Thursday 22nd of October 2020 12:42:13 AM

নিজস্ব প্রতিনিধি:   মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভূনবীর ইউনিয়নের আঐ গ্রামের পাঁচ বছর বয়সী কন্যা সন্তানের মাতা এক নারী শ্রীমঙ্গল থানায় পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের একটি টিম অভিযান পরিচালনা করে ধর্ষণের অভিযোগে সাতগাঁও এলাকা থেকে কাজল মিয়া (৩০) পিতা মৃত সুরুক মিয়া , মতিন মিয়া (২৮) পিতা মৃত রহমান মিয়া নামের দুই আসামিকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, আঐ গ্রামের এক নারী বয়স (২৫) এক বাচ্চার মা, তার স্বামী মাদক মামলায় জেলে রয়েছে। তার স্বামীকে জেল থেকে মুক্ত করার জন্য স্থানীয় দুই দালাল তাকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে। ওরা ওই নারীকে শ্রীমঙ্গল শহরের গুহ্য রোডস্থ হামিদা গেস্ট হাউসে একজন ভালো উকিল রয়েছে বলে জানালে তাদেরকে নিয়ে সেখানে যান। এক পর্যায়ে তার পাঁচ বছরের বাচ্চাটিকে কৌশলে আলাদা করে ওই নারীকে জোর করে পালাক্রমে চারবার ধর্ষণ করে কাজল মিয়াও মতিন মিয়া এমন অভিযোগ করেন তিনি।

এ প্রতিনিধির সাথে কথা বলার সময় তিনি (ভিকটিম) বলেন, গত সেপ্টেম্বর মাসের ১৯ তারিখ দুপুর ১২ টা থেকে দুই টার মধ্যে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এর আগের দিন ১৮ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫ ঘটিকায় তার স্বামীকে মাদকের অভিযোগে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। পরের দিন স্বামীকে দেখার জন্য শ্রীমঙ্গল থানায় আসেন এবং সকাল দশটায় মৌলভীবাজার আদালতে তার স্বামীকে প্রেরণ করা হয়। ঐ সময় কাজল ও মতিন তার সাথে ছিল, কাজল ও মতিন তার স্বামীর বাড়ি সম্পর্কে চাচা লাগে। পরে কাজল মতিন শ্রীমঙ্গল থানার সম্মুখস্থ থেকে সিএনজি যোগে উকিলের কথা বলে নিয়ে যান একটি বাসায়। সেখানে একজন উকিল আছে বলে তাকে নিশ্চয়তা দেয়।

তার বক্তব্যে জানা যায়, তার স্বামীকে মুক্ত করাতে ২৫০০০ টাকার প্রয়োজন।তার স্বামীকে উদ্ধার করার জন্য উকিলের হাতে পায়ে ধরে টাকা কমানোর চেষ্টার কথা বলে ধর্ষনের অভিযুক্ত কাজল, মতিন হামিদা গেস্ট হাউজের একটি রুমে আটকে রেখে তাকে পালাক্রমে চারবার ধর্ষণ করে।

ভিকটিমের বক্তব্য অনুযায়ী প্রথমে তাকে ধর্ষণ করে কাজল এবং পরে মতিন এভাবে পালাক্রমে ধর্ষণ চলে, পরে দুইটার দিকে বের হয়ে আসে। এসময় তার পাঁচ বছর বয়সী কন্যা সন্তানটিকে বাহিরে নিয়ে আটকে রেখে তার মাকে ধর্ষনের অভিযুক্ত আসামিরা পালাক্রমে ধর্ষন করে এবং কারো কাছে কিছু বললে মেয়েটিকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তারা আমার মেয়েটিকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেখালে আমি চিৎকার বা পালাতে চেষ্টা করিনি। তাছাড়া আমার স্বামীর জেল থেকে মুক্তি হওয়াটা ও মুখ্য বিষয়।তিনি আরো বলেন আমি হামিদা গেস্ট হাউজ চিনি না কখনো যাইনি। ওরা আমাকে উকিলের কথা বলে সেখানে জোর করে নিয়ে গেছে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান,”ঘটনার পরে আমার শ্বশুরবাড়িতে শ্বশুর শ্বাশুড়িকে বিষয়টি জানালে তাদের অনুমোদিত এবং র্যাবের সহযোগিতায় হাসপাতালে এক সপ্তাহ চিকিৎসাধীন ছিলাম। ধর্ষণ পরীক্ষার কাগজপত্র আসতে সময় লাগে, কাগজপত্র পেয়ে গতকাল শনিবার শ্রীমঙ্গল থানায় অভিযোগ করি।”

পুলিশের সূত্রে জানা যায়, অভিযোগের প্রেক্ষিতে আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে স্থানীয় থানার ওসি আবদুস ছালিকের দিক নির্দেশনায় মোবাইল ট্রাকিং এর মাধ্যমে সাতগাঁও বাজার এলাকা থেকে আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় শ্রীমঙ্গল থানার এসআই আল আমিন, এএসআই নজরুল ইসলাম, এএসআই জিতেন ও এএসআই আকরামসহ পুলিশের একটি টিম অভিযানে অংশগ্রহণ করেন।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি তদন্ত সোহেল রানা তাদের গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মিনহাজ তানভীর:  শ্রীমঙ্গলে পাইকারি দোকানের বস্তা নামাতে গিয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যায়,মোঃ বেলাল মিয়া (৫৫) নামের এক শ্রমিক আজ রোববার (১১ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকে শ্রীমঙ্গল শহরের মৌলভীবাজার রোডস্থ থানার সামনে মেসার্স কুসুম বাণিজ্যালয়ের গোডাউনে বস্তা নামাতে গিয়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে যাওয়ার সময় মৃত্যুবরণ করেন।

রুবেল মিয়া নামে আরেক শ্রমিকের সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যা সাড়ে পাঁচটার দিকে বস্তা লোড আনলোড করার সময় গোডাউনে ফিল করা বস্তার স্তুপ থেকে বস্তা নামাতে গিয়ে নিচে পড়ে গুরুতর আহত হয়।পরে দোকানে থাকা অন্যান্য শ্রমিকদের সহযোগিতায় শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

নিহত বিলাল মিয়ার স্ত্রী ও এক ছেলে এবং এক মেয়ে রয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীতে শ্রীমঙ্গলের শাহীবাগ এলাকায় ভাড়াটিয়া থাকতেন। দীর্ঘদিন ধরে শ্রীমঙ্গলের বিভিন্ন দোকানে কাজ করে আসছেন তিনি। তাৎক্ষণিক ঘটনাা সংক্রান্ত অন্য কোন কারণ জানা যায়নি।

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি: নবীগঞ্জ উপজেলার বাংলাবাজারে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে ধর্ষকের নাম জানলেও পরিচয় না পাওয়ায় এ নিয়ে পুলিশ বিপাকে রয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ডে ভর্তি ওই নারী জানান, তার স্বামী আব্দুল কাইয়ুম জীবিকার তাগিদে জেলার বাহিরে অবস্থান করছেন। তার গ্রামের বাড়ি সাকোয়া গ্রামে।

গত শুক্রবার বিকেলে বাড়ি থেকে তার বোনের বাড়ি দীঘলবাগ গ্রামে রওয়ানা হন। সন্ধ্যায় আউশকান্দি বাজারে এসে একটি স্টলে বসে নাস্তা করছিলেন। এ সময় এক মহিলা তাকে প্রলোভন দিয়ে বাংলাবাজার এলাকায় নিয়ে যায়। তখন রাত ৯টা। এক পর্যায়ে বাংলাবাজারের একটি ভেরাইটিজ স্টোরের ভেতর নিয়ে গেলে ওই মহিলা কৌশলে সটকে পড়ে। এক পর্যায়ে ওই দোকানের মালিকসহ কয়েকজন তাকে ধর্ষণ করে। পরে তিনি জানতে পারেন তার নাম আব্দুল হামিদ। এর বেশি কিছু জানেন না তিনি। কিছুক্ষণ পর মহিলা এসে তাকে কিছু টাকা পয়সা দিয়ে বিদায় করে দেয়।

পরে অসুস্থ হয়ে পড়লে লোকজন তাকে তার বোনের বাড়ি দীঘলবাগে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থা খারাপ হলে গতকাল শনিবার সকালে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে ওসি আজিজুর রহমান জানান, ঘটনা শুনার সাথে সাথেই পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু নাম না পাওয়ায় অভিযুক্তকে পাওয়া যাচ্ছে না। তবুও পুলিশ তদন্ত করছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী:  হবিগঞ্জের মাধবপুরের এক নারীকে (৩০) কাজ দেয়ার নামে ঢাকা নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এমনকি ওই নারী ঢাকা থেকে বাড়ি চলে আসতে চাইলে করা হয় শারীরিক নির্যাতন।

অবশেষে কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন ওই নারী। গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় শুক্রবার (৯ অক্টোবর) সকালে তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ধর্ষণের শিকার নারী মাধবপুর উপজেলার শ্রীধল গ্রামের জনৈক ব্যক্তির স্ত্রী। তিনি চার সন্তানের জননী।

ধর্ষণের শিকার নারী জানান, একই উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের শামীম রেজা নিজের ঢাকার মিরপুর কচুক্ষেতে তার বাসায় কাজ দেয়ার (বুয়া) কথা বলে মাসখানেক আগে ওই নারীকে নিয়ে যান। সেখানে নেয়ার পর ওই নারীর প্রতি কুনজর পড়ে শামীম রেজার। তার স্ত্রী চাকরির সুবাধে বাসায় না থাকার সুযোগে গত কয়েক দিন ধরে শামীম ওই নারীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। লজ্জায় ওই নারী বিষয়টি কাউকে বলেন নি।

এরপরও আরও কয়েকবার তাকে ধর্ষণ করেন শামীম। এক পর্যায়ে শামীম রেজার নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে ওই নারী বাড়ি চলে আসতে চাইলে শামীম রেজা তাকে আটকিয়ে রাখে। উল্টো তার কাছ থেকে মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে মারপিট করেন শামীম রেজা।

বুধবার রাতে কৌশলে ওই নারী ঢাকা থেকে পালিয়ে মাধবপুর চলে আসেন। পরে তিনি বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার, চেয়ারম্যান ও মাধবপুর থানার ওসিকে বিষয়টি জানালে তারা তাকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেন। শুক্রবার সকালে পরিবারের লোকজন তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক জিয়াউর রহমান বলেন, ‘ওই নারীর শরিরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য শনিবার তার ডাক্তারি পরিক্ষা হবে।’

মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন বলেন, ‘ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকা মিরপুরের কচুক্ষেত এলাকায়। সুষ্ট তদন্তের স্বার্থে আমি তাকে পরামর্শ দিয়েছি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে ঢাকার সংশ্লিষ্ট থানায় অভিযোগ দিতে।’

জৈন্তাপুর প্রতিনিধিঃ  ৯ অক্টোবর শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্যাট মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে নিজপাট লামাপাড়া এলাকা হতে বিপুল পরিমান মটরশুটি ও মটর ডাল আটক করেন ৷ এসব মটর ডাল ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এনে জৈন্তাপুর এলাকায়  মজুদ করা হয়৷ যার কারনে দেশের অভ্যন্তরে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির সম্ভাবনা সৃষ্টি হচ্ছে ।
এ অপরাধের জন্য মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে কৃষি বিপনন আইন ২০১৮ এর ১৯ ধারায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। মোবাইল কোর্ট অভিযান করে ২টি মামলায় ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং তা আদায় করা হয়।
উপজেলা জুড়ে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়। দেশকে ভাল বেশে, দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করা থেকে বিরত থাকার অাহবান জানান। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্যাট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ ওমর ফারুক এর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনার সময় অারও উপস্থিত ছিলেন জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ তদন্ত ওমর ফারুক, এস অাই জাকির হোসেন, জৈন্তাপুর ষ্টেশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সহ পুলিশের বিশেষ টিম ৷
এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্যাট মোঃ ওমর ফারুক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে খবর পেয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ২টি মামলায় জরিমানা করি৷ কৃত্রিম সংকট তৈরী করে অবৈধ মজুদ কারীদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের অভিযান উপজেলা জুড়ে অব্যাহত থাকবে বলে জানান ৷

নড়াইল  প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস সংক্রামন প্রতিরোধের কারণে নড়াইলে সীমিত আকারে  বিশ^ বরেণ্য চিত্র শিল্পী এস, এম , সুলতানের ২৬ তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়েছে। 

শনিবার ১০ অক্টোবর  দিনটি পালন উপলক্ষে এস, এম, সুলতান ফাউন্ডেশন জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এস এম সুলতান কমপ্লেক্সে কোরআন খানিশিল্পীর সমাধিতে পুস্পমাল্য অর্পন মাজার জিয়ারত দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। 

জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন,এস, এম সুলতান ফাউন্ডেশন, নড়াইল প্রেসক্লাব, এস,এম, সুলতান বেঙ্গল চারুকলা মহাবিদ্যালয়সহ সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সমাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে  শিল্পীর সমাধিতে পুস্পমাল্য অর্পন করা হয়।  

সময় জেলা প্রশাসক বেগম আনজুমান আরাঅতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইয়ারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট সুমি মজুমদার, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা সেলিম, এস,এম সুলতান ফাউন্ডেশনের সাধারন সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, নড়াইল  প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল কবির টুক, সাধারন সম্পাদক শামিমূল ইসলাম টুলু, এস,এম ,সুলতান শিশু চারু কারুকলা  ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শেখ হানিফ, এস,এম, সুলতান বেঙ্গল চারুকলা মহাবিদ্যালয় অধ্যক্ষ অনাদি বালাসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। 

উল্লেখ্য , বিশ্ববরেণ্য এই শিল্পী ১৯২৪ সালের ১০ আগস্ট নড়াইল শহরের মাছিমদিয়া গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। ১৯৯৪ সালের ১০ অক্টোবর যশোরের সম্মিরিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে আসন্ন শারদীয় দূর্গা উৎসব সুষ্ট ও সুন্দর ভাবে সম্পন্নের লক্ষ্যে বিভিন্ন পূজাঁ কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার টাউন কালীবাড়ী মন্দির প্রাঙ্গনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে জেলা পূজাঁ উদযাপন পরিষদ,নড়াইল শাখার আয়োজনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা এতে প্রধান অতিথি ছিলেন।
বাংলাদেশ পূজাঁ উদযাপন পরিষদ,নড়াইল জেলা শাখার সভাপতি অশোক কুমার কুন্ডু সভাপতিত্বে সভায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ সোহরাব হোসেন বিশ^াস, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ ইমরান, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুবাস চন্দ্র বোস ,সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জিপি অ্যাডঃ অচিন কুমার চক্রবর্তী, বাংলাদেশ পূজাঁ উদযাপন পরিষদ,নড়াইল জেলা শাখা সাধারন সম্পাদক কোমল আখি বিশ^াস, হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ,নড়াইলের সভাপতি মলয় কান্তি নন্দী, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মলয় কুমার কুন্ডু , পূজাঁ উদযাপন পরিষদ সদর উপজেলা শাখার সভাপতি নিখিল সরকার জেলা পূজাঁ উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন পূঁজা কমিটির কর্মকর্তাগন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
সভায় জানানো হয়, এ বছর জেলায় ৫৪৪ টি দূর্গা পূজাঁ অনুষ্ঠিত হবে। দুর্গা উৎসব সুষ্ঠ ও সুন্দর ভাবে সম্পন্ন করতে প্রতিটি মন্ডবে পুলিশ, আনসার মোতায়েন করা হবে, পাশাপাশি র‌্যাব ও পুলিশের ষ্ট্রাইকিং ফোর্স কাজ করবে এবং প্রতিটি উপজেলায় ১টি করে মোবাইল টিম থাকবে। করোনার ভাইরাস সংক্রামনের কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে এবং প্রতিটি পুূজাঁ কমিটিকে স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যাবস্থা করতে হবে।
এসময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহযোগীতার প্রদানের আশ্বাস প্রদানসহ এবং প্রশাসনকে সকল প্রকার সহযোগীতার জন্য জেলা পূজাঁ উদযাপন পরিষদ ও পূজাঁ কমিটির নেতৃবৃন্দকে অনুরোধ জানানো হয়।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে শুক্রবার (৯ অক্টোবর) রাতে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ লুৎফুর রহমান (১৮) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৭টায় আদমপুর ইউনিয়নের আধকানি উপজেলা বাজারে কিশোরী মেয়েকে (১৩) ফুসলিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় আধকানী উপজেলা বাজারের হারূক মিয়ার ছেলে লুৎফুর রহমান ও কাউয়ারগলা গ্রামের শরিয়ত মিয়ার ছেলে মঈনুল ইসলাম। এরপর ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনাটি সালিশে ধামাচাপার চেষ্টা করা হলে কিশোরী মেয়েটি আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

এই ঘটনায় শুক্রবার রাত পৌনে ৯টায় কমলগঞ্জ থানায় ধর্ষণ চেষ্টা ও সহায়তা করার অভিযোগে ২ যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করা হলে রাতেই কমলগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মহাদেব বাচালের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামী লুৎফর রহমানকে গ্রেপ্তার করে।আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন বলেন, ‘এ ঘটনায় পুলিশ একজন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। এমন গর্হিত সমাজবিরোধী কাজের সঠিক বিচার হওয়া দরকার।কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উপর আরোপিত স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। শুক্রবার(৯অক্টোবর) কমলগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাহাত ইমতিয়াজ রিপুল ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাকের আলী সজিব স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়,উপজেলা শাখার জরুরী সিদ্ধান্ত মোতাবেক আদমপুর ইউনিয়ন শাখা কমিটির উপর আরোপিত স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনের নীতি আদর্শ ও শৃংখলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত না থাকার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

উল্লেখ্য বিগত মার্চ মাসে আদমপুর ইউনিয় ছাত্রলীগের উপর স্থগিতাদেশ জারি করা হয়েছিলো। আদমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ জাকারিয়া হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ জানান,হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ঐতিহ্য ও সুনামকে ধরে রাখতে তারা নিরলস কাজ করে যাবেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc