই মহাসম্মেলনে অংশ নিতে বৃহস্পতিবার বিকাল থেকেই মুসল্লিদের ঢল নামে।

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ওলী, বুযুর্গ, আলেম-ওলামা ও সাধারণ মানুষ হযরত শায়খে বর্ণভী রহ.-এর মুরিদানের আগমনে শ্রীমঙ্গলের বরুণা মাদরাসা ময়দান ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের পদভারে মুখরিত হয়েছিল। সকাল থেকেই দূর-দুরান্ত আশপাশের লোকজন জুমার নামাজের জামাতে অংশ নিতে হেঁটে বরুণা মাদরাসা ময়দানে আসেন।

বয়ান পেশ করেন খতীবে ইসলাম আল্লামা নুরুল ইসলাম,আমীরে আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলাম মুফতি রশিদুর রহমান ফারুক বর্ণভী, ওলীপুরি,আল্লামা নজরুল ইসলাম কাসেমী,শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল বারী ধর্মপুরী,শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুস সালাম জুড়ী,মাওলানা শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম,দরগাহে হযরত শাহজালাল রহ. মাদরাসার শিক্ষা সচিব মাওলানা আতাউল হক জালালাবাদী,হাফিয মাওলানা ওলীউর রহমান বর্ণভী,মাওলানা উবায়দুর রহমান হুজাইফী ঢাকা,প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দাল হোসেন খান,মাওলানা মমতাজ উদ্দিন বড়দেশী, মাওলানা আশরাফ আলী হরষপুরী,আলহাজ্ব মাওলানা শেখ নূরে আলম হামিদী,মাওলানা শেখ বদরুল আলম হামিদী, হাফিয মাওলানা শেখ আহমদ আফজল, হাফিজ মাওলানা সা’দ আমীন বর্ণভী।

বরুনা মাদ্রাসার মাহফিলে উপস্থিত হাজারো মুসল্লিদের একাংশ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিছবাউর রহমান,অলিলা গ্রুপ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টটর আলহাজ্ব জিল্লুর রহমান পাবেল,রাজনগর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা আহমদ সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য পেশ করেন।মাহফিলে বক্তারা কোরআন-সুন্নাহর আলোকে মানব জীবন গঠনের গুরুত্ব ও বর্তমান প্রেক্ষাপটে মুসলিম উম্মাহর করণীয় ইত্যাদি বিষয়ে সারগর্ভ আলোচনা পেশ করেন।

শেষরাতে হাজারো মানুষের জিকির রোনাজারিতে বিমোহিত হয় আল্লাহু আল্লাহু ধ্বনি।ফজরের নামাজের আগ মূহুর্তে দেশ, জাতি ও ইসলামের কল্যাণ কামনা করে জামিয়া বরুণার প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ বদরুল আলম হামিদী হাফিজাহুল্লাহ’র হৃদয়গ্রাহী আখেরী মুনাজাতে সম্মেলন সমাপ্ত হয়।

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধি: সিলেট বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্যসহ ৭জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা র‌্যাব।
শুক্র-শনি দু’দিনের পৃথক অভিযানে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থেকে গাঁজাসহ ২ জন, সিলেট জেলার বালাগঞ্জ থেকে ইয়াবাসহ ৪ জন ও কোম্পানীগঞ্জ থেকে ১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।শনিবার বিকেলে র‌্যাব-৯ এর গণমাধ্যম বিভাগ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার ভোররাতে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুরের বেজুড়া এলাকায় ঢাকা সিলেট মহাসড়কের পাশে পানসী হাইওয়ে রেস্টুরেন্টের সামনে অবস্থানরত সুনামগঞ্জ এক্সপ্রেস বাসের ভেতর অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ১৬ কেজি গাঁজাসহ পেশাদার মাদক কারবারি নরসিংদি জেলার আড়াই হাজার থানার বামুন্দি গ্রামের মৃত মো. কালু মিয়ার ছেলে মো. মতিউর রহমান (৫৫) ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে (৫০) গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় র‌্যাব বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মাধবপুর থানায় মামলা করেছে।র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-০৯, সদর কোম্পানীর (সিলেট ক্যাম্প) মেজর মো. শওকাতুল মোনায়েম, সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) ওবাইন এবং সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে একটি টিম অভিযানে অংশ নেয়।শুক্রবার রাতে সিলেট জেলার বালাগঞ্জের মোসলেমাবাদ গ্রামস্থ সিরাজবেগ বাজারের অভিযান চালিয়ে ১০০ পিস ইয়াবাসহ কামাল আহম্মেদ (৩২), মারুফ আহম্মেদ (৩৯), মুজিবুর রহমান (৫০) ও মো. শাহীন আহম্মেদকে (৩৬) গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় র‌্যাব বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে বালাগঞ্জ থানায় মাদক আইনে মামলা করেছে। এরপর তাদের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।অপরদিকে শুক্রবার সন্ধ্যায় কোম্পানীগঞ্জের খাগাইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২০১ পিস ইয়াবসহ মো. জয়নুদ্দিন (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জয়নুদ্দিন ওই থানার মহিষখেড় গ্রামের মৃত আরজান আলীর ছেলে।

এ ঘটনায় র‌্যাব বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মাদক আইনে মামলা করেছে।বালাগঞ্জ ও কোম্পানীগঞ্জে অভিযানে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ সিপিএসসির (ইসলামপুর কোম্পানি) কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সামিউল আলমের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল অংশ নেয়।

জেলা প্রতিনিধি,হবিগঞ্জ:  বৈশ্বিক করোনা মহামারীর কারণে স্বাস্থ্য বিধি মেনে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট পৌরশহরের হাতুন্ডা গ্রামে শ্রীশ্রী বাসুদেব মন্দির অঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিশ্ব শান্তিকামনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ২৪ প্রহর ব্যাপী (৩দিন) শ্রীশ্রী মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠান।

অনুষ্ঠান আয়োজনের মধ্যে ছিল, ২৩ জানুয়ারি শনিবার ৪৭তম বিশ্বমঙ্গল শ্রীশ্রী মহানাম যজ্ঞের শুভ উদ্বোধন, ২৪ জানুয়ারি রোববার হইতে ২৬ জানুয়ারি মঙ্গলবার পর্যন্ত স্বাধ্যায়যজ্ঞ, শ্রীমদভগবদ গীতা আলোচনা, ধর্ম সভা, ধর্মীয় সংঙ্গীতানুষ্ঠান, ধর্মীয় কবিগান, পদকীর্ত্তন, লীলাকীর্ত্তন, ২৬ জানুয়ারি মঙ্গলবার মহানাম যজ্ঞের শুভাধিবাস ও ২৭ জানুয়ারি বুধবার হইতে ২৯ জানুয়ারি শুক্রবার পর্যন্ত ২৪ প্রহর ব্যাপী (৩দিন) মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৯ জানুয়ারি শুক্রবার শ্রীমন্ মহাপ্রভুর ভোগরাগের পর মহাপ্রসাদ বিতরণ। ৩০ জানুয়ারি শনিবার কীর্ত্তনসহ মন্দির প্রদক্ষিণ, নগর পরিক্রমা ও হরিলুট তৎপর উৎসব সমাপন হয়েছে। এ উৎসব অঙ্গনে দূরদূরান্ত হইতে ভক্তবৃন্দের সমাগম ঘটেছে।

নিজস্ব প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভৈরবগঞ্জ বাজার থেকে প্রায় চল্লিশ বছর বয়সি এক অজ্ঞাতনামা নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত তার কোনো পরিচয় পাওয়া যায়নি।

শ্রীমঙ্গল থানার এসআই আসাদুর রহমান জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার ২৯ জানুয়ারি বিকাল আড়াইটার সময় শ্রীমঙ্গল থানাধীন কালাপুর ইউনিয়ন এর ভৈরবগঞ্জ বাজার সংলগ্ন নারাইনছড়া পোস্ট অফিসের পাশে ইটসোলিং রাস্তার উত্তর পাশে অজ্ঞাত নামা এই নারীকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। গত কয়েকদিন যাবত মহিলাটিকে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ভৈরবগঞ্জবাজার ও আশপাশের এলাকায় ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে বলে স্থানীয়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়। তবে কেহ তাহার নাম পরিচয় জানাতে পারেনি। ধারণা করা হচ্ছে ওইদিন দুপুরের পরে তার মৃত্যু হয়েছে।বর্তমানে তাঁর মৃতদেহ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে মৌলভীবাজার পৌরসভা কর্তৃপক্ষের কাছে আজ শনিবারে দাফনের জন্য হস্তান্তর করা হয়েছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc